Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

নাসিরনগরে বন্যা ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা

প্রকাশিত:Wednesday ২২ June 20২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৪৭জন দেখেছেন
Image

মোঃ আব্দুল হান্নানঃ নাসিরনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া) সংবাদদাতাঃ-


ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরে বন্যা ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।বন্যার পানির প্রবল স্রোতে উপজেলার বুড়িশ্বর ইউনিয়নের চাঁনপাড়া ও গোর্কণ ইউনিয়নের কুকুরিয়া খালের উপর নির্মিত দুটি ব্রীজ ভেঙ্গে পড়ে গেছে।সোমবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক গোর্কণ ইউনিয়নের কুকুরিয়া ব্রীজটি পরিদর্শন করেছেন।



বন্যার কারণে উপজেলার ৭০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে। পানি পেরিয়ে স্কুলে যাচ্ছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ইকবাল মিয়া জানান,উপজেলায় প্রাথমিকের ১২৬টি বিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে ৭০টির চারপাশে পানি ও কিছু বিদ্যালয়ের ভিতরে পানি ঢুকে পড়েছে। এতে পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে।'


বন্যার কারনে নাসিরনগর সদর,ভলাকুট ও ফন্দাউক ইউনিয়নের তিনটি কমিউনিটি ক্লিনিক পানিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে।৫০ শয্যা বিশিষ্ট নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ অভিজিৎ রায় জানান,বন্যা জরুরী চিকিৎসা সেবা দিতে ১৩ ইউনিয়নের জন্য ১৩ টি মেডিকেল টিম গঠন করেছে।রবিবার সকাল ১১ ঘটিকার সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া ১ সংসদীয় ২৪৩ নাসিরনগর আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য বি,এম,ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম এ মেডিকেল টিমের শূভ উদ্ভোধন করেন।


এদিকে, নাসিরনগরে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে।প্রায় ৩০ কিলোমিটার পাকা-আধপাকা সড়ক তলিয়ে গেছে। বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে জনপদ। এরই মধ্যে প্লাবিত হতে শুরু করেছে উপজেলা সদরসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়ন। সব মিলিয়ে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন লক্ষাধিক মানুষ।


অতি বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পানির কারণে নাসিরনগরে মেঘনা,ধলেশ্বরী ও লঙ্গনের পানি বাড়ছে। এক সপ্তাহে মেঘনাসহ বিভিন্ন নদ-নদীতে পাঁচ ফুট পর্যন্ত পানি বেড়েছে। এতে উপজেলার প্রায় ১০ হাজার হেক্টর আমনের ফসলি জমি, ১ হাজার পাট খেত ও মৌসুমি শাক-সবজি পানির নীচে তলিয়ে গেছে। বন্যাদুর্গত এলাকাগুলোতে গোখাদ্য, বিশুদ্ধ পানি আর শুকনো খাবারের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে।


উপজেলায় প্রতি মুহূর্তেই পানি বাড়ার সাথে সাথে বাড়িঘর-রাস্তাঘাট তলিয়ে যাওয়ার শঙ্কা বাড়ছে। তবে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এখনো পর্যন্ত বন্যা দুর্গতের জন্য কোন ধরণের সহায়তাসহ শুকনো খাবার কিংবা ত্রাণ দেওয়ার বিষয়ে কোন আশ্বাস দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন বন্যা দুর্গতরা উপজেলার বুড়িশ্বর, গোয়ালনগর, ধরমন্ডল, গোকর্ণ, ভলাকুট, সদর ও চাপড়তলা ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে, ওই সব ইউনিয়নের নিচু এলাকার প্রায় ৮০ ভাগ বসতভিটায় পানি ঢুকে পড়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন স্থানীয়রা।


কিছু কিছু এলাকায় বাজারে পানি আসায় বন্ধ রয়েছে দোকানঘর। এরই মধ্যে উপজেলার বেশ কয়েকটি বন্যা আশ্রয়ণ কেন্দ্র আশ্রয় নিয়েছে শতাধিক মানুষ। বুড়িশ্বর ইউনিয়নের শ্রীঘর এসএসডিপি উচ্চ বিদ্যালয়ে আশ্রয় নিয়েছে প্রায় অর্ধশতাধিক পরিবার। তাদের অভিযোগ, এই পর্যন্ত সরকারিভাবে তেমন কোন সহায়তা আসেনি। 


নাসিরনগর উপজেলার  কুন্ডা ইউনিয়নের বেরুইন গ্রামের সড়কে পানি উঠে যাওয়ার কারনে জনগনের চলাচল সহ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে দশ গ্রামের জনগণের।


গোয়ালনগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আজহারুল হক বলেন, আমার ইউনিয়নটি হাওরের মধ্যে। চারদিকে পানি আর পানি। হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। পানি না কমলে মানুষের দুর্ভোগ আরো বাড়বে। আমার এলাকার সকল স্কুলকে আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করার জন্য ইতি মধ্যে বলা হয়েছে।


নাসিরনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মোনাব্বর হোসেন বলেন, আমরা বন্যাকবলিত এলাকায় পরিদর্শনে যাচ্ছি। মানুষের পাশে আছি। উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতার কোন কমতি নেই।


আরও খবর



মোনার্ক মার্টে একাধিক চাকরির সুযোগ

প্রকাশিত:Sunday ১২ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
Image

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান মোনার্ক মার্টে ‘ম্যানেজার/অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার/সিনিয়র এক্সিকিউটিভ’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ০৭ জুলাই পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: মোনার্ক মার্ট
বিভাগের নাম: বিজনেস ডেভেলপমেন্ট

পদের নাম: ম্যানেজার/অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার/সিনিয়র এক্সিকিউটিভ
পদসংখ্যা: ০৩ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতকোত্তর
অভিজ্ঞতা: ০৩-০৬ বছর
বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে

চাকরির ধরন: ফুল টাইম
প্রার্থীর ধরন: নারী-পুরুষ
বয়স: ২৫-৩২ বছর
কর্মস্থল: ঢাকা (মতিঝিল)

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহীরা jobs.bdjobs.com এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ০৭ জুলাই ২০২২

সূত্র: বিডিজবস ডটকম


আরও খবর



‘হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় ২৪ জনের মধ্যে শুধু আমিই বেঁচে আছি’

প্রকাশিত:Saturday ১১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ২৪ June ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
Image

১৯৬৬ সালে একবার হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় পড়েছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। ওই হেলিকপ্টারে চালকসহ মোট ২৪ জন ছিলেন। এর মধ্যে দুর্ঘটনায় ২৩ জনই মারা গিয়েছিলেন। ওই দুর্ঘটনার স্মৃতিচারণ করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, দুর্ঘটনায় একমাত্র আমি বেঁচে ছিলাম। আমি তখন শুধু আল্লাহকে ডাকছিলাম আর মায়ের কথা ভাবছিলাম।

শনিবার (১১ জুন) রাজধানীর হোটেল লেকশোরে ন্যাশনাল পলিসি ডায়লগে অংশ নিয়ে মন্ত্রী এই স্মৃতিচারণ করেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, সেদিন ছিল বুধবার, ১৯৬৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের দুই তারিখ। আমেরিকার সাহায্য সংস্থা কেয়ারের ঢাকা অফিসে চাকরি করতাম তখন। আমাকে ফরিদপুর ও কুষ্টিয়া পাঠানো হলো। পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স তখন কিছু হেলিকপ্টার সার্ভিস চালু করেছিল, যা তৎকালীন পূর্ব-পাকিস্তানের কিছু অঞ্চলে যাত্রী পরিবহন করতো। দুপুর দুইটা নাগাদ কুষ্টিয়ার উদ্দেশ্যে যাওয়ার জন্য হেলিকপ্টারে উঠি। ওই হেলিকপ্টারটিতে সব মিলিয়ে ২৪ জন ছিল। হেলিকপ্টারটি ঢাকা থেকে প্রথমে ফরিদপুর হয়ে পরে কুষ্টিয়া যাওয়ার কথা ছিল। ফরিদপুরের কাছাকাছি যখন হেলিকপ্টারটি পৌঁছায় তখন ওপর থেকে বিকট শব্দ শোনা যাচ্ছিল।

তিনি বলেন, মুহূর্তের মধ্যেই হেলিকপ্টারটি ঘুরতে-ঘুরতে মাটিতে পড়ে যায়। আমি তখন শুধু আল্লাহকে ডাকছিলাম আর মায়ের কথা ভাবছিলাম। মাটিতে পড়ার পর ওই হেলিকপ্টারের মধ্যে প্রচণ্ড ধোঁয়ার সৃষ্টি হয়। প্রাণপণ চেষ্টা বেঁচে আছি। এই জীবনে চাওয়া-পাওয়ার কিছু নাই। মানুষের জন্য কাজ করতে চাই।

রাজনৈতিক জীবনের কথা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, আসি গ্রামের ছেলে, নিম্ন আয়ের পরিবার থেকে উঠে এসেছি। জীবনের তাগিদে ব্যবসা করেছি, চাকরি করেছি। গ্রামের মানুষের কষ্টের কথা বুঝি, হাওরের সন্তান হিসেবে এই অঞ্চলের মানুষের কষ্ট আমাকে পীড়া দেয়। এর পরে জনগণের কল্যাণে গ্রামে ভোট চাইতে গেলাম। আমি বড় পরিবারের সন্তান নই। ছাত্রলীগ-যুবলীগ কেউ আমাকে তখন চেনে না। আমি সবাইকে বললাম আমাকে ভোট দেন ভাগবাঁটোয়ারা করে কিছু করবো না। আপনাদের কল্যাণে কাজ করবো। সবাই আমাকে বিশ্বাস করলো। পরপর তিনবার বিজয়ী হয়েছি। গ্রামের মানুষের কল্যাণে কাজ করেছি।

গ্রামের মানুষের চাওয়া-পাওয়া তুলে ধরে এম এ মান্নান বলেন, গ্রামের মানুষ ধন-সম্পদ চায় না। গ্রামের মানুষ সুপেয় পানি চায়, আলো চায়, স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন চায়, গ্রামের মানুষ সড়ক চায়। আমি কথা রেখেছি, এসব কিছু গ্রামের মানুষের জন্য করেছি। আর এটা সম্ভব হয়েছে বর্তমানে জনবান্ধব আওয়ামী লীগ সরকার থাকার কারণে।

তিনি বলেন, হাওরের মানুষকে দুই হাত ভরে আশীর্বাদ দিয়েছেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী, যার সঙ্গে আমরাও দৌড়াচ্ছি। আমরা দেশের কল্যাণের জন্য দৌড়াচ্ছি, আমরা দারিদ্র্য তাড়ানোর জন্য দৌড়াচ্ছি। আমরা ক্ষুধা দূর করার জন্য দৌড়াচ্ছি, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার জন্য দৌড়াচ্ছি।

ন্যাশনাল পলিসি ডায়লগে তথ্য কমিশনার সুরাইয়া বেগম, এশিয়ান ফাউন্ডেশনের কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ কাজী ফয়সাল বিন সিরাজ প্রমুখ অংশ নেন।


আরও খবর



‘ডেইরি আইকন-২০২১’ নির্বাচিত এমজিআইয়ের ইউনাইটেড ফিডস

প্রকাশিত:Sunday ০৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
Image

 

মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ (এমজিআই)-এর অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ইউনাইটেড ফিডস্ লিমিটেড, ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে দেশের অভ্যন্তরীণ ফিডসের চাহিদার একটি বড় অংশ পূরণ করে পোলট্রি ও ফিশারিজ শিল্পের বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। আধুনিক প্রযুক্তিতে প্রস্তুতকৃত, ইউনাইটেড ফিডস্ লিমিটেডের উন্নত মানের ‘ফ্রেশ ফিড’, খামারিদের কাছে বর্তমানে বেশ সমাদৃত একটি নাম।

সাফল্যের এই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সরকারের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘বিশ্ব দুগ্ধ দিবস ২০২২ উদযাপন ও ডেইরি আইকন সেলিব্রেশন’ অনুষ্ঠানে, ‘পশু খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ’ ক্যাটাগরি-তে ‘ডেইরি আইকন-২০২১’ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে ইউনাইটেড ফিডস্ লিমিটেড।

বুধবার, (১ জুন) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (কেআইবি) মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে এই স্বীকৃতির ক্রেস্ট ও সম্মাননা দেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। এমজিআইয়ের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোস্তফা কামালের পক্ষে এই ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র গ্রহণ করেন ডিরেক্টর ব্যারিস্টার তাসনিম মোস্তফা।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী। প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মনজুর মোহাম্মদ শাহজাদা-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতিসংঘের ফুড ও এগ্রিকালচার অর্গানাইজেশন (এফএও)-এর বাংলাদেশ প্রতিনিধি রবার্ট ডি. সিম্পসন, বিশ্বব্যাংক-এর সিনিয়র এগ্রিকালচার স্পেশালিস্ট ক্রিশ্চিয়ান বার্জার, প্রাণিসম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্পের পরিচালক মো. আব্দুর রহিম এবং চিফ টেকনিক্যাল কো-অর্ডিনেটর ড. মো. গোলাম রব্বানী।

ইউনাইটেড ফিডস্ লিমিটেডের পক্ষে এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মো. হারুন অর রশিদ ও এজিএম (নিউট্রিশান অ্যান্ড কিউসি) ড. মো. মিজানুর রহমান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সর্বোচ্চ মানের পণ্য সরবরাহ অব্যাহত রেখে, দেশের আর্থ-সামাজিক অগ্রগতিতে অবদান রাখতে এমজিআই নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের এই স্বীকৃতি, এমজিআই-এর সেই নিরলস প্রচেষ্টারই ফল। ‘ডেইরি আইকন-২০২১’-এর এই স্বীকৃতিতে ইউনাইটেড ফিডস্ লিমিটেড সত্যিই গর্বিত। এই অর্জনে উদ্বুদ্ধ হয়ে ইউনাইটেড ফিডস্ লিমিটেড ভবিষ্যতে দেশের পোলট্রি ও ফিশারিজ শিল্পের সাফল্যে আরও অবদান রাখার ব্যাপারে অত্যন্ত আশাবাদী।


আরও খবর



বিদ্যালয় মাঠ রক্ষায় সাবেক-বর্তমান শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

প্রকাশিত:Tuesday ১৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪২জন দেখেছেন
Image

লক্ষ্মীপুরে মান্দারী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন সাবেক-বর্তমান শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। মঙ্গলবার (১৪ জুন) দুপুরে বিদ্যালয়ের সামনে ঘণ্টাব্যাপী হওয়া এ মানববন্ধনে জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাও উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় বক্তব্য দেন- মান্দারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সৌরভ হোসেন রুবেল পাটওয়ারী, চন্দ্রগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক আবু তালেব, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠক রাসেল আহমেদ, আমজাদ হোসেন, শেখ ফজলুল হক মনি, বাপন চন্দ্র দাস, শওকত পাটোয়ারী ও শাহরিয়ার অন্তর।

বক্তারা বলেন, বিদ্যালয়ের মাঠটি এ অঞ্চলের শিক্ষার্থী ও ক্রীড়াপ্রেমীদের খেলাধুলার অন্যতম স্থান। কিন্তু বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষকদের গাফিলতির কারণে দিন দিন মাঠটি ছোট হয়ে যাচ্ছে। বিদ্যালয়ে নতুন ভবন হবে, কিন্তু মাঠ দখল করে নয়।

jagonews24

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন জাগো নিউজকে বলেন, নতুন ভবন নির্মাণে মাঠের কোনো সমস্যা হবে না। অযথা সাবেক শিক্ষার্থীরা ভবনের কাজ বন্ধ রাখতে আন্দোলন করছে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মিজানুর রহিম জাগো নিউজকে বলেন, ‘ভবনটি হলেও বিদ্যালয়ের মাঝখানে মাঠ থাকবে। পরিচালনা কমিটির সদস্য ও শিক্ষকদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভবন নির্মাণ কাজ শুরু হয়। এখানে কারও ব্যক্তি স্বার্থ নেই।’

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমরান হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, একটি অভিযোগের ভিত্তিতে জেলা প্রশাসক বিষয়টি খতিয়ে দেখতে আমাকে দায়িত্ব দেন। সাময়িকভাবে কাজটি বন্ধ রাখতে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট শিক্ষা কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



তীব্র গরমে পশ্চিমবঙ্গের স্কুলগুলোতে ছুটি বাড়লো ১১ দিন

প্রকাশিত:Monday ১৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬৫জন দেখেছেন
Image

পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় তীব্র দাবদাহ অব্যাহত থাকায় স্কুলগুলোতে গ্রীষ্মের ছুটি বাড়ানো হয়েছে। রাজ্যের সরকারি ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত সব স্কুলে আগামী ২৬ জুন পর্যন্ত ছুটি থাকবে। সোমবার (১৩ জুন) রাজ্যের স্কুল শিক্ষা দপ্তর থেকে জারি করা এক নির্দেশিকায় এ কথা জানানো হয়েছে।

সম্প্রতি তীব্র গরম ও আর্দ্রতাজনিত কারণে রাজ্যে একাধিক মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ অবস্থায় শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার দিকে লক্ষ্য রেখে ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে শিক্ষা দপ্তর। বেসরকারি স্কুলগুলোকেও ছুটি বাড়ানোর অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এর আগে, তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে রাজ্য সরকার স্কুলগুলোতে ৪৫ দিনের ছুটি ঘোষণা করে, যার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা আগামী বুধবার (১৫ জুন)।

জানা যায়, গত রোববার পানিহাটিতে দই-চিড়ার মেলায় তীব্র গরমে তিনজন প্রাণ হারান। অসুস্থ হয়ে পড়েন আরও অনেকে। এর পরপরই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী শিশুদের কথা চিন্তা করে শিক্ষামন্ত্রীকে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন। তার পরিপ্রেক্ষিতে স্কুলের ছুটি বাড়ানোর ঘোষণা দিলো শিক্ষা দপ্তর।


আরও খবর