Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

মিরসরাইয়ে লোকালয়ে অজগর, পরে বনে অবমুক্ত

প্রকাশিত:বুধবার ১০ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৯৪জন দেখেছেন

Image

মিরসরাই প্রতিনিধি:মিরসরাইয়ে লোকালয় থেকে একটি অজগর সাপ উদ্ধার করার পর বনে অবমুক্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) বিকেলে মিরসরাই সদর ইউনিয়নের সুফিয়া রোড এলাকায় একটি বাগানের নিরাপত্তা জালে আটকে পড়ে একটি অজগর। পরে খবর দিলে উদ্ধার করেন বাংলাদেশ বন্যপ্রাণি ও সাপ উদ্ধারকারী দলের সদস্য নাইমুল ইসলাম নিলয়। পরে সাপটি উদ্ধার শেষে বন বিভাগের মাধ্যমে বনে অবমুক্ত করা হয়।নাইমুল ইসলাম নিলয় জানান, সুফিয়া রোড় এলাকায় একটি বাগানের নিরাপত্তা জালে অজগর আটকা পড়লে স্থানীয়রা আমাকে খবর দিলে সাপটি উদ্ধার করে স্থানীয় বন কর্মকর্তার পরামর্শে মহামায়া বনে অবমুক্ত করেছি। তিনি আরো জানান, কেউ সাপ দেখলে না মেরে আমাদের খবর দিলে আমরা গিয়ে উদ্ধার করব।বন বিভাগের মিরসরাই রেঞ্জের শাহান শাহ নওশাদ জানান, অজগর সাপটি অক্ষত অবস্থায় সাপটি উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়। পরবর্তীতে চট্টগ্রাম উত্তর বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা নির্দেশনানুযায়ী এই নির্বিষ অজগর সাপটি মহামায়া ইকোপার্কের বনে অবমুক্ত হয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



লেবাননের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা এরদোয়ানের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | ১২৫জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:বুধবার (২৬ জুন) ইসরায়েলের সাথে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যে তুরস্ক লেবাননের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছে এবং আঞ্চলিক দেশগুলিকেও বৈরুতকে সমর্থন করার আহ্বান জানিয়েছে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট তাইয়্যপে এরদোগান।

(২৬ জুন) তুর্কি সংসদে বক্তব্য দেয়ার সময় এরদোয়ান বলেন, ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু গাজা যুদ্ধকে এই অঞ্চলে ছড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করেছেন। গাজাকে ধ্বংস ও পুড়িয়ে ফেলার পর ইসরায়েল এখন লেবাননের দিকে নজর দিয়েছে। আমরা দেখতে পাচ্ছি পশ্চিমা দেশগুলো পর্দার আড়ালে ইসরায়েলকে সমর্থন দিচ্ছে।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে ইসরায়েল এবং লেবাননের হিজবুল্লাহর মধ্যে সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে টানাপড়েন বাড়ছে, যা সর্বাত্মক ইসরায়েল-হিজবুল্লাহ যুদ্ধের আশঙ্কা করছে। ইসরায়েলের উত্তর সীমান্ত জুড়ে গোলাবর্ষণের ফলে সীমান্তের উভয় পাশের এলাকা থেকে কয়েক হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট সতর্ক করে বলেছেন, এই অঞ্চলে যুদ্ধ ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য নেতানিয়াহুর পরিকল্পনা রয়েছে। তার এই পদক্ষেপ এই অঞ্চলটিকে বিপর্যয়ের দিকে নিয়ে যাবে।

এই সপ্তাহের শুরুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাকান ফিদান বলেন, ইসরায়েল ও হিজবুল্লাহর মধ্যে উত্তেজনা নিয়ে মন্তব্য করার সময় তুর্কি সরকার সংঘাত ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি দেখছে।

লেবাননের নিকটতম ইইউ সদস্য রাষ্ট্র সাইপ্রাসের প্রতি হিজবুল্লাহর হুমকি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে, ফিদান সাইপ্রাসকে সংঘাত থেকে "দূরে থাকার" আহ্বান জানান।

ফিদান বেসরকারি হ্যাবার্র্টক টেলিভিশনের সাথে একটি সাক্ষাত্কারে বলেছেন, তুরস্কের কাছে গোয়েন্দা প্রতিবেদনের দেখা গেছে সাইপ্রাস গাজার উপর "কিছু দেশের" সামরিক এবং গোয়েন্দা বিমানের ঘাঁটিতে পরিণত হয়েছে।

তবে, সাইপ্রাস তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফিদানের অভিযোগকে অস্বীকার করেছে। তারা এই সংঘর্ষে "কোনভাবেই জড়িত নয়"। এটি লেবাননকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার জন্য তার ইইউ অংশীদারদের লবিং করেছে এবং সম্প্রতি গাজায় মানবিক সাহায্য পাঠানোর জন্য একটি সামুদ্রিক করিডোর স্থাপন করেছে।


আরও খবর



মতিউর ও তার স্ত্রী-সন্তানদের বিদেশ যেতে নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৬৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:দেশজুড়ে আলোচিত ছাগলকাণ্ডে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সাবেক সদস্য মতিউর রহমান, তার স্ত্রী লায়লা কানিজ ও ছেলে আহম্মেদ তৌফিকুর রহমান অর্নবের বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৪ জুন) ঢাকার মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ মোহাম্মদ আসসামস জগলুল হোসেন এই আদেশ দেন।

যদিও ইতোমধ্যে মতিউরের দেশ ছেড়ার খবর ছড়িয়ে পড়েছে। তার বিভিন্ন বাসভবনে খোঁজ নিয়েও সন্ধান মেলেনি। এমনকি কোরবানির ঈদের ছুটির পর অফিস খুললেও তিনি আর অফিসে আসেননি।

জানা যায়, রোববার (২২ জুন) বিকেলের দিকে আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে মতিউর ভারতে পালিয়ে গেছেন। সেখান থেকে দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দিতে পারেন। প্রভাবশালী একটি সিন্ডিকেট তাকে দেশত্যাগে সহযোগিতা করেছে।

শুধু মতিউর রহমান নয়, তার দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী শাম্মী আখতার শিভলী, ছেলে মুশফিকুর রহমান ইফাত ও ইরফানও দেশত্যাগ করেছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে, মতিউরকে এনবিআরের কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট অ্যাপিলেট ট্রাইব্যুনালের প্রেসিডেন্টের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। হারিয়েছেন সোনালী ব্যাংকের পরিচালক পদও।

মতিউরের দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলে ইফাতের ‘ছাগলকাণ্ড’ সব হারানোর পেছনে রয়েছে। একজন সরকারি কর্মকর্তার ছেলের বিপুল পরিমাণ টাকায় গরু-ছাগল কেনা নিয়ে তুমুল আলোচনার সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে মতিউর রহমান দাবি করেন, ইফাত তার ছেলে নন। এমনকি এই তরুণ তার পরিচিতও নয়। এই ঘটনার সূত্র ধরে অনুসন্ধানে মতিউর রহমানের বিপুল সম্পদের তথ্য বেরিয়ে আসে। ইতোমধ্যে তার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগের বিষয়ে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

অনুসন্ধানে ঢাকা, গাজীপুর, সাভার, নরসিংদী, বরিশালসহ বিভিন্ন জায়গায় মতিউরের নামে বাড়ি, জমি, ফ্ল্যাট, প্লটসহ অন্যান্য স্থাবর সম্পদের খোঁজ মিলেছে।


আরও খবর



ডোমারে আনন্দলোক বিদ্যালয়ের তহবিল সংগ্রহ বিষয়ক মতবিনিময় সভা

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ২২জন দেখেছেন

Image

আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি:নীলফামারীর ডোমারে আনন্দলোক বিদ্যালয়ের তহবিল সংগ্রহ বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

জাতীয় পর্যায়ে অলাভজনক সংস্থা আনন্দলোক ট্রাস্ট ফর এডুকেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট  আয়োজিত মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সকাল ১১টায় ডোমার বহুমূখি উচ্চ বিদ্যালয় হলরুমে ইসমত আরা আকতার ইমু’র উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবিউল আলম।

এ সময় অতিথি হিসাবে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা সুদীপ কুমার শর্মা, আনন্দলোক ট্রাস্টের পরিচালক রিয়াসত করিম, কো-অর্ডিনেটর মিজানুর রহমান জুয়েল, বোড়াগাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রিমুন, পৌর কাউন্সিলর আখতারুজ্জামান সুমন, সহকারী অধ্যাপক ডেইজী নাসনীন মাশরাফি নীনা, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান বেগম রৌশন কানিজ বক্তব্য রাখেন। 

স্থানীয় ও জাতীয় প্রেক্ষাপট বিবেচনায় আনন্দলোক বিদ্যালয়গুলোকে বৈদেশিক সাহায্য ছাড়া কিভাবে স্থানীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলা যায়, সেই বিষয়ে সুধী সমাজের পরামর্শ ও মতামত গ্রহণ ছিল এই আয়োজনের মূলউদ্দেশ্য। 

অনুষ্ঠানে প্রভাষক এনছানুল হক, শিক্ষিকা মহামায়া দেব বর্মা, নাজমা আক্তার, পল্লীশ্রী প্রকল্পের জেলা সন্বয়কারী মোকিম চৌধুরী, সাংস্কৃতিক কর্মী মিজানুর রহমান সোহাগ, জেলা সন্বয়কারী ধীরাজ রায়, এডুকেশন সুপার ভাইজার সালাউদ্দিন ইউসুফ, ইউপি সদস্য রমেশ চন্দ্র সহ অনেকে তারা তাদের মতামত ব্যক্ত করেন।  

অনুষ্ঠানে জাতীয় সংস্থার প্রতিনিধিগণ, শিক্ষক, প্রভাষক, শিক্ষানুরাগী, ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধি, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস, শিক্ষার্থী এবং বিভিন্ন স্তরের শ্রেণি পেশার মানুষ মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহন করেন। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.

আরও খবর



বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ভারত সরকারের জন্য উপহারের আম পাঠালেন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৯৩জন দেখেছেন

Image
ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ভারত সরকারের জন্য উপহারের ৩০০ কেজি (১৫ কার্টুন) আম পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) সকালে বাংলাদেশ থেকে ভারতগামী আন্তর্জাতিক বাস সার্ভিস শ্যামলী পরিবহন এবং গ্রিন লাইন পরিবহনের মাধ্যমে কলকাতায় অবস্থিত বাংলাদেশি দূতাবাসের কনস্যুলার আলমাস হোসাইনের কাছে এই আম পাঠানো হয়েছে।

সেখান থেকে আমগুলো কলকাতায় অবস্থিত বাংলাদেশি দূতাবাসের কনস্যুলার আলমাস হোসাইন গ্রহণ করে ভারত সরকারের কাছে হস্তান্তর করবেন।

বেনাপোলের আইসিপি ক্যাম্পের বিজিবি কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার মিজানুর রহমান জানান, আজ সকালে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক পরিসেবা শ্যামলী পরিবহন এবং গ্রিন লাইন পরিবহনের মাধ্যমে ১৫টি কার্টুনে (৩০০ কেজি) আম ভারত সরকারকে উপহারস্বরূপ প্রদানের জন্য কলকাতায় পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে বাংলাদেশ দূতাবাস ভারত সরকারের কাছে হস্তান্তর করবে।

আরও খবর



কোটা বাতিলের দাবিতে শাহবাগ অবরোধ শিক্ষার্থীদের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:তৃতীয় দিনের মতো শাহবাগ মোড় সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিল করে ২০১৮ সালে দেওয়া প্রজ্ঞাপন পুনর্বহাল ও সব ধরনের চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে অবরোধ করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) দুপুর সোয়া ১২টায় শাহবাগ অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা।

এর আগে বেলা ১১টায় শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে জড়ো হন। তবে বিভিন্ন হল থেকে জমায়েতের উদ্দেশে বের হতে গেলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বাধা দেন বলে অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীরা। মাস্টারদা সূর্যসেন হলে তালা লাগানোর অভিযোগও করেন তারা।

এদিন প্রতিটি হল থেকে মিছিল নিয়ে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা গ্রন্থাগারের সামনে সমবেত হন। এরপর সেখান থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শাহবাগে যান তারা।

‘বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলন’র ব্যানারে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। এদিন মিছিল ও অবরোধের সময় শিক্ষার্থীরা ‘কোটা না মেধা, মেধা মেধা’; আপস না সংগ্রাম, সংগ্রাম সংগ্রাম’; ‘কোটাপ্রথা নিপাত যাক, মেধাবীরা মুক্তি পাক’ ইত্যাদি স্লোগান দেন।

এর আগে বুধবার (৩ জুলাই) বিকেল পৌনে ৪টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শাহবাগে আসেন শিক্ষার্থীরা। এরপর শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন।

একই দাবিতে মঙ্গলবারও (২ জুলাই) বিকেল পৌনে ৪টায় শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। এবার ৪ দফা দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করছেন শিক্ষার্থীরা।

উল্লেখ্য, প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটাসহ কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করেছেন হাইকোর্ট।


আরও খবর