Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

মেয়ের বাবা হলেন অভিনেতা সনি রহমান

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৯২জন দেখেছেন
Image

মেয়ের বাবা হলেন অভিনেতা সনি রহমান। গত শুক্রবার, ১৭ জুন নরসিংদীর মাধবদী হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতালে তার স্ত্রী ফুটফুটে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। অভিনেতা জানিয়েছেন, মা ও শিশু দুজনেই সুস্থ আছেন।

সনি রহমান বলেন, ‘প্রথম সন্তানের বাবা হলাম, তাও কন্যা সন্তান। অনুভূতিটা কতোটা মধুর তা সন্তান বুকে জড়িয়ে নেয়ার পর বুঝলাম। অনুভূতিটা সত্যিই অসাধারণ। বাবা হওয়ার অনুভূতিটা কি সেটা যাদের সন্তান হয়েছে তারাই একমাত্র বলতে পারবেন।

আমি মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে শুকরিয়া আদায় করছি। সেই সঙ্গে সবার কাছে আমার সন্তান ও স্ত্রীর জন্য দোয়া প্রার্থনা করছি।’

সনি রহমান বেশ অনেক বছর ধরেই মঞ্চ, টিভি ও সিনেমায় কাজ করে যাচ্ছেন। মুক্তির অপেক্ষায় আছে তার ‘রাগি’ নামের একটি সিনেমা।

এফডিসিতে ব্যয়বহুল মসজিদটি তৈরির পেছনেও এই সনি রহমানের অনেক ভূমিকা রেখেছেন।


আরও খবর



ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে লড়াই আগ্রহ বাড়িয়েছে প্রবাসী বাংলাদেশিদের

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ২৫ June ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
Image

বাহরাইনের বিপক্ষেই নয়, এশিয়ান কাপ ফুটবলের বাছাইয়ের তিনটি ম্যাচ নিয়েই বিপুল আগ্রহ মালয়েশিয়ার প্রবাসী বাংলাদেশিদের। ৩ জুন জাতীয় ফুটবল দল ইন্দোনেশিয়া থেকে মালয়েশিয়া পৌঁছালে প্রবাসী বাংলাদেশিরা বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়ে অভ্যর্থনা জানিয়েছিলেন জামাল ভূঁইয়াদের।

সেখানেই থেমে ছিল না তারা। বাংলাদেশ যেদিন যে ভেন্যুতে অনুশীলন করেছে, সেই ভেন্যুতেই অনেক প্রবাসী উপস্থিত হয়েছেন। তারা বিভিন্নভাবে বাংলাদেশের ফুটবলারদের উৎসাহ দিয়েছেন।

প্রবাসী বাংলাদেশিদের অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে বুধবার বিকেলে। বাংলাদেশ সময় বিকেল সোয়া ৩টায় প্রথম ম্যাচ খেলতে নামছে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ এই গ্রুপের সবচেয়ে শক্তিশালী দল বাহরাইন।

মঙ্গলবার অনুশীলন মাঠে উপস্থিত হয়ে প্রত্যেকটি ম্যাচের দিনে গ্যালারিতে বসে দলকে উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা দেবেন বলে ঘোষণা করেছেন সাইফুদ্দিন নামের এক প্রবাসী বাংলাদেশি। মালয়েশিয়া থেকে তার বক্তব্যের ভিডিওটি পাঠিয়েছে বাফুফে।

সাইফুদ্দিন বলেছেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল মালয়েশিয়া এসেছে। আমরা প্রবাসী বাংলাদেশিরা ওনাদেরকে বিমানবন্দরে সংবর্ধনা দিয়েছি। প্রত্যেকদিন চেষ্টা করছি দলকে কিভাবে সহযোগিতা করা যায়। আমরা অনুশীলন মাঠে থাকছি। প্রতিটি ম্যাচেও আমরা মাঠে গিয়ে উৎসাহ দেবো।’

বাংলাদেশের ম্যাচ নিয়ে প্রবাসীদের তুমুল আগ্রহের কথা উল্লেখ করে সাইফুদ্দিন বলেছেন, ‘এখানে অবস্থান করা বাংলাদেশিদের তুমুল আগ্রহ ম্যাচগুলো নিয়ে। আমরা মাঠে গিয়ে বাংলাদেশ দলকে সাপোর্ট করার জন্য মুখিয়ে আছি। আমরা সবাই ভালো রেজাল্টের আশা করছি।’

জাতীয় দলের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়ের নাম উল্লেখ করে এই প্রবাসী বাংলাদেশি বলেছেন, ‘আমাদের জামাল ভূঁইয়া, ইব্রাহিম, জিকো, ফাহাদ বিশ্বনাথ, সোহেল রানা এমন সত্তরভাগ খেলোয়াড়ের নাম এখানকার বাংলাদেশিরা জানেন। ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে আমাদের দল খুব ভালো রেজাল্ট করেছে। এ কারণে প্রবাসীদের আগ্রহ আরো বেড়ে গেছে। ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে যেমন খেলেছি আমরা, এখানে সেরকম ম্যাচ এবং ওই রকম ফলও আশা করছি।’


আরও খবর



ফেসবুকে কবিতা লিখে সরকারি চাকরি হারালেন কবি রহমান হেনরী

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

সরকারপ্রধানকে নিয়ে ফেসবুকে ব্যঙ্গাত্মক কবিতা লিখে চাকরি হারালেন ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) সিনিয়র সহকারী সচিব মো. সাইদুর রহমান। তিনি ‘রহমান হেনরী’ নামে কবিতা লেখেন।

সোমবার (১৩ জুন) তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

সাইদুর রহমান সর্বশেষ জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের উপ-পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে তাকে ওএসডি করা হয়।

চাকরি থেকে বরখাস্তের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সাইদুর রহমান ২০২০ সালের ৮ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টা ৪৬ মিনিটে তার ফেসবুক আইডি ‘রহমান হেনরী’ থেকে ‘রহমান হেনরী’ ছদ্মনামে একটি কুরুচিপূর্ণ, অশোভন ও আপত্তিকর কবিতা প্রকাশ করেন। এটি একদিকে একজন সরকারি কর্মচারীর পক্ষে অশোভন ও অকর্মকর্তাসুলভ আচরণ এবং অন্যদিকে এতে প্রশাসনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ায় ‘সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮’ অনুযায়ী ‘অসদাচরণ’-এর অভিযোগে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ২০২০ সালের ১৪ অক্টোবর তাকে কৈফিয়ত তলব করা হয় এবং একই সঙ্গে তিনি ব্যক্তিগত শুনানি চান কি না, তা জানতে চাওয়া হয়।

অভিযোগনামা ও অভিযোগ বিবরণীর আলোকে তিনি লিখিত জবাব দাখিল করে ব্যক্তিগত শুনানির জন্য আবেদন করেন। ২০২০ সালের ২৫ নভেম্বর তার ব্যক্তিগত শুনানি গ্রহণ করা হয। লিখিত জবাব ও ব্যক্তিগত শুনানির বক্তব্য সন্তোষজনক না হওয়ায় বিভাগীয় মামলাটি তদন্ত করার জন্য তদন্ত কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয় বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়।

এতে আরও বলা হয়, তদন্তে সাইদুর রহমানের বিরুদ্ধে আনা অসদাচরণের অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয় এবং তদন্ত প্রতিবেদনের আলোকে ‘সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮’-এর ৪ (৩)(ঘ) অনুযায়ী তাকে চাকরি থেকে বরখাস্তের গুরুদণ্ড আরোপের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত হয়।

এরপর তাকে দ্বিতীয় কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। সেই নোটিশের জবাবও সন্তোষজনক হয়নি। একজন সরকারি কর্মচারী হয়েও তিনি সরকারপ্রধানকে ইঙ্গিত করে যে কুরুচিপূর্ণ ভাষায় কবিতা প্রকাশ করেছেন, তা তদন্তে সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে বলে জানায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

পরে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) মতামত এবং রাষ্ট্রপতির অনুমোদনের পরিপ্রেক্ষিতে সাইদুর রহমানকে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা অনুযায়ী চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়।

রহমান হেনরীর কবিতার বইয়ের মধ্যে রয়েছে ‘বনভোজনের মতো অন্ধকার’, ‘গীতঅনার্য’, ‘প্রকৃত সারস উড়ে যায়’, ‘সার্কাসমুখরিত গ্রাম’, ‘খুনঝরা নদী’, ‘তোমাকে বাসনা করি’, ‘গোত্রভূমিকাহীন’, ‘দুঃখ ও আরও কিছু আনন্দ’, ‘ব্রজসুন্দরীর কথা’, ‘প্রণয়সম্ভার’। এছাড়া তার কিছু অনুবাদগ্রন্থও রয়েছে।


আরও খবর



কাগজের প্লেন উড়িয়ে বিশ্বরেকর্ড

প্রকাশিত:Friday ১০ June ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ২৫ June ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

ছোটবেলায় কাজের প্লেন, নৌকা বানিয়ে খেলেছেন নিশ্চয়ই। সেই স্মৃতি এখনো গেঁথে আছে মনে। তবে এবার সেই কাগরের প্লেন উড়িয়ে বিশ্বরেকর্ড করলেন দক্ষিণ কোরিয়ায় তিন যুবক। তাদের একটি কাগজের প্লেন ২৫০ ফুটের বেশি দূরত্ব অতিক্রম করে নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়েছে।

কাগজের প্লেনটি বানানোর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন মালয়েশিয়ার চে ইয়ে জিয়ান এবং দক্ষিণ কোরিয়ার শিন মো জোওন ও কিম ইউন তায়ে। চে ইয়ে জিয়ান প্লেনটির নকশা করেছেন। শিন মো জোওন কাগজ ভাঁজ করে সেটি বানিয়েছেন। আর কিম ইউন তায়ে প্লেনটি উড়িয়েছেন।

চে ইয়ে জিয়ানের সঙ্গে অনলাইনে পরিচয় হয় অন্য দুজনের সঙ্গে। সেখানেই ঘনিষ্ঠতা হয় তিনজনের। নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়তে তারা অনলাইনে অনেক আগে থেকেই পরিকল্পনা করছিলেন। সে অনুযায়ী প্রস্তুতি নেন। উড়োজাহাজের নকশা করা, কাগজ সংগ্রহ, তা ভাঁজ করে উড়োজাহাজ বানানো এসব চলে দুই দেশে। অবশেষে গিনেস কর্তৃপক্ষের উপস্থিতিতে কিম ইউন তায়ে উড়োজাহাজটি ওড়ান। তখন তার সঙ্গে শিন মো জোওন ছিলেন।

jagonews24

দক্ষিণ কোরিয়ার একটি স্টেডিয়ামে পরপর আটবার কাগজের উড়োজাহাজটি ওড়ান কিম ইউন তায়ে। এর মধ্যে একবার তার ওড়ানো উড়োজাহাজটি ২৫২ ফুট ৭ ইঞ্চি দূরত্ব অতিক্রম করে। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস কর্তৃপক্ষের হিসাব অনুযায়ী, এর আগে কাগজের তৈরি কোনো উড়োজাহাজ এতটা দূরত্ব অতিক্রম করেনি।

এর আগে ২০১২ সালে কাগজের তৈরি উড়োজাহাজ সবচেয়ে বেশি দূর পর্যন্ত পাঠিয়ে রেকর্ড গড়েছিলেন জো আইয়ুব ও জন এম কলিন্স। কলিন্সের নকশা করা ও আইয়ুবের ওড়ানো উড়োজাহাজ ২২৬ ফুট ১০ ইঞ্চি দূরত্ব অতিক্রম করে বিশ্ব রেকর্ড গড়েছিল। সে তুলনায় নতুন রেকর্ড গড়তে দক্ষিণ কোরিয়ায় কাগজের উড়োজাহাজটি ২৬ ফুটের বেশি দূরত্ব পেরিয়েছে।

সূত্র: গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস


আরও খবর



বাংলাদেশে জব পোর্টাল নিয়ে এলো ম’বিজ

প্রকাশিত:Saturday ০৪ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
Image

বর্তমান প্রজন্মের যারা পড়াশোনা শেষ করেছেন, তাদের জন্য সামনে চাকরির বাজারে রয়েছে বড় চ্যালেঞ্জ। বৈশ্বিক মহামারির পর চাকরি পেতে তরুণদের বিশেষ দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান কিংবা অন্যান্য তথ্য সম্পর্কে থাকতে হবে বিস্তারিত ধারণা।

এছাড়াও পছন্দের প্রতিষ্ঠানে চাকরি খোঁজা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। তবে ইন্টারনেটের কল্যাণে এ কাজ অনেকটা সহজ হয়ে এসেছে। অনলাইনভিত্তিক বিভিন্ন চাকরি খোঁজার ওয়েবসাইট ও পোর্টাল থেকে ঘরে বসেই চাকরির বিজ্ঞপ্তি জানা যায়। চাকরির জন্য আবেদন করা যায়।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও এসব ওয়েবসাইটের সংখ্যা নিতান্তই কম নয়। LinkedIn ও Facebook এর পাশাপাশি, বেশ কিছু চাকরি খোঁজার ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো নিয়োগকর্তা ও চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে খুবই জনপ্রিয়। তবে বিদ্যমান চাকরির সাইটগুলোর তুলনায়, MAWbiz.com.bd আদর্শগতভাবে ভিন্ন ও অনন্য; কেননা এটি বাংলাদেশের প্রথম ও একমাত্র নৈতিক (Ethical) জব পোর্টাল।

MAWbiz একটি চাকরিকে নৈতিক হিসেবে সংজ্ঞায়িত করে এবং ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে যখন এটি (ক) কোনো শ্রম-অধিকার লংঘন করে না; (খ) শিল্প নির্ধারিত গড়-বেতন কাঠামোর তুলনায় উল্লেখযোগ্যভাবে কম মজুরি দেয় (গ) পরিবেশগত স্থায়িত্বে সংবেদনশীল; এবং (ঘ) সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে বিপন্ন করে না।

এছাড়াও, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য চাকরি, প্রো বোনো (স্বেচ্ছাসেবক কাজ) ও সামাজিক ব্যবসা এবং অলাভজনক খাতে চাকরির কথা এই জব সাইটটি বিশেষভাবে তুলে ধরে। MAWbiz এর গবেষণাপ্রসূত একটি বেতন নির্দেশিকা রয়েছে যেখানে একটি নির্দিষ্ট শিল্পে বিভিন্ন কোম্পানির তুলনামূলক পারিশ্রমিক চিত্র তুলে ধরা হয়েছে। এই নির্দেশিকার সহায়তায় চাকরি প্রার্থীরা খুব সহজেই বিজ্ঞাপিত কোনো চাকরির গড় বেতন সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট ধারণা পেয়ে থাকে।

MAWbiz-এর এই নৈতিক চাকরির পোর্টাল মূলত টেকসই ব্র্যান্ডিং, সামাজিক অগ্রগতি এবং কমিউনিটি অ্যাম্পাওয়ার্মেন্ট প্রচারে তাদের বৃহত্তর কৌশলগত উদ্দেশ্যের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। MAWbiz এর মূল লক্ষ্য হচ্ছে ছোট-বড় সবধরনের ব্যবসাকে একটি ডিজিটাল প্লাটফরমের মাধ্যমে কমিউনিটি বিজনেস নেটওয়ার্কে সম্পৃক্ত করা।

এই সাইটটিতে ক্লায়েন্ট বা বিজনেস তাদের নিজের চাহিদা মতো MAWbiz এর বিভিন্ন ফিচার থেকে নিজেরা নিজের মতো করে কাস্টোমাইজ প্রোফাইল তৈরি এবং প্রমোশন করতে পারে অতি সহজে। এছাড়াও ই-লার্নিং, বিজ হাব ও কমিউনিটি এনগেজমেন্টের মতো বিশেষ কিছু প্লাটফর্মে বিভিন্ন বিষয়ে নতুন দক্ষতা শেখার সুবিধা রয়েছে।

কয়েকজন প্রগতিশীল তরুণ উদ্যোক্তার হাত ধরে প্রকল্পটির যাত্রা শুরু হয়েছিল। MAWbiz সম্প্রতি ২০২১ সালের গ্লোবাল গ্রিন বিজনেস অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে, যা যুক্তরাজ্য ভিত্তিক B2B প্রকাশনা সংস্থা অ্যাকুইজিশন ইন্টারন্যাশনাল দ্বারা প্রস্তাবিত হয়েছে। প্রকল্পের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ড. এম.আর. ম্যাক্সিম উল্লেখ করেন, সমাজ ও পরিবেশগত উন্নয়নে অবদান রেখে ও মানুষের আস্থা অর্জনের মাধ্যমে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চায় MAWbiz।


আরও খবর



নৌকা নিয়ে জনসভায় শাজাহান

প্রকাশিত:Saturday ২৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

পদ্মা সেতু উদ্বোধনী জনসভায় উপস্থিত হতে সকাল থেকে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল থেকে আসতে থাকে হাজারো মানুষ। শেখ হাসিনাকে এক নজর দেখার জন্য বিভিন্ন জেলা থেকে সভাস্থলে আসেন তারা। এর মধ্যে দিনমজুর শাজাহান সরদার নৌকা নিয়েই সভাস্থলে আসেন।

শনিবার (২৫ জুন) সকালে মাদারীপুরের শিবচরে বাংলাবাজার ঘাটে জনসভায় গিয়ে এমনটাই দেখা যায়।

শাজাহান সরদা গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার চরকুশলী গ্রামের বাসিন্দা। কয়েক বছর আগে তিনি ওই নৌকা বানিয়েছিলেন। সেই নৌকা নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে জাজিরা ঘাটে আসেন তিনি। এরপর শুক্রবার মাদারীপুর শিবচর বাংলাবাজার ঘাটে জনসভাস্থলে। সেখানে শনিবারও রয়েছেন তিনি।

এসময় জাগো নিউজকে শাজাহান সরদার বলেন, ‘আমরা কল্পনাও করি নাই পদ্মার ওপরে এতো বড় সেতু হবে। ফরিদপুর খুলনা বরিশাল এই এলাকার মানুষের কষ্ট হয়েছিল। অনেক মানুষ মারা যাইতো। এখন ব্রিজ দিয়া চইলা যাবে।’

jagonews24

তি জানান, প্রধানমন্ত্রী এখানে আসবে। বিশাল সমাবেশ। শেখ হাসিনকে দেখতেই নৌকা নিয়ে তিনি চলে আসেন।

খুলনা সদরের মহেশ্বর পাশা থেকে আসা হেলাল বেপারী। রংয়ের কাজ করেন ৪৭ বছর বয়সী হেলাল। খুলনা থেকে ভাঙ্গায় বাসে করে নিয়ে আসেন নিজের পুরনো এক সাইকেলের সামনে লাগানো পিতলের তৈরি নৌকা নিয়ে। সেখান থেকে নৌকা লাগানো সাইকেল নিয়ে হেঁটে আসেন সভাস্থলে।

জাগো নিউজকে হেলাল বলেন, এক বছর বয়সে আমি আমার মা-বাবাকে হারিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও তার বাবা মাকে হারিয়েছেন। এইজন্য তার যে দুঃখ বুঝতে পারি। তাই তিনি আমার প্রিয় মানুষ। যেখানে তার সমাবেশ হয় সেখানে ছুটে যায়।


আরও খবর