Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

মিয়ামিকে ৬ গোলে উড়িয়ে দিলো আল নাসর

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৪১জন দেখেছেন

Image

স্পোর্টস ডেস্ক:আধিপত্য ধরে রেখে ইন্টার মায়ামিকে বিধ্বস্ত করেছে আল নাসর। বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) ক্লাব প্রীতি ম্যাচে সৌদি আরবের কিংডম অ্যারেনায় রোনালদোর আল নাসরের বিপক্ষে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে মেসিরা।

ইনজুরির কারণে আল নাসরের স্কোয়াডে ছিলেন না পর্তুগালের তারকা খেলোয়াড় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তবে দলকে উৎসাহ দিতে ঠিকই উপস্থিত হয়েছিলেন গ্যালারিতে। অন্যদিকে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকে মাঠের লড়াইয়ে না পেয়ে প্রথমার্ধে মাঠে নামেননি লিওনেল মেসি। আর সেটাই ভুগিয়েছে মায়ামিকে। আর্জেন্টাইন বিশ্বকাপজয়ী যখন মাঠে নামেন ততক্ষণে মায়ামি ম্যাচ থেকে একেবারে ছিটকে যায়।

এদিকে একের পর এক গোল হজম করে যাচ্ছে মেসির দল ইন্টার মিয়ামি। অবশেষে ম্যাচের ৮৩ মিনিটে মনে হয় নিজেকে দেখানোর জন্যই মাঠে নামলেন মেসি। ততক্ষণে ইন্টার মিয়ামির জালে ৬ বার বল জমা করেছে রোনালদোহীন আল নাসর।

ফুটবলপ্রেমীরা ভেবেছিলেন, সৌদির মাঠে কঠিন লড়াইয়ে নামবেন আল নাসর ও মিয়ামি। কিন্তু ম্যাচ হলো পুরোপুরি একপেশে। মিয়ামিকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে সৌদি প্রো লিগের ক্লাব আল নাসর। শেষ দিকে মেসির কয়েকবারের চেষ্টাও রুখে দিয়েছে রোনালদোর দল।

বৃহস্পতিবার রাতে সৌদি আরবের রিয়াদের কিংডম অ্যারেনায় আল নাসরের হয়ে হ্যাটট্রিক করেছেন অ্যান্ডারসন টেলিস্কা। শেষ গোলটি তিনি ৭৩ মিনিটে করেছেন। বাকি গোল দুটি করেছেন ম্যাচের ১০ ও ৫১তম মিনিটে।

ম্যাচের একেবারে শুরুরদিকে ৩ মিনিটে গোল করে দলকে প্রথম লিড এনে দিয়েছেন ওটাবিও। এরপর ১২ মিনিটে আয়মেরিক লাপোর্তের গোলে ব্যবধান ৩-০ করে আল নাসর। এছাড়া আরেকটি গোল মোহাম্মদ মারান।


আরও খবর



যশোর বোর্ডের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ৮০ এসএসসি পরীক্ষার্থীকে অতিরিক্ত ৩০ মিনিট বরাদ্দ

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১২১জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:আসন্ন এসএসসি পরীক্ষায় যশোর শিক্ষা বোর্ডের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ৮০ পরীক্ষার্থী পাচ্ছে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে অতিরিক্ত ৩০ মিনিট। এই অতিরিক্ত সময় নিশ্চিত করতে কেন্দ্র সচিবদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে ব্যত্যয় ঘটলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. বিশ্বাস শাহীন আহমেদ।

বোর্ড সূত্র জানায়, বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থীরা সাধারণ শিক্ষার্থীদের মতো পরীক্ষা দিতে পারে না। শারীরিক সমস্যার কারণে তাদের পরীক্ষা দিতে বেশি সময় দরকার হয়। ওই সব শিক্ষার্থীদের অভিভাবকেরা কেন্দ্র সচিবের মাধ্যমে শিক্ষা বোর্ডে আবেদন করায় তাদের অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় দেয়া হবে।

অতিরিক্ত সময় বরাদ্দ পাওয়া পরীক্ষার্থীরা হলো, যশোর সম্মিলনী ইনস্টিটিউশনের শেখ জিহাদ আহম্মেদ, কুষ্টিয়া সাহিত্যিক মীর মশাররফ হোসেন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আবু তাহমীদ নাফি, যশোর সেবা সংঘ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অনামিকা ইসলাম ইরা, শার্শার বাগআঁচড়া সম্মিলিত গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের হিমা রানী ও আমিন ইতু, চুয়াডাঙ্গা সীমান্ত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের তুহিন আলী, সাতক্ষীরা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী তাজবী আহম্মেদ লাবীব, ঝিনাইদহ মহেশপুর পাথরা ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী খালিদ হাসান, মহেশপুর বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আলিনা খাতুন, বাগেরহাট শাহ আউলিয়া বাগ মল্লিক মহসিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের রেসমা খাতুন, খুলনা খালিশপুর পোর্ট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী বিদীপ্তা বিশ্বাস তুলি, সাতক্ষীরা নকিপুর সরকারি হরিচরণ পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সারমীন সুলতানা, বাগেরহাট শহীদ নায়েক আব্দুল জব্বার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আবু তাহের ও শেখ আলামিন হোসেন জোতি, সাতক্ষীরার দেবহাটা সখীপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আবীর হোসেন, সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ নলতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী শামীমা আক্তার ও প্রবীর সরকার, সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ তারালী বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রাপ্তি সরকার ও উর্মি দাস, চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গা জগন্নাথপুর শ্রীরামপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নয়ন আলী, খুলনা ডুমুরিয়া চেঁচুড়ী কাছারীবাড়ী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নুসরাত জাহান সিমু ও মুনিয়া খাতুন, নড়াইল লোহাগড়া সরকারি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী নবনী ইসলাম, খুলনা লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের পরীক্ষার্থী সপ্তমী হাওলাদার, যশোর মণিরামপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী শাফায়েত আহমেদ জিম, খুলনা সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজের ফাহিম আবরার জাওয়াদ, হালিয়া বিনোদ বিহারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের তন্ময় মন্ডল, হালিয়া বিনোদ বিহারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অভিজিৎ মহলদার, লোহাগড়া সরকারি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বাইজিদ হোসেন, সাতক্ষীরা রোস্তম আলী আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হাজেরা খাতুন ও আনিসা আক্তার রুহি, কুষ্টিয়া খলিষা কুন্ডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এম কে এস মাহমুদুর রহমান ও হাবিবুর রহমান, নড়াইল লোহাগড়া আমাদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আসিব শেখ, চুয়াডাঙ্গা আলীযারপুর আজিজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী আখিতারা, সাতক্ষীরা নেংগী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আজমিরা আখতার, চুয়াডাঙ্গা কুতুবপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের  আহাদ আলী ফারাজী, খুলনা কলেজিয়েট স্কুলের কাজী রাইতা বিনতে মুক্তাদির, সাতক্ষীরা রসুলপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ইতি সুলতানা, নকিপুর পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের জেবা তাসনিয়া, বাগেরহাট চুলকাটি ঘন শ্যামপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সংগিতা বিশ্বাস ও সুমিতা রানী নন্দি,বাগহেরট বাঐডাঙ্গা ব্রজলাল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ফাতেমা খাতুন, বঙ্গ বন্ধু সরকারি বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী আসমা উল হুসনা, কুষ্টিয়া শোমসপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কে. এম. তাওহিদ মাহমুদও  নেছার উদ্দীন শেখ, কেন্দ্র : শোমসপুর-৩৮৭, কয়রা সুন্দরবন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের হিরা রায়া, কয়রা বামিয়া মডেল মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জান্নাতুল ফেরদৌস আঁখি ও ফারজানা আক্তার টুকটুকি,সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী তাজবী আহমেদ লাবিব ও রাফিদ উল আলম, ঝিনাইদহ পার-মথুরাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আল আমিন, রূপসা জে. কে. এস. মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের বাবী নিপা, বাঘারপাড়ার পাড়কৃষ্ণনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অনন্যা খাতুন, মাগুরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের রূপা দত্ত, নড়াইল দিঘলিয়া আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শেখ মেজবাহ উদ্দীন, ডুমুরিয়া কুলটী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের চৈতি মন্ডল,নড়াইল লক্ষীপাশা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সৈয়দ রায়হান হোসেন, সাতক্ষীরা কুমিরা মির্জাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের তমা ঘোষ, যশোর বাহাদুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী ময়ুরী খাতুন, বাগেরহাট দৈবজ্ঞহাটি আদর্শ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ফাহবিন রেজা সারাহ, ফুলতলা আটরা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী রীমি ঢালী, চুয়াডাঙ্গা কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের জাহিন আহবাব জোয়ার্দ্দার, অভয়নগর সুন্দলী সৈয়দপুর ট্রাস্ট স্কুল এন্ড কলেজের লীমা রায় ও সৈকত বাড়ৈ, মণিরামপুর কাশিমনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ওমর ফারুক, সাতক্ষীরা কালীগঞ্জের মুড়াগাছা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শহীদ আলম, সাতক্ষীরা ঋশিল্পী সেন্টার স্কুেলর সিয়াম সামী, কোটচাঁদপুর সরকারি মডেল পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাকিব মাহমুদ শামস্, সাতক্ষীরা শাহাপুর সিরাজ উদ্দীন গাজী স্মৃতি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী কেয়া খাতুন, ফকিরহাট মুলঘর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের মিলি খাতুন, নড়াইল কালিয়া দি পাটনা একাডেমীর আব্দল্লাহ আল মামুন খান, কুষ্টিয়া দৌলতপুর পিপুল বাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নাহিদ হাসান ও সিনহা খাতুন উমি, শৈলকুপা আউশিয়া আইডিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী পারভেজ ও রুরায়েত ইসলাম সিফাত, হরিণাকুন্ডু চাঁদপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের রীমা খাতুন, নবোদয় মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের তৃষ্ণা মন্ডল ও বর্ষা খাতুন।

বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আহসান হাবীব এ ব্যাপারে বলেন, সমাজসেবা অধিদপ্তরের সার্টিফিকেটের ভিত্তিতে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন পরীক্ষার্থীর অভিভাবকেরা কেন্দ্র সচিবের মাধ্যমে আবেদন করেন। আবেদন করলে আমরা সময় বৃদ্ধি করে দিই। এটি বাস্তবায়নে কেন্দ্র সচিবদের নির্দেশ দেয়া হয়। কোনো কেন্দ্র সচিব এ নির্দেশ না মানলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর



চাঁদাবাজি বন্ধ ঘোষণা করল উপজেলা প্রশাসন

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৫৭জন দেখেছেন

Image

মোহাম্মাদ হেদায়েতুল্লাহ্ নবীনগর ব্রাহ্মণবাড়ীয়া প্রতিনিধি:অবশেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৫ নবীনগরের সাংসদ ফয়জুর রহমান বাদলের নির্দেশে নবীনগরের সর্বত্র  সিএনজি, অটো রিক্সা ও অন্যান্য যানবাহন থেকে প্রকাশ্যে চাঁদাবাজি (জিপি) তোলা আনুষ্ঠানিকভাবে বন্ধ ঘোষণা করল উপজেলা প্রশাসন।

নবীনগর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বুধবার দুপুরে উপজেলা সম্মেলন কক্ষে ইউএনও তানভীর ফরহাদ শামীম স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে প্রেস ব্রিফিং মাধ্যমে এ ঘোষণা দেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন নবীনগর পৌরসভার মেয়র এডভোকেট শিব শংকর দাস, ওসি মাহাবুব আলম,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন চৌধুরী শাহন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ বোরহান উদ্দিন সহ ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

বক্তারা বলেন,স্ট্যান্ডের চাঁদাবাজির কারণে অনেকটাই অতিষ্ঠ ছিল খেটে খাওয়া ক্ষুদ্র যানবাহনের চালক এবং যাত্রীরা। এদিকে চাঁদার কারণে বেড়ে যায় ভাড়াও। তাই যাত্রী ও চালক উভয়েই ছিলেন বিপাকে। তাছাড়া নবীনগরকে যানজট মুক্ত করার অঙ্গীকারও ব্যক্ত করেন উপজেলা প্রশাসন ও থানা প্রশাসন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মাগুরায় ১৮৫ নারী প্রশিক্ষনার্থীর মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৫জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরায়   হার পাওয়ার প্রকল্পের আওতায় ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়েছে। জেলার ১৮৫ জন নারী প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে এ ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়।শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারী ) বেলা ১২টায় শহরের আছাদুজ্জামান মিলনায়তনে , তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসন এ  ল্যাপটপ বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে । ট্রেনিং পার্টনার হিসেবে সহযোগীতায় ছিলো সিমস্ সিস্টেম ও চালডাল লিমিটেড ।

হার পাওয়ার প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক নিলুফা ইয়াসমিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি  ছিলেন প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস , অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র খুরশীদ হায়দার টুটুল , সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবু নাসির বাবলু ,  সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিজানুর রহমান, মহম্মদপুর  উপজেলা নির্বাহী অফিসার পলাশ মণ্ডল ।

অনুষ্ঠানে মেয়েদের ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, গ্রাফিক্স ডিজাইন , ডিজিটাল মার্কেটিং সহ তিনটি গ্রুপে ৫ মাসের প্রশিক্ষন দেওয়া হয়। প্রশিক্ষন শেষে জেলার মাগুরা সদরের ৮০ জন  , শ্রীপুরের ৮০ জন  এবং মহম্মদপুর উপজেলার ২৫ জনসহ   মোট ১৮৫ জন নারী প্রশিক্ষনার্থীদের হার পাওয়ার প্রকল্পের আওতায় প্রযিুক্তির সহাযতায় নারীর ক্ষমতায়নের জন্য এ ল্যাপটপ বিতরণ করা হয় ।

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট প্রশিক্ষন নেওয়া খাতুন এ জান্নাত বলেন , এ প্রশিক্ষনের মাধ্যমে আমি একটি ল্যাপটপ পেয়েছি । এই ল্যাপটপের মাধ্যমে আমি ফ্রিল্যান্সিংটা আরো ভাল ভাবে করতে পারবো । এছাড়া  প্রধানমন্ত্রীর এ পুরস্কারকে কাজে লাগিয়ে আমি আমার পরিবার এবং দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজে লাগাতে পারবো।

আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৫ ফেব্রুয়ারি সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৪১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা সচিবদের নিয়ে আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন। প্রস্তাবিত এ সভা বর্তমান সরকারের প্রথম সভা। সভার স্থান এবং এজেন্ডা দু’একদিনের মধ্যেই চূড়ান্ত করা হবে বলে জানা গেছে। এর আগে, সবশেষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে সচিব সভা হয়েছিল ২০২২ সালের ২৭ নভেম্বর।

জানা যায়, এবারের সচিব সভায় উপস্থিত থাকার জন্য প্রধানমন্ত্রী মৌখিক সম্মতি দিয়েছেন। তবে স্থান এখনও চূড়ান্ত হয়নি। সচিব সভা সাধারণত সচিবালয়েই অনুষ্ঠিত হতো। কিন্তু সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী গত কয়েক বছর ধরে কম যাচ্ছেন।

মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকগুলো প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে হচ্ছে, যেগুলো সাধারণত সচিবালয়ে হতো। তাই এবার সচিবালয়ে সচিব সভা হওয়ার সম্ভাবনা কম। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সভা হওয়া সম্ভাবনা আছে। তবে এর আগে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়েও সচিব সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এবারের সচিব সভায় সাত থেকে আটটি বিষয় এজেন্ডাভুক্ত হতে পারে। সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পেতে পারে আসন্ন রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে প্রশাসনের ভূমিকার বিষয়টি। এর বাইরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, আগের সচিব সভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের অগ্রগতি, মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন সংক্রান্ত বিষয়গুলো প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করবেন সচিবরা। পাশাপাশি দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণে কড়া বার্তা দিতে পারেন সরকার প্রধান।

প্রসঙ্গত, সচিব সভায় প্রধানমন্ত্রী প্রধান অতিথি এবং মন্ত্রিপরিষদ সচিব সভাপতিত্ব করবেন। এতে সরকারের ৫৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সচিবদের সঙ্গে বিভিন্ন দপ্তর বা সংস্থায় কাজ করা সচিবরাও উপস্থিত থাকবেন। বর্তমানে নিয়মিত ও চুক্তিভিত্তিক মিলিয়ে ৮৭ জন সচিব ও সিনিয়র সচিব দায়িত্ব পালন করছেন।


আরও খবর



বৃহস্পতিবার ফেরত পাঠানো হবে মিয়ানমারের ৩৩০ বিজিপি সদস্যদের

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আরাকান আর্মির আক্রমণের মুখে প্রাণভয়ে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা ৩৩০ বর্ডার গার্ড পুলিশকে (বিজিপি) মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠনো হবে।

বিজিবি জানায়, বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া বিজিপি সদস্যদের বৃহস্পতিবার সকালে ইনানির নৌ বাহিনীর জেটি ঘাট দিয়ে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে।


আরও খবর