Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ত্রানসামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত:Thursday ২৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৮৬জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃনাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) সংবাদদাতা


ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলায় উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢল ও টানা বৃষ্টির কারণে দেখা দিয়েছে ভয়াবহ বন্যা। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে কয়েক হাজার মানুষ।


২১ জুন ২০২২ রোজ মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বুড়িশ্বর ইউনিয়নের শ্রীঘর এসইএসডিপি মডেল হাই স্কুল

আশ্রয় কেন্দ্রে বন্যা কবলিত ৬৬ জন পরিবারের মাঝে জনপ্রতি ১৫ কেজি চাউল ও ২৫০ কেজি রেডি ব্যাগ ফিট গোখাদ্য বিতরণ করা হয়েছে।


 এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাফি উদ্দিন আহম্মদ,বন্যা কবলিত এলাকায় বিশেষ দায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসার বিজয়নগর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মেহেদী হাসান খান শাওন, নাসিরনগর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মোনাববর হোসেন,প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ নুর আলম, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম,উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মোঃ রায়হান আলী ভূইয়া, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল চৌধুরী, বুড়িশ্বর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল চৌধুরী, চাতলপাড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আমিনুল ইসলাম ভূইয়া,সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিগণ। 


আরও খবর



সবাইকে ভুল প্রমাণ করার ভালো সুযোগ এবার: সাকিব

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৭৫জন দেখেছেন
Image

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে নামার আগে অন্যরকম এক অভিজ্ঞতাই হলো বাংলাদেশ দলের নতুন অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের। দেশে যেকোনো সংবাদ সম্মেলনে তার সামনে থাকেন অনেক সাংবাদিক, ডাইসে যেন বুম রাখার জায়গাও পাওয়া যায় না। সেই সাকিবই এবার সিরিজ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে সামনে দেখলেন একটিমাত্র বুম!

অবশ্য অভিজ্ঞতা নতুন হলেও, সম্মেলনের প্রসঙ্গ সেই পুরোনো। ক্রমাগত ব্যর্থতার বৃত্তে ঘুরতে থাকা টাইগাররা কি এবার পারবে ঘুরে দাঁড়াতে? নাকি আবারও একরাশ হতাশা নিয়েই শেষ হবে টেস্ট সিরিজ? যেমনটা হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজে ২০১৮ সালের সফরে।

অধিনায়ক সাকিব অবশ্য সাম্প্রতিক ব্যর্থতাকেই নিচ্ছেন চ্যালেঞ্জ হিসেবে। যেহেতু সবাই ভাবছে, আবারও মুখ থুবড়ে পড়বে বাংলাদেশ তাই সবাইকে ভুল প্রমাণের বড় সুযোগ হিসেবেই দেখছেন তিনি। যা তিনি শুরু করতে বৃহস্পতিবার মাঠে গড়াতে যাওয়া সিরিজের প্রথম ম্যাচ দিয়েই।

বুধবার ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেন, ‘টেস্টে আমরা সাম্প্রতিক সময়ে ভালো খেলছি না। এটা একটা সুযোগ সবাইকে ভুল প্রমাণ করার, আমরা এই টেস্ট ম্যাচটাতে খুব ভালো করে এখান থেকে শুরু করতে পারি পুরো সিরিজের জন্য।’

সিরিজ শুরুর আগে উইন্ডিজে একটি তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যেখানে রান পেয়েছেন তামিম ইকবাল, নাজমুল হোসেন শান্তরা। বোলিংয়ে ভালো করেছেন এবাদত হোসেন, খালেদ আহমেদরা। দলের সঙ্গে থাকায় সাকিব ম্যাচটি খেলতে পারেননি। তবু নিজের প্রস্তুতি নিয়ে চিন্তিত নন টাইগার অধিনায়ক।

সাকিবের ভাষ্য, ‘প্রস্তুতির দিক থেকে আমি ভালো অবস্থায় আছি। ফর্ম নিয়েও খুব একটা চিন্তিত না, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ দুইটা ম্যাচ ভালো খেলেছি। আমি নিজের ফর্ম নিয়ে তাই খুব বেশি চিন্তিত না। এখানে দলের পারফরম্যান্সটাই বেশি জরুরি, যেটা আমরা করতে চাচ্ছি।’

এসময় দলের নতুনদের ওপর নিজের আস্থার কথা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘কয়েকজন নতুন ছেলে আছে। (মাহমুদুল হাসান) জয় আমাদের ওপেনার, নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকায় ও ভালো করেছে। এটা তার জন্য আরেকটা চ্যালেঞ্জ। একই সঙ্গে তার সক্ষমতা আছে বাংলাদেশ ক্রিকেটে ভালো কিছু করার।’

‘(রেজাউর রহমান) রাজা নতুন পেসার, আমরা যার দিকে দেখতে পারি। আরও কয়েকজন ছেলে আছে। মিরাজ দলে ফিরেছে, এটা আমাদের জন্য বড় বুস্ট। (নুরুল হাসান) সোহান আরেকজন, যে আসা যাওয়ার মধ্যে আছে। ঘরোয়া ক্রিকেটে দারুণ ফর্মে আছে, আশা করি সে এটা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এনে বাংলাদেশকে আনন্দ এনে দিতে পারে।’


আরও খবর



পরীক্ষায় চাপাতি নিয়ে প্রবেশ, স্কুলছাত্র বহিষ্কার

প্রকাশিত:Sunday ১২ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
Image

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে পরীক্ষার হলে চাপাতি নিয়ে প্রবেশ করায় অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রকে বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

রোববার (১২ জুন) সকালে উপজেলা সদরের সরকারি এসকে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই বিদ্যালয়ে অর্ধবার্ষিকী পরীক্ষা চলছে। রোববার ছিল অষ্টম শ্রেণির বিশ্বপরিচয় পরীক্ষা। ওই ছাত্র প্যান্টের পকেটে চাপাতি নিয়ে ৫ নম্বর কক্ষে প্রবেশ করে। এ সময় পরীক্ষার কক্ষে দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষিকা আলো রানী পোদ্দারের সন্দেহ হলে তিনি পকেট থেকে চাপাতিটি বের করেন।

ওই শিক্ষিকা বিষয়টি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম খানকে জানান। পরে প্রধান শিক্ষক বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. হাফিজুর রহমানকে জানান। ইউএনও অভিযুক্ত ছাত্রের অভিভাবকের অঙ্গীকারনামা রেখে তাকে বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের নির্দেশ দেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম খান জাগো নিউজকে বলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে অভিযুক্ত ছাত্রের অভিভাবকের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামা নিয়ে তাকে বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।


আরও খবর



সন্ধ্যায় বাসায় ফিরতে পারেন খালেদা জিয়া

প্রকাশিত:Friday ২৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বাসায় ফিরতে পারেন শুক্রবার (২৪ জুন) সন্ধ্যার পর।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন জাগো নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, বিকেলে ম্যাডামের কিছু প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা আছে। তারপরে উনাকে বাসায় নিয়ে যাওয়া হবে। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে ম্যাডামকে বাসায় নেওয়া হতে পারে। মূলত করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে, হাসপাতালে যেহেতু অনেক করোনা পেশেন্ট আসছেন, সেসব কারণে ম্যাডামকে বাসায় নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় গত ১০ জুন দিনগত রাত ৩টা ২০ মিনিটে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে ভর্তি করা হয়। ওইদিন রাত ২টা ৫৫ মিনিটের দিকে তাকে গুলশানের বাসভবন ফিরোজা থেকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরদিন শনিবার দুপুরে জরুরিভিত্তিতে তার এনজিওগ্রাম করা হয়। এতে তার হার্টে বেশ কয়েকটি ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি ব্লক ছিল ৯৫ শতাংশ। সেটিতে রিং পরানো হয়।


আরও খবর



বিমান বাহিনীর বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি শুরু

প্রকাশিত:Monday ২৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
Image

জাতীয় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি-২০২২-এর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী এ বছরও বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

রোববার (২৬ জুন) বিমান বাহিনীর প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল শেখ আব্দুল হান্নান বিমান বাহিনীর সদরদপ্তর প্রাঙ্গণ ও তেজগাঁও রানওয়ের পাশে লেক সংলগ্ন এলাকায় গাছের চারা রোপণের মাধ্যমে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

jagonews24

এতে বলা হয়, ‘বৃক্ষপ্রাণে প্রকৃতি-প্রতিবেশ, আগামী প্রজন্মের টেকসই বাংলাদেশ’ জাতীয় বৃক্ষরোপণ অভিযানের এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী এ বছরের বৃক্ষরোপণ অভিযান কর্মসূচি পালন করছে।

বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে বিমান সদরদপ্তরের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসাররা বিভিন্ন গাছের চারা রোপণ করে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বিমান সদরের পরিচালক এবং ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর বিভিন্ন ঘাঁটি ও ইউনিটসমূহেও একই ধরনের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এ কর্মসূচির আওতায় বিমান বাহিনী বিভিন্ন ধরনের ফলদ, বনজ ও ঔষধি গুণসম্পন্ন গাছের চারা রোপণ করবে।


আরও খবর



তাদের বিরুদ্ধে মানবতা বিরোধী অপরাধ প্রমাণিত হয়েছে

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে নওগাঁর তিন আসামীর মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত:Tuesday ৩১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৯৯জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় নওগাঁর তিন আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।


মঙ্গলবার (৩১ মে) চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল এ রায় দেন।


এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন প্রসিকিউটর আবুল কালাম আজাদ।আসামি পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আব্দুস সাত্তার পালোয়ান।


২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডিতে তদন্ত সংস্থার কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে তাদের বিষয়ে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।


এ মামলায় আসামি ছিলেন চারজন। তারা হলেন- নওগাঁর মো. রেজাউল করিম মন্টু, মো. নজরুল ইসলাম, মো. শহিদ মণ্ডল ও মো. ইসহাক।


তবে এর মধ্যে মো. ইসহাক (৬২) তদন্ত চলার সময়ই গ্রেফতার অবস্থায় মারা যান। এ কারণে অভিযোগ থেকে তাকে বাদ দেওয়া হয়।


বাকি তিনজনের মধ্যে মন্টু ও মণ্ডল কারাবন্দি রয়েছেন। বাকী আসামি নজরুল ইসলাম পলাতক।


২৬ এপ্রিল এ তিনজনের বিষয়ে শুনানি শেষে সিএভি রাখা হয়েছিল।


তদন্ত সংস্থা জানায়, আসামি মো. রেজাউল করিম মন্টু ১৯৮৬ থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত জামায়াতে ইসলামী জয়পুরহাট জেলার আমির ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন। ওই সময় থেকেই তিনি জামায়াতের রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে তিনি নিজ বাড়িতে চলে আসেন এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে অস্বীকার করে পাকিস্তানি দখলদার বাহিনীকে সহযোগিতা করার জন্য সশস্ত্র রাজাকার বাহিনীতে যোগ দেন। ১৬ ডিসেম্বর দেশ স্বাধীন হলে তিনি আত্মগোপন করেন। বাকীরাও জামায়াতের সমর্থক বলে জানানো হয়।


১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে আসামিরা নওগাঁর (সাবেক রাজশাহী জেলার নওগাঁ মহকুমা) বদলগাছী থানায় অপরাধ সংঘটন করে।


আসামিদের বিরুদ্ধে সাতজনকে হত্যাসহ অবৈধভাবে আটক, নির্যাতন, অপহরণ, লুণ্ঠন, অগ্নিসংযোগে ধ্বংস করার অভিযোগ আনা হয়।


আরও খবর