Logo
আজঃ Monday ০৮ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড নিখোঁজ সংবাদ প্রধানমন্ত্রীর এপিএসের আত্মীয় পরিচয়ে বদলীর নামে ঘুষ বানিজ্য

মালয়েশিয়া বিএনপির পুনর্গঠনে মতবিনিময় সভা

প্রকাশিত:Monday ২৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ১০০জন দেখেছেন
Image

জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ও তার অংগ সংগঠন পুনর্গঠনে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২৫ জুন) সন্ধ্যায় মালয়েশিয়ার একটি হোটেলে এ সভা আয়োজিত হয়।

আবু কাউছার ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মাহবুব আলম শাহের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন- সহ-সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন, সিনিয়র নেতা শহীদুল্লাহ শহীদ, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. ওয়ালিউল্লাহ জাহিদ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- এ এস এম জাহাঙ্গীর আলম, ফজলুল করিম সোহরাব, সরকার মো. মিন্টু, যুবদল সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর আলম খান, যুবদলের সাবেক সভাপতি নাসির উদ্দিন নাসির, যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. মিনহাজ মন্ডল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি মো. খোকন ভুঁইয়া।

jagonews24

আলোচনা সভায় যুব দলের নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি মো. মোশাররফ হোসেন, শেখ মো. তুহিন, নাজমুল হাসান। সিমিনিয়া শাখা যুবদলের সভাপতি খালিদ হাসান রিপন, সাধারণ সম্পাদক শেখ মোহাম্মদ সেলিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জামশেদ আরমান, মিরাজ হোসেন মাঝি, মো. মিজানুর রহমান ঢালি উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন যুবনেতা মো. নাসির মোল্লা, আমজাদ হোসেন মৃধা। কুয়ালারামপুর মহানগর যুবদলের সভাপতি মো. শামীম রেজা, সিনিয়র সহ-সভাপতি মেহেদী হাসান, সাধারণ সম্পাদক রাসেল রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ শাহিন আলম, আইটি সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইমতিয়াজ আহমেদ বাপ্পি।

সভায় মালয়েশিয়া বিএনপি ও তার অংগ সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও শাখা কমিটির পুনর্গঠন বিষয়ে নেতাকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মাহবুব আলম শাহ।

পরে দলের নেতাকর্মীদের কণ্ঠ ভোটের আয়োজনে যুবদলের একক সভাপতি প্রার্থী হিসেবে মিনহাজ মণ্ডলকে সমর্থন দেওয়া হয়। এদিকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. অলিউল্লাহ জাহিদকে দলের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

ছাত্রদল নেতা শাহিন আলম, মো. ওবায়দুল্লাহ, আ. রাজ্জাক মধু, মো. মাসুদ, নবীন দলের নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক মো. শাওন আহমেদ সহ-সভাপতি মো. ফারুক হোসেন, মো. জাকির, মো. সাগর, মো. আনোয়ার হোসেন, মো. খোকন মিয়াসহ মালয়েশিয়া বিভিন্ন শাখা বিএনপির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৫৩

প্রকাশিত:Wednesday ০৩ August ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ১৮জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে ৫৩ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) এর বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৩ হাজার ৩৪০ পিস ইয়াবা, ৫৮ গ্রাম হেরোইন ও ১৯ কেজি ৯৫০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) ভোর ৬টা থেকে বুধবার (৩ আগস্ট) ভোর ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৩৮টি মামলা রুজু হয়েছে।


আরও খবর



প্রোটিয়াদের কাছে হারের পর এখনই নিয়ম বদলাতে বললেন স্টোকস

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ২১জন দেখেছেন
Image

কার্ডিফে বৃহস্পতিবার সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডকে ৫৮ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে সমতা ফিরিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ঘরের মাঠে এই হারকে যেন হজম করতে পারছেন না টি-টোয়েন্টি দলের বাইরে থাকা ইংল্যান্ডের তারকা অলরাউন্ডার বেন স্টোকস।

ম্যাচে রাইলি রুশোর ৫৫ বলে ৯৬ রানের বিধ্বংসী ইনিংসে ৩ উইকেটে ২০৭ রানের পাহাড় দাঁড় করায় প্রোটিয়ারা। জবাবে ১৪৯ রানেই অলআউট হয়ে যায় ইংল্যান্ড।

হারের ব্যবধান অনেক বড়। তারপরও রাইলি রুশোর পক্ষে আম্পায়ারের একটি সিদ্ধান্ত নিয়ে মুখ খুলেছেন বেন স্টোকস। রুশো তখন ৩৭ রানে ছিলেন। ক্রিস জর্ডানের লেগ সাইডে করা এক ডেলিভারিতে তিনি ব্যাট চালালে ঝাঁপিয়ে পড়ে ক্যাচ নেন ইংলিশ উইকেটরক্ষক জস বাটলার।

বাটলার আত্মবিশ্বাসী ছিলেন, এটি পরিষ্কার ক্যাচ হয়েছে। ফলে ইংলিশ অধিনায়ক রিভিউও নিয়ে নেন। আম্পায়ার ‘সফট সিগন্যাল’ নটআউট দিয়ে পাঠান তৃতীয় আম্পায়ারের কাছে। যেহেতু আম্পায়ার ‘সফট সিগন্যাল’ নটআউট দিয়েই রেখেছেন, তাই সে সিদ্ধান্ত বদলাতে হলে নিশ্চিত প্রমাণ থাকতে হবে আউট হওয়ার।

রিপ্লেতে পরিষ্কার প্রমাণ পাওয়া যায়নি। মনে হচ্ছিল, বাটলারের হাতে আসার আগে বল মাটিতে লাগতেও পারে, আবার নাও লাগতে পারে। যেহেতু মাঠের আম্পায়ারের ‘সফট সিগন্যাল’ নটআউট ছিল, তাই তৃতীয় আম্পায়ার সেটিই বহাল রাখেন।

এই ‘সফট সিগন্যাল’-এর নিয়ম নিয়েই আপত্তি তুলেছেন বেন স্টোকস। টুইটারে ওই মুহূর্তের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘ওহ, তৃতীয় আম্পায়ার সফট সিগন্যালের ওপর ভিত্তি করে সিদ্ধান্ত দিলেন। তাই আমাদের এখন এই সফট সিগন্যাল থেকে রেহাই পেতে হবে। দয়া করে (রেহাই দিন)।’


আরও খবর



ইভিএম নিয়ে আ’লীগ নেতার বক্তব্য ভাইরালের পর নির্বাচন স্থগিত

প্রকাশিত:Monday ২৫ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
Image

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার নাজিরপুর তাঁতেরকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। ইভিএমে ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়ার গোপনীয়তা নিয়ে বক্তব্য দেওয়া এবং এ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়।

সোমবার (২৫ জুলাই) বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন পটুয়াখালী জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা খান আবি শাহানুর খান।

ইভিএমে ভোটগ্রহণ নিয়ে পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জোবায়দুল হক রাসেলের বিতর্কিত বক্তব্য রোববার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। এ নিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে রিপোর্ট প্রকাশিত হয়।

খোজ নিয়ে জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় তাঁতেরকাঠি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এলাকার একটি উঠান বৈঠকে জোবায়দুল হক রাসেল ওই বক্তব্য দেন। এ সময় আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ইব্রাহিম ফারুক তার পাশে বসা ছিলেন।

ফেসবুকের ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে জোবায়দুল হক রাসেল বলেন, ‘ভোট হবে ইভিএমে, কে কোথায় ভোট দেবে তা কিন্তু আমাদের কাছে চলে আসবে। অতএব ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নাই, টেনশনেরও কিছু নাই।’

আওয়ামী লীগ নেতার এমন বক্তব্য নিয়ে সব মহলে চলছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা। বিব্রতবোধ করছেন নির্বাচন সংশ্লিষ্টরাও।

এর আগে নাজিরপুর তাঁতেরকাঠি ইউনিয়নের সুলতানাবাদের একটি উঠান বৈঠকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তালুকদার মো. জাহাঙ্গীরও একটি বির্কিত বক্তব্য দেন। সেখানে তিনি বিএনপির নেতাকর্মী ও সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনাদের দল বিএনপি নির্বাচন বর্জন করেছে। যেহেতু বিএনপি নির্বাচন বর্জন করেছে, তাহলে আপনি যদি সেই দলের সমর্থক হন, তাহলে আপনিও তো নির্বাচন বর্জন করেছেন। আর যদি মনে করেন নৌকা প্রতীকে আদৌ ভোট দিবেন না, ইব্রাহিম ফারুককে হারাতে হবে, নৌকাকে ঠেকাতে হবে। তাহলে আমিও কিন্তু একটা কথা আপনাদের পরিষ্কার বলে রাখি, সময় আছে মাত্র তিন-চারদিন। যে সব বন্ধুরা নৌকায় ভোট দিবেন না বলে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়েছেন, তাদের ভোটের দিন কাছাকাছি দেখতে চাই না।’

নির্বাচন কর্মকর্তা খান আবি শাহানুর খান জাগো নিউজকে বলেন, ‘ইভিএমে ভোট গ্রহণ নিয়ে মিথ্যা ও ভুল তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্যের বিষয়ে আমরা তদন্ত করছি। এ কারণে কমিশন নির্বাচন স্থগিত করেছে।’


আরও খবর



সয়াবিন তেলের বোতলে লাগানো হচ্ছিল আগের দামের স্টিকার

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

সরকার নির্ধারিত মূল্য না মেনে আগের বর্ধিত দামের মোড়ক লাগিয়ে সয়াবিন তেল বাজারজাত করা হচ্ছিল কুমিল্লায়। এ অপরাধে জেলার লাকসামে এক প্রতিষ্ঠানকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এছাড়া তাৎক্ষণিক আট হাজার বর্ধিত দামের মোড়ক পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

সোমবার (১ আগস্ট) দুপুর ১২টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত লাকসাম উপজেলার বিজরা বাজারে এই অভিযান চালানো হয়।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কুমিল্লার সহকারী পরিচালক মো. আছাদুল ইসলাম সোমবার বিকেলে জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার বিজরা বাজারে একটি ফ্যাক্টরিতে সরকারের বেঁধে দেওয়া নতুন মূল্য থেকে বেশি দামে সয়াবিন তেলের বোতলের গায়ে স্টিকার লাগিয়ে বাজারজাত করা হচ্ছে বলে অভিযোগ আসে। ওই তথ্যের ভিত্তিতে দুপুরে ওই কারখানায় অভিযান চালানো হয়। এসময় দেখা যায় সরকার নির্ধারিত ১৮৫ টাকার এক লিটার তেল ১৯০ টাকা লিখে, ৩৭০ টাকার ২ লিটারের তেল ৩৮০ টাকা লিখে এবং ৯১০ টাকার পাঁচ লিটারের তেল ৯২০ টাকা লিখে মোড়কজাত করা হচ্ছে, যা ছিল গত মাসের ১৮ তারিখের বাজার দর। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং তাৎক্ষণিক ৮ হাজার বর্ধিত দামের মোড়ক পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

ভোক্তা অধিকারের এই কর্মকর্তা বলেন, বিজরা বাজারের সেবা ডেন্টাল কেয়ারের স্বত্বাধিকারী ডাক্তার না হয়েও ডা. ও ডেন্টিস্ট পদবি ব্যবহার করে ভোক্তাদের সঙ্গে মিথ্যা বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণা করে আসছিলেন। এছাড়া তিনি চিকিৎসার কাজে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ও রি-এজেন্ট ব্যবহার করছিলেন। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানের মালিক আবদুল খালেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং মিথ্যা বিজ্ঞাপনের দুই হাজার প্যাড ধ্বংস করা হয়।

এসময় উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর শাহাদাৎ হোসেন ও লাকসাম থানা পুলিশের একটি টিম উপস্থিত থেকে সার্বিক সহযোগিতা করে। জনস্বার্থে এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলেও জানান সহকারী পরিচালক মো. আছাদুল ইসলাম।


আরও খবর



অর্থপাচার মামলায় বরকত-রুবেলের অভিযোগ গঠনের শুনানি ১ সেপ্টেম্বর

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২০জন দেখেছেন
Image

দুই হাজার কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে করা মামলায় ফরিদপুর শহর আওয়ামী লীগের অব্যাহতিপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও তার ভাই ইমতিয়াজ হাসান রুবেলসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে অবশিষ্ট অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য আগামী ১ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত ১০-এর বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম এই দিন ধার্য করেন।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তার উপস্থিতিতে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। এদিন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতে উপস্থিত হয়নি। এজন্য রাষ্ট্রপক্ষ সময়ের আবেদন করেন। আদালত সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে অভিযোগ গঠনের জন্য নতুন এ দিন ধার্য করেন।

এর আগে গত ৭ মার্চ আসামিদের নির্দোষ দাবি করে আইনজীবী শাহিনুর রহমান অব্যাহতির আবেদন করেন। এরপর অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানি শুরু হয়। তবে তা শেষ না হওয়ায় অবশিষ্ট অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য আদালত দিন ধার্য করেন।

এ মামলার অন্য আসামিরা হলেন- ফরিদপুর শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম খন্দকার লেভী, আশিকুর রহমান ফারহান, খোন্দকার মোহতেসাম হোসেন বাবর, এ এইচ এম ফুয়াদ, ফাহাদ বিন ওয়াজেদ ওরফে ফাহিম, কামরুল হাসান ডেভিড, মুহাম্মদ আলি মিনার ও তারিকুল ইসলাম ওরফে নাসিম।

২০২১ সালের ৩ মার্চ বরকত ও রুবেলসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) উত্তম কুমার বিশ্বাস আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ওই বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালত এ অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন।

এর আগে ২০২০ সালের ২৬ জুন সিআইডির পরিদর্শক এস এম মিরাজ আল মাহমুদ বাদী হয়ে অর্থপাচারের অভিযোগে ঢাকার কাফরুল থানায় বরকত ও রুবেলের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলায় দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে দুই হাজার কোটি টাকা উপার্জন ও পাচারের অভিযোগ আনা হয়।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ২০১০ সাল থেকে চলতি বছর পর্যন্ত ফরিদপুরের এলজিইডি, বিআরটিএ, সড়ক বিভাগসহ বিভিন্ন সরকারি বিভাগের ঠিকাদারি নিয়ন্ত্রণ করে বিপুল পরিমাণ অবৈধ সম্পদের মালিক হন বরকত ও রুবেল। এছাড়া তারা মাদক কারবার ও ভূমি দখল করে অবৈধ সম্পদ অর্জন করেছেন। এসি ও নন-এসিসহ ২৩টি বাস, ডাম্পট্রাক, বোল্ডার ও পাজেরো গাড়ির মালিক হয়েছেন তারা। একই সঙ্গে দুই হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেন।

এতে আরও বলা হয়, প্রথম জীবনে দুই ভাই রাজবাড়ীর এক বিএনপি নেতার সঙ্গী ছিলেন। তখন তাদের সম্পদ বলতে কিছুই ছিল না। ১৯৯৪ সালের ২০ নভেম্বর ওই এলাকায় এক আইনজীবী খুন হন। ওই হত্যা মামলার আসামি ছিলেন বরকত ও রুবেল।


আরও খবর