Logo
আজঃ Monday ২৭ June ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা নাসিরনগরে মুক্তিযোদ্বাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন পদ্মা সেতু দেখানোর কথা বলে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ জুরাইনে পাশের বাড়ির উপড় ধসে পড়েছে সেই ঝুকিপুর্ন ভবনটি

নাসিরনগর সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ে শিক্ষার বেহালদশা -দেখার কেউ নেই!

প্রকাশিত:Wednesday ০২ February 2০২2 | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৯১জন দেখেছেন
Image


মোঃ আব্দুল হান্নানঃ

মেয়েদের জন্য একমাত্র অর্ধশত বছরের পুরোনো বিদ্যাপীট ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলা সদরে অবস্থিত  সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ যেন বেহাল দশা বিরাজ করছে।বিদ্যালয়ের ২৭ পদের মাঝে ২২ টি পদ দীর্ঘদিন ধরে শুন্য রয়েছে।একজন কৃষি ডিপ্লোমাধারী শিক্ষক দীর্ঘদিন যাবৎ প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করছে। যে কারনে ছাত্রীরা অত্র সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ে ভর্তি ও লেখাপড়ার প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে।প্রধান শিক্ষক ও সহকারী প্রধান শিক্ষকের পদ দুটিও দীর্ঘদিন ধরে শুন্য রয়েছে।তা যেন দেখার কেউ নেই!অর্ধশত বছরের পুরোনো এ বিদ্যালটিতে বিরাজ করছে ঝরাজীর্ণতা।


১৯৭০ সালে প্রতিষ্টিত বিদ্যালয়টি ১৯৮৭ সালে সরকারী করন হয়।বর্তমানে অত্র বিদ্যালয়টিতে ৩৭০ জন ছাত্রী অধ্যয়নরত রয়েছে।নবম ও দশম শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগে  পাঁচ ছয়জন করে ছাত্রী থাকলেও বাণিজ্য বিভাগে কোন শিক্ষক না থাকায় কোন ছাত্রীও নেই বলে বিদ্যালয় সুত্রে জানা গেছে।


স্থানীয় এলাকাবাসীরা জানায়,নারী শিক্ষা প্রসারে উপজেলায় বিদ্যালয়টি প্রতিষ্টিত হলেও শিক্ষক সংকটের কারনে এই বিদ্যালয়ে ছাত্রীরা ভর্তিতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে।যে কারনে নারী শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে হতদরিদ্র পরিবারের মেয়েরাও।


বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ ইয়ার খাঁন বলেন,শিক্ষক সংকটের কারনে বিদ্যালয়টি চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।তিনি বলেন সমস্ত বিষয়গুলো উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

শিক্ষক নিয়োগের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে দাবী করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষাকর্মকর্তা মোঃ আজহারুল ইসলাম ভূইয়া।


বিষয়টি সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে,তবে ক্লাস চলমান রাখার জন্য ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসুচী থেকে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে জানান,নাসিরসগর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা হালিমা খাতুন।


আরও খবর



ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা তরুণীকে অপহরণ করে গর্ভপাত, যুবক কারাগারে

প্রকাশিত:Sunday ১২ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৭৬জন দেখেছেন
Image

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে এক প্রতিবন্ধী তরুণী (১৮) ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এই ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে অন্তঃসত্ত্বা তরুণীকে অপহরণের পর গর্ভপাত করানোর অভিযোগে খাইরুল ইসলাম (২২) নামে এক যুবককে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

অভিযুক্ত খাইরুল উপজেলার রামগোপালপুর ইউনিয়নের মাহতাব উদ্দিনের ছেলে।

রোববার (১২ জুন) বিকেলে ময়মনসিংহ সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক রাজিব আহমেদ তালুকদার এ আদেশ দেন।

আদালতের পুলিশ পরিদর্শক প্রসুন কান্তি দাস জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গৌরীপুর থানা পুলিশ অভিযুক্ত খাইরুল ইসলামকে আদালতে তুললে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে শনিবার (১১ জুন) রাতে ভুক্তভোগী তরুণীর মা বাদী হয়ে মো. খাইরুল ইসলাম, তার মা মদিনা আক্তার এবং চাচা আসাদুজ্জামানসহ মোট চারজনকে আসামি করে গৌরীপুর থানায় মামলা করেন। পরে ওই রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে তরুণীকে উদ্ধার করে খাইরুলকে গ্রেফতার করে। অন্য অভিযানে র্যাব-১৪ খাইরুলের চাচা আসাদুজ্জামানকে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী জাগো নিউজকে বলেন, মামলার পর রাতেই অভিযান চালিয়ে ভুক্তভোগী তরুণীকে উদ্ধার করে প্রধান আসামি খাইরুলকে গ্রেফতার করা হয়। রোববার সকালে খাইরুলকে আদালতে ও তরুণীতে ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

মামলার নথির বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ভুক্তভোগী তরুণী প্রতিবন্ধী। আনুমানিক সাত থেকে আট মাস আগে খাইরুল তাকে ধর্ষণ করে। সম্প্রতি তরুণী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে। এমতাবস্থায় বিষয়টি ধামাচাপা দিতে গত ২৭ মে মধ্যরাতে খাইরুল ও সোহেল বাড়িতে ডুকে ভুক্তভোগীসহ তার মাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। কিন্তু ওই তরুণীকে আটকে রেখে তার মাকে ছেড়ে দেয়। পরদিন বিভিন্ন জায়গায় খুঁজে তরুণীকে না পেয়ে খাইরুলের মা-বাবাকে বিষয়টি জানালেও কোনো সুরাহা হয়নি। এরপর থেকে খাইরুল ও তরুণী নিখোঁজ ছিল। এমতাবস্থায় শনিবার (১১ জুন) ওই তরুণীর মা র্যাব-১৪ অফিসে গিয়ে যোগাযোগ করে। পরে র্যাবের পরামর্শে তরুণীর মা গৌরীপুর থানায় মামলা করে।

ওসি আরও বলেন, গ্রেফতার খাইরুল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং গত ১ জুন তরুণীকে কোর্ট ম্যারেজ করেছে বলে জানায়।

এ বিষয়ে র্যাব-১৪ এর এএসপি বেলায়েত হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, গত রাতেই অভিযান চালিয়ে খাইরুলের চাচা আসাদুজ্জামানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

ঘটনার বিষয়ে ভুক্তভোগী তরুণী বলেন, খাইরুল আমাকে ও মাকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে একদিন আটকে রাখে। পরদিন আমাকে বিয়ে করবে বলে ময়মনসিংহের একটি হাসপাতালে নিয়ে গর্ভপাত করায়। এর পরদিন আমাকে বিয়ে করে।

এ বিষয়ে তরুণীর মা বলেন, আমার মেয়ে কিছুটা বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী। এই সুযোগে খাইরুল সাত থেকে আট মাস আগে তাকে ধর্ষণ করে। কিন্তু মেয়ে আমার কাছে কিছু বলেনি। সম্প্রতি তার শারীরিক পরিবর্তন হলে গর্ভবতী হওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে। এই বিষয়টি ধামাচাপা দিতে খাইরুল গত মাসের ২৭ তারিখে আমাকেসহ মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে গর্ভপাত করায়। এর ১৭ দিন পরে আমার মেয়েকে পুলিশ ও র্যাব উদ্ধার করে। খাইরুলসহ এই ঘটনায় জড়িত সবার শাস্তি চাই।


আরও খবর



৬ দফা খুব কম সময়ে জনপ্রিয়তা পায়: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ২৫ June ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
Image

পৃথিবীতে এমন কোনো দাবি পাওয়া যাবে না যেটা ছয় দফার মতো কম সময়ে জনপ্রিয়তা পেতে পারে বলে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (৭ জুন) বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয়ে ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বিশেষ আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে সভায় যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ছয় দফা নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেন। কে প্রণয়ন করেছে, কোথা থেকে প্রণয়ন হয়েছে? ৫৮ সালে জাতির পিতা মার্শাল হওয়ার পর গ্রেফতার হন। পরে একের পর এক মামলা হয়। ৬৯ সালে মুক্তি পান। কিন্তু রাজনীতি নিষিদ্ধ ছিল তার। পরে তিনি আলফা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে চাকরি নেন। সেখানে মোহাম্মদ হানিফকে (প্রয়াত ঢাকার মেয়র) তার পিএ হিসেবে নেন।

বঙ্গবন্ধু নিজে বলতেন, মোহাম্মদ হানিফ ইংরেজি ও বাংলা টাইপ করতেন। লাহোরে যখন ছয় দফা পেশ করতে যান, পশ্চিমবঙ্গের নেতারা অনেকে বাধা দিয়েছে। কিছু দালাল বাঙালিও এটা দিতে দেয়নি। পরে তিনি এটা প্রেসে প্রকাশ করে দেন, যার কারণে তার জীবনে হুমকিও আসে। পরে দেশে এসেও প্রেস কনফারেন্সে বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিয়ে ছয় দফা উপস্থাপন করেন।

তিনি বলেন, আমার মনে হয়, পৃথিবীতে এমন কোনো দাবি পাওয়া যাবে না, যেটা ছয় দফার মতো কম সময়ে জনপ্রিয়তা পেতে পারে। বঙ্গবন্ধু এই ছয় দফা নিয়ে ৩২ দিনের মধ্যে পুরো বাংলাদেশের প্রত্যেকটা অঞ্চল সফর করেন। তৎকালীন ১৯টা জেলা এবং বিভিন্ন মহকুমায় নিজে সফর করেন। ৩৫ স্পটে নিজে বক্তব্য দিয়েছেন। যেখানে দলের সম্মেলন হয়নি, সম্মেলনও করেন।

তিনি আরও বলেন, স্বাধীনতার বার্তা তিনি সেখান থেকেই পৌঁছে দেন কৌশলে। হঠাৎ করেই বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার কথা বলেননি। তিনি বাঙালিদের প্রস্তুত করেছেন। সংগঠন করেছেন, সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন। শোষণ-বঞ্চনার চিত্র তুলে ধরে অধিকার আদায়ে সচেতন করেছেন।

বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ কন্যা শেখ হাসিনা বলেন, ৬২ সালে একটা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল, সশস্ত্র বিপ্লবের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতা আনা যায় কি না, কিন্তু সেটা হয়নি। তারপরই বঙ্গবন্ধু গ্রেফতার হয়ে গিয়েছিলেন। পরে ৬৬ সালে এই ছয় দফা দেন। এটি জনপ্রিয় হয় এবং সফলতা পায়।

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, দলের শ্রম সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ অংশ নেন। সময় দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি’র বিক্রি শুরু

প্রকাশিত:Wednesday ০৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৮৭জন দেখেছেন
Image

দেশের বাজারে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় স্মার্ট ডিভাইস ব্র্যান্ড অপোর এফ সিরিজের নতুন ডিভাইস অপো এফ২১ প্রো ফাইভজির বিক্রি শুরু হচ্ছে বুধবার (৮ জুন)। সেই সঙ্গে থাকছে আকর্ষণীয় অফার। ফার্স্ট সেল চলাকালীন ক্রেতাদের জন্য থাকছে অসাধারণ সব অফার ও আকর্ষণীয় পুরস্কার। অসাধারণ এ ডিভাইসটিতে শক্তিশালী প্রসেসর, ছবি তোলার জন্য অসাধারণ ক্যামেরাসহ বিভিন্ন আকর্ষণীয় ফিচার রয়েছে, যা ব্যবহারকারীদের ফোন ব্যবহারের চমৎকার অভিজ্ঞতা দেবে।

যেসব আগ্রহী ক্রেতারা ফার্স্ট সেল চলাকালীন এ ডিভাইসটি ক্রয় করবেন তারা তিন হাজার ৯৯ টাকা সমমূল্যের এক্সক্লুসিভ গিফট বক্স পাবেন। এছাড়া বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের সই সম্বলিত লিমিটেড এডিশনের ব্যাক কাভার পাবেন। পাশাপাশি ক্রেতারা তিন মাসের জন্য বিনামূল্যে স্ক্রিন রিপ্লেসমেন্টের সুবিধা পাবেন ও সোয়াপ মার্কেটপ্লেসে এক্সচেঞ্জ অফারে ১৫ শতাংশ অতিরিক্ত ক্যাশ ভ্যালু পাবেন। এছাড়াও ফার্স্ট সেল চলাকালীন গ্রামীণফোনের সিম ব্যবহারকারীরা ১১ জুন পর্যন্ত ৬৮জিবি পর্যন্ত ডাটা বান্ডেল অফার সুযোগ থাকছে।

অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি ডিভাইসে কোয়ালকম স্ন্যাপ ড্রাগন ৬৯৫ ফাইভজি মোবাইল প্ল্যাটফর্ম ৬এনএম চিপসেট রয়েছে, যা সুপার-ফাস্ট ইন্টারনেট ফোরজি প্লাস সাপোর্ট করে। অন্যান্য স্মার্টফোনের তুলনায় এই ফোনটি অনেক ভালো ফোরজি প্লাস নেটওয়ার্ক নিশ্চিত করবে। ডিভাইসটির সিপিইউতে ‘বড়’ কোর (আর্ম কোরটেক্স-এ৭৬ থেকে আর্ম কোরটেক্স-এ৭৮) রয়েছে; যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা আরও ভালো স্মার্টফোন অভিজ্ঞতা পাবেন। এফ২১ প্রো ফাইভজিতে ভিওএলটিই রয়েছে। এর পূর্ণ রূপ হলো ভয়েস ওভার এলটিই।

এই প্রযুক্তির সাহায্যে ব্যবহারকারী ভিওএলটিই সমর্থিত নেটওয়ার্কে ভয়েস কোয়ালিটিকে প্রভাবিত না করেই নেটওয়ার্কে ভয়েস ও ডেটা পাঠাতে পারবেন।

অসাধারণ ফিচারসমৃদ্ধ এফ সিরিজের ডিভাইসটিতে আল্ট্রা-থিন ফ্ল্যাট এজ রেট্রো ডিজাইন ব্যবহার করা হয়েছে। স্প্লাইসড গ্লস ও ম্যাট টেক্সাচের অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি ডিভাইসটি দু’টি ভিন্ন রঙে-রেইনবো স্পেকট্রাম ও কসমিক ব্ল্যাক- পাওয়া যাচ্ছে।

অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি ডিভাইসটিতে অপোর ডুয়াল অরবিট লাইট নিয়ে আসা হয়েছে, যা দুটি মেইন ক্যামেরার পেছনে সুন্দরভাবে একত্রিত। ডিভাইসটিতে ৬৪ মেগাপিক্সেল হাই-রেজ মেইন ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ ক্যামেরা ও ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। পাশাপাশি, ডিভাইসটিতে বোকেহ ফ্লেয়ার পোর্ট্রেট, সেলফি এইচডিআর, এআই প্যালেটস, এআই কালার পোর্ট্রেট ও পোর্ট্রেট রিটাচিং সহ অসাধারণ সব ফিচার রয়েছে।

ফোনটিতে ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটসহ ৬ দশমিক ৪ ইঞ্চি পাঞ্চ হোল অ্যামোলেড এফএইচডি প্লাস ডিসপ্লে রয়েছে, যা ব্যবহারকারীদের উন্নত ভিজ্যুয়াল অভিজ্ঞতা দেবে। এফ২১ প্রো ফাইভজিতে রয়েছে ৪ হাজার ৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ও ৩৩ ওয়াট সুপারভুক ফ্ল্যাশ চার্জিং প্রযুক্তি, যা ব্যাটারির দীর্ঘস্থায়িত্বের বিষয়টি নিশ্চিত করবে। অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি ডিভাইসে আট জিবি র‌্যাম ও ১২৮ রম (এটি ১ টেরাবাইট পর্যন্ত অতিরিক্ত স্টোরেজ বাড়ানো যাবে) রয়েছে। অপোর র‌্যাম সম্প্রসারণ প্রযুক্তির মাধ্যমে স্মার্টফোনটিতে থাকা আট জিবি র‌্যামটির পাশাপাশি অতিরিক্ত পাঁচ জিবি পর্যন্ত সম্প্রসারণ করা যাবে।

পাশাপাশি, কালারওএস১২ ভিত্তিক এ ডিভাইসিটিতে এআই সিস্টেম বুস্টার, কুইক স্টার্টআপ, গেম ফোকাস মোড ও এআই ফ্রেম রেট স্ট্যাবিলাইজার রয়েছে।

অসাধারণ ফিচারসমৃদ্ধ অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি ডিভাইসটি কানেক্টিভিটি সুবিধাকে এক নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাবে।


আরও খবর



রণবীর-আলিয়ার ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ সিনেমার ট্রেলারে চমক শাহরুখ

প্রকাশিত:Thursday ১৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২১ June ২০২২ | ৪০জন দেখেছেন
Image

দীর্ঘ অপেক্ষার পর মুক্তি পেয়েছে রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাট অভিনীত ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ সিনেমার ট্রেলার। ভিএফএক্স আর অ্যাকশনে ভরা ট্রেলার দেখে এরই মধ্যে অন্তর্জালে চলছে নানা আলোচনা।

এই সিনেমা দিয়ে প্রথমবার পর্দায় জুটি হলেন রণবীর-আলিয়া।

বিনোদনভিত্তিক ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলিউড বাবলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সিনেমায় রণবীর কাপুরের চরিত্রের নাম শিব, যিনি পৃথিবীকে রক্ষা করতে চান। তার সঙ্গী আলিয়া ভাট আছেন ইশার চরিত্রে।

তিন মিনিটের ট্রেলারে যতটা না অভিনয় দেখা গেছে, তার চেয়ে বেশি ভিএফএক্স শট। মনে হচ্ছে, এটাই বলিউডের বড় ফ্যান্টাসি অ্যাডভেঞ্চার।

ট্রেলারে দেখা গেছে, শিবের সঙ্গে দেখা ইশার। দ্রুতই শিব বুঝতে পারলেন, ব্রহ্মাস্ত্র পাওয়ার জন্য প্রাচীন বাহিনী যুদ্ধে লিপ্ত হচ্ছে। সেখানে দুজন ভালো মানুষকেও দেখতে পাই, তিনি অমিতাভ বচ্চন ও নাগার্জুন।

সিনেমার খলচরিত্র জুনুন হয়েছেন মৌনী রায়। অন্ধকার শক্তিকে রুখতে পরে শিব হাতে অস্ত্র তুলে নেয় এবং পৃথিবীকে রক্ষা করে।

এর আগে পরিচালক অয়ন মুখার্জি জানিয়েছিলেন, সিনেমাটিতে বিশেষ দৃশ্যে হাজির হবেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। ট্রেলারে শাহরুখ খানকেও দেখা গেছে। তিনি বিজ্ঞানীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

অয়ন মুখার্জি পরিচালিত ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ মুক্তি পাবে এ বছরের ৯ সেপ্টেম্বর।


আরও খবর



৩৫তম জন্মদিনে জেনে নিন মেসির ১০টি অজানা তথ্য

প্রকাশিত:Friday ২৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ২০জন দেখেছেন
Image

৩৫টি বসন্ত পার করে ফেলেছেন লিওনেল মেসি। বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার। তার পায়ের জাদুতে মুগ্ধ হননি এমন ফুটবল ভক্ত কমই পাওয়া যাবে। ক্লাব ফুটবলে বার্সেলোনা এবং পিএসজির হয়ে জিতেছেন প্রায় সব পুরস্কারই। জাতীয় দলের হয়ে জিতেছেন কেবল একটি কোপা আমেরিকা ট্রফি।

১৯৮৭ সালের ২৪ জুন আর্জেন্টিনার সান্তা ফে রাজ্যের রোজারিও শহরে জন্মগ্রহণ করেন মেসি। ১১ বছর বয়সে দেখা দেয় তার গ্রোথ হরমোন সমস্যা। যেটার চিকিৎসা ব্যায় মাসে ৯০০ ডলার।

ওই সময় বার্সার স্পোর্র্টিং ডিরেক্টর কার্লেস রেক্সাসের চোখে পড়েন। বার্সা তার চিকিৎসা এবং ফুটবল ট্রেনিংয়ের দায়িত্ব নেয়ার কথা জানায়। তখনই মেসির বাবার সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন হয় বার্সা কর্মকর্তার।

২০০৮ সাল থেকেই আনতোনেল্লা রোকুজ্জোর সঙ্গে প্রেম মেসির। ২০১২ সালে একসঙ্গে থাকা শুরু করেন। ২০১৭ সালে এসে বিয়ে করেন তারা। এর মধ্যে তিনটি সন্তানেরও বাবা-মা হয়েছেন মেসি ও রোকুজ্জো। এ তিনজনের নাম থিয়াগো মেসি, মাতেও মেসি এবং মাতেও মেসি।

৩৫তম জন্মদিন এমন এক সময়ে পালন করছেন, যখন দুর্দান্ত একটি দল নিয়ে কাতার বিশ্বকাপে খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি।

মেসির জন্মদিনে পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো তার ক্যারিয়ারের ১০টি অজানা দিক।

১. মেসিকে তার ক্ষিপ্রতা, তৎপরতা এবং গতির কারণে ডাকা হয় ‘দ্য ফ্লি’ নামে।

২. বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ফুটবলারদের একজন মেসি।

৩. কার্লেস রেক্সাস, বার্সেলোনার প্রথম স্পোর্টিং ডিরেক্টর। তিনি যখন আর্জেন্টিনায় ছোট্ট মেসির ফুটবল স্কিল দেখেন, খুব অভিভূত হয়ে যান এবং তাৎক্ষনিক তার বাবার সঙ্গে মেসির ব্যাপারে চুক্তি সাক্ষর করেন। সেখানো কোনো কাগজ না থাকায় ন্যাপকিন বা টিস্যু পেপারে চুক্তির স্বাক্ষর করেন।

৪. ২০০৩ সালে এস্পানিওলের বিপক্ষে প্রথম বার্সেলোনার হয়ে লা লিগায় অভিষিক্ত হন মেসি। ওই সময় তার বয়স ছিল ১৭ বছর। বার্সার ইতিহাসে তৃতীয় সর্বকণিষ্ট ফুটবলার হিসেবে অভিষেক হয় তার। শুধু তাই নয়, ক্লাবের হয়ে সবচেয়ে কম বয়সে গোল করার রেকর্ডও গড়েন তিনি।

৫. মেসির রয়েছে দুটি পাসপোর্ট। একটি আর্জেন্টিনার নাগরিক হিসেবে। অন্যটি স্পেনের নাগরিক হিসেবে। ২০০৫ সালে স্পেনের নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন তিনি।

৬. ২০০৮ সালে বার্সার আরেক আইকনিক ফুটবলার, ব্রাজিলিয়ান রোনালদিনহোর কাছ থেকে ১০ নম্বর জার্সি গ্রহণ করেন।

৭. ২০০৯ সালে তিনি প্রথম ফিফা প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার পুরস্কার অর্জন করেন। একই বছর জয় করেন ব্যালন ডি’অরও। ২০১৯ সালে জয় করেন ফিফা বেস্ট মেন্স প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার। ৬ বার জয় করেন ইউরোপিয়ান গোলেন সু। ২০১৪ বিশ্বকাপে জেতেন সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার গোল্ডেন বল।

৮. দ্য রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন মেসিকে স্পেন জাতীয় দলের হয়ে খেলার জন্য অনুরোধ করেছিল। যেহেতু তাকে স্পেনের নাগরিকত্ব দেয়া হয়েছে। কিন্তু মেসি নিজের দেশ আর্জেন্টিনাকেই বেছে নেন জাতীয় দলে খেলার জন্য। জাতীয় দলের হয়ে ২০২১ সালে জয় করেন কোপা আমেরিকা ট্রফি। ২০১৪ বিশ্বকাপ, ২০১৫ এবং ২০১৬ কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠলেও শিরোপা জিততে পারেননি।

৯. মেসি নিজের নামে প্রতিষ্ঠা করেন ‘লিও মেসি ফাউন্ডেশন’। এই ফাউন্ডেশনের উদ্দেশ্য হচ্ছে অবহেলিত এবং সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষা এবং চিকিৎসা সুনিশ্চিত করা।

১০. বার্সেলোনায় প্রায় ২১ বছর কাটিয়েছেন মেসি। ক্লাবটির জার্সিতে খেলেছেন ৫২০ ম্যাচ। গোল করেছেন ৪৭৪টি। এরপর ২০২১-২২ মৌসুমে যোগ দেন প্যারিসের ক্লাব পিএসজিতে।


আরও খবর