Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

নাসিরনগরে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরোদ্ধে বিস্ফোরক আইনে দুই মামলা

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৪৪৭জন দেখেছেন

Image

আব্দুল হান্নান, নাসিরনগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃজেলার নাসিরনগর উপজেলা বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন নেতাকর্মীর বিরোদ্ধে পুলিশের করাতব্য কাজে বাধা ও বিস্ফোরক আইনে  দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।২৮ অক্টোবর ঢাকার পল্টন ময়দানে বিএনপির  মহা সমাবেশের জ্বালাও পোড়াও ভাংচুরেন ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২৯ অক্টোবর ভোর রাতে  সদর ইউনিয়নের কুলিকুন্ডা মোড়ের এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি ও অন্য জায়গা আরো একটি ঘটনার কারনে পুলিশের দুই এস আই বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা করেছে বলে পুলিশ সুত্রে জানা গেছে।নাসিরনগর থানার মামলা নং ১৩/১৩৭ একটি মামলায় পুলিশের এস আই লিটন ঘোষ ও ২/১৩৯ নং মামলায় এস আই রূপন দেবনাথকে বাদী করা হয়েছে।

এক মামলায় ৩৪ জন অজ্ঞাতনামা আরো ১২০ জন আর অন্য মামলায় ৩৮ জনকে আসামী করা হয়েছে।এক মামলায় ঘটনার তারিখ ২৯ অক্টোবর ও অন্য মামলায় ২ নভেম্ভর উল্লেখ করা হয়েছে। মামলা দুটিতে  বলা হয়েছে পুলিশের সরকারী ও কর্তব্য কাজে বাধা,পুলিশকে হত্যার উদ্দেশ্যে গুরুতর জখম,বিস্ফোরক দ্রব্য বহন ও বিস্ফোরনের ঘটনায় এ মামলা  দুটি রুজু করা হয়েছে।মামলায় বেশ কয়েকজন পুলিশ  অফিসার ও সদস্যদের আহত দেখানো হয়েছে। মামলায় আসামী করা হয়েছে বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও বিশিষ্ট শিল্পপতি এস এ কে একরামুজ্জামান সুখন,উপজেলা বিএনপির সভাপতি এম এ হান্নান,সাধারণ সম্পাদক বশীর উদ্দিন তুহিন,সাংগঠনিক সম্পাদক এডঃ আলী আজম চৌধুরী,সাবেক উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও বুড়িশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল চৌধুরী ও স্বেচ্চাসেবক দলের সভাপতি মোঃ এনামুল হুদা সুমন সহ যুবদল,ছাত্রদল,কৃষকদল,স্বেচ্চাসেবক দল, তাতী দলের ও অনেক নেতাকর্মীকে।ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ।বর্তমানে নেতাদের বাড়িতে চলছে পুলিশের চিরুনী অভিযান।

পুলিশের ভয়ে অনেকে নেতাকর্মীরাই বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।সব মিলিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝে এখন বিরাজ করছে গ্রেপ্তারাতংক।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



নওগাঁয় আগুনে দোকান পুড়ে ছাই

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image
নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি:নওগাঁর সদর উপজেলার চকরামপুর মার্কাজ মসজিদের সামনে মৃত আহমদ সরদারের ছেলে মো: আরমান সরদার এর মুদি ও চা এর দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।শুক্রবার (৫ জুলাই) রাত ১ টা ৩০ মিনিটের দিকে চকরামপুর এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ আগুনের সূত্রপাত হয়। এতে দোকানে থাকা মালামাল ও একটি ফ্রিজ সহ সকল ধরনের পণ্য সহ নগদ ১০ হাজার টাকা পুঁড়ে ছাই হয়েছে। 
মো: আরমান সরদার বলেন, আমি গরিব মানুষ আমার সম্বল বলতেই এই দোকান, দোকানের সকল প্রকার মালামাল ও টাকা পুড়ে ছাই হয়েছে, আমি এখন কি করবো কোথায় যাব পরিবারকে কি খাওয়াবো ভেবে পাচ্ছিনা। এখন যে করেই হোক আবার নতুন করে দোকান শুরু করতে হবে। 

নওগাঁ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের টিম লিডার কাশেম বলেন, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আমাদের টিম এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে এনেছে ।  ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে।

আরও খবর



উলিপুরে ২ হাজার ৮০০ কেজি কোরবানির মাংস বিতারণ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১৪৭জন দেখেছেন

Image
সহিদুল আলম বাবুল, কুড়িগ্রাম ব্যুরো:কুড়িগ্রামের উলিপুরে অসহায় ১৪ শত পরিবারের মাঝে ২ হাজার ৮০০ কেজি কুরবানির মাংস বিতরণ করা হয়েছে। আন্তজাতিক সংস্থা ইসলামিক রিলিফ নাংলাদেশ উলিপুর ফিল্ড অফিসের আয়োজনে এ মাংস বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার হাতিয়া, বুড়াবুড়ী, ধরনীবাড়ী, পান্ডুল এবং দুর্গাপুর ইউনিয়নের মোট ১হাজার ৪০০ অসহায় পরিবারের মাঝে পরিবার প্রতি ২কেজি করে কোরবানির মাংস বিতারণ করা হয়।

কোরবানির মাংস বিতরণের সময় সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যগন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং ইসলামি রিলিফ বাংলাদেশ উলিপুর অফিসের প্রতিনিধি প্রজেক্ট ম্যানেজার মোঃ শরিফুল ইসলাম, সহকারি প্রজেক্ট অফিসার মোঃ হাবিবুর রহমান ও মোঃ আব্দুস সালাম কুরবানীর মাংস বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন।ইসলামী রিলিফ বাংলাদেশ ইতোপূর্বেও এ অঞ্চল গুলোতে কুরবানীর মাংস বিতরণ করে আসছে lইসলামী দিলীপ বাংলাদেশের এই মহতী উদ্যোগকে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, ইসলামী রিলিক বাংলাদেশের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকুক।

আরও খবর



বেনজীর ও মতিউর পরিবারের সম্পদ বিবরণী চেয়ে দুদকের নোটিশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ জুলাই 2০২4 | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১২১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ ও তার পরিবার এবং ছাগলকাণ্ডে আলোচিত জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অপসারিত সদস্য মো. মতিউর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের সম্পদের বিবরণ জমা দিতে নোটিশ দিয়েছে ।

মঙ্গলবার (২ জুলাই) দুদক সচিব খোরশেদা ইয়াসমীন সাংবাদিকদের এ কথা জানান। তিনি বলেন, জব্দ হওয়া সম্পদের বাইরে এই দুই পরিবারের সদস্যদের আর কোনো সম্পদ আছে কি না, তা জানতে নোটিশ জারি করা হয়েছে।

দুদক সচিব বলেন, দুদকের প্রাথমিক অনুসন্ধানে স্থির বিশ্বাস জন্মেছে-বেনজীর আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যরা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত স্বনামে-বেনামে বিপুল পরিমাণ সম্পদের মালিক হয়েছেন। তার নিজে ও তার ওপর নির্ভরশীল ব্যক্তির নামে-বেনামে অর্জিত যাবতীয় স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ, দায়দেনা, আয়ের উৎস ও তা অর্জনের বিস্তারিত বিবরণী কমিশনে দাখিল করতে নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

বেনজীর আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে সম্প্রতি দুর্নীতি ও অনিয়মের মাধ্যমে বিপুল সম্পদের মালিক হওয়ার অভিযোগ ওঠে। এরপর তাদের জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অনুসন্ধান শুরু করে দুদক।

সংস্থাটি এখন পর্যন্ত বেনজীর ও তার পরিবারের নামে ৬৯৭ বিঘা জমি, ১৯টি কোম্পানির শেয়ার, ঢাকায় ১২টি ফ্ল্যাট, ৩০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র, ৩৩টি ব্যাংক হিসাব ও তিনটি বিও হিসাব (শেয়ার ব্যবসার বেনিফিশিয়ারি ওনার্স অ্যাকাউন্ট) খুঁজে পেয়েছে। আদালতের আদেশে এসব সম্পদ জব্দ ও অবরুদ্ধ করা হয়েছে। বেনজীর আহমেদ ৪ মে সপরিবার দেশ ছাড়েন।

ছাগল-কাণ্ডে আলোচিত অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সংযুক্ত কর্মকর্তা মতিউর রহমান, তার প্রথম স্ত্রী নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার চেয়ারম্যান লায়লা কানিজ, প্রথম পক্ষের সন্তান আহমেদ তৌফিকুর রহমান (অর্ণব) ও ফারজানা রহমান (ঈপ্সিতা) এবং দ্বিতীয় স্ত্রী শাম্মী আখতারের (শিবলী) সম্পদ বিবরণী দাখিলের নোটিশ জারির কথা জানান দুদক সচিব খোরশেদা ইয়াসমীন।

দুদক সচিব বলেন, প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে অনুসন্ধান করে দুদকের স্থির বিশ্বাস জন্মেছে, মতিউর রহমানের জ্ঞাত আয়বহির্ভূত স্বনামে-বেনামে বিপুল পরিমাণ সম্পদ-সম্পত্তির মালিক হয়েছেন। নিজ ও আপনাদের ওপর নির্ভরশীল ব্যক্তির নামে-বেনামে অর্জিত যাবতীয় স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ, দায়-দেনা, আয়ের উৎস ও তা অর্জনের বিস্তারিত বিবরণী কমিশনে দাখিল করবেন।

এর আগে গত ৩০ জুন দুদক সূত্রে জানা যায়, মতিউর ও তার পরিবারের সদস্যদের সম্পদের তথ্য চেয়ে এনবিআর, বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ), নিবন্ধন অধিদপ্তর, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি), বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ এবং যৌথ মূলধন কোম্পানি ও ফার্মগুলোর পরিদপ্তরে চিঠি দিয়েছে দুদক।

মতিউর ও তার স্বজনদের নামে অন্তত ৬৫ বিঘা (২ হাজার ১৪৫ শতাংশ) জমি, আটটি ফ্ল্যাট, দুটি রিসোর্ট ও পিকনিক স্পট এবং তিনটি শিল্পপ্রতিষ্ঠানের তথ্য পাওয়া গেছে।

এর মধ্যে তার প্রথম স্ত্রী লায়লা কানিজের নামে ঢাকা, গাজীপুর, নরসিংদী, যশোর ও নাটোরে মোট ৮৪৮ দশমিক ৩৩ শতাংশ (২৫ দশমিক ৭০ বিঘা) জমি রয়েছে। আর ঢাকায় তাঁর নামে ফ্ল্যাট রয়েছে অন্তত চারটি।২০২৩-২৪ করবর্ষের আয়কর বিবরণীতে লায়লা কানিজ তার মোট সম্পদ দেখিয়েছেন ১০ কোটি ৩০ লাখ ৫১ হাজার টাকা।

মতিউর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে থাকা ব্যাংক হিসাব, মুঠোফোনে আর্থিক সেবার (এমএফএস) হিসাব ও শেয়ারবাজারের বেনিফিশিয়ারি ওনার্স (বিও) হিসাব জব্দ করা হয়েছে। ২৪ জুন মতিউর ও তাঁর প্রথম পক্ষের স্ত্রী ও সন্তানের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা দেন আদালত।


আরও খবর



ঢাকায় পুলিশের বড় পদে বদলি

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১১৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:উপপুলিশ কমিশনার পদমর্যাদার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের বড় পদের তিন কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক আদেশে এই বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়।বদলিকৃতদের অবিলম্বে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেওয়া হয় একই আদেশে।

এর আগে রোববার (৭ জুলাই) র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) চার পরিচালকসহ পাঁচ কর্মকর্তাকে বদলি করে নতুন দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

র‌্যাবের মহাপরিচালক ব্যারিস্টার হারুন অর রশিদ স্বাক্ষরিত এক আদেশে এ বদলি করা হয়।

আদেশে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার আরাফাত ইসলামকে র‌্যাব-৮-এর অধিনায়ক, র‌্যাব-৪-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আবদুর রহমানকে র‌্যাব সদর দপ্তরের অপারেন্স উইংয়ের পরিচালক, র‌্যাব-৮-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল কাজী যুবায়ের আলম শোভনকে র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক হিসেবে বদলি হয়েছে।

এ ছাড়া র‌্যাব-৫-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মুনীম ফেরদৌসকে লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক এবং র‌্যাব-৩-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল ফিরোজ কবীরকে র‌্যাব-৫ এর অধিনায়ক হিসেবে বদলি হয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৮৫জন দেখেছেন

Image

নওগাঁ প্রতিনিধি:নওগাঁর মহাদেবপুরে ভুটভুটির সাথে ধাক্কা খেয়ে সিমুল হোসেন (৩২) নামের এক মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (৩ জুলাই) বিকাল পৌনে ৬ টার দিকে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত সিমুল হোসেন নওগাঁ সদর উপজেলার মধ্য দূর্গাপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ বিকাল পৌনে ৬ টার দিকে নিহত সিমুল হোসেন মোটরসাইকেল নিয়ে নওগাঁ থেকে নওহাটা মোড়ে আসছিলেন। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ভুটভুটির সাথে ধাক্কা খেয়ে রাস্তায় পড়ে গেলে ভুটভুটির চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই তাঁর মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু হয়।  স্থানীয়রা নওহাটা মোড় ফাঁড়ি পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করে।

মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রুহুল আমিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় আইনগত প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

আরও খবর