Logo
আজঃ শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪
শিরোনাম
কক্সবাজারে পাহাড় ধসে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু বন্ধ শিল্প প্রতিষ্ঠান চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে: শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের হার দিয়ে সুপার এইট শুরু গোদাগাড়ীতে রাসেল ভাইপারের চিকিৎসার দাবিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রীর কাছে চিঠি দিয়েছে নাগরিক স্বার্থ-সংরক্ষণ কমিটি রূপগঞ্জে জমে উঠেছে কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচন যাত্রাবাড়ীতে পুলিশ কর্মকর্তার বাবা মাকে কুপিয়ে হত্যা যানজট নিরসনে সংসদ সদস্যগণের সাথে ট্রাফিক ওয়ারী বিভাগের সমন্বয়সভা ভোলায় ফের দেখা মিলল রাসেল ভাইপার, জনমনে আতঙ্ক বাজেট পাস হয়নি,অনেক কিছু পুনর্বিবেচনা করা সম্ভব: অর্থমন্ত্রী দেশের সব মহৎ অর্জন আ. লীগের মাধ্যমেই হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদে কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত আলীর সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৯৪৫জন দেখেছেন

Image

মোহাম্মাদ হেদায়েতুল্লাহ্ ,নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান মো.শওকত আলীর বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত। আজ শনিবার দুপুরে কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদে স্থানীয় সাংবাদিকদের উপস্থিতে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে ইউপি চেয়ারম্যান মো. শওকত আলী বলেন।

কিছু নাম সর্বস্ব পত্রিকার অনলাইন পেইজে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা- বানোয়াট ও ভিত্তিহীন ভাবে তাদের মন গড়া কথা প্রকাশ করছে।তারা বলছেন আমি নাকি কাইতলা জমিদার বাড়ির সরকারি পুকুর থেকে ১০ লক্ষ টাকা মাছ ও ২২ হাজার টাকার বাঁশ লুটপাট করেছি। আমি এসব মিথ্যা সংবাদের তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। প্রয়োজনে আমি এই মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদে সাইবার ট্রাইবুনালে মামলা করব।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, উক্ত ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার মো. গোলাম কিবরিয়া, সাবেক মেম্বার আবু তাহের সরকার, ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি মেম্বার শফিকুল ইসলাম,  মো. রুহুল আমীন সংগ্রাম, ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সৈয়দ সোহাগ, ৪.৫.৬ ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার লাকি আক্তার, ২ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সৈয়দ নাজমুল সহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদকর্মীরা সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



পত্নীতলায় ডেমক্রেসিওয়াচ এনজিও সংস্থার তথ্য বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১১৮জন দেখেছেন

Image

দিলিপ চৌহান, পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি-পত্নীতলায় ডেমক্রেসিওয়াচ এনজিও সংস্থার আস্থা প্রকল্পের আয়োজনে সুইজারল্যান্ডের অর্থায়নে বৃহস্পতিবার নজিপুর মামুদপুর আদিবাসী কালচারাল একাডেমী চত্বরে শান্তি ও সহনশীলতা প্রচারের জন্য সমন্বিত পদক্ষেপ নিশ্চিত করতে নাগরিক প্লাটফর্মের সাথে যুবদের সংগৃহীত তথ্য বিনিময়  সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।                     

ডেমক্রেসিওয়াচ এনজিও আস্থা প্রকল্পের জেলা সমন্বয়কারী কামাল হোসেন শাহ এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আশিষ কুমার ঘোষ, এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পত্নীতলা প্রেসক্লাব ও উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব বুলবুল চৌধুরী, নজিপুর পৌর সভার কাউন্সিলর মোছাঃ ফারহানা মমিন, ডেমক্রেসিওয়াচ এনজিও আস্থা প্রকল্পের সিনিয়র ফিল্ড অফিসার মোছাঃ রিমা আক্তার, আদিবাসী নেতা সুধীর তীকি, যতিন টপ্য সহ এলাকার গণ্যমান্য বক্তিবর্গ ও উপকারভোগীগণ উপস্থিত ছিলেন।          

এসময় প্রধান অতিথি সমাজের হতদরিদ্রের মাঝে সরকারের সেবা সমূহ বাস্তবায়নে  সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

আরও খবর



অর্থ আত্মসাতের মামলায় ড. ইউনূসের বিচার শুরু

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০24 | ৯০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে করা মামলায় নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। অভিযোগ গঠনের ফলে মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হয়েছে।

বুধবার (১২ জুন) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক সৈয়দ আরাফাত হোসেন আসামিদের অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে তাদের অভিযোগ গঠন করেন।

এর আগে ২ জুন দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর মোশাররফ হোসেন কাজল আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করতে শুনানি করেন। অপরদিকে ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের পক্ষের তাদের আইনজীবী অব্যাহতি চেয়ে শুনানি করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত এ বিষয়ে আদেশের জন্য ১২ জুন দিন ধার্য করেন।

২০২৩ সালের ৩০ মে গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক-কর্মচারীদের কল্যাণ তহবিলের ২৫ কোটি ২২ লাখ ৬ হাজার ৭৮০ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। সংস্থাটির উপ-পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধান বাদী হয়ে মামলাটি করেন।


আরও খবর



আত্রাইয়ের প্রতিটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে সুস্বাদু লিচু, দাম চড়া

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১০৭জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি:উত্তর জনপদের খাদ্যশষ্য ভান্ডার হিসেবে খ্যাত নওগাঁর আত্রাই উপজেলায় এখন প্রতিটি হাট-বাজারে পাওয়া যাচ্ছে সুস্বাদু রসালো ফল লিচু। তীব্র গরমে কদর বেড়েছে রসালো এই ফলের। এবার ফলন ভালো হওয়ার পাশাপাশি চড়া দাম পেয়ে খুশি চাষিরা। তবে দাম চড়া হওয়ায় ক্রেতারা অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, বাড়ির আঙিনা, রাস্তার পাশে ও বাগানে সবুজ পাতার আড়ালে ঝুলছে থোকায় থোকায় লিচু। অনেক জায়গায় দেখা যায় লিচু যাতে পাখিতে নষ্ট করতে না পারে, সে জন্য গাছের সঙ্গে টিন, জাল টাঙিয়ে রক্ষা করার চেষ্টা করছেন বাগান মালিকেরা।

ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তাঁরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। তবে অনেক মালিক লিচুবাগান আগেই বিক্রি করে দিয়েছেন।

ভবানীপুর বাজারে লিচু কিনতে আসা উপজেলার কাশিমপুর গ্রামে রানা বলেন, ‘বাড়িতে ছেলেমেয়ে আছে, তাই কিছু লিচু কিনলাম। দাম এখন অনেক বেশি। ১শত টি লিচুর দাম নিয়েছে ৩০০ টাকা।’

উপজেলা সদর সাহেবগঞ্জ মোড়ের লিচু ব্যবসায়ী রবিন বলেন, এখন লিচুর অনেক দাম। ১শতটি লিচু ৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। লিচু বেশি দামে কিনতে হচ্ছে, তাই বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।’

আরেক লিচু ব্যবসায়ী মুনিরুল ইসলাম বলেন, গরমে লিচুর আলাদা কদর রয়েছে। তা ছাড়া মৌসুমি ফল হিসেবে দাম বেশি হলেও ক্রেতারা কিনছেন।

তিনি আরও বলেন, লিচুবাগান পাহারা দিতে হয়। পাখি অনেক লিচু নষ্ট করে ফেলে। 

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ প্রসেনজিৎ তালুকদার বলেন, আত্রাই উপজেলায় তেমন একটা লিচু উৎপাদিত হয়না। তবে দিন দিন এ উপজেলায় লিচুর গাছ বাড়ছে। ছোট-বড় সবার কাছে অন্যান্য সুস্বাদু মৌসুমি ফলের মতো লিচুরও কদর রয়েছে। লিচুর ভালো দাম পাওয়ায় অনেকে লিচু চাষে ঝুঁকছেন। বাজারে এখন পরিপক্ব লিচু পাওয়া যাচ্ছে। কৃষি অফিস থেকে লিচুচাষিদের বিভিন্ন পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। লিচুর ভালো দাম পেয়ে খুশি চাষিরা।


আরও খবর



সরকারি চাকরিতে ৩ লাখ ৭০ হাজার পদ খালি : জনপ্রশাসনমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:জনপ্রশাসনমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, সরকারি চাকরিতে অনুমোদিত পদ ১৯ লাখ ১৫১টি। এর মধ্যে শূন্য পদ রয়েছে ৩ লাখ ৭০ হাজার ৪৪৭টি।

মঙ্গলবার (২৮ মে) সচিবালয়ে গণমাধ্যম কেন্দ্রে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএসআরএফ) আয়োজিত ‘বিএসআরএফ সংলাপে’ অংশ নিয়ে তিনি এ তথ্য জানান।

যথাযথ নীতিমালা অনুসরণ করেই পদোন্নতি ও পদায়ন করা হয় জানিয়ে জনপ্রশাসনমন্ত্রী বলেন, যখন আমরা পদোন্নতি দিই একটা প্রশ্ন আসে পদের চেয়ে পদোন্নতির সংখ্যা বেশি। আপনারা নিশ্চয়ই জানেন আমাদের অনেক কিছু খেয়াল করতে হয়। আমাদের খেয়াল রাখতে হয় বেশ কিছু কর্মকর্তা বিদেশে অধ্যয়নরত থাকেন। সরকারের বিভিন্ন স্কলারশিপ রয়েছে সেই স্কলারশিপের অধীনে। বিদেশে বিভিন্ন দূতাবাসে কর্মরতদের বিষয় তো রয়েছেই। তারপর একটি বিষয় রয়েছে কিছু সংখ্যক মানুষ থাকেন, যারা অসুস্থ থাকেন। সেটি বাদেই আমাদের কিন্তু হিসাব করতে হয়।

ফরহাদ হোসেন বলেন, আমরা বিভিন্ন পদে যখন পদোন্নতি দিচ্ছি তখন যে পদ আছে সেই পদের চেয়ে বেশি দিতে হয় যৌক্তিক কারণে। কিছুদিনের মধ্যেই বা ছয় মাসের মধ্যেই বেশ কিছু কর্মকর্তা পিআরএলে চলে যাচ্ছেন। তারপর বেশকিছু আমাদের রিজার্ভে রাখতে হয়। কারণ হচ্ছে যদি কেউ অসুস্থ হয়ে যায়, এই জায়গাটি পূরণ করা।

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, গত ১০ বছরে প্রথম থেকে নবম গ্রেডের ৩৫১ জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আসে। এর মধ্যে গুরুদণ্ড পেয়েছেন ৪১ জন, লঘুদণ্ড পেয়েছেন ১৪০ জন। সব মিলিয়ে শাস্তি পেয়েছেন ১৮১ জন। আর ১৭০ জনকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



জাতীয় ঈদগাহে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | ৭১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে এবারের ঈদ জামাতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে,বলেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার হাবিবুর রহমান। ঈদকেন্দ্রিক সুনির্দিষ্ট কোনো হুমকি নেই। তবে সবকিছু মাথায় রেখে নিরাপত্তা ব্যবস্থা সাজানো হয়েছে।

রোববার (১৬ জুন) সকালে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, সারাদেশের মতো ঢাকা মহানগরীতেও যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এ জামাতে রাষ্ট্রপতি, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিরা নামাজ আদায় করবেন। জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে পাঁচটি জামাতের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঢাকা মহানগরীতে সব জামাতের জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার জন্য পার্কিং ও ডাইভারশন থাকবে। পোশাকধারী পুলিশ সদস্যদের পাশাপাশি সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে। পেট্রলিং, সিসিটিভি ক্যামেরা মনিটরিংসহ নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শহরের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশের পাশাপাশি র‍্যাবের পেট্রোল টিম দায়িত্ব পালন করবে। আশা করি ঈদের জামাত সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হবে। সারাশহরে প্রায় ২৫ লাখ পশু কোরবানি হবে। পশু কোরবানি দেওয়ার ক্ষেত্রে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে যে ব্যবস্থাপনা রাখা হয়েছে, নগরবাসীকে সেই নিয়মকানুন মেনে চলার বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি। বর্জ্য অপসারণে সিটি কর্পোরেশনকে সহায়তা করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

ডিএমপি কমিশনার আরও বলেন, চামড়া ব্যবস্থাপনার জন্য এবার সরকারের পক্ষ থেকে বিশেষভাবে পুলিশ এবং সিটি কর্পোরেশন যৌথভাবে সেখানে কাজ করবে। কোনোভাবে যাতে চামড়া পাচার হতে না পারে, দালাল ফড়িয়া চক্র যাতে কোনো সমস্যা সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সব থানা কেন্দ্রিক সেই ব্যবস্থাপনা থাকবে। যে কেউ এ ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হলে আমরা তাদেরকে সংশ্লিষ্ট থানায় যোগাযোগ করতে অনুরোধ জানাচ্ছি। যারা ঈদের জামাতে নামাজ পড়তে আসবেন তাদের প্রতি বিনীত অনুরোধ, আপনার কোনো ধরনের দাহ্য বস্তু, বিস্ফোরক জাতীয় বস্তু ও ধারালো কিছু নিয়ে আসবেন না। বাংলাদেশের চামড়া প্রসেসিং এলাকা ঢাকা জেলার সাভারে। ঢাকাকেন্দ্রিক যে চামড়া সেগুলো কালই সেখানে যাবে। আর ঢাকার বাইরেরগুলো সাত দিনের মধ্যে সেখানে আসবে। এ কাজ যাতে সুন্দরভাবে করা হয়, সেজন্য ডিএমপি সহায়তা করবে।

চাঁদাবাজির বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা এরইমধ্যে চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি, অনেককেই গ্রেপ্তার করেছি। পরে এ ধরনের কাজ যারা করবেন, তারা সতর্ক হবেন এবং ভবিষ্যতে এসব থেকে তারা নিবৃত থাকবেন। আমরা সব ধরনের চ্যালেঞ্জ মাথায় রেখেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকি। আমরা সব সময় সর্বাত্মক এবং সর্বোচ্চ ব্যবস্থাটাই নিয়ে থাকি। এবারও সেটি করা হয়েছে। জঙ্গি হামলার সুনির্দিষ্ট কোনো থ্রেট নেই, তারপরেও আমরা সবকিছু মাথায় রেখেই আমাদের নিরাপত্তা পরিকল্পনা সাজিয়েছি।


আরও খবর