Logo
আজঃ Wednesday ২৫ May ২০২২
শিরোনাম

নাসিরনগরের হাওরে,পানিতে তলিয়ে গেছে কাচা পাকা অনেক ফসলি জমি

প্রকাশিত:Wednesday ২০ April ২০22 | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ২০০জন দেখেছেন
Image


মোঃ আব্দুল হান্নানঃ-

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর নগর উপজেলার মেদির হাওরের বিস্তীর্ণ পাকা ধানের ফসলি জমি তলিয়ে গেছে।উপজেলার মেহেদি আর আকাশী হাওরের সিংহভাগ কাঁচা ও পাকা ধানও পানিতে তলিয়ে গেছে।উজান থেকে নেমে আসা ঢলের পানি অস্বাভাবিক ভাবে বৃদ্বি পাওয়া এ জমি তলিয়ে গেছে।


 উপজেলা কৃষি অফিস বলছে, নাসিরনগরের বিভিন্ন হাওরে এ বছর প্রায় ১৭ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধান আবাদ করা হয়েছে। উজানি ঢলে উপজেলার গোয়ালনগর ও সদর ইউনিয়নের হাওর-বিল মিলিয়ে ২৫০ হেক্টর জমির কাঁচা পাকা ধান পানিতে তলিয়ে গেছে।


 গতকাল নৌকা নিয়ে সরেজমিন মেহেদির হাওরে ঘুরে , কৃষকদের কোথাও হাঁটু পানি আবার কোথাও কোমর পানিতে নেমে কাঁচা পাকা ধান কাটতে দেখা গেছে।অনেক শ্রমিকেই আবার পানির কামড়ে ছটপট করতে দেখা গেছে।কোন কোন কৃষক আবার শ্রমিকের অতিরিক্ত মুল্যদিয়ে ধান কেটে নিতে অনিচ্ছা প্রকাশ করছে।কৃষকরা বোরো ধানের ফসল ঘরে তোলার স্বপ্ন দেখলেও কিছু দিন আগে শিলা বৃষ্টি আর এখন উজানের ঢলে ফসলি জমি তলিয়ে যাওয়ায় তাদের সেই স্বপ্ন আর বাস্তবের মুখ দেখবে না বলেও জানিয়েছে অনেক কৃষক।


উপজেলা সদর ইউনিয়নের টেকানগর, নাসিরপুর ও বুড়িশ্বর ইউনিয়নের আশুরাইল শ্রীঘরের মেদির হাওরের প্রায় ৭০ ভাগ জমির পাকা ও আধাকাচা ফসল উজানী ঢলের পানিতে তলিয়ে গেছে। তাছাড়াও কুন্ডা, গোকর্ণ ও হরিপুরের তিতাস  তীরবর্তী আকাশির হাওর অধিক ঝুকিতে রয়েছে।



 উপজেলা কৃষি অফিস জানিয়েছে নাসিরনগরের মেঘনা নদীতে গত দুই দিনে প্রায় ৭০ সেন্টিমিটার পানি বেড়েছে। এর মধ্যে গত সপ্তাহে শিলা বৃষ্টি ও মেঘনায় পানি বৃদ্ধির কারনে ফসলের ব্যপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 


আশুবাইল গ্রামের কৃষক কাউছার মিয়া ও মামুন মিয়া জানায় ৫ দিন আগেও আমাদের হাওরে পানি ছিল না। কিন্তু দুইদিনে উজানের পানি এসে জমির সব ফসল পানির নীচে ডুবিয়ে দিয়েছে। পানির নীচ থেকে যে ধান কাটা হচ্ছে তাও আবার  নেয়া যাচ্ছে না ।কাউছার জানায় তার চার কানি জমিতে ২০ মন ধানও হবে না।বেনীপাড়ার কৃষক মোঃ মামুন মিয়া জানায় পানিতে তার ১৬ কানি জমির ধান তলিয়ে গেছে।তাছাড়াও অনেকেই আবার শ্রমিকের অভাবে জমির ধান কাটতে পারছে না।


তাছাড়াও হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার অলিপুর ও রতনপুরের বিভিন্ন মেইল ফ্যাক্টরীর ক্যামিকেল ও বর্জ মিশ্রিত দুষিত দ্রব্য পানিতে মিশে গিয়ে পানি নষ্ট হয়ে যাওয়ার কারনে শ্রমিকরা  দুষিত পানিতে দাড়িয়ে ধান কাটতে পারছে না।দুষিত পানির কারনে তাদের শরীরে পানির কামড়ে শরীর চুলকিয়ে চামড়ার উপরে ফুঁসকা পড়ে গেছে।যার ফলে অধিক বেতন দিয়েও  মিলছে না ধান কাটার শ্রমিক।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আবু সাইদ তারেক জানান ১৩টি ইউনিয়নে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের তালিকা প্রনয়ন করছে। পানি আরও বাড়তে পারে বলে ধারণা করছে এ কৃষি কর্মকর্তা। তাই দ্রুত সময়ের মাঝে নীচু এলাকার জমির ধান কেটে ঘরে তুলতে কৃষকদের প্রতি আহবান জানান এ কৃষি কর্মকর্তা।




আরও খবর



নাসিরনগর হরিপুরের এক ত্রাসের নাম ভয়ংকর কাপ্তান

প্রকাশিত:Monday ০৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২২ May 20২২ | ৮৫জন দেখেছেন
Image


নাসিরনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের মন্দির ভাংঙ্গা, মাদক,ডাকাতি,খুন ও মারামারী সহ একাদিক মামলার গ্রেপ্তারী ফরোয়ানা ভুক্ত আসামী ও হরিপুরের এক  ভয়ংকর ত্রাসের নাম কাপ্তান।


কাপ্তানের ভয়ে গ্রামের তিতন ফকির সহ অনেকেই আতংকে  দিন কাটাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।জানা গেছে ২০১৬ সালের ৩০ অক্টোবরে নাসিরনগরে হিন্দুদের বাড়িঘর ও মন্দির ভাঙ্গার অন্যতম আসামী কাপ্তান।তাছাড়াও কাপ্তানের বিরোদ্বে  নাসিরনগর ও পার্শ্ববর্তী মাধবপুর থানায় রয়েছে একাদিক ডাকাতি,মারামারী,মাদক ও খুনের মামলা।


হরিপুর গ্রামের  তিতন ফকির জানান ভয়ংকর কাপ্তানের ভয়ে তিনি ও তার পরিবারের লোকজন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন।হরিপুরের টেকপাড়ার আওয়াল মিয়া অভিযোগ করে জানায়,কাপ্তান একটি সরকারী জায়গা থেকে মাটি কেটে ট্রাক বোঝাই করে সরকারী ও জনগনের হাটাচলাফেরা করার রাস্তা ভেঙ্গে গর্তে পরিনত করে ব্রিক ফিল্ডে মাটি বিক্রি করার সময় তারা বাধা দেয়।তাতে কাপ্তান ক্ষিপ্ত হয়ে পরদিন কেউ বাঁধা দিলে তাকে ট্রাকের চাকার নীচে ফেলে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে আসেন।


তিনি জানান কাপ্তানের যেই কথা সেই কাজ।পরদিন কাপ্তানের ট্রাক মাটি বোঝাই  করে সেই রাস্তা দিয়ে আসার সময় আমার তৃতীয় শ্রেণী পড়ুয়া ছেলে রাসেল রাস্তায় গেলে তাকে ট্রাকের চাকার নীচে পেলে মেরে ফেলে।এ সব ছাড়াও আরো অনেক অভিযোগ রয়েছে কাপ্তানের বিরোদ্বে।হরিপুরের নিরীহ ও শান্তিপ্রিয় লোকজন এই জগন্য,ভয়ংকর কাপ্তানের অত্যাচার থেকে মুক্তি চায়।কাপ্তানের গ্রেপ্তারী পরোয়ানার বিষয়ে জানতে চাইলে হরিপুরের বিট অফিসার এস আই রূপন নাথ জানান,কাপ্তানের বিরোদ্বে তার হাতে দুটি গ্রেপ্তারী ফরোয়ানা রয়েছে।পুলিশ কাপ্তানকে গ্রেপ্তারের জন্য হন্যে হয়ে খুঁজছে।



আরও খবর



যাত্রাবাড়ীতে মৃত্যুর আগে ঘাতক প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ কেটে নিল তরুণী

প্রকাশিত:Thursday ০৫ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৪৩৭জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানাধীন কোনাপাড়া আরা বাড়িতে বন্ধুর বাড়িতে বেড়াতে এনে মুসকান বেগমকে (৩০) ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে তার প্রেমিক। মৃত্যুর আগে প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলেছে ওই নারী।


বৃহস্পতিবার (৫মে) দুপুর ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘাতক জাহাঙ্গীর কে দুপুরে আহত অবস্থায় আটক করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


ঘটনার বিবরণে জানা গেছে যাত্রাবাড়ী থানা ধীন কোনাপাড়া আরাবারি বাগিচা রোড এর সারওয়ার জাহান এর সপ্তম তলার ভাড়াটিয়া মামুনের বাসায় তার বন্ধু জাহাঙ্গীর মুসকান কে স্ত্রী পরিচয় বেড়াতে নিয়ে আসেন।


তারা ওই ফ্ল্যাটের একটি কক্ষে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে দিনভর এক সাথে থাকেন। তাদের মধ্যে ঝগড়ার এক পর্যায়ে নিহত মুসকান চাকু দিয়ে ওই তরুণের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলে। এবং ওই চাকু দিয়েই জাহাঙ্গীর উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে মুসকান কে হত্যা করে।


পরে বন্ধু মামুন বাইরে থেকে ফ্ল্যাটে তালা মেরে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে  যাত্রাবাড়ী থানার পুলিশ এসে আহত তরুণ কে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।এবং নিহত তরুনীর মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পোস্টমর্টেম এর জন্য নিয়ে যান



ঘাতক জাহাঙ্গীর নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর উপজেলার বাজুর বাগ গ্রামের রফিক উদ্দিনের ছেলে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।


এ ঘটনায় আইনি পদক্ষেপ নিতে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।


আরও খবর



রাস্তা পারাপারের সময় পিকআপের চাপায় পথচারীর মৃত্যু

মাদারীপুরে লিচু বোঝাই পিকাপের চাপায় পথচারীর মৃত্যু

প্রকাশিত:Monday ২৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

মাদারীপুর জেলা শহরের ইটের পুল এলাকায় পিকআপ ভ্যানচাপায় সুলতান (৩৫) নামে এক পথচারীর মৃত্যু হয়েছে।  


সোমবার (২৩ মে) সকালে শহরের ইটেরপুল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।


নিহত সুলতান জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল উপজেলার বাসিন্দা।


মাদারীপুর সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এ এইচ এম সালাউদ্দিন জানান, সকালে ইটেরপুল এলাকায় রাস্তা পার হচ্ছিলেন সুলতান।


এসময় রাজশাহী থেকে শরিয়তপুরগামী লিচুবোঝাই একটি পিকআপ ভ্যান সুলতানকে চাপা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। এ অবস্থায় সুলতানকে জেলা সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।




আরও খবর



অটোরিকশায় করে বাড়ি ফেরার পথে

বউ ছিনতাইয়ের চেষ্টায় আটক ২

প্রকাশিত:Sunday ২২ May 20২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

জামালপুর জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলায় সাবেক বউকে ছিনতাইয়ের চেষ্টার অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে এলাকাবাসী। এ ঘটনায় ওই সাবেক স্বামীসহ আরও দুইজন পালিয়ে যায়।



 শনিবার (২১ মে) বিকেলে কামালপুর ইউনিয়নের মাঝগেদরা বটতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি সাদা প্রাইভেটকার ও দুইজনকে আটক করে স্থানীয়রা। পরে তাদের স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে আটকে রাখা হয়।


স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার বগারচর ইউনিয়নের গলাকাটি গ্রামের হামেজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মান্নানের সঙ্গে প্রায় ৩ বছর আগে ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের নয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান জুবায়ের হিটলারের মেয়ে আয়শা জুবাইদা শশীর বিয়ে হয়৷


 বিয়ের পর থেকেই স্ত্রী শশীকে নানাভাবে নির্যাতন করে আসছিলেন মান্নান। দিনদিন নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় গত ৬/৭ মাস আগে স্ত্রী আয়শা জুবাইদা শশী স্বেচ্ছায় মান্নানকে তালাক দেন।


শনিবার সকাল থেকেই মাঝগেদরা এলাকায় সহযোগীদের নিয়ে ওত পেতে থাকেন মান্নান। সাবেক স্ত্রী শশী বকশীগঞ্জ খা‌তেমুন মঈন মহিলা ডিগ্রি কলেজ থেকে অটোরিকশায় করে বাড়ি ফেরার পথে মাঝগেদরা এলাকায় তার গতিরোধ করেন মান্নান। 


একপর্যায়ে মান্নান তার সহযোগী পৌর শহরের মাঝপাড়া গ্রামের আকতার হোসেনের ছেলে মজনু মিয়া ও মাঝগেদরা এলাকার জহুরুল হকের ছেলে মোস্তাইন তাকে জোরপূর্বক মাইক্রোবাসে তোলে।  স্থানীয়রা ‌বিষয়‌টি বুঝ‌তে পে‌রে তা‌দের আটক ক‌রেন। এ সময় সাবেক স্বামী মান্নান পালিয়ে গেলেও তার দুই সহযোগী মজনু ও মোস্তাইনকে আটক করা হয়। পরে খবর পেয়ে বকশীগঞ্জ থানা পুলিশ তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়৷


বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তরিকুল ইসলাম তালুকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর



মোটরসাইকেল যোগে দুর্ধর্ষ ছিনতাই

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের মোবাইল ফোন ও ব্যাগ ছিনতাই

প্রকাশিত:Saturday ২১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাতিল সিরাজের স্ত্রী ইফফাত জাহান রিতার (৪১) মোবাইল ফোন ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।


শুক্রবার (২০ মে) বেলা ৩টার দিকে মহানগরীর বিগবাজারের কাছে এ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।


এ ঘটনায় ভুক্তভোগী রিতা মহানগরীর বোয়ালিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।


অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে ভুক্তভোগী ইফফাত জাহান রিতা রিকশাযোগে মহানগরীর রেলগেট এলাকা থেকে আমানা বিগবাজারের দিকে যাচ্ছিলেন।


আমানা বিগবাজারে পৌঁছার আগেই লাল পাঞ্জাবি পরা এক ছিনতাইকারী মোটরসাইকেলযোগে এসে তার ডানহাতে থাকা ভেনেটি ব্যাগটি ছিনতাই করে চলে যায়। ব্যাগের মধ্যে মোবাইল ফোন, আড়াই হাজার টাকা ও গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছিল।


জানতে চাইলে রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, দিনে-দুপুরে এভাবে মোবাইল ফোন ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নিজেই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।


ছিনতাইকারীকে শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনতে পুলিশ ইতোমধ্যেই অভিযান শুরু করেছে


আরও খবর