Logo
আজঃ Monday ২৯ November ২০২১
শিরোনাম
নৌকা পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান হলো তৃতীয় লিঙ্গের ঋতু! তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা কুমিল্লায় নৌকা পেয়েও সরে দাড়ালেন বাহালুল, প্রাথমিক সদস্য না হয়েও মনোনীত নূরুল! মাতুয়াইলে সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্ধোধন করলেন সংসদ সদস্য কাজী মনু পলো উৎসবে মাছ ধরায় মেতেছে মানুষ, চির চেনা বাংলা গাজীপুরে ৩০ সেকেন্ডেই মা-মেয়ের জীবন শেষ করল দুই খুনি হয়নি হাফ পাসের সিদ্ধান্ত,টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব আলেম-ওলামাদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা-ভক্তি রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রংপুরের তারাগঞ্জে ট্রাকচাপায় তিন নারী শ্রমিক নিহত কুমিল্লার তিতাস ও মেঘনা উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী যারা !
নাসিরনগরে জশনে জুলুছে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী পালিত

নাসিরনগরে জশনে জুলুছে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী পালিত

প্রকাশিত:Wednesday ২০ October ২০21 | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১৮০জন দেখেছেন
Image


 

মোঃ আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর :

 

 ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার  নাসিরনগর উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের উদ্যোগে বিশ্ব নবী হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) এর পবিত্র জন্মদিন উপলক্ষে জশনে জুলুছে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী পালিত হয়েছে।

এ উপলক্ষে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের সমন্বয়ে এক বিশাল র‌্যালী  উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে স্থানীয়  নাসিরনগর সরকারী ডিগ্রী কলেজ মাঠ প্রাঙ্গনে এক বিশাল আলোচনা সভায় মিলিত হন। 

উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা রিয়াজুল করিম আল কাদরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১, সংসদীয় ২৪৩ নাসিরনগর আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব বিএম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাফি উদ্দিন আহমেদ।  আলোচনা সভায় উপজেলার বিভিন্ন আলেম ওলামায়েগণ  জ্ঞানগর্ভ পূর্ণ বক্তব্য রাখেন।

 

জানা গেছে ৫৭০ খ্রিঃ ১২ই রবিউল আউয়াল বিশ্বনবী হযরত মোহাম্মদ (সা:) পবিত্র মক্কা নগরীর কুরাইশ বংশে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবার নাম আব্দুল্লাহ ও মায়ের নাম আমেনা।  প্রতি বছর ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা এ দিনকে অত্যন্ত শ্রদ্ধার সাথে ঈদে মিলাদুন্নবী পালন করে থাকেন।

 খবর প্রতিদিন / সি.বা 


আরও খবর



বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ পাসের বিষয়ে পরিষ্কার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি

হয়নি হাফ পাসের সিদ্ধান্ত,টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব

প্রকাশিত:Saturday ২৭ November ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ৬৭জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


 

বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ পাসের বিষয়ে পরিষ্কার কোনো সিদ্ধান্ত না হলেও সড়ক-পরিবহন-মালিক-শ্রমিকসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে সমন্বিত করে একটি টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব করা হয়েছে।

 

শনিবার রাজধানীর বনানীতে বিআরটিএ কার্যালয়ে বেলা পৌনে ১২টা থেকে দুপুর সোয়া ২টা পর্যন্ত চলা বাস মালিক সমিতি, শ্রমিক ফেডারেশনের সঙ্গে বিআরটিএসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বৈঠকে কয়েকটি প্রস্তাবের সঙ্গে এ প্রস্তাব আনা হয়।

 

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে হাফ পাসের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে কী কী কারণে বা কী উপায় হাফ পাসের দাবি পূরণ করা যায়, সে বিষয়ে সবার মধ্যে বিস্তর আলোচনা হয়। হাফ পাসের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই বৈঠক শেষ হয়েছে। পরিবহন নেতাদের পক্ষ থেকে টাস্কফোর্স গঠনসহ বেশ কয়েকটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। প্রস্তাবগুলো বিবেচনা নিয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। 

 

বৈঠক শেষে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্লাহ বলেন, শিক্ষার্থীদের দাবি যৌক্তিকভাবে সমাধানে চেষ্টা চলছে। ঢাকার ৮০ শতাংশ বাস মালিক গরিব। হাফ ভাড়া নিলে মালিকদের যে ক্ষতি হবে, তা সরকার কীভাবে পূরণ করবে? সেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমরা কিছু প্রস্তাব দিয়েছি। সবার সমন্বয়ে টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব দিয়েছি। 

 

ছাত্রদের অনুরোধ জানিয়ে এ পরিবহন নেতা বলেন, হাফ ভাড়ার দাবিতে বাস ভাঙচুর, শ্রমিকদের মারধর অব্যাহত রয়েছে। শিক্ষার্থীদের প্রতি অনুরোধ থাকবে, তারা যেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরে যায়। 

 

টাস্কফোর্স কবে গঠন করা হবে এ প্রশ্নে বিআরটিএ চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, এটা নতুন প্রস্তাব। টাস্কফোর্স গঠনের বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত হবে। টাস্কফোর্স গঠনের মাধ্যমে যে সিদ্ধান্ত আসবে তা সেভাবে বাস্তবায়ন হবে।

তিনি আরো বলেন, পরিবহন নেতাদের পক্ষ থেকে কনসেশন (সুবিধা) দেওয়ার প্রস্তাব এসেছে। কত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কত ছাত্র, কতজন বাস ব্যবহার করে তার একটা পরিসংখ্যান চেয়েছেন নেতারা। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সেই তথ্য দেবে। 

 

টাস্কফোর্স গঠনের বিষয়ে বিআরটিএ চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ বলেন, বাসে হাফ ভাড়া বাস্তবায়নে পরিবহন নেতারা আন্তরিক। কিন্তু তাদের যে ক্ষতি হবে তা কীভাবে পূরণ করা হবে, কত ভর্তুকি দেবে সেসব বিষয়ে সিদ্ধান্তের জন্য সরকার ও পরিবহনে সম্পৃক্তদের নিয়ে টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব এসেছে। সরকারকে টাস্কফোর্সের বিষয়ে জানাবে।

 

এদিকে বাসে হাফ পাসের সিদ্ধান্ত আসার আগ পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের সড়ক ছেড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরে যাওয়ার আহবান জানিয়েছেন বিআরটিএ চেয়ারম্যান এবং পরিবহন নেতারা।


-খবর প্রতিদিন/ সি.বা   


আরও খবর



সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড তেঁতুলিয়ায়

টানা ৯ দিন ধরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড তেঁতুলিয়ায়

প্রকাশিত:Tuesday ০২ November 2০২1 | হালনাগাদ:Sunday ২৮ November ২০২১ | ১৬৩জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


 

দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে গত দুই সপ্তাহ ধরে শীতের আমেজ শুরু হয়েছে। সোমবার সকাল ৯টায় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটি সারা দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

 

গত ২৪ অক্টোবর থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত টানা ৯ দিন তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।দিনভর তীব্র রোদ থাকলেও সন্ধ্যা নামতেই চারদিকে ঢেকে যাচ্ছে কুয়াশায়, যা থাকছে ভোর পর্যন্ত। তবে দিনে প্রচণ্ড রোদ থাকায় দিন ও রাতের তাপমাত্রার মধ্যে বেশ পার্থক্যের সৃষ্টি হচ্ছে। রোববার সন্ধ্যা ৬টায় তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারে তেঁতুলিয়ার দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩০ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

 

পঞ্চগড়ের অবস্থান হিমালয়ের খুব কাছাকাছি হওয়ায় এখানে শীত কিছুটা আগে আসে এবং শীত বিদায়ও নেয় দেরিতে। এমনকি শীত মৌসুমে এই এলাকায় হিমালয়ের হিমবায়ু সরাসরি প্রবেশ করায় শীতের তীব্রতাও বেশি থাকে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

 

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ বলেন, গত ৯ দিন ধরে তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হচ্ছে। কুয়াশার কারণে রাতের তাপমাত্রা কম থাকলেও দিনে রোদের কারণে তাপমাত্রা বেড়ে যাচ্ছে।

  খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর



১৭ ইউনিয়নে প্রাথীদের মনোনয়ন জমা

সুনামগঞ্জ সদর ও শান্তিগঞ্জ উপজেলার ১৭ ইউনিয়নে প্রাথীদের মনোনয়ন জমা

প্রকাশিত:Tuesday ০২ November 2০২1 | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১৬৪জন দেখেছেন
Image


 

সাইফ উল্লাহ সুনামগঞ্জ :

 

সুনামগঞ্জ সদরে ৯টি ও শান্তিগঞ্জ উপজেলার ৮টি মিলে ১৭টি ইউনিয়ন পরিষদ নিবার্চনকে সামনে রেখে আওয়ামীলীগ,স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী,ইউপি সদস্য ও সংরক্ষিত আসনের নারী সদস্যরা মনোনয়নপত্র জমাদান শুরু হয়েছে। 

 

আজ সোমবার ও এবং আগামীকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত প্রার্থীরা তাদের দলীয় কর্ম সমর্থকদের নিয়ে মোটর সাইকেল শো-ডাউন করে উপজেলা রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে গিয়ে মনোনয়নপত্র জমাদান করেন। 

 

আজ সোমবার দুপুরে শান্তিগঞ্জ উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে ৩৮ জন,ইউপি সদস্য পদে ৩৫০ ও সংরক্ষিত নারী আসনে ৩৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

 

দুপুরে উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের নৌকার প্রার্থী এডভোকেট দেবাংশু শেখর দাস সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখতসহ দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে রিটার্নিং অফিসার জাহিদুল ইসলামের নিকট মনোনয়নপত্র জমা দেন। এছাড়াও শিমুলবাক ইউপি নিবার্চনে আওয়ামীলীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মিজানুর রহমান জিতু,স্বতন্ত্র প্রার্থীপশ্চিম বীরগাওঁ ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান মো.শফিকুল ইসলাম,স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. সামছুল ইসলামসহ অনেকেই মনোনয়নপত্র জমাদান করেছেন।

 

 

 এদিকে সদর উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ইতিমধ্যে ২১ জন,ইউপি সদস্য পদে ১১০ জন ও নারী আসনে ৩০জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন এবং আগামীকাল মঙ্গলবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষ তারিখ রয়েছে।

 

-খবর প্রতিদিন /সি.বা 


আরও খবর



রিকশাচালক বাবার ঘরের টিন খুলে নিল ছেলের পাওনাদাররা

ছেলে কাছে টাকা পায় তাই রিকশাচালক বাবার ঘরের টিন খুলে নিল পাওনাদাররা

প্রকাশিত:Monday ০১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ২০৭জন দেখেছেন
Image


 

আমারা বড় ছেলে আবুল কাশেম বৌ নিয়ে আলাদা থাকে। তার কাছে স্থানীয় ইউনুস, আবুল কালাম ও রবিন নামে তিন যুবক টাকা পাবে বলে দাবি করে আসছে। কিন্তু কিসের টাকা বা কত টাকা পাবে তা আমি জানি না। আর এ টাকার জন্য প্রায়ই গালমন্দ ও মারধরের হুমকি শুনতে হয়েছে আমাকে। গত শুক্রবার আমার ঘরের টিনের চাল খুলে নিয়ে যায় ওই তিন যুবক।

 

রোববার দুপুরে কান্নাজড়িত কণ্ঠে এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন আবদুর রহিম নামে এক বৃদ্ধ রিকশাচালক। তিনি লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের দক্ষিণ মজুপুর গ্রামের বাসিন্দা। তার দুই ছেলে, এক মেয়ে। অন্যদিকে, অভিযুক্তরা হলেন- একই এলাকার সিরাজের ছেলে ইউনুস, আলীর ছেলে আবুল কালাম ও খোকনের ছেলে রবিন।

 

আবদুর রহিম বলেন, ছেলের অপরাধের জন্য বাবাকে শাস্তি ভোগ করতে হবে, এটা কেমন বিচার। আমি রিকশা চালিয়ে কোনোরকমে স্ত্রী, স্কুল পড়ুয়া দুই নাতনী ও প্রতিবন্ধী ছোট ছেলেকে নিয়ে থাকি। কার সঙ্গে আমার ছেলের ব্যবসা আছে তাও জানা নেই। তাকে না পেয়ে টাকা পাওয়ার দাবি করে তারা বাড়িতে হামলা করে আমার ঘরের টিনের চাল খুলে নিয়ে যায়। এখন চালবিহীন (ছাউনি ছাড়া) ঘরে গত তিনদিন মানবেতর জীবনযাপন করছি। রাতে কুয়াশায় ভিজতে হচ্ছে আবার উপরে ছাউনি না থাকায় দিনে রৌদে কষ্ট পেতে হচ্ছে।

 

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ করেননি ওই রিকশাচালক। কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, মামলা করতে টাকা লাগে, সে টাকা তো আমার নাই। ঘটনার পর থেকেই আমি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছি। গত তিনদিন রিকশা নিয়ে বের হতে পারিনি। এছাড়া অভিযুক্তরাও প্রভাবশালী।

 

স্থানীয় ও প্রতিবেশীরা জানান, রিকশাচালক আবদুর রহিমের ছেলে কাশেম চট্টগ্রামে মাছের ব্যবসা করতেন। ব্যবসার জন্য ইউনুস, কালা ও রবিনের কাছ থেকে টাকা ধার নেন কাশেম। ব্যবসায় লোকসান হওয়ায় কাশেম গা ঢাকা দেয়। কিন্তু পাওনা টাকা উদ্ধারের জন্য আইনের আশ্রয় না নিয়ে নিজেরাই কাশেমের বাড়িঘরে হামলা চালায়। এক পর্যায়ে বৃদ্ধ রহিমের বসতঘরের টিন খুলে ফেলে তারা। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চান তারা।

   

খবর প্রতিদিন /সি.বা 


আরও খবর



মেটা’ নিয়ে উপহাস করছে ইসরায়েলিরা

ফেসবুকের নতুন নাম ‘মেটা নিয়ে উপহাস করছে ইসরায়েলিরা

প্রকাশিত:Monday ০১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১২৯জন দেখেছেন
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image


 

বিশ্বের সবচেয়ে বৃহৎ ও জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের নতুন কোম্পানির নাম ‘মেটা’ নিয়ে উপহাস করছে ইসরায়েলের ব্যবহারকারীরা। এর কারণ নতুন নামটি হিব্রু শব্দ 'মৃত'-এর মতো শোনাচ্ছে।

 

দ্য টেকল্যাশ এবং টেক ক্রাইসিস কমিউনিকেশনের লেখক ড. নিরিট ওয়েইস-ব্ল্যাট, টুইট করেছেন, ‘হিব্রুতে, ‘মেটা’ মানে ‘মৃত’। ইহুদি সম্প্রদায় আজীবন এই নামটিকে নিয়ে উপহাস করবে।' তিনি আরো বলেন, ‘মেটা’ হিব্রু শব্দটির স্ত্রীলিঙ্গের মতো শোনাচ্ছে।

 

ইসরায়েলি জরুরি উদ্ধার সংস্থা জাকা, যার কাজ একটি সঠিক ইহুদি সমাধি নিশ্চিত করার জন্য মানুষের দেহাবশেষ সংগ্রহ করা। তার টুইটার অনুসারীদের আশ্বস্ত করার জন্য উদ্ধৃত করেছে, 'চিন্তা করবেন না, আমরা এটির সঙ্গে আছি।

 

ব্র্যান্ডগুলো অনুবাদে প্রাধান্য না দেওয়ার এটাই প্রথম ঘটনা নয়। ১৯৮০-এর দশকে কেএফসি যখন তার ক্যাচফ্রেজ 'ফিঙ্গার লিকিন গুড' নিয়ে চীনে এসেছিল, তখন স্থানীয়রা এটাকে ভালো চোখে দেখেনি। ম্যান্ডারিনে এটির অনুবাদটি ছিল 'আপনার আঙুলগুলো বন্ধ করুন'। তবে এতে কম্পানিটির কোনো প্রকৃত ক্ষতি হয়নি, বরং কেএফসি দেশটির অন্যতম বৃহত্তম ফাস্ট ফুড চেইন।

-খবর প্রতিদিন /সি.বা

নিউজ ট্যাগ: মেটা ফেসবুক

আরও খবর