Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

নাসিরনগরে ধর্মীয় শিক্ষক সহ ৬ জনের বিরোদ্ধে মিথ্যা ডাকাতির মামলা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৩৬৫জন দেখেছেন

Image

আব্দুল হান্নান: ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নাসির নগর উপজেলার সাবেক ফান্দাউক মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার ও বর্তমানে কুন্ডা উচ্চবিদ্যালয়ের  ধর্মীয় শিক্ষক বুড়িশ্বর ইউনিয়নের ভোলাউক বাসিন্দা মাওলানা জসিম উদ্দিন সহ গ্রামের আরো নিরীহ ৬ জনের বিরোদ্ধে জসিমের আপন বড় ভাই নুর উদ্দিনের স্ত্রী মোছাঃ জাহানারা বেগম বাদী হয়ে  ৫ই এপ্রিল ২০২৩  তারিখে  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে  সি,আর  মামলা নং -১৭৯/২৩ দায়ের করেন।

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্ত পূর্বক প্রতি্েদন দাখিলের নির্দেশ দেন।বাদীনি তার মামলায় উল্লেখ করেন, আসামীগনের সুনির্দিষ্ট কোন পেশা না থাকায় তারা ঘটনাস্থল সহ আশেপাশের এলাকায় চুরি ডাকাতি করে জীবিকা নির্বাহ করে। ৬নং আসামী মাওলানা জসিম উদ্দিন সকল আসামীদের অপকর্মের গড ফাদার হিসাবে কাজ করে এবং আসামীদের বিরুদ্ধে চুরি ছিনতাইয়ের মামলা মোকদ্দমা হইলে তাদেরকে তদবির করে জামিনে মুক্তি করে নিয়ে আসেন।

তিনি আরো উল্লেখ করেন  আসামী মাওলানা  জসিম উদ্দিনের সহযোগীতার কারণে অন্যান্য আসামীরা দিন দিন বেপরোয়া হয়ে সাধারণ মানুষের প্রতি অত্যাচার নির্যাতন এবং গ্রাম সহ আশেপাশের এলাকায় ও বিভিন্ন সময় রাতের বেলায় রাস্তায় গাড়ী আটকাইয়া চুরি ছিনতাই ও ডাকাতি করে থাকে। আসামীদের বিরুদ্ধে নাসিরনগর থানা সহ আশেপাশের বিভিন্ন থানায় চুরি ছিনতাই, ডাকাতি, ডাকাতির প্রস্তুতি সহ বিভিন্ন  মামলা মোকদ্দমা চলমান আছে।এদিকে মামলা দায়েরের  পর থেকে এলাকায় চলছে নানা আলোচনা সমালোচনার ঝড়।

জসিম ধর্মীয় শিক্ষক ছাড়াও তিনি ঐতিহ্যবাহী ফান্দাউক দরবার শরীফের মোবাল্লিক ও ফান্দাউক মদিনাতুল উলুম আলিম মাদ্রাসার সাবেক শিক্ষক এবং বর্তমানে কুন্ডা উচ্চ বিদ্যালয়ে ইসলাম ধর্মীয় শিক্ষক মাও ক্বারী জসিম উদ্দিনকে নিয়ে।তিনি শিক্ষকতার পাশাপাশি  দারুল কেরাত মাজিদিয়া ফুলতলী ট্রাষ্টের খামিছ জামাতের পরিক্ষকও বটে। এমন একজন ব্যক্তির উপর এমন মামলা দায়ের করায় সমস্ত গ্রামবাসী সহ  আশপাশ এলাকা ও নাসির নগর উপজেলার সচেতন মহল ও আলেম উলামাদের  মাঝে  চলছে আলোচনা সমালোচনার ঝড়।

মাওলানা ক্বারী জসিম উদ্দিন  শুধু শিক্ষকতাই করেন না এসাথে তিনি স্হানীয় একটি মসজিদের জুম্মা নামাজ পড়ানোর ইমামের দায়িত্বও পালন করে যাচ্ছেন।এ বিষয়ে সরজমিনে এলাকায় গিয়ে মামলায় জসিম হুজুরকে আসামী করার কারন জানতে চাইলে বাদীনি জানায় ডাকাতির সময় রাত ৩ ঘটিকার জসিম বারান্দায় দাড়িয়ে ছিল।অথচ বাদীনির স্বামী মোঃ নুর উদ্দিন বলেন জসিম হুজুর এ দিন বিকালে বাড়িতে এসে সবাইকে ডাকাতি করার জন্য নির্দেশ দিয়ে চলে যায়।

গ্রামের সুরব্বি  অবসর প্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আলী,সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ শিরু মিয়া গ্রাম পুলিশ মোঃ আব্দুল আওয়াল,ইউপি সদস্য মোঃ ইলিয়াছ মিয়া  স্থানীয় মসজিদের ইমাম সহ আশপাশের শত শত নারী পুরুষ জানায় ভোলাউক গ্রামে এ ধরনের কোন চুরি ডাকাতির ঘটনা ঘটেনি।জমি থেকে পানি নিস্কাশনের রাস্তা নিয়ে দু পক্ষের মাঝে ঝগড়া হয়েছে।জসিম হুজুরের বিরোদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করা তারা অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন।এলাকাবাসী জানায় জাহানারা বেগম খুব ভয়ংকর প্রকৃতির মহিলা ।ঐ মহিলার বিরুদ্ধে কোন ব্যক্তি মুখ খুলতে সাহস পায় না।

মামলার বিষয়ে জানতে চাইলে আসামী জসিম হুজুর মামলাটি সঠিক তদন্ত পূর্কব প্রয়োনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা সহ মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর সুবিচার দাবী করেন।মুঠোফোনে এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআইয়ের ইন্সপেক্টর  মোঃ রফিকুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করে জানতে চাইলে তিনি বলেন মামলাটির তদন্ত কার্যক্রম চলছে। প্রকৃত সত্য উদঘাটন করেই আদালতে চার্জসীট দেয়া হবে।ঘটনার সাথে জড়িত না থাকলে কোন লোককে অন্যায় ভাবে ফাঁসানো সম্ভব হবে না।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



ডোমারে শাওন হিমাগারে এজেন্ট, ব্যবসায়ী ও আলু চাষী সম্মেলন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৫৯জন দেখেছেন

Image

ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি:নীলফামারীর ডোমারে সুনামধন্য প্রতিষ্ঠান শাওন হিমাগারে এজেন্ট, ব্যবসায়ী ও আলু চাষী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় ছোট রাউতা হিমাগার প্রাঙ্গণে শাওন হিমাগারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ডোমার পৌরসভার সফল মেয়র আলহাজ¦ মনছুরুল ইসলাম দানু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী ব্যাংক নীলফামারী শাখার ভাইস প্রেসিডেন্ট ও শাখা ব্যবস্থাপক আনোয়ার হোসেন। স্টোরকিপার ছামিউল ইসলামের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উক্ত ব্যাংক এর লিগ্যাল এ্যাডভাইজার এ্যাড. শহিদুল ইসলাম শাহ, ইনভেষ্টমেন্ট অফিসার জিল্লুর রহমান, রাকাব এর সাবেক এজিএম তাপস কুমার ঘোষ, হিমাগারের পরিচালক শাহেদ ইসলাম শাওন, কৃষিবিদ সুবাস চক্রবর্তী, ব্যবস্থাপক জাহিদুল হক প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসাবে, ডোমার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ঈমাম ও খতিব আলহাজ¦ মুফতি মাহমুদ বীন আলম, ডোমার আইডিয়াল একাডেমীর অধ্যক্ষ মাওঃ মোসলেহুদ্দীন শাহ্ধসঢ়;’র আলু চাষী ও এজেন্ট ফরিদ আহমেদ, আব্দুল হামিদ, রেজাউল করিম, আমিনুর রহমান বক্তব্য রাখেন।

আলোচনা শেষে হিমাগারে সর্বচ্চো আলু সংরক্ষণকারী চাষী হিসাবে আসাদুজ্জামান মিঠুকে প্রথম পুরস্কার ২ লক্ষ টাকা, আব্দুল হামিদকে ২য় পুরস্কার ১ লক্ষ টাকা এবং ৩য় স্থান অধিকারী মশিয়ার রহমানকে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার হিসাবে প্রদান করেন হিমাগারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ডোমার পৌরসভার মেয়র আলহাজ¦ মনছুরুল ইসলাম দানু।


আরও খবর

গাংনীতে বালাইনাশক ব্যবহারে উদাসিন কৃষকরা

শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪৮জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার:প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে পাবনা জেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য মিম খাতুন ওরফে আফসানা মিম ও তার স্বামী ওবায়দুল্লাহর একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।বাদী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মেজবা উদ্দীন শরীফ।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিনা হকের আদালত শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করে তাদের রিমান্ডে পাঠান।

এদিন গ্রেফতার আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। এসময় মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও গুলশান থানার উপপরিদর্শক মো. রোমেন মিয়া রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন।অন্যদিকে আসামিপক্ষ আইজীবী এ্যাড.সুমন মিয়া রিমান্ড বাতিল ও জামিন চেয়ে আবেদন করেন।

জানা গেছে, ওবায়দুল্লাহ নামে এক ব্যক্তিকে দুলাভাই হিসেবে মামলার বাদী মনিরুজ্জামানের সঙ্গে পরিচয় করে দেন মিম। পরে বিভিন্ন সময়ে ব্যবসার কথা বলে ১৩ লাখ ১৭ হাজার টাকা নেন মিম ও ওবায়দুল্লাহ। বিশ্বাস করে দলিল ছাড়া লেনদেন হলেও পরে দলিল করতে চাইলে তারা টালবাহানা শুরু করেন। পাওনা টাকা ফেরত দেবেন না বলে হুঁশিয়ারি দেন এবং তাকে বিভিন্ন রকমের ভয়ভীতি ও হুমকি দেখান।

এ ঘটনায় আটঘড়িয়া উপজেলার যুবলীগ নেতা ও ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান বাবু বাদী হয়ে রাজধানীর গুলশান থানায় মামলা দায়ের করেন। এ মামলার পর গতকাল বুধবার সকালে এ দম্পতিকে পাবনা সদর এলাকা থেকে গ্রেফতার করে গুলশান থানা পুলিশ।

আরও খবর



রাজধানী ঢাকার বাতাস আজ ‘খুবই অস্বাস্থ্যকর’

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আজ রাজধানী ঢাকার বাতাসের মান ‘খুবই অস্বাস্থ্যকর’। একই অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তানের লাহোর এবং ভারতের দিল্লি। শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা ১৭ মিনিটে বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সের (আইকিউএয়ার) সূচক থেকে জানা গেছে এ তথ্য।

তালিকার শীর্ষে অবস্থান করা ঢাকার বায়ুর মানের স্কোর হচ্ছে ২৩৯। এর অর্থ দাঁড়ায় এখানকার বায়ু ‘খুবই অস্বাস্থ্যকর’।

দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তানের লাহোর। এই শহরটির স্কোর হচ্ছে ২২৩ অর্থাৎ সেখানকার বায়ুর মানও ‘ খুবই অস্বাস্থ্যকর’।

এদিকে ভারতের রাজধানী দিল্লির দূষণ স্কোর ২১৩ অর্থাৎ সেখানকার বায়ুর মানও ‘ খুবই অস্বাস্থ্যকর’।

১০১ থেকে ১৫০ এর মধ্যে হলে বাতাসের মান “সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর”, ১৫০ থেকে ২০০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে “অস্বাস্থ্যকর” বলে মনে করা হয়। ২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে “খুব অস্বাস্থ্যকর” বলা হয়, ৩০১+ একিউআই স্কোরকে “ঝুঁকিপূর্ণ” হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে।


আরও খবর



বাগেরহাটে ১২ কেজি গাজাসহ মাদক কারবারি আটক

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৪জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:বাগেরহাটের মোল্লাহাটে ১২ কেজি গাঁজাসহ মো: আকাশ খান (২২) নামে এক মাদক কারবারিকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। বৃহস্পতিবার (০১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে জেলার মোল্লাহাট উপজেলার গারফা এলাকার মেসার্স মা ফিলিং স্টেশনের বিপরীত পাশে শিকদার প্লাজা নামক মার্কেটের সামনে থেকে আটক করা হয়। 

আটককৃতের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের পূর্বক আদালতে সোপর্দ করা হবে। আটক আকাশ খান মোরেলগঞ্জ উপজেলার বারইখালী গ্রামের সুলতান খানের ছেলে।

বাগেরহাট জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক স্বপন কুমার রায় বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে  আকাশ খানকে আটক করা হয়। তার কাছে থাকা একটি বস্তা থেকে  ১২ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। যার বাজার মূল্য ৩ লক্ষ ৬০হাজার টাকা। মাদক বিক্রেতাদের কাছে গাজা হস্তান্তরের জন্য অপেক্ষা করছিলেন আকাশ। এছাড়া আকাশ দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন এলাকায় ছোট ছোট বাজারে গাঁজা বিক্রি করে আসছিল। আকাশের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



রাজিবপুরে ইজিবাইক চালককে হত্যা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭১জন দেখেছেন

Image

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:কুড়িগ্রামের রাজিবপুরে ইজিবাইক চালককে হত্যার পর ইজিবাইক ছিনতাই করে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে। ৩০ জানুয়ারী মঙ্গলবার উপজেলার স্লইজ গেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত এনামুল হক (৪০) রৌমারী উপজেলার উত্তর ইছাকুড়ি ভিটে বাড়ি গ্রামের মৃত মেছের আলীর পুত্র।

পরিবার ও থানা সূত্রে জানা গেছে ২৯ জানুয়ারী সোমবার সকালে কর্তিমারী থেকে অজ্ঞাত কয়েকজন লোক তার ইজিবাইক ভাড়া করে কোম্পানির মালামাল বিক্রি করার উদ্দেশ্যে রাজিবপুর উপজেলায় নিয়ে যায়। সারাদিন পরিবারের সাথে যোগাযোগ না থাকায়, রাতে এনামুলের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাকে পাওয়া যায় নি।

পরের দিন মঙ্গলবার সকালে রাস্তায় চলাচলরত লোকজন রাজিবপুর ধুলিউরা এলাকা স্লুইজগেট সংলগ্ন নিচু জমিতে অজ্ঞাত একজন লোককে অজ্ঞান অবস্থায় পরে থাকতে দেখতে পায়।

সঙ্গে সঙ্গে তারা রাজিবপুর ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তাদেরকে জানায়। তৎক্ষণাত তারা অজ্ঞাত লোটিকে উদ্ধার করে রাজিবপুর হাসপাতালে ভর্তি করেন। ডিউটিরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এবিষয়ে মৃত এনামুলের বড় বোন মাহফুজা বেগম বলেন, আমার ছোট ভাই গতকাল সোমবার কোম্পানির মালামাল নিয়ে রাজিবপুর গেলে আর ফিরে আসে নাই। আজ মঙ্গলবার সকালে জানতে পারি তাকে হত্যা করা হয়েছে। প্রকৃত হত্যাকারি কারা, তাদেরকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হউক। আমি হত্যাকারিদের শাস্তির দাবী জানাচ্ছি।

এবিষয়ে রাজিবপুর থানায় একটি হত্যা মামলার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এ ব্যাপারে  রাজিবপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আশিকুর রহমান বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে পাঠানো হবে।


আরও খবর