Logo
আজঃ Monday ০৬ February ২০২৩
শিরোনাম

মুজিব কোট গায়ে দিলে শেখ মুজিব হওয়া যায় না: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:Tuesday ২৯ November ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৬ February ২০২৩ | ৯৬জন দেখেছেন
Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘মুজিব কোট গায়ে দিলে শেখ মুজিব হওয়া যায় না। খুনি খন্দকার মোস্তাকও মুজিব কোট গায়ে দিয়েছিল, ৭৫-এর সেই বিশ্বাসঘাতক সে। মুজিব সৈনিক হতে হলে মুজিবের আদর্শের সৈনিক হতে হবে।’

আজ মঙ্গলবার দুপুরে নোয়াখালী শিল্পকলা একাডেমী মাঠে নোয়াখালী পৌরসভা ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। তিনি সম্মেলনে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হয়ে বক্তব্য দেন।

বিএনপির উদ্দেশে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জেনারেল জিয়া যদি বঙ্গবন্ধু হত্যার সঙ্গে জড়িত না থাকতেন তাহলে অন্য একটি খুনি চক্র তাকে হত্যা করার দুঃসাহস করত না। ইতিহাস বড়ই নির্মম, সেইদিন বাঁচতে পারেননি জেনারেল জিয়াউর রহমান। যে বুলেট বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহনাকে এতিম করেছে, সেই বুলেটই বেগম খালেদা জিয়াকে বিধবা করেছে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তারা (বিএনপি) দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করবে, আর আমরা দেশের উন্নয়ন করে যাব। আমাদের কাজের মাধ্যমে আমরা তাদের জবাব দিয়ে যাবো। আমরা মানুষের পাশে সব সময় আছি এবং আগামীতেও থাকব।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘মানুষের সেবায় শেখ হাসিনা দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। আজকে দেশের অল্প আয়ের মানুষ কষ্টে আছে, এটা বৈশ্বিক পরিস্থিতির শিকার। ইনশাআল্লাহ শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় এ দুঃসময় কেটে যাবে, সুদিন আসবে, আপনার ধৈর্য্য ধরেন।’

এর আগে আজ সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমী মাঠে সকালে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ও সুবর্ণচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ এ এইচ এম খায়রুল আলম চৌধুরী সেলিম। নোয়াখালী শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টুর সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক বেগম ফরিদুন্নাহার লাইলী, নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী প্রমুখ।


আরও খবর