Logo
আজঃ বুধবার ২২ মে ২০২৪
শিরোনাম

মেহেরপুরে পাটের আবাদ কমেছে

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ১২৬জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ, মেহেরপুরঃপাটের ন্যায্যমূল্য না পাওয়া, অনাবৃষ্টি আর পাট পচানোর পানি সংকটের কারণে পাটের আবাদ কমেছে মেহেরপুরে। চলতি বছরে পাটের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়নি। চাষিদের দাবী, প্রতি বছরে পাট চাষে একরকম লোকসান গুণতে হয়। বাধ্য হয়ে অন্য ফসল আবাদ করছেন তারা। তবে কৃষি অফিস বলছে, পাট চাষে চাষিদেরকে উদ্বুদ্ধ করতে দেয়া হচ্ছে প্রণোদনা ও বিকল্প পদ্ধতিতে পাট পচানোর পরামর্শও দেয়া হচ্ছে।

মেহেরপুর জেলা কৃষি অফিসের তথ্যনুযায়ি, কৃষি নির্ভরশীল এ জেলায় চাষিদের অর্থনৈতিক ফসল হিসেবে বিবেচিত সোনালী আঁশ পাট। চলতি বছরে এ জেলায় পাট চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয় ২২ হাজার হেক্টর। আর পাট চাষ করা হয়েছে ১৬ হাজার ৬৩০ হেক্টর যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৫ হাজার ৩৭০ হেক্টর কম। চাষিরা জেআরও ৫২৪, বি জে আর আই তোষাপাট-৮, ভারতীয় কৃষি কল্যাণ, মহারাস্ট্র ও চাকা জাতের পাট আবাদ করে থাকেন।

চাষিরা জানান, গেল বছর অনাবৃষ্টি থাকলেও তেমন তাপদাহ ছিল না তাই সেচ দিয়ে পাট চাষ করেছেন চাষিরা। কিন্তু পাট জাগ দেয়ার মতো পানির ব্যবস্থা ছিল না। অনেকেই কাদা মাটি দিয়ে পাটজাগ দেয়ার পাটের মান নষ্ট হওয়ায় ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হয়। চলতি মৌসূমে অনাবৃষ্টির সাথে যোগ হয় তীব্র তাপদাহ। ফলে অনেকেই পাট চাষ থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়। উপরন্ত পাট পচানোর জন্য কোন উম্মুক্ত জলাশয় না থাকায় চাষিরা পাট চাষ করতে অনীহা প্রকাশ করছেন। অনেকেই খাল বিল সংস্কার ও দখল হয়ে যাওয়া জলাশয় উম্মুক্ত ঘোষণা করার আহবান জানান।

গাংনীর পলাশীপাড়ার পাটচাষি জুলফিকার আলী জানান, প্রতিবছর চাষিরা এ পাট আবাদ করে মোটা অংকের টাকা আয় করেন। কিন্তু পানি সংকটের কারণে চাষিদের পাট পচাতে সইতে হয় নানা বিড়ম্বনা। অনেকেই খালে বিলে পানি না পেয়ে বাড়ির পাশে গর্তে সামান্য পানি দিয়ে পাট পচাতে দেন। এতে এক দিকে যেমন চাষিদের খরচ বেড়ে যায় তেমনি পাটের রং নষ্ট হয়। ফলে পাটের ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হন।

পাটচাষি তেতুঁলবাড়িয়ার মিজান জানান, গেল বছর তিনি ৪ বিঘা জমিতে পাট চাষ করেছিলেন। চলতি মৌসূমে তিনি দুই বিঘা জমিতে পাট চাষ করেছেন। অনাবৃষ্টি ও তাপদাহের কারণে পানির স্তর নেমে যাওয়ায় পাট বীজ বপন করতে পারেনি। উপরন্ত পাটক্ষেতে সেচ দিতে না পারায় পানির অভাবে পাট গাছ বাড়ছে না। অন্যদিকে পাট পচানোর ব্যবস্থা না করতে পারলে সামনে বছর আর পাট চাষ করবেন না বলেও জানান এই চাষি।

পাটচাষি করমদি গ্রামের জিবন হোসেন জানান, চলতি মৌসূমে অনাবৃষ্টিতে পাট বপন করার সময় সেচ দিয়ে পাট বপন করতে হয়েছিল। পরবর্তীতে প্রচ- তাপদাহ ও অনাবৃষ্টির কারণে পাট ক্ষেত বিনষ্ট হয়। পাট বপনের দেড় মাস অতিবাহিত হলেও পাট উচ্চতায় বৃদ্ধি পায়নি। আর যারা সেচ দিয়ে পাট আবাদ করছেন তারা পাট পচানো নিয়ে বেশ চিন্তিত। চাষিদের দাবী, হাজা মজা খাল বিল সংস্কার করে পানি প্রবাহ ঠিক রাখলে পাট পচানো সম্ভব। চাষিরা উম্মুক্ত জলাশয়ে পাট জাগ দিতে পারলে পাট চাষ বৃদ্ধি পাবে।

গাংনী উপজেলা কৃষি অফিসার ইমরান হোসেন জানান, চলতি মৌসূমে পাটের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়নি। অনাবৃষ্টির কারণে অনেকেই পাট বীজ বপন করতে পারেনি। আর যারা আবাদ করেছেন পানির অভাবে পাটগাছ বাড়েনি। অন্যদিকে পাট পচানো নিয়েও চাষিরা নানা বিড়ম্বনায় পড়েন। তবুও চাষিদেরকে প্রণেঅদনাসহ অন্যান্য সুবিধা দেয়া হচ্ছে পাট চাষে আগ্রহী করে তোলার জন্য। বিকল্প পদ্ধদিতে পাট পচানোর পরামর্শ দেয়া হচ্ছে বলেও জানালেন এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



মধুপুরে আন্তর্জাতিক নার্স দিবস পালিত

প্রকাশিত:রবিবার ১২ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২০ মে ২০24 | ৮২জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃআমাদের নার্স, আমাদের ভবিষৎ। অর্থনৈতিক শক্তি,নার্সিং সেবার ভিত্তি"এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে  টাঙ্গাইলের মধুপুরে আজ  আন্তর্জাতিক নার্স দিবস পালিত হয়েছে।

রবিবার (১২ মে) সকালে মধুপুর উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্স কর্তৃক দিবসটি পালিত হয়। দিবসটি পালন উপলক্ষে র‌্যালী, আলোচনা সভা ও কেক কাটা হয়। 

উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্স চত্বর থেকে একটি র‌্যালী শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হল রুমে  আলোচনা সভা ও কেক কাটা হয়।

ভারপ্রাপ্ত উপজেলা স্বাস্হ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ তারেকুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট ইয়াকুব আলী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) জাকির হোসাইন। এসময় আরও  উপস্হিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্হ কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা  (আর এম ও) ডাঃ ইমরান হোসেন, ডা: আতিকুর রহমান, ডেন্টাল সার্জন ডাঃ নুরে আলম, ডাঃ বিশ্বজিৎ দাস, নার্সিং সুপার ভাইজার ফাতেমা খাতুন সহ অন্যান্য নার্সিং কর্মকর্তা বৃন্দ ও মধুপুর নার্সিং ইনস্টিটিউটের ছাত্র ছাত্রীগন উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের সার্বিক ব্যবস্হাপনায় ছিলেন মো. তোফাজ্জল হোসেন, আরিফা খাতুন ও মাকসুদা। সঞ্চালনায় ছিলেন সিনিয়র স্টাফ নার্স শারমিন আক্তার ও মর্জিনা।

   -খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



মাগুরায় হত্যা মামলার প্রতিবাদে ডাক্তারদের প্রতিবাদ সমাবেশ ও স্মারকলিপি পেশ!

প্রকাশিত:বুধবার ০১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | ৮৭জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরায় ৪ ডাক্তারের  বিরুদ্ধে মিথ্যা হত্যা মামলা ও হয়রানির প্রতিবাদে, প্রতিবাদ সমাবেশ ও স্মারকলিপি পেশ কর্মসূচি পালন করেছেন মাগুরা জেলায় কর্মরত ডাক্তার সমাজ।মঙ্গলবার ৩০ এপ্রিল বেলা ১১.৩০ টার সময়ে মাগুরা জেলা পুলিশ সুপার ও দুপুর ২.৩০ টার সময়ে  জেলা প্রশাসক বরাবরে বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) এর আয়োজনে প্রতিবাদ সমাবেশ ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। 

স্মারকলিপিতে  মাগুরা জেলার নিম্নস্বাক্ষরিত সর্বস্তরের চিকিৎসকবৃন্দ, সিজারিয়ান অপারেশনের পরে একজন প্রসূতি মায়ের মৃত্যু সংক্রান্ত ঘটনায় আমাদের কয়েকজন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে দায়ের করা সাম্প্রতিক মামলা (ধারা: 304 (Part-2)/34, The Penal Code, 1860;] সম্পর্কে  গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে জানান হয়

গত ৪ এপ্রিল ২০২৪ ইং প্রসূতি শায়লা রহমান সেতুকে পরিবারের লোকজন মাগুরা শহরের লাইফ কেয়ার ক্লিনিকে গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. জাফরিন আক্তারের নিকট আনেন এবং জরুরি সিজার অপারেশনের জন্য অনুরোধ করেন এবং অপারেশনের সম্ভাব্য জটিলতা সম্পর্কে পূর্ণ অবহিত হয়ে লিখিতভাবে সম্মতি দেন। সেই মোতাবেক এনেস্থেটিস্ট ডা. অরুণ কান্তি ঘোষ-এর সহায়তায় ডা. জাফরিন আক্তার যথাযথভাবে অপারেশন সম্পন্ন করেন। পরদিন ভোর অনুমান ৬টায় রোগির জটিলতা (PPH) দেখা দিলে রোগীকে মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয় এবং সেখানে সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডা. শফিউর রহমানের তত্ত্বাবধানে হাসপাতালের চিকিৎসকদল পুনরায় অপারেশন করেন। মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে আইসিইউ না থাকায় অপারেশনের পর আইসিইউ-এর প্রয়োজনে রোগিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়। কিন্তু রোগির স্বজনরা তাকে ঢাকার বেসরকারি পপুলার হাসপাতালে ভর্তি করান, যেখানে ৫ এপ্রিল রাত ১০-৩৬ মিনিটে বিভিন্ন জটিলতায় রোগি মৃত্যুবরণ করেন (ডেথ সার্টিফিকেট সংযুক্ত)। 

সমাজের দায়িত্বশীল প্রতিনিধি হিসাবে এই অনাকাঙ্খিত মৃত্যুর ঘটনায় আমরা রোগীর পরিবারের শোক অনুধাবন করি। কিন্তু আমরা বিশ্বাস কবি যে, এই মামলায় ডাক্তারদের বিরুদ্ধে নর হত্যার অভিযোগ কেবল উদ্দেশ্য প্রণোদিতই নয় বরং ভয়ঙ্কর বানোয়াট এবং সত্যের ভুল উপস্থাপনা।

আরও খবর



মাগুরার মোহম্মদপুর উপজেলায় ৭ চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভোট যুদ্ধ মুল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শালিক ও আনারস মার্কা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৪৬জন দেখেছেন

Image
সাইদুর রহমান মাগুরা;মাগুরার মোহম্মদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন জমে উঠেছে।৭ চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। প্রচন্ড দাবদাহ উপেক্ষা করে তারা ছুঁটছেন গ্রাম-গ্রামান্তরে, ভোটারদের দ্বারে দ্বারে।নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে এসব প্রার্থীগণ ভোট প্রার্থণা করছেন। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত তারা উঠোন বৈঠকসহ প্রচার প্রচারনায় কাজ করে যাচ্ছেন।তফসিল অনুযায়ী দ্বিতীয় ধাপে এই  উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২১ মে। গত ২ মে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।

মহম্মদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অংশ গ্রহণ করছেন ৭ জন। তাদের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান (আনারস) কর্মী-সমর্থক নিয়ে ভোটের মাঠে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রকৌশলী আনিসুল ইসলাম হান্নান হেলিকপ্টার মার্কা নিয়ে ভোটের মাঠে রয়েছেন বেশ আগে থেকেই। তিনি কোনো রাজনৈতিক দলের নেতা নন।জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য কবিরুজ্জামান কবির শালিক মার্কা নিয়ে নিয়ে নির্বাচনে অবতীর্ণ হয়েছেন। নির্বাচনে  উপজেলায়  নতুন হিসেবে ব্যাপক সাড়া ফেলেছেন।  তারপক্ষে স্থানীয় অনেক দাপুটে লোক কাজ করছেন। 

উপজেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মোছা. বেবী নাজনীন কাপ-পিরিচ মার্কা নিয়ে ভোটের মাঠে ব্যাপক সময় দিচ্ছেন। উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে এলাকায় ব্যাপক পরিচিতি থাকলেও চেয়ারম্যান নির্বাচনে কতটা সাফল্য আনতে পারবেন তা নিয়ে অনেকের সংশয় রয়েছে। বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আবু আব্দুল্লাহেল কাফী দোয়াত কলম দীঘা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জাফর সাদিক ঘোড়া এবং যুবলীগ নেতা কাজী আনিসুর রহমান তৈমুর মোটর সাইকেল মার্কা নিয়ে নির্বাচনী এলাকায় ভোট প্রার্থণা করছেন। গত ৩০ এপ্রিল মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের দিন চেয়ারম্যান পদ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন অ্যাডভোকেট তরিকুল ইসলাম তারা এবং শেখ ফরিদুজ্জামান। 

বর্তমানে নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন ৭ প্রার্থী।নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীরা ততই ব্যস্ত হয়ে পড়ছেন। নাওয়া-খাওয়া, ঘুম ও প্রচন্ড খরা উপেক্ষা করে প্রার্থীরা ছুঁটছেন হাট-বাজারে, চায়ের দোকানে, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে, ভোটারদের ঘরে ঘরে।এরই মধ্যে পোস্টারে পোস্টারে ছেয়ে গেছে গোটা উপজেলা। দুপুর দুইটা বাজতেই শুরু হয়ে যাচ্ছে মাইকে প্রচারণা। নানান ধরনের সুরে, প্রার্থীদের প্রতীক ও নামে বানানো হয়েছে গান। সেই গান বাজিয়ে ভোট চাওয়া হচ্ছে। 

উল্লেখ্য যে এই উপজেলায় মোট ৮ টি ইউনিয়ন রয়েছে।ভোটারের সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ৮২ হাজার।
এলাকার ভোটারদের অভিমতে দুই প্রার্থীর মধ্যে মূল লড়াইটা হবে আশা করা যাচ্ছে। তারা হলেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মো: কবিরজ্জামান কবির  শালিক পাখি মার্কা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. আব্দুল মান্নান আনারস মার্কা
তাদের পক্ষে ব্যপক জনমত দেখা যাচ্ছে।

আরও খবর



আবারও স্বর্ণের দাম কমলো ৪২০ টাকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ১৫৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:স্বর্ণের দাম আবারও কমলো এক দিনের ব্যবধানে। এ নিয়ে টানা সপ্তমবার স্বর্ণের দাম কমানো হলো। ২২ ক্যারেটের স্বর্ণের দাম ভরিতে ৪২০ টাকা কমানো হয়েছে। এখন ২২ ক্যারেটের এক ভরি স্বর্ণের দাম ক‌মে হ‌চ্ছে ১ লাখ ১১ হাজার ৪১ টাকা। এর আগে দাম ছিল ১ লাখ ১১ হাজার ৪৬১ টাকা।

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বাজুস) মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমানের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, স্থানীয় বাজারে তেজাবি স্বর্ণের দাম কমেছে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় স্বর্ণের নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। আজ বিকেল ৪টা থেকেই নতুন দাম কার্যকর হবে।

নতুন ঘোষণা অনুযায়ী, সবচেয়ে ভালো মানের বা ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণ ১ লাখ ১১ হাজার ৪১ টাকা, ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ১ লাখ ৬ হাজার ২ টাকা, ১৮ ক্যারেটের ৯০ হাজার ৮৬৩ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণেরদাম ৭৫ হাজার ৫৫৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

স্বর্ণের দাম কমানো হ‌লেও অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে রুপার দাম। ক্যাটাগরি অনুযায়ী বর্তমানে ২২ ক্যারেটে প্রতি ভরি রুপার দাম ২ হাজার ১০০ টাকা, ২১ ক্যারেটের দাম ২ হাজার ৬ টাকা, ১৮ ক্যারেটের দাম ১৭১৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির রুপার দাম ১ হাজার ২৮৩ টাকা।


আরও খবর



ভারতের পররাষ্ট্রসচিব ঢাকায়

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২০ মে ২০24 | ৬৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিনয় মোহন কোয়াত্রা ঢাকায় এসেছেন। বুধবার (৮ মে) সন্ধ্যায় এক বিশেষ ফ্লাইটে তিনি বিমানবন্দরে অবতরণ করেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক্স হ্যান্ডেলে (টুইটার) দেওয়া এক বার্তায় বলা হয়, সংক্ষিপ্ত সফরে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব একটি বিশেষ ফ্লাইটে আজ (বুধবার) সন্ধ্যায় ঢাকা আসেন। আগামীকাল তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদের সঙ্গে দেখা করবেন। এছাড়া বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে বার্তায় আশা প্রকাশ করা হয়েছে।

এর আগে গত ২০ এপ্রিল ঢাকায় আসার কথা ছিল ভার‌তের পররাষ্ট্রসচিব বিনয় কোয়াত্রার। ত‌বে হঠাৎ কোয়াত্রার ঢাকা সফর স্থ‌গিত করেছে নয়াদি‌ল্লি।

গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের আমন্ত্রণপত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে পৌঁছে দিতে ভারতের পররাষ্ট্রসচিব বিনয় কোয়াত্রা গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে ঢাকা সফর করেন। ওই সময় তিনি বাংলাদেশের পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন।


আরও খবর