Logo
আজঃ শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

মাগুরায় স্কুল ছাত্রী কিশোরীকে হত্যা চেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১১৮জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরায় স্কুল ছাত্রী কিশোরীকে হত্যা চেষ্টার এক মাস পেরিয়ে গেলেও কোন আসামিকে গ্রেফতার করতে না পারা ও ভুক্তভোগী পরিবারটির নিরাপত্তা, আসামিদের গ্রেফতার ও উপযুক্ত বিচারের দাবিতে  সোমবার ৪ আগস্ট সকালে  মাগুরা সরকারি  বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এর সামনে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগীর সহপাঠী ও সচেতন মাগুরাবাসী। 

ভুক্তভোগীরা  জানান, মাগুরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগের মেধাবী ছাত্রী রুবাইয়া ইয়াসমিন মাইশা কে  প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায়  গত ২৮ জুলাই শুক্রবার একটি পারিবারিক অনুষ্ঠান থেকে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে গিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মাথায় গুরুতর আঘাত ও নানা রকম অত্যাচার করে  করে তার বড় বোন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত বিউটিশিয়ান  ঐশীর সহপাঠী মাগুরা সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ারদী কলেজের অনার্স এর ছাত্র ইব্রাহিম, রাফি,তালহা  ও সাজ নামে ৪ যুবক। এ ঘটনার পর প্রথমে মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় মাইশাকে।  প্রায় ১৫ দিন অজ্ঞান থাকার পর মাইশা জ্ঞান ফিরে  প্রকাশ করে ওই ঘটনা। গুরুতর আহত অবস্থায় এখনো ঢাকা মেডিকেল কলেজ   হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে শিশুটি। ঘটনার পর বিষয়টিকে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা হিসেবে চালিয়ে দিতে চেষ্টা চালায় ইব্রাহিম ও তার সঙ্গীরা। পরে মাইশার কাছ থেকে বিষয়টি জানতে পেরে এ বিষয়ে মাগুরা সদর থানায় মামলা করতে যান তার মা রেহানা পারভীন। কিন্তু সেখানে মামলা না নেয়ায় মাগুরা জেলা জজ  কোর্টে নারী ও শিশু নির্যাতন আদালতে মামলা করেন রেহানা। ঘটনার পর থেকে বিষয়টি মিটিয়ে ফেলার জন্য বিভিন্ন মাধ্যম দিয়ে মাইশার পরিবারকে চাপ দিয়ে আসছে প্রভাবশালী  আসামিদের পরিবার ও স্বজনরা।

 অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কলিমুল্লাহ, দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান।

আরও খবর



সারাদেশে ২৪ দিনে ২০০ যানবাহন ও স্থাপনায় আগুন

প্রকাশিত:বুধবার ২২ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১০৩জন দেখেছেন

Image
নিজস্ব প্রতিবেদক:সারাদেশে ২৮ অক্টোবর থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত ২৪ দিনে বিএনপি ও জামায়াতসহ সমমনা দলগুলোর ডাকা অবরোধ-হরতালকে কেন্দ্র করে ২০০টি যানবাহন ও স্থাপনায় অগ্নিসংযোগ করেছে দুর্বৃত্তরা।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের মিডিয়া সেলের কর্মকর্তা তালহা বিন জসিম মঙ্গলবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, এসব আগুন নির্বাপণে ঢাকাসহ সারা দেশে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ৩৪১টি ইউনিট ও এক হাজার ৮৮৮ জন কাজ করেছেন। এসব ঘটনায় দু’জন দমকলকর্মী ও তিন যাত্রীসহ পাঁচজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

তালহা বিন জসিম জানান, ২৮ অক্টোবর থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত দুর্বৃত্তদের অগ্নিসংযোগে ১৮৫টি যানবাহন ও ১৫টি স্থাপনা পুড়ে যায়। যানবাহনের মধ্যে ১১৮টি বাস, ২৬টি ট্রাক, ১৩টি কাভার্ড ভ্যান, আটটি মোটরসাইকেল, দুটি প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস তিনটি, পিকআপ ভ্যান তিনটি, সিএনজি তিনটি, দুটি ট্রেন, একটি নছিমন, তিনটি লেগুনা, একটি ফায়ার সার্ভিসের পানিবাহী গাড়ি, একটি পুলিশের গাড়ি, একটি অ্যাম্বুলেন্স, বিএনপির কার্যালয় পাঁচটি, আওয়ামী লীগের কার্যালয় একটি, পুলিশ বক্স একটি, কাউন্সিলর অফিস একটি, বিদ্যুৎ অফিস দুটি, বাস কাউন্টার একটি, শোরুম দুটি ও দুটি স্থাপনা রয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের তথ্যমতে, ২৮ অক্টোবর থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত বিগত ২৪ দিনে দুর্বৃত্তরা গড়ে দৈনিক সাতটি যানবাহনে আগুন দিয়েছে। এরমধ্যে গড়ে প্রতিদিন পাঁচটি বাসে আগুন দিয়েছে। তারমধ্যে ২৮ অক্টোবর ২৯টি, ২৯ অক্টোবর ১৯টি, ৩১ অক্টোবর ১২টি, ১ নভেম্বর ১৪টি, ২ নভেম্বর সাতটি, ৪ নভেম্বর ছয়টি, ৫ নভেম্বর ১৩টি, ৬ নভেম্বর ১৩টি, ৭ নভেম্বর দুটি, ৮ নভেম্বর নয়টি, ৯ নভেম্বর সাতটি, ১০ নভেম্বর দুটি, ১১ নভেম্বর সাতটি, ১২ নভেম্বর সাতটি, ১৩ নভেম্বর আটটি, ১৪ নভেম্বর চারটি, ১৫ নভেম্বর ছয়টি, ১৬ নভেম্বর সাতটি, ১৮ নভেম্বর ছয়টি, ১৯ নভেম্বর ১৩টি, ২০ নভেম্বর ছয়টি অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।

আরও খবর



সুন্দরগঞ্জে জাকের পার্টির মনোনয়ন পেলেন সাংবাদিক মোশাররফ হোসেন বুলু

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ৭৩জন দেখেছেন

Image
সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃদ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৯ গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনে জাকের পার্টির প্রা্র্থি হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন সাংবাদিক মো. মোশাররফ হোসেন বুলু।

শনিবার (২৫ নভেম্বর) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাকের পার্টির মনোনীত প্রার্থী মোশাররফ হোসেন বুলু।মোশাররফ হোসেন বুলু সুন্দরগঞ্জ উপজেলা  জাকের পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও i8lqসুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি।

এর আগে, সকালে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাইবান্ধা-১ আসন থেকে অংশ নেওয়ার জন্য তার হাতে মনোনয়নপত্র তুলে দেন জাকের পার্টির মহাসচিব শামীম হায়দার।
এবিষয়ে জাকের পার্টির মনোনীত প্রার্থী মো. মোশাররফ হোসেন বুলু বলেন, সুন্দরগঞ্জ  একটি অবহেলিত উপজেলা। এ উপজেলার অধিকাংশ ইউনিয়ন নদী বেষ্টিত। স্বাধীনতার পর থেকে এ আসনে কাঙ্খিত কোন উন্নয়ন হয়নি। যারাই এ আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছিল তারা সবাই নিজেদের আখের গুছিয়েছেন। তাই অবহেলিত জনপদের ও নির্বাচনী এলাকার সামগ্রীক উন্নয়নের একবুক আশায় নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য জাকের পার্টি থেকে মনোনীত হয়েছি। 

তিনি আরও বলেন, অঢেল টাকা নয়, জনগণের দ্বারে দ্বারে গোলাপের সুরভি ছড়িয়ে দিব। এভাবেই আমরা সকলকে উজ্জীবিত করব পরিবর্তনের পথে। বিজয় হবে ইনশাআল্লাহ।

গাইবান্ধা-১ সংসদীয় আসনটি সুন্দরগঞ্জ উপজেলার একটি পৌরসভা ও পনেরটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। এ আসনে ভোটার।

আরও খবর



নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করলে পরিণতি ভালো হবে না প্রধানমন্ত্রী ktvbangla #ktv

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১০৩জন দেখেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:যাদের আস্থা নেই জনমানুষের ওপর, তারা নির্বাচনে আসবে না। কিন্তু অগ্নিসন্ত্রাস করে কেউ নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করলে তাদের পরিণতি ভালো হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে শনিবার (১৮ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রম উদ্বোধনে এসব কথা বলেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ দেশে ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছে। ২০০৯ সাল থেকে দেশে গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রেখেছে। তাই সংবিধান অনুযায়ী ভোটের মাধ্যমেই সরকার পরিবর্তন হবে।

আওয়ামী লীগ সভাপতি আরও বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন সময় দেশবাসীর ওপর অত্যাচার-নির্যাতন চালাতো। তাদের থেকে গণতন্ত্র উদ্ধারে সংগ্রাম করতে গিয়ে জীবন দিয়েছে অনেক সাধারণ মানুষ। বর্তমানে বাংলাদেশকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে। তাই স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে দেশের মানুষই ভোটের মাধ্যমে তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করবে।


আরও খবর



মানবতাবিরোধী অপরাধে ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | ৯৬জন দেখেছেন

Image

আদালত প্রতিবেদক:মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় বাগেরহাটের খান আকরামসহ ৭ জনের মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহীনুর ইসলামসহ তিন বিচারপতির ট্রাইব্যুনাল বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

২৯৩ পাতার এ রায় পরার সময় আদালতে তিন আসামিকে হাজির করা হয়। তিনজন হলেন, খান আকরাম হোসেন (৬০), শেখ মোহম্মদ উকিল উদ্দিন (৬২), মো. মকবুল মোল্লা (৭৯)। তারা কারাবন্দী রয়েছেন।

এ মামলায় মোট আসামি ছিলেন ৯ জন। তাদের মধ্যে ২ জন মারা গেছেন। বাকি ৪ আসামি খান আশরাফ আলী (৬৫), রুস্তম আলী মোল্লা (৭০), শেখ ইদ্রিস আলী (৬১) ও শেখ রফিকুল ইসলাম বাবুল (৬৪) পলাতক রয়েছেন।

আসামিদের বিরুদ্ধে সাতটি অভিযোগ আনা হয়। ২০১৭ সালের ৩১ মে আসামিদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ আমলে নেওয়া হয়। পরে চার্জ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরু হয়। দীর্ঘ বিচারপ্রক্রিয়া শেষে মামলাটি রায় ঘোষণা করা হয় বৃহস্পতিবার।

আসামিদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের ৭ অভিযোগ-

১ম অভিযোগ; ১৯৭১ সালের ২৬ মে ১৫/২০ জন রাজাকার ও ২৫/৩০ জন পাকিস্তান দখলদার সেনাবাহিনীর সদস্যসহ বাগেরহাট জেলার মোড়লগঞ্জ থানার চাপড়ী ও তেলিগাতীতে নিরীহ নিরস্ত্র মুক্তিকামী মানুষদের ওপর হামলা চালিয়ে ৪০/৫০টি বাড়ির সমস্ত মালামাল লুট করে, বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ করে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে, দুইজন নিরীহ নিরস্ত্র মানুষকে হত্যার উদ্দেশে গুরুতর জখম করে এবং ১০ জন নিরীহ নিরস্ত্র স্বাধীনতার পক্ষের মানুষকে গুলি করে হত্যা করে।

২য় অভিযোগ: ১৯৭১ সালের ৭ জুলাই আসামিরা বাগেরহাট জেলার কচুয়া থানার হাজরাখালী ও বৈখালী রামনগরে হামলা চালিয়ে অবৈধভাবে নিরীহ নিরস্ত্র স্বাধীনতার পক্ষের চারজনকে আটক ও অপহরণ করে আবাদের খালের ব্রিজে হত্যা করে মরদেহ খালে ফেলে দেয়।

৩য় অভিযোগ: ১৯৭১ সালের ১৩ নভেম্বর বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জ থানার ঢুলিগাতী গ্রামে হামলা চালিয়ে দুইজন নিরস্ত্র মুক্তিযোদ্ধাকে আটক, নির্যাতন ও গুলি করে হত্যা করে।

৪র্থ অভিযোগ: ১৯৭১ সালের ১৭ নভেস্বর বাগেরহাট জেলার কচুয়া থানার বিলকুল ও বিছট গ্রামে হামলা চালিয়ে চারজন নিরীহ নিরস্ত্র স্বাধীনতার পক্ষের লোককে আটক ও অপহরণ করে কাঠালতলা ব্রিজে এনে নির্যাতন করার পর গুলি করে হত্যা করে মরদেহ নদীতে ফেলে দেয়।

৫ম অভিযোগ: ১৯৭১ সালের ৩০ নভেম্বর বাগেরহাটের কচুয়া থানার বিলকুল গ্রাম হতে নিরস্ত্র মুক্তিযোদ্ধা মুনসুর আলী নকীবকে আটক ও অপহরণ করে মোড়লগঞ্জ থানার দৈবজ্ঞহাটির গরুর হাটির ব্রিজের উপরে নিয়ে নির্যাতন করার পর গুলি করে হত্যা করে।

৬ষ্ঠ অভিযোগ: ১৯৭১ সালের ১৬ অক্টোবর কচুয়া থানার উদানখালী গ্রামে হামলা চালিয়ে স্বাধীনতার পক্ষের নিরীহ নিরস্ত্র উকিল উদ্দিন মাঝিকে হত্যা করে এবং তার মেয়েকে কচুয়া রাজাকার ক্যাম্পে নিয়ে যায়। কচুয়া রাজাকার ক্যাম্প ও আশপাশের রাজাকার ক্যাম্পে উকিল উদ্দিন মাঝির মেয়েসহ চারজনের ওপর নির্যাতন চালায়। ১৬ ডিসেম্বর বিকেল ৪টায় বাংলাদেশ দখলদার মুক্ত হলে রাজাকার ক্যাম্প তল্লাশি করে মুক্তিযোদ্ধারা উকিল উদ্দিন মাঝির মেয়েকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দেন।

৭ম অভিযোগ: কচুয়া থানার গজালিয়া বাজারে হামলা চালিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের নিরীহ নিরস্ত্র শ্রীধাম কর্মকার ও তার স্ত্রীকে নির্যাতন করতে থাকে। আসামিরা শ্রীধামকে হত্যা করে তার স্ত্রীকে কচুয়া রাজাকার ক্যাম্পে আটকে রাখে। সেখানে শ্রীধামের স্ত্রীসহ আটক চারজনকে ধর্ষণ করে। এক মাস পর শ্রীধামের স্ত্রী অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং তিনি সেখান থেকে পালিয়ে যান।


আরও খবর



মোরেলগঞ্জে উন্মুক্ত গণশুনানী অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩ | ৯১জন দেখেছেন

Image

শেফালী আক্তার রাখি মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট)প্রতিনিধি:বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সরকারি বেসরকারি সেবাদানকারী ইউনিয়নও উপজেলা পরিষদে প্রতিষ্ঠানের সাথে সাধারণ মানুষের এক উন্মুক্ত গণশুনানী অনুষ্ঠিত হয়েছে। (২৭ অক্টোবর) সোমবার বেলা ১১টায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ডরপ্ধসঢ়;ও সুশীলনের পানিই জীবন প্রকল্পের সহযোগীতায় এ গণশুনানী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. শাহ ই আলম বাচ্চু, বিশেষ অতিথি মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাহিমা খানম, সহকারী কমিশনার ভুমি আব্দুল কুদ্দুস। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সুশীলনের উপজেলা সমন্বয়কারী দিপালী বিশ্বাস। অন্যান্যের মধ্যে আলোচনা করেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা রতন কৃষ্ণ দাস, সমাজ সেবা কর্মকর্তা গৌতম কুমার বিশ্বাস প্রমুখ।

গনশুনানীতে অংশগ্রহণকারী গ্রাম পর্যায়ের মা সংসদের স্পীকার সুফিয়া বেগম, মোঃ আবুল হোসেন, অর্চণা রানী, অহিদুজ্জামান সাগর, যুব গ্রুপের সভাপতি শেফালী আক্তার রাখি,লাবনী আক্তার কলি সহ বিভিন্ন বেনিফিসিয়ারিরা এসময় জলবায়ু পরিবর্তনতার ফলে এ উপকুলীয় জনপদের মানুষের ক্ষতিকর দিকগুলো তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ডরপ্ধসঢ়; পানি ই জীবন প্রকল্পের উপজেলা কো অর্ডিনেটর শওকত চৌধুরী।


আরও খবর