Logo
আজঃ Monday ০৩ October ২০২২
শিরোনাম

মধুপুরে কবরস্থানের জায়গা দখলকে কেন্দ্র করে হামলা আহত -২

প্রকাশিত:Tuesday ২০ September ২০22 | হালনাগাদ:Monday ০৩ October ২০২২ | ৯৩জন দেখেছেন
Image

মধুপুর  টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ 

টাঙ্গাইলের মধুপুরের মির্জাবাড়ী ইউনিয়নের  ভবানীটেকী গ্রামে পারিবারিক কবর স্হানের জায়গা বেদখল দিয়ে ঘর তোলার প্রতিবাদ করায় দুই জনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে বলে মামলা  ও এলাকা বাসী সূত্রে  জানা যায়।


এব্যাপারে মধুপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে যার নং ১৫/২২। মামলা সূত্রে জানা যায়,  ভাবানিটেকী এলাকায়  বাদী শামছুল আলম পিতা হাজী শহিদুল ইসলামদের সহিত পারিবারিক কবর স্হানের সম্পত্তি নিয়ে একই এলাকার রহিম মন্ডলের ছেলে ছানোয়ারদের সহিত দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলছিলো।


এর জের ধরেই গত ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে উল্লেখিত মামলার বিবাদীগন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে কবর স্হানের নামে রাখা বাদী পক্ষের সম্পত্তিতে জোর পূর্বক ঘর উঠানোর চেষ্ঠা করলে বাদীর ছোট ভাই শরিফ( ৩৪) ঘর তুলতে নিষেধ করায় বিবাদী রহিম মন্ডলের ছেলে ছানোয়ার(৫৫) ছানোয়ারের ছেলে সোহাগ, কেরামত আলী, সোহাগের স্ত্রী শীলা বেগম,মেয়ে চৈতী খাতুন অজ্ঞাত নামা কয়েক জন মিলে মামলার বাদীর ভাই শরিফকে দা দিয়ে  মাথায় কোপ দিয়ে রক্তাক্ত গুরুতর জখম করে এবং বাঁশের লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে শরীরের বিভিন্ন স্হানে গুরুতর জখম করে।


ভাইকে মারতে দেখে বাদী সামছুল আলম এগিয়ে গেলে তাকেও বিবাদীগন এলোপাতাড়ি ভাবে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। এসময় তার হেফাজতে থাকা একটি সাওমী মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায়।


বাদী পক্ষের ডাকচিৎকার শুনে আশে পাশের লোকজন আগাইয়া আসলে বিবাদীগন নানা প্রকার হুমকী ধামকী দিয়ে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন মামলার বাদী সামছুল আলম ও তার ছোট ভাই শফিককে  রক্তাক্ত অবস্হায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে যায়।


আহত শরিফের অবস্হা আশংকাজনক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।


বর্তমানে শরিফ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পান্জা লড়ছেন বলে জানান পরিবারের লোকজন। এ নির্মম ঘটনার তীব্র নিন্দা ও সঠিক বিচার প্রার্থনা করেন  এলাকাবাসী । 


আরও খবর