Logo
আজঃ Friday ১৯ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে আবাসিকের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ডেমরায় প্যাকেজিং কারখানায় ভয়বহ অগ্নিকান্ড রূপগঞ্জে পুলিশের ভুয়া সাব-ইন্সপেক্টর গ্রেফতার রূপগঞ্জে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ॥ সভা সরাইলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত। নারায়ণগঞ্জে পারিবারিক কলহে স্ত্রীকে পুতা দিয়ে আঘাত করে হত্যা,,স্বামী গ্রেপ্তার রূপগঞ্জ ইউএনও’র বিদায় সংবর্ধনা নাসিরনগরে স্বামীর পরকিয়ার,বলি ননদ ভাবীর বুলেটপানে আত্মহত্যা নাসিরনগরে জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত ডেমরায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসুচি পালিত

কুমিল্লায় প্রকাশ্যে শিয়াল জবাই করে মাংস বিক্রি

প্রকাশিত:Thursday ১১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৬৯১জন দেখেছেন
Image


 

কুমিল্লার লাকসামে প্রকাশ্যে শিয়ালের মাংস বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (১০ নভেম্বর) বিকেলে শহরের রাজঘাট এলাকায় এমন দৃশ্য দেখা যায়। এরপর থেকে এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ফেসবুকে ঘুরপাক খাচ্ছে।

 

স্থানীয় সূত্রে খবর, বুধবার সকালে লাকসাম রেললাইন এলাকায় একটি শিয়াল বিক্রি করার জন্য চট্টগ্রাম থেকে আসেন দুই যুবক। খবর পেয়ে পৌরশহরের রাজঘাট এলাকার বাসিন্দা সাইফুল, মরণ ও লিটনসহ কয়েক যুবক মিলে তাদের কাছ থেকে দেড় হাজার টাকা দিয়ে শিয়ালটি কিনে নেন। বিকেলে রাজঘাট ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় নিয়ে শিয়ালটি জবাই করা হয়। এজন্য স্থানীয় কসাই জিয়াকে ১৫০ টাকা দেওয়া হয়। শিয়ালটি জবাই করার দৃশ্য কেউ একজন মোবাইলে ভিডিও করে। পরে সেই ভিডিও ভাইরাল হয়।

 

ভিডিওতে দেখা যায়, সাইফুল, মরণ ও লিটনসহ কয়েকজন যুবক শিয়াল জবাই করে মাংস বিক্রির স্থানের বর্ণনা দেন। ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে শিয়ালের মাংসের নানা উপকারিতার কথা উল্লেখ করেন। প্রতি কেজি মাংসের দাম ১০০০ টাকা বলে জানানো হয় ভিডিওতে। খবর পেয়ে কয়েকজন সেই মাংস কিনে নেন। এরপরই শিয়ালের মাংস বিক্রেতারা সটকে পড়েন।

 

লাকসামের ইউএনও এ কে এম সাইফুল আলম বলেন, বন্যপ্রাণী জবাই করে মাংস বিক্রি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  খবর প্রতিদিন- সি/বা

নিউজ ট্যাগ: শিয়াল জবাই

আরও খবর



বাসে ভাড়ার চার্ট না থাকলে মোবাইল কোর্টে জরিমানা

প্রকাশিত:Friday ১২ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর সড়কে চলাচলকারী বাসে যদি বিআরটিএর নির্ধারিত ভাড়ার চার্ট না থাকে তবে সেই বাসকে জরিমানা করা হচ্ছে এবং এটা অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) রাজধানীর মহাখালী বাস টার্মিনাল পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

বিস্তারিত আসছে...


আরও খবর



যে কারণে দলে নেওয়া হলো সাব্বির রহমানকে

প্রকাশিত:Saturday ১৩ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
Image

এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের টুর্নামেন্ট এশিয়া কাপ এবার অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। এই টুর্নামেন্টের জন্য যে স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে তাতে জায়গা পেয়েছেন সাব্বির রহমান রুম্মন। দীর্ঘ তিন বছর পর আবারও দলে জায়গা পেয়েছেন তিনি।

অথচ, দল ঘোষণার আগে সাব্বির রহমান যে স্কোয়াডে ফিরতে পারেন, সে চিন্তাই ছিল না কারো মাথায়। এমনকি লিটন দাসের ইনজুরির কারণে যেখানে একজন ওপেনার খুব বেশি দরকার, সেখানে হঠাৎ মিডল অর্ডারে নেয়া হলো সাব্বিরকে। কেন, কোন যুক্তিতে, কোন পারফরম্যান্সের কারণে এশিয়া কাপের দলে ফিরলেন সাব্বির?

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের গুলশানস্থ বাসভবনে আজ বিকেণে এক সংবাদ সম্মেলনে দল ঘোষণার সময় এ নিয়ে প্রশ্নের সম্মুখিন হন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

জবাবে তিনি বলেন, ‘সাব্বির অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। টি-টোয়েন্টিতে আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেটে ওর খেলার অভিজ্ঞতা থেকেই দলে নেয়া হয়েছে। আমরা টিম ম্যানেজমেন্টের সবার সঙ্গে আলোচনা করেই সাব্বিরের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

মূলত দলের ইনজুরি তালিকা লম্বা হওয়া এবং ‘এ’ দলের সঙ্গে সাব্বিরকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাঠানোর কারণেই তার ওপর নাকি আস্থা বেড়েছে নির্বাচকদের। এ নিয়ে প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘কিছু কিছু জায়গায় কিছু খেলোয়াড়কে এভাবে চিন্তা করতে হয়। আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা দেখতে হয়। যেহেতু এবার আমাদের ইনজুরি সংখ্যা বেশি সেদিক থেকে একজন বাড়তি মিডলঅর্ডার ব্যাটার দরকার। আর সাব্বিরকে ‘এ’ দলের হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজে পাঠিয়েছি সেখানে খেলে সে আন্তর্জাতিক আবহ আরেকটু পাবে। সেটা সে জাতীয় দলে কাজে লাগাতে পারবে। সাব্বির ডিপিএলে খুব একটা খারাপ খেলেনি। এরপর তো সে নার্সিংয়ে আছে টাইগার্সে, এরপর ‘এ’ দলে। এই অভিজ্ঞতা তার জন্য বিরাট পাওয়া। এগুলো কাজে লাগিয়ে সে জাতীয় দলে অবশ্যই ভাল করবে।’

আলোচনায় ছিলো সৌম্য সরকারের নাম। সাব্বিরকে নেয়া হলো, সৌম্যকে কেন নয়? এছাড়া এবাদত হোসেনকে দলে নেয়ার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে নান্নু বলেন, ‘এবাদত শেষ বিপিএলে খুব ভাল করেছে। সেই চিন্তা করে ওকে দলে নেয়া হয়েছে। সৌম্য চোখের আড়াল হয়নি। হলে তো ‘এ’ দলের হয়ে উইন্ডিজে পাঠাতাম না। ভবিষ্যতে আমাদের চিন্তায় আছে।’

টি-টোয়েন্টিতে তো বাংলাদেশ দলে পারফরমারই নেই। সে হিসেবে নির্বাচকদের ওপর একটা চাপ থাকে দল তৈরি করার ক্ষেত্রে। এবারের স্কোয়াড তৈরিতে খেলোয়াড়দের নির্বাচনের বিষয়ে কোন দিকটি প্রাধান্য দেয়া হয়েছে? জবাবে প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘এ জায়গাটায় একটা প্রশ্ন আছে। কিন্তু আপনারা দেখছেন না যে ক্রিকেটারদের কয়েক জায়গায় দেখা হচ্ছে। যেহেতু এখন ঘরোয়া ক্রিকেট নেই, সে কারণে আমরা ক্রিকেটারদের বিভিন্ন ক্যাম্পে দেখছি। এইচপি আছে, টাইগার্স আছে- ওখান থেকে বিবেচনা করেই দল তৈরি করা হচ্ছে।’

দল নিয়ে অধিনায়কের মতামত নেয়া হয়েছে কি না? এ বিষয়ে প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘অধিনায়কের সঙ্গে অনেক বিষয় নিয়েই আলোচনা হয়েছে। যেহেতু আমরা টি-টোয়েন্টিতে ভাল অবস্থানে নেই। তো সেসব বিবেচনায় নিয়েই দল তৈরি করেছি। আশা করছি এশিয়া কাপে ভাল কিছু করবে এই দল। সেখানে কঠিন প্রতিযোগীতা হবে, এর আগে জিম্বাবুয়েতে ভাল করতে পারিনি। আশা করছি এই দলটা এশিয়া কাপে ভাল করবে।’


আরও খবর



কুমিল্লার যমজ শিশু পদ্মা ও সেতুর নাম পরিবর্তন করেছে পরিবার

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Wednesday ১৭ August ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একসঙ্গে জন্ম নেওয়া দুই শিশুর নাম রাখা হয়েছিল পদ্মা ও সেতু। বাড়িতে নেওয়ার পর তাদের নাম পরিবর্তন করে উম্মে হানি আয়েশা ও আরোহী আঁখি রাখা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) বিকেলে শিশু দুটির মা সাবিকুন নাহার ঝুমুর জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত ২১ জুন তাদের জন্ম হয়। ওই সময় উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. কামরুল হাসান দুই জনের নাম রাখেন পদ্মা ও সেতু। পরে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নেওয়ার পর ২৭ জুন তাদের নাম পরিবর্তন করা হয়।

নাম পরিবর্তনের বিষয়ে জানতে চাইলে পদ্মা ও সেতুর দাদা শুকুর আলী বলেন, পদ্মা ও সেতু নামটি এলাকার মানুষ ভালোভাবে গ্রহণ করেনি। মুসলিম পরিবার হিসেবে ইসলামি নাম রাখার জন্য বলা হয়। পরে তাদের বাবা সোহাগের পছন্দে নাম পরিবর্তন করে উম্মে হানি আয়শা এবং আরোহী আঁখি রাখা হয়।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, হাসপাতাল থেকে তাদের সবসময় খোঁজ-খবর রাখার কথা থাকলেও আসার পর কেউই খোঁজ রাখেননি। কিছুদিন আগে আঁখির অ্যালার্জি হয়। তখন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে ডাক্তাররা ওষুধ লিখে দেন। সেই ওষুধ বাজার থেকে নিজ টাকায় কিনতে হয়েছে।

এ বিষয়ে ডা. কামরুল হাসান সোহেল বলেন, শিশু দুটির নাম তাদের পরিবারের লোকজনের সম্মতিতে পদ্মা ও সেতু রাখা হয়। পরবর্তীতে তারা কেন নাম পরিবর্তন করেছে বিষয়টি আমার জানা নেই। এছাড়া বিষয়টি তাদের ব্যক্তিগত।

তিনি আরও বলেন, তারা হাসপাতাল থেকে যাওয়ার সময় মোবাইল নম্বর রাখা হয়নি। তাই তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

গত ২১ জুলাই কুমিল্লার বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যমজ কন্যাশিশুর জন্ম দেন উপজেলার শশইয়া দক্ষিণ পাড়া ডিলার বাড়ির সৌদি প্রবাসী সোহাগ মিয়ার স্ত্রী সাবিকুন নাহার ঝুমুর। পরে ওইদিনই শিশু দুটির নাম পদ্মা এবং সেতু রাখেন বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. কামরুল হাসান সোহেল।


আরও খবর



টিভিতে আজ দেখবেন যে সব খেলা

প্রকাশিত:Saturday ০৬ August ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
Image

ক্রিকেট
ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ভারত
৪র্থ টি-টোয়েন্টি
সরাসরি, রাত ৮টা ৩০মিনিট
টি স্পোর্টস

কমনওয়েলথ নারী ক্রিকেট
সেমিফাইনাল
ইংল্যান্ড-ভারত
সরাসরি, বিকেল ৪টা
সনি টেন ২

ফুটবল
ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
ফুলহাম-লিভারপুল
সরাসরি, বিকেল ৫টা ৩০মিনিট
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ১
বোর্নমাউথ-অ্যাস্টন ভিলা
সরাসরি, রাত ৮টা
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ২
টটেনহাম-সাউদাম্পটন
সরাসরি, রাত ৮টা
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ১
এভারটন-চেলসি
সরাসরি, রাত ১০টা ৩০মিনিট
স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ১

কমনওয়েলথ গেমস
সরাসরি, দুপুর ১টা ৩০মিনিট
সনি টেন ১,
সনি টেন ২ ও সনি সিক্স


আরও খবর



এশিয়া কাপে কি থাকবেন সাইফউদ্দিন?

প্রকাশিত:Monday ০৮ August ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ১৮ August ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

গতিতে পেস বোলিং করতে পারেন, লোয়ার অর্ডারে পারেন হার্ডহিটিং ব্যাটিংও। পরিপূর্ণ অলরাউন্ডার যাকে বলে! সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন অটোচয়েজই থাকার কথা। কিন্তু চোটপ্রবণতা তাকে বারবার ছিটকে দিয়েছে জাতীয় দল থেকে।

দেশের জার্সিতে সবশেষ মাঠে নেমেছেন প্রায় ১০ মাস আগে। চোটের সঙ্গে সংগ্রাম করে আবারও মাঠে ফেরার অপেক্ষায় সাইফউদ্দিন। আসন্ন এশিয়া কাপে দলের হয়ে অবদান রাখতে চান তিনি।

এখন শরীরের কী অবস্থা? সোমবার মিরপুরে সংবাদ মাধ্যমকে সাইফউদ্দিন বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ ভালো। কিছু দিন আগে ভারতের দিল্লি থেকে চিকিৎসা নিয়ে এসেছি। এরপর প্রথম ১ সপ্তাহ বেড রেস্ট ছিল। ১ সপ্তাহ পর ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ করেছি। ২ দিন হলো স্কিলের কাজ শুরু করেছি। আজ ফিজিও বায়েজিদ ভাই আমার বোলিং দেখেছেন। সব মিলিয়ে পজিটিভ।’

চলতি মাসের শেষ দিকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এশিয়া কাপ। টুর্নামেন্ট নিয়ে কী ভাবছেন? সাইফউদ্দিন বলেন, ‘আসলে আমি জানি না কিছু। আমাকে মেডিকেল টিম দেখে বলেছে প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলতে। খেলি, দেখি... এশিয়া কাপে থাকব কি থাকব না এটা নির্বাচক ও সংশ্লিষ্টরা দেখবেন। মাঠে খেলতে পারব এতেই খুশি।’

আপনি কি মনে করছেন? খেলতে পারবেন? সাইফউদ্দিনের জবাব, ‘প্রত্যেক খেলোয়াড়েরই লক্ষ্য থাকে এশিয়া কাপ খেলা। আমি অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়েও এশিয়া কাপ খেলিনি। দুটি আইসিসি ইভেন্ট খেললেও এশিয়া কাপে খেলা হয়নি। এটা নিয়ে বাড়তি একটা রোমাঞ্চ কাজ করে। যদি সুযোগ পাই অবশ্যই আনন্দিত হব।’

গত মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাওয়ার সুযোগ ছিল সাইফউদ্দিনের। কিন্তু ফিট মনে না করায় নিজে থেকেই সরে যান এই অলরাউন্ডার, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে (না খেলার) কলটা ছিল ব্যক্তিগত। মেডিকেল টিম আমার ওপর ছেড়ে দিয়েছিল। আমি শতভাগ দিতে পারছিলাম না বলে মেডিকেল টিমকে জানাই। এরপর ওরা সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখন ভালো বোধ করছি। গত এক মাস অনেক কাজ করেছি। খেলার জন্য মুখিয়ে আছি।’

বোলিং করতে গিয়ে কোনো সমস্যা হচ্ছে কিনা, জানতে চাইলে সাইফউদ্দিন বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, প্রথম থেকেই আজ ফুল রানআপে বল করেছি। ইনটেনসিটি হয়তো শতভাগ ছিল না। দিনকে দিন আস্তে আস্তে বাড়াব। যেহেতু আমার শরীর, আমি তো বুঝতে পারছি অবস্থা। আগের চেয়ে ভালো বোধ করছি বলেই আত্মবিশ্বাসী আমি।’


আরও খবর