Logo
আজঃ শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

মিধিলির প্রভাব; দুবলার চরে শুটকি পল্লীতে ৮৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি

প্রকাশিত:সোমবার ২০ নভেম্বর ২০23 | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ২১৬জন দেখেছেন

Image

বাগেরহাট প্রতিনিধি:ঘূর্ণিঝড় মিধিলির প্রভাবে ভারী বর্ষণ ও ঝড়ো বাতাসে সুন্দরবনের দুবলাসহ বিভিন্ন চরের শুঁটকির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অব্যাহত বৃষ্টি ও রোদ না থাকায় পচে গেছে শুঁটকি তৈরির জন্য মাচা ও আড়ায় থাকা মাছ।

ঝড়ো বাতাসে মাছ শুকানোর আড়া ও মাচা ভেঙে পড়েছে। ফলে আনুমানিক ৮৫ লাখ টাকার শুঁটকি নষ্ট হয়েছে বলে দাবি জেলে, ব্যবসায়ী ও বন বিভাগের।

শুঁটকি পল্লির জেলে আবু তাহের শেখ বলেন, হঠাৎ করে দুই দিনের বৃষ্টিতে আমাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। মাচায় শুকানোর জন্য রাখা অনেক মাছ পচে গেছে।কিছু শুকনা মাছও নষ্ট হয়ে গেছে। অনেক শুকনো মাছ ঝড়ে বালুর মধ্যে পড়ে নষ্ট হয়েছে।

ব্যবসায়ী আবু হানিফ বলেন, ঝড় ও বৃষ্টিতে চরে থাকা বিপুল পরিমাণ শুঁটকি নষ্ট হয়ে গেছে। ব্যবসায়ীদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। মৌসুমের শুরুতে আমরা বড় একটি ধাক্কা খেলাম।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) কাজী মুহাম্মদ নূরুল করিম বলেন, মিধিলির প্রভাবে ঝড় ও বৃষ্টিতে শুঁটকি পল্লিতে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। দুবলার চরে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের হিসাবে মিধিলায় আনুমানিক ৮০ থেকে ৮৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। মৌসুমের শুরুতে হওয়ায় এই ক্ষতি রাজস্ব আদায়ে তেমন প্রভাব পড়বে না। পরবর্তী সময়ে আবহাওয়া অনুকূল থাকলে, ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারবেন জেলেরা বলে দাবি করেন এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



বাকেরগঞ্জে মেধাবী শিক্ষার্থী লোপার হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১২৯জন দেখেছেন

Image
রবিউল ইসলাম বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি:বরিশালের বাকেরগঞ্জে মেধাবী শিক্ষার্থী  লোপা আক্তারের হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। এ হত্যার ঘটনায় নিহতের মা জেসমিন বেগম বাদি হয়ে ধর্ষক রিয়াজ ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। 

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) সকাল ১০ টায় উপজেলার কামারখালি আলহাজ্ব হযরত আলী ডিগ্রী কলেজের সম্মুখে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন কর্মসূচি পালনকালে শিক্ষার্থীরা তাদের বক্তব্যে বলেন, দাঁড়িয়াল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রিয়াজ হাওলাদার একজন দুশ্চরিত্র ও লম্পট। গত ২১ জুন দিবাগত রাতে তাদের সহপাঠী কামারখালী আলহাজ্ব হযরত আলী ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর মেধাবী শিক্ষার্থী লোপা আক্তারকে লম্পট রিয়াজ জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ঘটনা ধামাচাপা দিতে ওই রাতেই সে ও তার ভাই রাকিবুল আলম হাওলাদার লোপাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। হত্যার ঘটনা ভিন্ন খাতে নিতে তার লাশ নিজ ঘরে হাঁটু গেড়ে বসিয়ে গলায় ওড়না পেচিয়ে জানালার গ্রিলের সাথে বেঁধে রাখে। ঐদিন নামাজ পড়ার জন্য লোপার মা তাকে ডাকতে গেলে লাশ দেখে ডাকচিৎকার দেয়। তার ডাকচিৎকার শুনে আসামি রিয়াজ হাওলাদার সেখানে গিয়ে বলে হার্ট অ্যাটাকে তার মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। 

লোপার মা জেসমিন বেগম কান্না জড়িত কন্ঠে সাংবাদিকদের জানান, তার মেয়ে লোপার সাথে কলেজ পড়ুয়া একটি ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এ ঘটনা জানতে পেরে দাঁড়িয়াল ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি আসামি রিয়াজ হাওলাদার তার কন্যাকে ব্লাকমেইল করে কুপ্রস্তাব দেয়। এতে লোপা রাজি না হওয়ায় লম্পট রিয়াজ হাওলাদার তার কন্যাকে ধর্ষণ শেষে মেরে ফেলেছে। প্রশাসনের নিকট তিনি অবিলম্বে তার কন্যার হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি জানান।

আরও খবর



মারা গেছেন ‘জল্লাদ’ শাহজাহান

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১১৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৬ আসামিসহ প্রায় ২৬ জনের ফাঁসির দড়ি টানা আলোচিত ‘জল্লাদ’ শাহজাহান ভূঁইয়া মারা গেছেন।

আজ সোমবার (২৪ জুন) রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

কারা সূত্রে জানা যায়, জল্লাদ শাহজাহান ২০০১ সাল থেকে এ পর্যন্ত ২৬ জনের ফাঁসি দিয়েছেন। এর মধ্যে ছয়জন বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি, চারজন যুদ্ধাপরাধী, জঙ্গি নেতা বাংলাভাইসহ দুজন জেএমবি সদস্য এবং আরও ১৪ জন অন্যান্য আলোচিত মামলার আসামির ফাঁসি কার্যকর করেছেন তিনি।

জল্লাদ শাহজাহানের বোন ফিরোজা বেগমর জানান, ভাই বেশ কিছুদিন ধরে ঢাকার অদূরে হেমায়েতপুরে থাকতেন। রোববার রাতে তার বুকে ব্যথা শুরু হলে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই তিনি মারা যান।

জানা যায়, ১৯৯১ সালে গ্রেপ্তার হওয়ার পর ৩৬টি মামলায় শাহজাহানের ১৪৩ বছরের সাজা হয়। পরে ৮৭ বছরের সাজা মাফ করে তাকে ৫৬ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। ফাঁসি কার্যকর ও সশ্রম কারাদণ্ডের সুবিধার কারণে সেই সাজা ৪৩ বছরে এসে নামে। দুটি মামলায়পাঁচ হাজার টাকা করে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ছয় মাস করে অতিরিক্ত এক বছর জেল খেটে ৩২ বছর পর ১৮ জুন মুক্ত আকাশে শ্বাস ফেলার সুযোগ পাবেন জল্লাদ শাহজাহান।

সহযোগী জল্লাদ হিসেবে গফরগাঁওয়ের নূরুল ইসলামকে ফাঁসি দিয়ে শাহজাহান তার জল্লাদ জীবনের সূচনা করেন। এরপর কারাগারে কারও মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের সময় আসলেই ডাক পড়তো তার। টানা আট বছর এই কাজ করার পর কারা কর্তৃপক্ষ তাকে প্রধান জল্লাদের স্বীকৃতি দেন।


আরও খবর



মধুপুরে আই ইউজিআইপি প্রকপ্লের ইএমপি বাস্তবায়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | ১১৪জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ- টাঙ্গাইলের মধুপুর পৌর সভা হল রুমে আইইউজিআইপি প্রকল্পের আওতাধীন ইএমপি বাস্তবায়ন  বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।  সোমবার (৮জুলাই) দুপুরে মধুপুর পৌরসভায় বাস্তবায়ানাধীন  স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের অন্তর্গত আইইউজিআইপি প্রকল্পের ইএমপি বাস্তবায়ন  বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। 


উক্ত প্রশিক্ষন কর্মসূচির উদ্বোধন করেন মধুপুর  পৌরসভার মেয়র  আলহাজ মো: সিদ্দিক হোসেন খান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র (০১)  মো: জাকিরুল ইসলাম ফারুক সহ অন্যান্যরা। প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহন করেন প্রকল্পের প্রকৌশলীবৃন্দ এবং ঠিকাদারের প্রতিনিধিগন সহ   শ্রমিকরা।  প্রশিক্ষন প্রদান করেন রিসোর্স সেফ কনসালট্যান্টস লিমিটেড (আর সি এল) এর পরিবেশ বিষয়ক  বিশেষজ্ঞগণ।

   -খবর প্রতিদিন/ সি.ব

আরও খবর



ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ১০ সমঝোতা স্মারক সই

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১৪৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পর ১০টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। যার মধ্যে ৩টি সমঝোতা নবায়ন করা হয়েছে।

শনিবার (২২ জুন) স্থানীয় সময় দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বৈঠকে বসেন শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি। দিল্লির হায়দরাবাদ হাউসে অনুষ্ঠিত দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে এসব সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

‘ডিজিটাল অংশীদারত্ব’ এবং ‘টেকসই ভবিষ্যতের জন্য সবুজ অংশীদারত্ব’ বিষয়ক দুটি সমন্বিত রূপকল্পকে সামনে রেখে কাজ করবে ভারত এবং বাংলাদেশ। এ লক্ষ্যে দুই যৌথ কার্যক্রমের নথি সই করে বাংলাদেশ।

এ দুটি হলো-বাংলাদেশ-ভারত ডিজিটাল অংশীদারত্বের বিষয়ে অভিন্ন লক্ষ্যমাত্রা এবং টেকসই ভবিষ্যতের জন্য বাংলাদেশ-ভারত সবুজ অংশীদারত্বের বিষয়ে অভিন্ন লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ক নথি সই।

নতুন পাঁচটি সমঝোতা স্মারক হলো-বঙ্গোপসাগর ও ভারত মহাসাগরের সুনীল অর্থনীতি এবং সমুদ্র সহযোগিতার বিষয়ে দুদেশের মধ্যে সমঝোতা স্মারক; ভারত মহাসাগরের ওশানোগ্রাফির ওপর যৌথ গবেষণা ও দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ে বাংলাদেশের বিওআরআই ও ভারতের সিএসআইআরের মধ্যে সমঝোতা স্মারক; বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে রেল যোগাযোগের ওপর সমঝোতা স্মারক; যৌথ ছোট স্যাটেলাইট প্রকল্পে সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ভারতের ন্যাশনাল স্পেস প্রোমোশন অ্যান্ড অথোরাইজেশন সেন্টারের মধ্যে সমঝোতা স্মারক এবং ডিফেন্স স্টাফ কলেজের মধ্যে একাডেমিক সহযোগিতা বিষয়ে সমঝোতা স্মারক।

নবায়নকৃত তিন সমঝোতা স্মারক হলো-মৎস্যসম্পদ সহযোগিতা বিষয়ক সমঝোতা স্মারক; দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক সমঝোতা স্মারক এবং স্বাস্থ্য ও ওষুধ খাতে সহযোগিতা বিষয়ক সমঝোতা স্মারক।

এর আগে সকাল ৯টায় রাষ্ট্রপতি ভবনে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে তাকে স্বাগত জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সুসজ্জিত অশ্বারোহী দল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মোটর বহরকে পাহারা দিয়ে রাষ্ট্রপতি ভবনের গেট থেকে ফোরকোর্টে নিয়ে যায়।

এরপর এখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা ও গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। এ সময় বাংলাদেশ ও ভারতের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়। সশস্ত্র সালাম গ্রহণের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গার্ড অব অনার পরিদর্শন করেন।

পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লাইন অব প্রেজেন্টেশনে দুদেশের মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের পরিচয় করিয়ে দেন।

রাষ্ট্রপতি ভবনের এ কর্মসূচি শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের জাতির পিতা মহাত্মা গান্ধীর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে রাজঘাট যান। সেখানে তিনি মহাত্মা গান্ধীর সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

পরে শেখ হাসিনা হায়দ্রাবাদ হাউসে যান। সেখানে তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সৌজন্য স্বাক্ষাৎ ও দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন।


আরও খবর



কোটার বিষয়টি সুন্দরভাবে নিষ্পত্তি হোক: জনপ্রশাসনমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ | ১০৭জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আমরাও চাই কোটার বিষয়টি সুন্দরভাবে নিষ্পত্তি হয়ে যাক বলেছেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সচিবালয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের ওপর বুধবার (১০ জুলাই) চার সপ্তাহের জন্য স্থিতাবস্থা জারি করেছেন আপিল বিভাগ।

একইসঙ্গে এই সময়ের মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষ ও শিক্ষার্থীদের হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল করতে বলেছেন আদালত। এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য ৭ আগস্ট দিন ধার্য করা হয়েছে।

এ আদেশের ফলে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করে ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র বহাল থাকছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর