Logo
আজঃ Monday ০৮ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড নিখোঁজ সংবাদ প্রধানমন্ত্রীর এপিএসের আত্মীয় পরিচয়ে বদলীর নামে ঘুষ বানিজ্য

লাইসেন্স ছাড়া বেকারি পণ্য উৎপাদন, জরিমানা ৫০ হাজার

প্রকাশিত:Thursday ০২ June 2০২2 | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

লাইসেন্স ছাড়া বেকারি পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করায় একটি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) রাজধানীর মুগদায় অভিযান চালিয়ে ‘কেক শপ’কে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বিএসটিআই আইন, ২০১৮ অনুসারে সিএম সনদ ও ছাড়পত্র ছাড়া প্রতিষ্ঠানটি পাউরুটি, বিস্কুট ও কেক বিক্রি ও বাজারজাত করে আসছিল। এ অভিযোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত চালানো হয়।

এতে নেতৃত্ব দেন বিএসটিআই’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাফিসা নাজ নীরা। বিএসটিআই’র কর্মকর্তা মাকসুদা রুনা ফিল্ড অফিসার (সিএম) দায়িত্ব পালন করেন।


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জে অস্ত্র মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:Thursday ২৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ২৬জন দেখেছেন
Image

অস্ত্র মামলায় ইসমাইল মিয়া (৩৩) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জের আদালত। বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ মুন্সি মুশিয়ার রহমানের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ইসমাইল মিয়া কিশোরগঞ্জের পীরপুর এলাকার গিয়াসউদ্দিনের ছেলে। রায় ঘোষণার সময়ে তিনি আদালতে উপস্থিত ছিল। একই মামলায় মাসুম নামে আরেকজনকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

বিষয়টি নিশ্চিত আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মনিরুজ্জামান বুলবুল বলেন, সাক্ষীদের সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে ইসমাইলকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে একই মামলায় মাসুম নামে আরেকজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ১ আগস্ট সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় আদর্শনগর এলাকা থেকে একটি বিদেশি পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলিসহ ইসমাইলকে আটক করে র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র্যাব-১১)। এই ঘটনায় পরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা করা হয়। আদালত সেই মামলায় বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণা করেছেন।


আরও খবর



‘বিএনপি-জামায়াত দেশকে পাকিস্তান বানানোর স্বপ্নে মাঠে নেমেছে’

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ১৪জন দেখেছেন
Image

শোকের মাসকে ঘিরে আগস্টের বিভিন্ন কর্মসূচীর সূচনার দিনে চট্টগ্রামের হালিশহর বড়পোল মোড়ে বঙ্গবন্ধুর বৃহত্তম ভাস্কর্যে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ।

এর আগে সোমবার (১ আগস্ট) চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার দৃশ্যমান খুনিদের বিচার ও রায় কার্যকর হলেও মূলহোতা ও পরিকল্পনাকারীরা এখনও অধরা রয়ে গেছে। তারাই আবার আরেকটি আগস্ট ট্র্যাজেডি ঘটানোর হুমকি দিচ্ছে। এরা প্রকাশ্যেই বলছে ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্টের হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার। এদের নির্মূল করতে একাত্তরের হাতিয়ারকে শানিত করা সময়ের দাবী।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার পর সারা বিশ্ব কেঁদেছে। বাঙালি জাতি বিশ্বসভায় কলঙ্কিত হয়েছে এবং বিশ্বাসঘাতক হিসেবে স্বীকৃত হয়েছে।

Bongo-Bondhu

এ সমাবেশে সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন বলেন, ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্টে সেনা শাসক জিয়াউর রহমান সুস্পষ্টভাবে পাকিস্তানী এজেন্ডা বাস্তবায়ন করেছেন। বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানানোর ব্যর্থ স্বপ্ন দেখেছেন। সেই ব্যর্থ স্বপ্ন পূরণে বিএনপি-জামায়াত দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য অযৌক্তিক অজুহাতে মাঠে নেমেছে। এখনই তাদের প্রতিহত করতে পাড়ায় মহল্লায় জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দুর্গ গড়ে তুলতে হবে। তা না হলে জাতীয় অস্তিত্ব প্রশ্নবিদ্ধ হবে।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দীন চৌধুরী, আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন, আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, উপদেষ্টা আলহাজ্ব সফর আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য আলহাজ্ব শফিকুল ইসলাম ফারুক, সৈয়দ হাসান মাহমুদ শমসের, এড. শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, হাজী মোহাম্মদ হোসেন, হাজী জহুর আহমদ, আব্দুল আহাদ, নির্বাহী সদস্য কামরুল হাসান বুলু, মোর্শেদ আক্তার চৌধুরীসহ থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতারা।


আরও খবর



কলেজছাত্রীর আপত্তিকর ছবি ফেসবুকে পোস্ট, যুবক গ্রেফতার

প্রকাশিত:Monday ১৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
Image

নওগাঁর মহাদেবপুরে কলেজছাত্রীর আপত্তিকর ছবি ফেসবুকে ছড়ানোর অভিযোগে রাজু হোসেন (২৫) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার (১৮ জুলাই) বেলা ১১টায় তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রাজু হোসেন খোর্দ্দ কালনা গ্রামের হায়দার আলী মণ্ডলের ছেলে। এর আগে রোববার দুপুরে ওই শিক্ষার্থীর বড় বোন বাদী হয়ে একটি মামলা করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী স্থানীয় একটি কলেজের মাস্টার্সের ফলাফল প্রত্যাশী। কলেজে আসা-যাওয়ার পথে রাজু হোসেনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে যান। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রীর সরলতার সুযোগ নিয়ে ঘনিষ্ঠ কিছু ছবি মোবাইলে ধারণ করে রাজু। পরে সে ছবিগুলো দেখিয়ে তাকে ব্লাকমেইল করতে শুরু করেন। এছাড়াও রাজু তার নিজের ফেসবুকে ছবিগুলো পোস্ট করেন। ঘটনাটি জানাজানি হলে রোববার দুপুরে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর বড় বোন বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করলে পুলিশ রাতেই তাকে আটক করে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) শামিনুর ইসলাম বলেন, মামলা দায়েরর পর রাজুকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিকভাবে তার মোবাইল ফোনে সেই সব ছবিও পাওয়া গেছে।

মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম উদ্দিন বলেন, আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে ডিএসসিসির অভিযান

প্রকাশিত:Thursday ২১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ০৩ August ২০২২ | ৮৪জন দেখেছেন
Image

দীর্ঘ ২৪ বছর বকেয়া হোল্ডিং ট্যাক্স পরিশোধ না করায় গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে অভিযান চালিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। প্রতিষ্ঠানটি ১৯৯৮-৯৯ অর্থবছর থেকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের হোল্ডিং ট্যাক্স পরিশোধ করেনি। তাদের কাছে বকেয়ার পরিমাণ দাঁড়ায় ২ কোটি ৪০ লাখ ২৩ হাজার ১১০ টাকা।

বুধবার (২০ জুলাই) দক্ষিণ সিটির সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মুনিরুজ্জামান এই অভিযান পরিচালনা করেন।

তিনি জানান, বারবার তাগাদা দিয়ে পাওনা আদায়ে ব্যর্থ হয় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। অবশেষে সেই বকেয়া আদায়ের লক্ষ্যে গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতাল সিলগালা করতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

আজ হাসপাতালটি সিলগালা করার উদ্দেশ্য আমরা অভিযান পরিচালনা করি। অভিযানের এক পর্যায়ে কর্তৃপক্ষ ১০ লাখ টাকার চেক দেয় এবং বাকি বকেয়া অর্থ মেয়রের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে পরিশোধ করার অঙ্গীকার করে।

অভিযানকালে অন্যান্যের মধ্যে করপোরেশনের উপ-প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. শাহজাহান আলী ও ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম বাবুল উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



গ্যাস না পেলেও সারের সংকট হবে না: কৃষিমন্ত্রী

প্রকাশিত:Saturday ২৩ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

গ্যাস না পেলেও দেশে কোনোভাবেই সারের সংকট হবে না বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

তিনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সারের বিষয়টি নিয়ে আমার কথা হয়েছে। গ্যাস না পেলে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে আমদানি করে কৃষকদের সরবরাহ করা হবে। সেখানে (আন্তর্জাতিক বাজারে) সারের দাম বেশি হলেও দেশে যেন সারের সংকট না হয় সে বিষয়ে পরিষ্কার নির্দেশনা প্রধানমন্ত্রী দিয়েছেন। প্রয়োজনে বেশি টাকা দিয়েই সার কিনা হবে। এ বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গেও আমাকে কথা বলতে বলেছেন। প্রয়োজনে আরও বেশি ভর্তুকি দেওয়া হবে।

শনিবার (২৩ জুলাই) রাজধানীর বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) মিলনায়তনে ‘বছরব্যাপী পুষ্টিকর ও উচ্চমূল্যের ফল উৎপাদন’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ একাডেমি অব এগ্রিকালচার (বিএএজি) এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ও কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশন যৌথভাবে এ সেমিনারের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে বিএএজির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও কৃষি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, গত অর্থবছর আমরা সারের জন্য ২৮ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিয়েছি। সারের ভর্তুকিতে সরাসরি প্রান্তিক কৃষকরা উপকারভোগী হন। তারা কম দামে সার কিনতে পারছেন, এতে সামাজিক সমতার সৃষ্টি হচ্ছে।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, সরকার কৃষিবান্ধব বলেই গত ১৩ বছরে দেশে কোনো মঙ্গা হয়নি। এ সরকার দেশ থেকে ‘মঙ্গা’ শব্দটি দূর করে দিয়েছে। এরপরও খাদ্য মূল্যস্ফীতি একটু বাড়লে বিরোধিতা করা হয়। বিএনপির সময় দেশ মুদ্রাস্ফীতির হার ছিল ১২ শতাংশ। অথচ গত ১৪ বছর ধরে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর দেশে মুদ্রাস্ফীতি ৬ এর নিচে রেখেছি। শুধু এখন আন্তর্জাতিক বাজারে সব পণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় দেশেও মুদ্রাস্ফীতি কিছুটা বেড়েছে।

চালের দাম প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাজারে চালের সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণে আমরা আমদানি করছি। এখনো খুব বেশি চাল দেশে আমদানি হয়নি। এর মধ্যে দাম স্থিতিশীল হয়ে গেছে। এরপরও চালের দাম কিছুটা বেশি হলেও চাল নিয়ে হাহাকার নেই। দামের কারণে কৃষকরা সুবিধা পাচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিশ্ব অর্থনীতিতে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। এ মুহূর্তে খাদ্য নিরাপত্তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সারাবিশ্বে খাদ্য সংকট হচ্ছে, মানুষ সেটি মোকাবিলা করছে। অন্যান্য দেশ থেকে বাংলাদেশ ভালো অবস্থায় রয়েছে।


আরও খবর