Logo
আজঃ Wednesday ২৫ May ২০২২
শিরোনাম

নাসিরনগরের ১৩ ইউনিয়নে অসহায় ও বৃদ্ধদের মাঝে নাজির মিয়ার ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত:Wednesday ১১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৪৪জন দেখেছেন
Image


নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া,সংবাদদাতাঃ- ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার

নাসিরনগর উপজেলার ১৩ ইউনিয়নের বিভিন্ন অসহায় বয়স্ক ও গরিব-দুঃখী মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন বাংলাদেশ কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া ও তার স্ত্রী রোমা আক্তার।


নাজির দম্পত্তি পবিত্র ওমরাহ পালন শেষে দেশে ফিরেই পবিত্র ঈদুল ফিতরের দ্বিতীয় দিন থেকে উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম ও বাজারে গিয়ে ঘুরে ঘুরে" ঈদের খুশীতে ঈদ উপহার বিতরণ করেন করেন এ সব মানুষের মাঝে।এ সময় শুধু নাজির মিয়া নয় তার স্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান,ও সাবেক উপজলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মরহুম লেঃ অবঃ গোলাম নূরের কন্যা রুমা আক্তার ও গোলামনুরের ছেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ আরমান নূর ও সাথে ছিলেন।


এ সময় তারা স্থানীয় সাংবাদিকদের জানায় আগামী নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রথম নারী সভাপতি পদপ্রার্থী রোমা আক্তার। তারা আরো জানন,এ পর্যন্ত নাসিরনগর সদর সহ চাতলপাড় ভলাকুট,গোয়ালনগর, কুন্ডা,গোকর্ণ,বুড়িশ্বর,ফান্দাউক,ধরমন্ডল,চাপরতলা,পূর্বভাগ,গুনিয়াউক হরিপুর ইউনিয়ন সহ বিভিন্ন স্থানে ঈদ উপহার হিসেবে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরন করা হয়েছে।


এই সময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া গোয়ালনগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মোঃ কিরণ মিয়া,সদর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ মোঃ আব্দুল আহাদ, কৃষক লীগ নাসিরনগর উপজেলা শাখার সদস্য  সচিব এস এম নূরে আলম,গোকর্ন ইউনিয়ন ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি এডঃ মিজানুল হক, দৈনিক সময়ের কাগজ প্রতিনিধি নিহারেন্দু চক্রবর্তী, কৃষকলীগ নেতা বাচ্চু তালুকদার,এনায়েত হোসেন, গোলাম মোহাম্মদ তারেক, পারভেজ মোশাররফ,মনির হোসেন,আনোয়ার হোসাইন,সাদ্দাম হোসেন,এস কে সুমন,শেখ সাদী সহ আরো অনেকে।  এ সময় আলহাজ্ব মোঃ নাজির মিয়া ও রোমা আক্তার নাসিরনগরের সর্বস্তরের জনগণের সাথে গণসংযোগ ও ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।



আরও খবর



সাংবাদিক ও বিশিষ্ট নাগরিকদের সম্মানে মধ্যাহ্ন ভোজ

দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার সাংবাদিক ও বিশিষ্ট নাগরিকদের সম্মানে মধ্যাহ্ন ভোজ

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১৯২জন দেখেছেন
Image
সোহরাওয়ার্দীঃ

দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার সম্পাদক প্রয়াত অধ্যাপক দীন মোহাম্মদ ভুঁইয়ার বাসভবনে পত্রিকার সাংবাদিক ও বিশিষ্ট জনদের সম্মানে মধ্যাহ্ন ভোজের আয়োজন করা হয়।

সকলের উপস্থিতিতে রাজা খালির বাসভবন এক মিলন মেলায় পরিণত হয়। 

দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক শরফ উদ্দিন ভূঁইয়া রাব্বির নিমন্ত্রণে আয়োজিত গণভোজে অংশগ্রহণকারী ব্যক্তিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক রেজাউল করিম রাজু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ নজরুল ইসলাম মুক্তি। 

এতে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি নাজমুল হাসান,বিশেষ সংবাদ দাতা মো:আবদুস সবুর রবিন, বিশেষ সংবাদ দাতা মো: সেলিম হোসেন রনি, সটাফ রিপোর্টার মাজহারুল ইসলাম বাপ্পি,স্টাফ রিপোর্টার মোঃ আলমগির, শেফরান আহমেদ, দৈনিক মুক্ত খবর পত্রিকার সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার এ আর হানিফ,দৈনিক আমাদের কন্ঠ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার বজলুর রহমান।

দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার প্রকাশক রেশমি ভূইয়া আমন্ত্রিত সব অতিথিদের স্বাগত জানান।

আগামী দিনগুলোতে দৈনিক গণজাগরণ পত্রিকার সকল কার্যক্রম আরো বেগবান করার লক্ষ্যে সবাইকে একযোগে কাজ করার জন্য আহ্বান জানান রেশমি ভূঁইয়া

আরও খবর



কি কারণে হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হয়েছে তা এখোনো পরিষ্কার নয়

নরসিংদীতে মা ও ছেলে-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:Sunday ২২ May 20২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

নরসিংদী জেলার বেলাব উপজেলায়  বাবলা গ্রামে বসতঘর থেকে মা ও ছেলে-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।  


রোববার (২২ মে) সকালে উপজেলার পাটুলী ইউনিয়নের বাবলা গ্রাম থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।ধারণা করা হচ্ছে, শনিবার দিবাগত রাতের কোনো এক সময় তাদের ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে।


নিহতরা হলেন- উপজেলার পাটুলী ইউনিয়নের বাবলা গ্রামের গিয়াস উদ্দিন শেখের স্ত্রী রাহিমা বেগম (৩৫), তার ছেলে রাব্বি শেখ (১২) এবং মেয়ে রাকিবা আক্তার (৭)। রাহিমা বেগম পেশায় একজন দর্জি ছিলেন।


পুলিশ জানায়, নিহত রহিমার স্বামী পেশায় রং মিস্ত্রি। তিনি কাজের সুবাদে শনিবার (২১ মে) গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার আড়ালিয়া গ্রামে যান। সকালে বাড়িতে এসে দেখেন ঘরে স্ত্রী ও দুই সন্তানের মরদেহ পড়ে আছে। পরে তাঁর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধারের কাজ শুরু করেন।


নরসিংদী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান  বলেন, কি কারণে হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হয়েছে তা এখোনো পরিষ্কার নয়। তবে আমরা তদন্ত শুরু করেছি। মরদেহ উদ্ধারের কাজ চলছে।


আরও খবর



আদালতে আত্মসমর্পণ করেছেন সম্রাট

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ May ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ৫২জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

দুদকের করা মামলায় আত্মসমর্পণ করেছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট।

আত্মসমর্পণ ঘিরে আদালতের মূল ফটকের পাশাপাশি এজলাসের বাইরে ভিড় করেছেন তার সমর্থক ও দলের শতাধিক নেতাকর্মী।


মঙ্গলবার (২৪ মে) দুপুর ১২ টা ৩৫ মিনিটে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামানের আদালতে আত্মসমর্পণ করতে ঢোকেন সম্রাট।



সম্রাটের আত্মসমর্পণ করার কথা শুনে আদালত প্রাঙ্গণে ভিড় করেন তার সমর্থকরা। এজলাসের দরজায়ও ভিড় করেন অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী।



এজলাসের দরজায় অবস্থান করা ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের ৫৩ নম্বর ওয়ার্ডের নেতা মো. বিপ্লব জানান, সম্রাট ভাই যুবলীগের একজন প্রিয় নেতা। তার প্রতি ভালোবাসার টানে এখানে এসেছি।


রমনা থানার ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের যুবলীগের নেতা মোহাম্মদ আল-আমিন বলেন, ভাইকে দেখতে আসলাম আদালতে। তিনি অসুস্থ বেশ কয়েক দিন দেখা হয় না তাই আজকে আবার আসলাম দেখতে।



এসময় এজলাসের দরজায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।



আরও খবর



তৃতীয় ধাপে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেল ৩৩ হাজার পরিবার

প্রকাশিত:Tuesday ২৬ April ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৫ May ২০২২ | ১১৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

দেশের ৩২ হাজার ৯০৪ গৃহ ও ভূমিহীন পরিবার আসন্ন ঈদের আগে তৃতীয় ধাপে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে ঘর পেয়েছেন।গণভবন থেকে মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) ভিডিও কনফারেন্সে এসব ঘর হস্তান্তর করেন শেখ হাসিনা।


প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দাদের হাতে ঘরের চাবি তুলে দেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তারা।


তৃতীয় ধাপের এসব ঘর হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধন করে শেখ হাসিনা বলেন, আমার সবচেয়ে ভালো লাগে যখন দেখি একটা মানুষ ঘর পাওয়ার পর তার মুখের হাসি। জাতির পিতা দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে চেয়েছিলেন।


সবার জন্য আবাসন নিশ্চিত করতে সরকারের কার্যক্রমের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাকি যে ঘরগুলো আছে সেগুলো আস্তে আস্তে তৈরি করে সব মানুষ যেন মানুষের মতো বাঁচতে পারে, সুন্দর জীবন পেতে পারে। সেটাই আমাদের লক্ষ্য। বাংলাদেশের একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না, ভূমিহীন থাকবে না। এটাই আমাদের লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য নিয়েই কাজ করে যাচ্ছি।



শেখ হাসিনা মুজিববর্ষ উপলক্ষে ঘোষণা দিয়েছেন যে, বাংলাদেশের কোনো মানুষ যাতে ভূমি ও গৃহহীন না থাকে। সেজন্য তিনি দুই শতক জমির উপর দুই রুম বিশিষ্ট একটি ঘর উপহার দিচ্ছেন। এসব ঘরের ডিজাইন প্রধানমন্ত্রী নিজেই প্রণয়ন করেছেন।


তৃতীয় ধাপে এসব ঘর দেওয়ার আগে প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ঘর পেয়েছে ১ লাখ ১৭ হাজার ৩২৯টি পরিবার। তৃতীয় ধাপের আরও ৩২ হাজার ৭৭০টি ঘর নির্মাণাধীন রয়েছে।


আশ্রয়ণের প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের চেয়ে তৃতীয় ধাপের ঘরগুলো অনেক বেশি টেকসই। তৃতীয় ধাপে একেকটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ২ লাখ ৫৯ হাজার ৫০০ টাকা। তৃতীয় ধাপের ঘরগুলোতে আরসিসি পিলার, গ্রেড ভিম, টানা লিংকটারসহ বেশ কিছু বিষয় সংযোজন করা হয়।  



এসব ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার কাইচাইল ইউনিয়নের পোড়াদিয়া বালিয়া, বরগুনা সদর উপজেলার গৌরিচন্না ইউনিয়নের খাজুরতলা, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার খোকশাবাড়ী ইউনিয়নের খোকশাবাড়ী ও চট্টগ্রামের আনোয়ারার বারখাইন ইউনিয়নের হাজিগাঁওয়ে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হয়ে উপকারভোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।


আরও খবর



এবারও গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ

প্রকাশিত:Tuesday ০৩ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৪ May ২০২২ | ১২৪জন দেখেছেন
Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (ফাইল ফটো)


পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন সরকারি বাসভবন গণভবনেই ঈদ উদযাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। দেশে করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর থেকে প্রধানমন্ত্রী গত চারটি ঈদ গণভবনে কোনও আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াই কাটিয়েছেন।


সোমবার (২ মে) গণভবন সূত্রে জানা যায়, গত চারটি ঈদ বাদে প্রায় সব বছরই তিনি নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের দিন সাক্ষাৎ করতেন, ভাগাভাগি করতেন আনন্দ। করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেও গত চারটি ঈদের মতোই পুরনো আয়োজন সাক্ষাৎ পর্ব বাদ রেখেছেন এবার। তবে কয়েকজন সিনিয়র নেতা ঈদের দিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার কথা রয়েছে।



এছাড়া করোনা পরিস্থিতির আগে গণভবনে সর্বস্তরের মানুষ, পেশাজীবী, কূটনীতিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করতেন। এবারও তা হচ্ছে না।


পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মোবাইলে অডিও বার্তা ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিও বার্তার মাধ্যমে দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।


শুভেচ্ছা বার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘প্রিয় দেশবাসী, আসসালামু আলাইকুম। আপনাকে ও আপনার পরিবারের সবাইকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। এক মাস সিয়াম সাধনার পর আবার এসেছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। ঈদ মানেই আনন্দ।


আসুন, ঈদের আনন্দ সবাই ভাগাভাগি করে নিই। যে যার অবস্থান থেকে ঈদুল ফিতরের মহিমায় উজ্জীবিত হয়ে দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে আত্মনিয়োগ করি। সুস্থ থাকুন, নিরাপদ থাকুন। ঈদ মোবারক।’

বাংলা ট্রিবিউন 


আরও খবর