Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪
শিরোনাম

মধুপুরে পৌর বিএনপির উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১৫৪জন দেখেছেন

Image

বাবুল রানা বিশেষ প্রতিনিধি মধুপুর টাঙ্গাইল:টাঙ্গাইলের মধুপুরে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদীদল (বিএনপি) মধুপুর পৌর শাখার উদ্যোগে অসহায় হতদরিদ্র ও শীতার্ত  মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার (১২ফেব্রুয়ারী) বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব ফকির মাহবুব আনাম স্বপন এর দিক নির্দেশনায় এবং মধুপুর পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব খন্দকার মোতালিব হোসেন এর সার্বিক সহযোগিতায় এ শীত বস্ত্র বিতরণ করা হয়।

পৌরবিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি রেজাউল করিম সিদ্দিক এর সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্হিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. নাসির উদ্দিন, পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান রবিন, ৫ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি আঃ ছালাম আকন্দ  সহ পৌর বিএনপির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও  সকল সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী গন উপস্থিত ছিলেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর



৩ দিন টানা ঝড়-বৃষ্টি-বজ্রপাতের পূর্বাভাস

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১৫৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:সুখবর জানাল আবহাওয়া অফিস সারা দেশে গরমে প্রাণ যখন ওষ্ঠাগত ঠিক তখনই । আগামী তিনদিন অর্থাৎ ৭২ ঘণ্টা দেশেজুড়ে টানা ঝড়-বৃষ্টি-বজ্রপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

এছাড়া, রাজশাহী, পাবনা, দিনাজপুর ও নীলফামারীসহ খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

রোববার (১৯ মে) সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়াবিদ মো. হাফিজুর রহমানের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, ময়মনসিংহ, ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং বাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলা বৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া, রাজশাহী, পাবনা, দিনাজপুর ও নীলফামারীসহ খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে যে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে, তা অব্যাহত থাকতে পারে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।



আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




ঘূর্ণিঝড় রেমালের তান্ডবে ভোলায় ৫ জনের মৃত্যু, পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১০৭জন দেখেছেন

Image

শরীফ হোসাইন, ভোলা বিশেষ প্রতিনিধি:ঘূর্ণিঝড় রেমালের তান্ডবে ভোলায় গাছ চাঁপা পড়ে মারা গেছেন ৫ জন। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন লক্ষাধিক মানুষ। শহর রক্ষা বাঁধ ধসে প্লাবিত হয়েছে গ্রামের পর গ্রাম। সদর উপজেলার রামদাসপুর, চটকিমারা, মাঝের চর, বোরহানউদ্দিন, মদনপুর, নেয়ামতপুর, চরফ্যাশনের ঢালচর, চরকুকরি-মুকরি, মনপুরাসহ অনেক এলাকায় বন্যার পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় এ সব এালাকার প্রায় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্ধি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। এখনো পর্যাপ্ত ত্রাণ পৌছেনি ঐ দুর্গত এলাকায়। এদিকে ঘূর্ণিঝর রিমালের প্রভাবে ভোলার ২০ লক্ষ মানুষ বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পরেছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জেলা-উপজেলার শহর রক্ষা বাঁধ, ফসলের মাঠ, পুকুরের মাছ, গোয়ালের গবাদিপশু, পানিতে তলিয়ে গেছে বহু শিক্ষালয়। 

খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, ভোলা সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মাঝির হাট এলাকার তোফাজ্জল হাজারির ছেলে ওমর ফারুক (৪০) সোমবার বিকাল ৫টার সময় বসত ঘরে গাছ চাঁপায় মারা যান। দৌলতখাঁনে ঘরের ভেতর গাছ চাঁপায় মাইশা (৪) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৭ মে) ভোর ৪টার দিকে পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মাইশা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের মনির হোসেনের মেয়ে। একই উপজেলার চরপাতা ইউনিয়নের কাশেম নামের এক যুবক ঘর চাঁপায় নিহত হন। 

শিশুর বাবা মনির জানান, রবিবার রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ি সবাই। ভোর ৪টার দিকে হঠাৎ একটি গাছ আমার ঘরের ওপর চাঁপা দেয়। এতে টিনের চাল আমাদের ওপর এসে পড়লে মাইশা মারা যায়। আমিও চাঁপা পড়েছিলাম, স্থানীয়রা এসে উদ্ধার করেছে।

এর আগে ভোরে ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে লালমোহনের চর উমেদ গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল কাদেরের স্ত্রী মনেজা খাতুন (৫০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা জানান, মনেজা খাতুন গতকাল রাতে তার এক নাতিকে নিয়ে ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। ভোরে ঝড়ো বাতাসের কারণে একটি গাছ তার বসত ঘরের উপর এসে পড়ে। ঘটনাস্থলেই মনেজা খাতুন মারা গেলেও অক্ষত আছে তার নাতি।

এছাড়া জেলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার সাচড়া ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের পঞ্চায়েত বাড়ির জাহাঙ্গীর পঞ্চায়েত (৪৮) এর শরীরের উপর একটি গাছের ডাল ভেঙ্গে পড়ে। এতে গাছের ডালটি ভেঙ্গে পেটের মধ্যে ঢুকে পড়লে হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারাযান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা ত্রাণ কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন। তিনি আরো জানান ঝড়ো বাতাসের কারণে এখন সবদিক থেকে খবর নেয়া সম্ভব হচ্ছেনা। ঝড় থেমে গেলে প্রকৃত ক্ষয়ক্ষতির পরিমান নিরুপন করা সম্ভব হবে।

অপরদিকে, ঝড়, বৃষ্টি ও জোয়ারের পানিতে হয়েছে জেলার উপকূলীয় অঞ্চল। উপকূলের লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রতিটি উপজেলার শহর রক্ষা বাঁধ, ফসলের মাঠ, পুকুরের মাছ, গোয়ালের গবাদিপশু ভেসে গেছে। বহু শিক্ষালয় পানিতে ডুবে গেছে।

মনপুরা উপজেলা হাজিরহাটের ইউপি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন হাওলাদার জানান, হাজিরহাটের পূর্ব পাশে চার কিলোমিটার বেড়িবাঁধের ক্ষয়ক্ষতি হওয়ায় জোয়ারের পানি ঢুকে পড়ে। পানি উন্নয়ন বোর্ডকে (পাউবো) জিও ব্যাগ ফেলে বাঁধ রক্ষার জন্য বলা হয়েছে।

চরফ্যাশন উপজেলার ঢালচর ইউনিয়নের ঢালচর ও চরনিজামে বন্যা-জলোচ্ছ্বাস নিয়ন্ত্রণ বাঁধ নেই। এ কারণে বাসিন্দারা ঘর ছেড়ে, গবাদিপশু রেখেই নিরাপদ আশ্রয়ে গেছে। ঢালচর ইউপির চেয়ারম্যান মো. আবদুস সালাম জানান, সকালের জোয়ারে ইউনিয়নের সব এলাকা পাঁচ ফুট পানির নিচে তলিয়ে গেছে। ওই পানি কমতে না কমতে আবার রাতের জোয়ার আসবে। এখানে প্রায় ১২ হাজার মানুষ পানিবন্দী রয়েছে। তাদের নিরাপদ আশ্রয়ে নিতে ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশসহ ইউপি সদস্যদের মানুষের বাড়ি বাড়ি পাঠানো হচ্ছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড ডিভিশন-২-এর নির্বাহী প্রকৌশলী হাসান মাহমুদ জানান, ভোলা সদর, মনপুরা, লালমোহন, তজুমদ্দিন ও চরফ্যাশন উপজেলায় মোট ১০টি স্থানে বেড়িবাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমরা অচিরেই ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ সংরক্ষেনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। ভোলার জেলা প্রশাসন মোঃ আরিফুজ্জামান বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের জন্য আমরা জেলা প্রশাসন সবধরনের সহযোগিতার ব্যবস্থা করবো।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




কুড়িগ্রামের রৌমারীর গ্রামবাসীর উদ্দ্যোগে বাঁশের সাকো উদ্বোধন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৫২জন দেখেছেন

Image

মাজহারুল ইসলাম, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃরৌমরী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ও চরশৌলমারী ইউনিয়নের মাঝামাঝি আমবাড়ি ও কাজাইকাটা গ্রামে হলহলিয়া নদীর উপর স্বাধীনতার ৫৩ বছরেও উন্নয়নের ছোয়া লাগেনি এসব অঞ্চলে যার ফলে ব্রীজ না থকায় চরম দুর্ভোগে পরেছে প্রায় ৬০ হাজার মানুষ। ইুতিমধ্যে গ্রামবাসীর উদ্দ্যোগে ২০০ ফুট লম্বা বাশেঁর সাকো নিজ খরচে তৈয়ারী যাতয়াত করছেন ২৫ গ্রামের ৬০ হাজার মানুষ। একমাত্র ভরসা বাঁশের সাকোটি উদ্বোধন করলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান। এ নদীর উপর দিয়ে দাঁতভাঙ্গা, চরশৌলমারী ও উলিপুর উপজেলার পুর্বঞ্চলের প্রায় ২৫টি গ্রামের ৬০ হাজার মানুষের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা। একটি ব্রীজের জন্য এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে বহু বার এমপি মন্ত্রীর কাছে আবেদন নিবেদন করেও প্রতিকারের ছোয়াও পায়নি বলেও জানা গেছে। শত কষ্ঠের মধ্যদিয়েও রৌমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম শালু প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে হলহলিয়া নদীর উপর এই সাঁকো উদ্বোধন করা হয়। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান সামসুল দোহা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আকতার স্মৃতি, স্থানীয় নেতা রোকনুজ্জামান রোকন, আব্দুর রাজ্জাকসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও গ্রামের সকল শ্রেণী পেশার মানুষ। 

আলোচনা সভায় স্থানীয় ভাবে বক্তব্য রাখেন, বক্তার হোসেন, ইমান আলী, মোল্লা জমির উদ্দিন, সুজন আহমেদ, মমিনুল হক প্রমুখ। 

স্থানীয় লোকজন জানান, বহুকাল থেকে এ দুটি ইউনিয়নের হাজার হাজার মানুষ এ রাস্তা দিয়ে চলাচল করে আসছি। প্রতি বছর এ নদীতে সরকারি ভাবে ঘাট, নিলাম ডাকে নৌকা দিয়ে যাতায়াত করে থাকি। এতে স্কুল পড়–য়া কমলমতি শিশুসহ স্কুল ও কলেজ পড়–য়া ছাত্র/ছাত্রী ব্যবসায়ী ও চাকুরিজীবিদের যাতায়াতে দুর্ভোগ পোহাতে হয়। অপরদিকে ফসলাদি বাজারে নিয়ে কৃয়বিক্রয় করা যেতো না। আমরা বারবার এমপি মন্ত্রীদের কাছে একটি ব্রীজের জন্য আবেদন করেছি। কোন সারা পাইনি। শুধু আশ্বাসে বানি দিয়ে আশ্বস্থ করে ভোট নিয়ে উধাও হয়েছে। আর ফিরে তাকায় নি। আজ আমরা গ্রামবাসীর উদ্দ্যোগ নিয়ে নিজের টাকায়, বাঁশ সংগ্রহ করে সহজে চলাচলের জন্য বাঁশের সাকো নির্মান করলাম। তবে প্রত্যন্ত এ অঞ্চলের মানুষের সরকারের কাছে দাবী, এ নদীর উপর দ্রুত একটি ব্রীজ নির্মান করে চলাচলের উপযোগী করে দিবেন। 

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম শালু জানান, বহুকাল থেকে এই নদীতে একমাত্র যাতায়াতের ভরসা ছিল  নিলামকৃত নৌকা। প্রতিদিন মানুষকে ৫/১০ টাকা দিয়ে নৌকা পাড়াপাড় হতে হতো এবং ভ্যান গাড়ি পার করতে দিতে হতো ২০/৩০ টাকা। এবার উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বলে ঘাটের নিলাম ডাক বন্ধ করে দিয়ে গ্রামবাসীর উদ্দ্যোগে  বাঁশের সাকোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ সাকো দিয়ে দাঁতভাঙ্গা, চরশৌলমারী ও উলিপুর উপজেলার পূর্বাঞ্চলের প্রায় ৬০ হাজার মানুষ সাকোতেই যাতয়াত করবেন।

। আমি নতুন চেয়ারম্যান হয়েছি, যথা সাধ্যমত চেষ্টা করে যাবো, আমার আগামী ৫ বছর সমায়ের মধ্যে এখানে একটি পুর্নাঙ্গ ব্রীজ নির্মান করার। আমার জন্য দোয়া করবেন।


আরও খবর



ভারতীয় পুলিশের টিম আনার হত্যার তদন্তে ঢাকায় আসছে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১৪৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:আওয়ামী লীগের দলীয় সংসদ সদস্য ঝিনাইদহ-৪ আসনের আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যার ঘটনা তদন্তে ভারতীয় পুলিশের দুই সদস্যের একটি বিশেষ দল বাংলাদেশে আসছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার হাবিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দুপুরে ভারতীয় পুলিশের দুইজন সদস্য ঢাকায় পৌঁছাবেন।

জানা যায়, ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এসেছে। যা দুই দেশের পুলিশের সঙ্গে শেয়ার করা হয়েছে। ভারতীয় পুলিশের একটি স্পেশাল টিম তদন্তের জন্য আজ ঢাকায় আসার কথা রয়েছে।

এর আগে, নিখোঁজের আট দিন পর বুধবার (২২ মে) জানা যায় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে খুন করা হয়েছে।

গত ১২ মে চিকিৎসার জন্য ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থেকে চুয়াডাঙ্গার দর্শনার গেদে সীমান্ত দিয়ে ভারতে যান তিনি। পরে পশ্চিমবঙ্গে বরাহনগর থানার মণ্ডলপাড়া লেনে গোপাল বিশ্বাস নামে এক বন্ধুর বাড়িতে ওঠেন।

পরদিন ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। এর পর থেকেই রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন আনোয়ারুল আজীম।

বাড়ি থেকে বের হওয়ার পাঁচ দিন পর গত ১৮ মে বরাহনগর থানায় আনোয়ারুল আজীমের নিখোঁজের বিষয়ে একটি জিডি করেন বন্ধু গোপাল বিশ্বাস। এরপরও খোঁজ মেলে না তিনবারের এই সংসদ সদস্যের।

গতকাল বুধবার (২২ মে) হঠাৎ খবর ছড়ায় কলকাতার পার্শ্ববর্তী নিউটাউন এলাকায় বহুতল সঞ্জীবা গার্ডেনস নামে একটি আবাসিক ভবনের বিইউ ৫৬ নম্বর রুমে আনোয়ারুল আজীম আনার খুন হয়েছেন। ঘরের ভেতর পাওয়া গেছে রক্তের ছাপ। তবে সেখানে তার মরদেহ মেলেনি।

আনোয়ারুল আজীম আনার ভারতে খুন হওয়ার ঘটনায় রাজধানীর শেরেবাংলানগর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় মামলার এজাহার দায়ের করেন তার মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।

শেরে বাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মু. আহাদ আলী জানান, সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন মামলা দায়ের করেছেন।

মামলায় কোনো আসামির নাম উল্লেখ করা হয়নি। তদন্ত করে আসামিদের আইনের আওতায় আনা হবে।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




ছয় সচিবের দপ্তর বদল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৫৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রশাসনে ৬ সচিবকে বদলি করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার (১১ জুন) এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

একই সঙ্গে একজন কর্মকর্তাকে সিনিয়র সচিব ও আরেকজন কর্মকর্তাকে সচিব পদে পদোন্নতি দিয়ে আলাদা প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মশিউর রহমানকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগে বদলি করা হয়েছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব আবু হেনা মোরশেদ জামানকে স্থানীয় সরকার বিভাগে বদলি ও স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব মুহম্মদ ইবরাহিমকে ভূমি আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান (সচিব) করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন সচিবালয়ের নতুন সচিব হয়েছেন মো. আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী। মাসুদ চৌধুরী সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

এছাড়া ভূমি আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান (সচিব) এ কে এম শামিমুল হক সিদ্দিকীকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ (পিপিপি) কর্তৃপক্ষের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সচিব) মো. মুশফিকুর রহমানকে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪