Logo
আজঃ Monday ০৮ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড নিখোঁজ সংবাদ প্রধানমন্ত্রীর এপিএসের আত্মীয় পরিচয়ে বদলীর নামে ঘুষ বানিজ্য

নাসিরনগরে মোটরসাইকেল ভেনগাড়ীর সংর্ঘষে এক ভেনচালকের মৃত্যু

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২০৮জন দেখেছেন
Image


মোঃ আব্দুল হান্নানঃ-

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরে মোটরসাইকেল ও ভেনগাড়ীর সংর্ঘষে এনামুল নামক এক ভেনচালকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।


ঘটনাটি ঘটেছে ২৭ জুলাই ২০২২ রোজ বুধবার বেলা অনুমান ৩ ঘটিকার সময় সদর ইউনিয়নের মেন্দুরা নামক স্থানে।ঘটনার বিবরণে জানা গেছে নাসিরনগর সদরের আনন্দপুর গ্রামের মৃত মোঃ আক্কল আলীর ছেলে ভেনচালক মোঃ এনামুল (২৫) ভেনগাড়ীতে মালামাল নিয়ে কুলিকুন্ডা গ্রামের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়ে মেন্দুরা নামক স্থানে যাওয়ার সাথেই কুলিকুন্ডা গ্রামের প্রবাসী মোঃ রিফাত মিয়া তার বোন জামাইকে নিয়ে সেই সময় কুলিকুন্ডা থেকে বেপরোয়াগতিতে মোটর সাইকেল যোগে নাসিরনগর সদরে আসছিলেন।


ঘটনাস্থলে আসা মাত্রই মোটরসাইকেল চালক রিফাত  নিয়ন্ত্রন হারিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে ভেনগাড়ীকে স্বজোরে ধাক্কামারে।সেই সময় ভেনচালক মাথায় মারাত্বক আঘাত প্রাপ্ত জ্ঞান হারিয়ে ফেলে ও রিফাতের বোন জামাই কোমড়ে মারাত্বক আঘাত পায়।পথচারীরা আহত রিফাতকে নাসিরনগর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক এনামুলকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।গতকাল মাগরিবের পর সদর হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায়এনামুলের মৃত্যু ঘটে।


এনামুলের ভাই আনু মিয়া জানায় আজ ১২ ঘটিকার সময়  ময়না তদন্ত শেষে লাশ দাফনের জন্য নিজ বাড়িতে আনা হবে।


আরও খবর



‘পারফরম্যান্সে দুর্বল’ হয়েও সোহান যে কারণে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক

প্রকাশিত:Friday ২২ July 20২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
Image

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্ব নিয়ে সমালোচনা অনেক দিন ধরে। ব্যাট হাতে পারফর্মও করতে পারছেন না সেভাবে। সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এমন সময়ে অধিনায়কের ‘এমন খোলসে ঢুকে পড়া’ দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) তাই কঠিন এক সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হলো। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে বিশ্রাম দেওয়া হলো আসন্ন জিম্বাবুয়ে সফরের টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে। যে বিশ্রাম আদতে নেতৃত্ববদলই।

সাকিব আল হাসান ছুটিতে। নাহলে তার নামটিই হয়তো ঘোষণা করা হতো নতুন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে। আপাতত নুরুল হাসান সোহানকে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক ঘোষণা করেছে বিসিবি।

কিন্তু সোহান কেন? পারফরম্যান্সের বিচার করলে উইকেটরক্ষক এই ব্যাটার টি-টোয়েন্টিতে এখনও নিজেকে প্রমাণ করতে পারেননি। ৩৩ টি-টোয়েন্টিতে তার গড় মাত্র ১২.৯০। সর্বোচ্চ ইনিংসটি ৩০ রানের। স্ট্রাইকরেটও (১১১.৯৮) খুব ভালো নয়।

টিম ম্যানেজম্যান্ট নাকি সোহানের নেতৃত্বগুণকেই প্রাধান্য দিয়েছে। টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘যেহেতু সিনিয়রররা কেউ নাই, সোহান এদের মধ্যে সিনিয়র। আর আমরা তো দেখেছি সোহান মাঠে কিভাবে নেতৃত্ব দেয় দলকে। তো ওই সব দেখে আমরা মনে করছি যে এখন সোহানই ভালো অপশন হবে এই ফরম্যাটের নেতৃত্ব দেয়ার জন্য।’

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জানান, বোর্ডের সবাই আলাপ-আলোচনা করেই সোহানকে অধিনায়ক করার ব্যাপারে একমত হয়েছেন।

২৮ বছর বয়সী ক্রিকেটারের প্রশংসা করে জালাল বলেন, ‘সোহান ঘরোয়া ক্রিকেটে নেতৃত্বে দিয়েছে। ওর মধ্যে লিডারশিপ কোয়ালিটি দেখেছি। নেতৃত্বে দেয়াটা কোনো একজনের সিদ্ধান্ত না, এটা বোর্ডের। আমরা সবাই আলাপ আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সোহানকে নেতৃত্ব দিয়েছি। আমরা মনে করছি যে তার নেতৃত্বগুণ আছে, অ্যাগ্রেসিভ, মোটিভেট করতে পারে, স্পিরিটেড এ ব্যাপারে আমরা নির্বাচকরাসহ সবাই একমত হয়েই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’


আরও খবর



ভিউ বাড়াতে ইনস্টাগ্রাম নতুন ফিচার

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ১১৬জন দেখেছেন
Image

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রাম রিলসে কিছু পরিবর্তন এনেছে সাইটটি। এতে ব্যবহারকারীর সুবিধার বদলে অসুবিধাই বেশি হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অনেক ব্যবহারকারী মার্ক জুকারবার্গ এবং ইনস্টাগ্রামের প্রধান অ্যাডাম মোসেরিকে ট্যাগও করে পোস্টও শেয়ার করেছেন।

তবে তাতে বেশ কাজই হয়েছে বলেই মনে হচ্ছে। কারণ এই সমস্যা সমাধানে নতুন দুটি ফিচার এনেছে ইনস্টাগ্রাম। সম্প্রতি ডুয়াল টেমপ্লেট এবং ইনস্টাগ্রাম ডুয়াল নামের দুটি ফিচার যুক্ত হয়েছে ইনস্টাগ্রামে। যার মাধ্যমে ইনস্টাগ্রাম রিলসের ভিউ আরও বাড়বে বলে দাবি করছে সংস্থাটি।

রিল ভিডিওর জন্য ডুয়াল টেমপ্লেট নামে একটি বিশেষ ফিচার যোগ করেছে। এর মাধ্যমে এখন ইনস্টাগ্রামে ১৫ মিনিট বা তার কম সময়ের সমস্ত ভিডিওকে ডিফল্ট হিসেবে রিলে রূপান্তর করা হবে। একই সময়ে ইনস্টাগ্রাম ডুয়াল ফিচারের মাধ্যমে, ব্যবহারকারীরা রিল তৈরি করতে পারবেন একাধারে মোবাইলের ফ্রন্ট এবং ব্যাক ক্যামেরা ব্যবহার করে।

ইনস্টাগ্রামের এই নতুন দুই ফিচারের মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা একই সঙ্গে পিছনের এবং সামনের ক্যামেরা ব্যবহার করে ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে কোনো ব্যবহারকারী যে কন্টেন্ট শ্যুট করেন সেটি স্ক্রিনের বেশিরভাগ জায়গায় থাকবে আর যখন সামনের ক্যামেরা দিয়ে শ্যুট করা হবে তখন তা স্ক্রিনের একটি ছোট উইন্ডোতে প্রদর্শিত হবে।

যেভাবে ইনস্টাগ্রাম ডুয়াল ফিচার ব্যবহার করবেন জেনে নিন-
>> প্রথমে স্মার্টফোনে আপনার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ওপেন করুন।
>> এবার উপরের ডানদিকে কোণে প্লাস (+) আইকনে ক্লিক করুন।
>> সেখানেই পাবেন রিল অপশন। অপশনটি নির্বাচন করুন।
>> স্ক্রিনের বাঁ দিকে অপশনের একটি তালিকা দেখতে পাবেন।
>> এখানে নিচের তীর চিহ্নটিতে ক্লিক করলে ডুয়েল ক্যামেরা আইকন পাবেন।
>> এটি নির্বাচন করলেই আপনার ভিডিও রেকর্ডিং শুরু হবে। নিচের মাঝখানে থাকা রেকর্ডটি চালু করে দিন।
>> ভিডিও রেকর্ড হয়ে গেলে এর সঙ্গে যোগ করে নিন মিউজিক, টেক্সট, ইফেক্ট কিংবা পছন্দমতো স্টিকার।

সূত্র: গ্যাজেটস নাও


আরও খবর



ওয়ার্কশপে যোগ দিতে যুক্তরাজ্য গেলেন স্পিকার

প্রকাশিত:Thursday ২৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ৬৩জন দেখেছেন
Image

যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ডশায়ার কাউন্টির রক্সটন কলেজে অনুষ্ঠিতব্য পার্লামেন্টারি স্কলার্স অ্যান্ড পার্লামেন্টারিয়ান্সের ১৫তম ওয়ার্কশপে যোগ দিতে ঢাকা ত্যাগ করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে তিনি যুক্তরাজ্যের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

সফরকালে স্পিকার লন্ডনের বাংলাদেশ হাইকমিশনের উদ্যোগে শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নেবেন। এছাড়া, তিনি কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়েশনের (সিপিএ) বর্তমান মহাসচিব ও সাবেক মহাসচিব, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও লর্ডদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। পাশাপাশি, রয়েল জিওগ্রাফিক সোসাইটি, ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজের বৈঠকে অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে তার।

যুক্তরাজ্য সফর শেষে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী জাতিসংঘে (ইউএন) বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনের উদ্যোগে ইউএন ওমেন, ইউনিসেফ, ইউএনডিপি, ইউএনওপিএসের সঙ্গে কয়েকটি বৈঠকে অংশ নিতে আগামী ৬ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন। ১৮ আগস্ট দেশে ফেরার কথা রয়েছে তার।


আরও খবর



ডিবি পরিচয়ে কসাইয়ের সঙ্গে প্রতারণা, প্রতারক গ্রেফতার

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ১১জন দেখেছেন
Image

ডিবি পুলিশ পরিচয়ে কসাইয়ের কাছ থেকে ২৫ কেজি খাসির মাংস নিয়ে চম্পট দেওয়া প্রতারককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ওই ব্যক্তির নাম আফজাল মিনহাজ সংগ্রাম (৫২)।

বুধবার (৩ আগস্ট) রাতে নাটোরের লালপুর থানার ধুপইল গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আফজাল মিনহাজ নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার চন্ডীপুর গ্রামের এরশাদ আলী মন্ডলের ছেলে।

ডিবি পরিচয়ে কসাইয়ের সঙ্গে প্রতারণা, প্রতারক গ্রেফতার

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয় ।

পাবনার পুলিশ সুপার (এসপি) মহিবুল ইসলাম খান জানান, রোববার (৩১ জুলাই) সুজানগর উপজেলার চরসুজানগর এলাকার বাসিন্দা কসাই বিল্লাল হোসেনের বাড়ি গিয়ে আফজাল নিজেকে ডিবি পুলিশের লোক বলে পরিচয় দেন। সঙ্গে থাকা তার ছবিসহ ডিবি পুলিশের কথিত পরিচয়পত্রও দেখান। তার গায়ে ডিবির ইউনিফর্ম ও সঙ্গে হাতকড়াও ছিল। এরপর জানান, একটি অনুষ্ঠানের জন্য ‘পাবনার পুলিশ সুপার স্যার’ খাসির মাংস নিতে তাকে পাঠিয়েছেন।

এ সময় ৯০০ টাকা কেজি দরে মাংসের দরদাম ঠিক করেন। কসাই তার বাড়িতে থাকা একটি খাসি জবাই করেন। এরপর ২৫ কেজি মাংস প্রস্তুত করে তাকে দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি টাকা না দিয়ে বলেন ‘এসপি স্যার’ পাবনা অফিস থেকে দেবেন।

এ কথা বলার পর বিল্লাল কসাই তার সহযোগী কসাই আব্দুল জলিলকে ওই ব্যক্তির মোটরসাইকেলে পাঠান। মোটরসাইকেলযোগে তারা পাবনা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় পৌঁছালে ভুয়া ডিবি পুলিশ পরিচয় দানকারী প্রতারক কৌশলে জলিলকে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে দেন। তাকে রাস্তায় দাঁড় করিয়ে রেখে বলেন ‘এসপি স্যারের’ কাছ থেকে টাকা এনে দিচ্ছি।

ডিবি পরিচয়ে কসাইয়ের সঙ্গে প্রতারণা, প্রতারক গ্রেফতার

এরপর সন্ধ্যা পর্যন্ত তার আর কোনো খোঁজ পাননি জলিল। তিনি শেষ পর্যন্ত খালি হাতে বাড়ি ফিরে যান। প্রতারণার শিকার কসাই বিল্লাল হোসেন বিষয়টি সুজানগর থানা পুলিশকে লিখিতভাবে জানান।

এসপি আরও বলেন, পরে আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম এবং জিন্নাহ আল মামুনের নেতৃত্বে পাবনা ডিবি পুলিশ এবং সুজানগর থানা পুলিশ যৌথ অভিযানে যায়। নাটোরের লালপুর উপজেলার ধুপইল গ্রাম থেকে অভিযুক্ত আফজাল মিনহাজ সংগ্রামকে গ্রেফতার করেন তারা।

পরে তার কাছ থেকে ‘ডিবি, পাবনা’ লেখা একটি জ্যাকেট/কটি, এক জোড়া হাতকড়া, একটি আরটিআর মোটরসাইকেল, একটি পুলিশের আইডি কার্ড ও একটি বাটন মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।


আরও খবর



গাজীপুরে লোডশেডিংয়ে কারখানায় উৎপাদন ব্যাহত

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ০৪ August ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
Image

গাজীপুরে লোডশেডিংয়ের ক্ষেত্রে নিয়ম কানুন মানা হচ্ছে না। দিনে কোথাও পাঁচ-ছয়বার আবার কোথাও এর চেয়ে বেশি সময় ধরে লোডশেডিং হচ্ছে। ফলে কল-কারখানার উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন কয়েকজন শিল্প মালিক। উৎপাদন কমে যাওয়ার পাশাপাশি শ্রমিকরা হারাচ্ছেন কর্মসংস্থান।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দীর্ঘ সময় ধরে গাজীপুর গ্যাস সমস্যা রয়েছে। গ্যাসের চাপ না থাকায় উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। বিকল্প বিদ্যুৎ ব্যবহার করে চলছে উৎপাদন কাজ। কিন্তু লোডশেডিংয়ে এ পদ্ধতিতেও কাজ ব্যাহত হচ্ছে। এতে কমে যাচ্ছে কারখানার অর্ডার।

কয়েকজন কারখানা মালিক জানান, বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংকটে মালিক-শ্রমিকদের মধ্যে দেখা গেছে চিন্তার ভাঁজ। এভাবে চলতে থাকলে কারখানা মালিকদের ব্যবসা গুটিয়ে ফেলতে হবে। ফলে কর্মহীন হয়ে পড়ার আশঙ্কায় রয়েছেন অনেক শ্রমিক।

jagonews24

অপরদিকে শ্রমিকদের মধ্যে যারা উৎপাদন চুক্তি অর্থাৎ প্রডাকশন রেটে কাজ করেন তারা স্বাভাবিকের চেয়ে পারিশ্রমিক কম পাচ্ছেন। নগরীর জয়দেবপুর, ভোগড়া, লক্ষ্মীপুরা, বোর্ডবাজার, কোনাবাড়ী, কাশিমপুরসহ আশপাশের এলাকায় বিদ্যুতের অতিরিক্ত লোডশেডিংয়ের কারণে তাদের উৎপাদন কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

গাজীপুর পল্লীবিদ্যুৎ সূত্রে জানা গেছে, জেলায় বিদ্যুতের চাহিদা রয়েছে ৬৫০ মেগাওয়াট। পাওয়া যাচ্ছে ৪০০ থেকে ৪৫০ মেগাওয়াট। ২০০ থেকে ২৫০ মেগাওয়াট ঘাটতি মোকাবিলায় লোডশেডিং হচ্ছে দফায় দফায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কোনাবাড়ীতে অবস্থিত এ জেড টেক্সটাইলের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘স্বাভাবিক সময়ে কারখানা প্রতিদিন ১০০ টন টেক্সটাইল সামগ্রী উৎপাদন করতো। কিন্তু বর্তমানে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের অভাবে তা নেমে এসেছে ১০ থেকে ১৫ টনে। তাও কাজ করা যায় রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত। এতে প্রতিদিন প্রায় ১ কোটি টাকার উৎপাদন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ক্রেতাদের সময় মতো সরবরাহ করতে পারছি না বলে নিজের খরচের কয়েকগুণ বেশি টাকায় পণ্য বিমানে পাঠাতে হচ্ছে। আবার নতুন করে কোনো অর্ডারও নিতে পারছি না।’

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গাজীপুর মহানগরীর বোর্ড বাজারের জাঝর এলাকার ইউনিক অ্যাপারেলসে গিয়ে দেখা গেছে, উৎপাদন বন্ধ। শ্রমিকদের কেউ বাইরে কেউ কারখানার ভেতরে আড্ডায় মশগুল। সুপারভাইজার মতিউর রহমান বলেন, ‘সকাল সাড়ে ৮টায় বিদ্যুৎ গেছে। এখন সাড়ে ১২টা বাজলেও বিদ্যুৎ আসার খবর নেই।

jagonews24

গাজীপুর মহানগরীর ভোগড়া বাসন সড়ক এলাকায় মীম ডিজাইনের ব্যবস্থাপক আবু তাহের মিয়াজী বলেন, ‘বিদ্যুতের ঘনঘন লোডশেডিংয়ের কারণে অতিরিক্ত খরচ দিয়ে জেনারেটর চালাতে হচ্ছে এতে উৎপাদন খরচ যেমন বাড়ছে তেমনি মেশিনপত্রও নষ্ট হচ্ছে। চাহিদা মতো বিদ্যুৎ না থাকায় জেনারেটর দিয়ে কারখানর আংশিক অংশ চালু রাখা হয়। এতে অনেক শ্রমিক বেকার বসে থাকে। ফলে পোশাক ও টেক্সটাইল কারখানায় আগের চেয়ে উৎপাদন কমেছে।’

গাজীপুর পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-২ এর সিনিয়র জিএম যুবরাজ চন্দ্র পাল জাগো নিউজকে বলেন, ‘প্রতিদিন ৪৩৫ মেগাওয়াট চাহিদার বিপরীতে আমরা পাচ্ছি প্রায় ৩৩৫ মেগাওয়াট। ১৫৫টি ফিডারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ গ্রাহকের কাছে পৌঁছানো হয়। এর মধ্যে ১০০টি ফিডারে শিল্প-কারখানা রয়েছে। বাকিগুলো আবাসিক। শিল্প-কারখানায় লোডশেডিং না দিতে সরকারের নির্দেশনা রয়েছে। তাই ওই ১০০টি বাদ দিয়ে ৫৫টি ফিডারে লোডশেডিং দিতে হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘জাতীয় গ্রিড থেকে সরাসরি লোড ম্যানেজমেন্ট করা হয়। উচ্চ পর্যায়ে আলোচনা করে দ্রুত নতুন নিয়মে লোডশেডিং দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এরপরও গ্রাহক জানতে পারছে না কোন এলাকায় কখন লোডশেডিং হবে।’

ময়মনসিংহ পল্লী বিদ্যুৎ-২ এর মাওনা কার্যালয়ের ডিজিএম আহাম্মদ শাহ আল জাবেদ জাগো নিউজকে বলেন, ‘উপজেলায় চাহিদা ৯৫ মেগাওয়াট। পাওয়া যাচ্ছে ৬০ বা ৬৫ মেগাওয়াট। ঘাটতির ৩০-৩৫ মেগাওয়াট সামাল দিতে লোডশেডিং দিতে হচ্ছে। উপজেলার ২৭টি ফিডারের সবকটিতেই শিল্প-কারখানা রয়েছে। ফিডারগুলোতে পর্যায়ক্রমে দুই থেকে আড়াই ঘণ্টা পরপর এক ঘণ্টা লোডশেডিং করা হচ্ছে। ফলে কমপক্ষে প্রতিদিন ১০-১২টা ফিডার বন্ধ রাখতে হচ্ছে।’


আরও খবর