Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

মেট্রোরেলের বগি না বাড়িয়ে সময় কমানোর সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:মেট্রোরেলের বগি আর বাড়বে না যাত্রীর চাহিদা থাকলেও। তবে বিরতির সময় কমানো হবে। সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এখন মেট্রোরেল চলছে ছয়টি কোচ নিয়ে। সকাল ৮টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ১০ থেকে ১২ মিনিট বিরতি দিয়ে।

বিরতি কমিয়ে ট্রেন বাড়িয়ে মেট্রোরেলের সুবিধাটা বাড়ানো যায় কি-না জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকেদর বলেন, মেট্রো তো বাংলাদেশ রেলওয়ে না, যখন তখন বগি বাড়ানো যাবে। যখন তখন একটা চেঞ্জ করা যাবে। পৃথিবীর কোনো দেশে মেট্রোর বগির সংখ্যা পাঁচের বেশি নেই। আমাদের এখানে অলরেডি ছয়টা কাজ করছে।

তবে গত ২৪ জানুয়ারি ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) কোম্পানি সচিব (যুগ্ম সচিব) মোহাম্মদ আবদুর রউফ একটি গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, আমাদের বগি বাড়ানোর চিন্তা আছে। যে সিস্টেমে আছে সেখানে প্রত্যেক কোচে আরও দুটি বগি যুক্ত করতে পারব। এছাড়া নতুন কোচ প্রয়োজন হলে ভাবা হবে।

মেট্রো ট্রেনের চলাচলের মধ্যবর্তী সময় কমানোর বিষয়ে তিনি বলেছিলেন, আমাদের টিম কাজ করছে। সার্ভে করে আমরা দেখব মেট্রো ট্রেন চলাচলের মধ্যবর্তী সময়টা কতটা কমিয়ে আনা যায়।


আরও খবর



রৌমারীতে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারি পাঠ্যবই বিক্রির অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬২জন দেখেছেন

Image

মাজহারুল ইসলাম,রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:রৌমারী উপজেলার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সরকারি বিনামূল্যের ৩৬০ কেজি পাঠ্যবই বিক্রির অভিযোগ উঠেছে প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়নের বাইটকামারী উচ্চ বিদ্যালয়ে।

জানাগেছে, বাইটকামারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীর পুরাতন পাঠ্যবইগুলো ফেরত নেন প্রধান শিক্ষক। পরে ২০২৪ সালের নতুন বইসহ শিক্ষার্থীদের ফেরত নেয়া পুরাতন পাঠ্যবইগুলো পাখিউড়া বাজারের এক ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করেন প্রধান শিক্ষক। তবে বিনামূল্যের পাঠ্যবইগুলো কত দরে বিক্রি করেছেন তা জানেন না কেউ।

এছাড়াও সরকারি নির্দেশনা তোয়াক্কা না করে প্রধান শিক্ষক ও পরিচালনা কমিটির সভাপতির যোগসাজসে ইচ্ছা মতো ফি নির্ধারণ করে ভর্তি ফি, পুন:ভর্তি ফি, পরীক্ষার ফি, রেজিট্রেশন ফি, ফরমপূরণ ফি’র নামে অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার অভিযোগও রয়েছে প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি ম্যানেজিং কমিটিতে আত্মীয়করণের অর্ন্তভুক্ত করার অভিযোগ উঠেছে। এ জন্য প্রধান শিক্ষক তার নিজ ইচ্ছামতো এসব কর্মকান্ড করে যাচ্ছেন। প্রধান শিক্ষকের ক্ষমতার প্রভাবে বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক বা শিক্ষার্থীদের অভিভাবকসহ কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায়না।

বিদ্যালয়ের বর্তমান অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী রাসেল ইসলাম, জান্নাতি খাতুন, ফাতেমা আক্তার, কণিকা আক্তার, রাসেদা আক্তার, শেখ ফরিদ, সোমা আক্তারসহ অনেকই বলেন, নতুন বই দেওয়ার সময় পুরাতন বইগুলো ফেরত নিয়েছেন স্যারে’রা। আর সপ্তম শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেনিতে উঠতে নতুন করে ভর্তি বাবদ স্যারেরা ৬শ করে টাকা নিয়েছেন।

তারা আরও বলেন, কেউ ৬’শ টাকা দিতে না পারলে ভর্তি খাতায় নাম তুলেননি এবং নতুন বইও দেয়নি স্যারেরা। একই ভাবে বলেন সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীরাও। বিদ্যালয়ের অফিস সহকারি মোছা. হাজরা বেগম বলেন, শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পুরাতন বইগুলো ফেরত নিয়েছে। তা সত্য। কিন্তু অফিস কক্ষে পুরাতন বইগুলো নেই, কিছু নতুন বই রয়েছে। বইগুলো কি করেছে তা আমার জানার বিষয় নয়।

নাম প্রকাশে অনচ্ছিুক বিদ্যালয়ের কয়েকজন সহকারি শিক্ষক অভিযোগ করে বলেন, শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পুরাতন বইগুলো নিয়ে ব্যবসায়ীর কাছে কেজি দরে বিক্রি করেছেন। আমরাতো প্রধান শিক্ষককে জবাবদিহি করতে পারিনা। পাশাপাশি প্রধান শিক্ষক ও তার ভাই সভাপতি হওয়ায় এসব করতে সাহস পান তিনি।বিদ্যালয়ের কোন বিষয় নিয়ে কথা বললে এমপিও বন্ধসহ চাকুরি খাওয়ার হুমকিও দেন প্রধান শিক্ষক। এ জন্য আমরা কারও কাছে বলতে চাই না।

বিনামূল্যের সরকারি পাঠ্যবই বিক্রিরসহ কয়েকটি অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে প্রধান শিক্ষক মো. মোস্তাফিজুর রহমান মুঠোফোনে অস্বীকার করে জানান, আমি বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের খেলাধুলায় আছি বলে ফোন কেটে দেন। পরে একাধিকবার কল করলেও তিনি রিসিভ করেননি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. বদরুল হাসান মুঠোফোনে জানান, বিনামূল্যের নতুন কিংবা পুরাতন পাঠ্যবই কোনক্রমই বিক্রি করা যাবে না। তবে কোন প্রতিষ্ঠান প্রধান বিক্রি করেন এবং এ ধরণের বিষয় অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, যেহেতু ইউএনও সভাপতি তাঁর কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

রৌমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ হাসান খান বলেন, এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক কর্মকর্তাকে বিষয়টি দেখার জন্য বলা হবে। সত্যতা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থানেওয়া হবে বলে জানান।


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মেহেরপুরে মাদক সেবীর এক বছরের কারাদন্ড

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮১জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ,মেহেরপুর প্রতিনিধিঃআছাদুজ্জামান রাব্বি (২৪) নামের এক মাদক সেবীকে এক বছরের কারাদন্ড ও এক হাজার টাকা অর্থদ- দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। আজ বৃহষ্পতিবার বেলা ১১টার দিকে মেহেরপুরের গাংনী হাসপাতাল পাড়ার ক্ষণিকালয় বোডিং এর পাশে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম নাদির হোসেন শামীম এ দন্ড প্রদান করেন আছাদুজ্জামান রাব্বি মেহেরপুরের গাংনীর গোপালনগর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে। তাকে মেহেরপুর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাদির হোসেন শামীম জানান, গাংনী র‌্যাব ক্যাম্পের একটি টীম দন্ডিত আছাদুজ্জামান রাব্বিকে ৮ টি নেশা জাতীয় ইঞ্জেকশন, দুই পুরিয়া গাঁজা ও ইঞ্জেকশন পুশ করার সিরিঞ্জসহ আটক করে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসানো হয়। রাব্বি নিজেই তার দোষ স্বীকার করায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ এর ৯/১(গ) ধারায় ৩৬/১(১৬) ধারা মোতাবেক এক বছর কারাদন্ড ও এক হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। দন্ডিতকে মেহেরপুর জেলা কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেয়া হয়েছে।

গাংনী র‌্যাব ক্যাম্প কমান্ডার এএসপি মনিরুজ্জামান জানান, হাসপাতালের পরিত্যক্ত ভবন ও এর আশে পাশে বেশ কিছুদিন যাবত কতিপয় মাদক সেবী নেশা করতো। বিষয়টি অবগত হওয়ার পর র‌্যাবের একটি টীম অভিযান চালিয়ে তাকে মাদক ও মাদক ব্যবহারের সরঞ্জামাদীসহ আটক করে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসানো হয়। এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ঝিনাইদহ-১ আসন:আব্দুল হাইয়ের এমপি পদ স্থগিতের বিরুদ্ধে আবেদন

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৩২জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ঝিনাইদহ-১ আসনে নৌকার প্রার্থী আব্দুল হাইকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী ঘোষণা করেছিল ইসি। সেই গেজেট স্থগিত করেছিলেন হাইকোর্ট। এবার হাইকোর্টের সেই স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে আবেদন করা হয়েছে আপিল বিভাগে।

সোমবার (৫ জানুয়ারি) আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় বিজয়ী নৌকার প্রার্থী আব্দুল হাই এ আবেদন করেন। তার পক্ষের আইনজীবী হলেন অ্যাডভোকেট সাঈদ আহমেদ রাজা।

গত ১ ফেব্রুয়ারি ঝিনাইদহ-১ আসনের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল হাইকে বিজয়ী ঘোষণা করে ইসির গেজেট স্থগিত করেন হাইকোর্ট। দুই মাসের জন্য এই স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (১ জানুয়ারি) বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামানের একক হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান।

এর আগে ভোটগ্রহণ ও ভোট গণনায় অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে ঝিনাইদহ-১ আসনের সংসদ সদস্য পদের গেজেট স্থগিত চেয়ে ইলেকশন পিটিশন দায়ের করেন ওই আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম দুলাল। পরে ইসির ওই নির্বাচনি গেজেট স্থগিত করেন বিচারপতি আসাদুজ্জামানের কোর্ট।


আরও খবর



সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫০জন দেখেছেন

Image

আব্দুল হান্নানঃএক সময়ের নাসিরনগর ও সরাইল থানার চৌকস পুলিশ পরিদর্শক,মুক্তিযোদ্ধাপরিবারের সন্তান পরবর্তীতে  মীরসরাই থানা ও বর্তমানে সন্দ্বীপ থানার চৌকস পুলিশ অফিসার ইনচার্জ হিসেবে মোঃ কবির হোসেন অত্যান্ত দক্ষতা ও বিশ্বস্থতার  সাথে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

মীরসরাই থানার কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ মোঃ কবির হোসেনকে আজ জাতীয় পুলিশ সপ্তাহ ২০২৪ উপলক্ষে ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ লাইনে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রে শেখ হাসিনা ওসি মোঃ কবির হোসেনকে পুলিশের সর্বোচ্চ পদক পিপিএম সেবা পদকে ভূষিত করেন।



আরও খবর

নন্দীগ্রামে কিশোরের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মির্জা ফখরুল-আমীর খসরুর মুক্তিতে বাধা নেই

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে জামিন দিয়েছেন আদালত, প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার ঘটনায় রমনা থানায় দায়ের করা মামলায়।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ফয়সল আতিক বিন কাদের তাদের আবেদন মঞ্জুর করে এ আদেশ দেন।

এ নিয়ে গত বছরের ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশে সংঘর্ষের ঘটনায় করা সব মামলায় জামিন পেলেন বিএনপির ওই দুই নেতা। সেক্ষেত্রে তাদের কারামুক্তিতে আর কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবী।

এর আগে, এ মামলায় ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর হয়। ওই আদেশের বিরুদ্ধে মহানগর দায়রা জজ আদালতে গত ৬ ফেব্রুয়ারি আবারও আবেদন করেন তাদের আইনজীবী। আদালত শুনানির জন্য ১৪ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেন।

গত ২৮ অক্টোবর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির মহাসমাবেশ শুরুর আগেই কাকরাইলে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। যা বিজয়নগর পানির ট্যাংক ও শান্তিনগর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটে।

একপর্যায়ে বিকেল ৩টার দিকে বিএনপির মহাসমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়। এ সংঘর্ষে পুলিশের একজন সদস্য ও যুবদলের ওয়ার্ড পর্যায়ের এক নেতা নিহত হন। আহত হন পুলিশের ৪১ ও আনসারের ২৫ সদস্য। এ ছাড়া কমপক্ষে ২০ জন সাংবাদিক আহত হন।

এ ঘটনার পর গুলশানের বাসা থেকে মির্জা ফখরুলকে আটক করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। এরপর তাকে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় বিএনপি মহাসচিবের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়।


আরও খবর