Logo
আজঃ Wednesday ২৬ January ২০২২
শিরোনাম
অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সহ-শিল্পীদের নগ্ন ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিদেশের মাটিতে কৃষিপণ্য সরবরাহ বাড়াণোর লক্ষ্যে : ইরান রাজনৈতিক কঠিন চাপে রয়েছেন মেয়র আরিফুল স্বপ্নের মেট্রোরেল রওনা হলো আগারগাঁওয়ের উদ্দেশে ওমিক্রনের সংক্রমণে ভারতে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত নিয়মিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ মুরাদ হাসান এমিরেটসের ফ্লাইটে কানাডা গেলেন সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ আগামী বিশ্বকাপে ব্যাটসম্যানদের উন্নতি দেখতে চান করোনাভাইরাসে আরও ছয়জনের মৃত্যু বিশ্বের ৪৩তম ক্ষমতাধর নারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

করোনার হানা নিউজিল্যান্ডে অবস্থানরত বাংলাদেশ দলে

প্রকাশিত:Wednesday ১৫ December ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১৬৩জন দেখেছেন
Image

স্পোর্টস ডেস্ক: টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে দুটি টেস্ট খেলতে নিউজিল্যান্ডে অবস্থান করছে বাংলাদেশ। সেখানে করোনা পরীক্ষায় বাংলাদেশ দলের স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথ পজিটিভ হয়েছেন। শ্রীলঙ্কা থেকে নিউজিল্যান্ডে থাকা দলের সঙ্গে যোগ দেওয়া সাবেক এই কিংবদন্তি স্পিনার দলের বাকি সদস্যদের মতোই কোয়ারেন্টিনে আছেন। দলের এক সদস্য বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিউজিল্যান্ডে পৌঁছানোর পর প্রথম দুই করোনা পরীক্ষায় কোভিড নেগেটিভ হয়েছিলেন টাইগার ক্রিকেটাররা। কিন্তু তৃতীয় পরীক্ষায় করোনা ধরা পড়ে হেরাথের। এ ব্যাপারে নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কি সিদ্ধান্ত নেয়, এখন সেদিকেই তাকিয়ে আছে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে করোনা ধরা পড়ায় হেরাথের কোয়ারেন্টিনের সময় বাড়তে পারে।

এছাড়া বাংলাদেশ দল যে ফ্লাইটে নিউজিল্যান্ড গেছে, সেটির একজন যাত্রী করোনা আক্রান্ত হওয়ায় পর তার আশপাশে বসা বাংলাদেশ দলের নয়জনেরও আইসোলেশন বেড়েছে।


আরও খবর



ডেমরা এলাকার বাসা বাড়িতে পর্যাপ্ত গ্যাসের দাবিতে মানব বন্ধন

প্রকাশিত:Thursday ১৩ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১১৪জন দেখেছেন
Image


বজলুর রহমানঃ

রাজধানীর ডেমরায় ‘আবাসিক বাসা বাড়িতে পর্যাপ্ত গ্যাস চাই’ এ স্লোগানে গ্যাসের দাবিতে মানব বন্ধন করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ওয়ার্ডবাসীরা।


মঙ্গলবার দুপুরে ডিএসসিসির ৬৭ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ পূর্ব বক্সনগর এলাকাবাসীর উদ্যোগে প্রতিবেশী ওয়ার্ডবাসীদের অংশ গ্রহণে এ মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা ডিএসসিসির ৬৬ ও ৬৭ নম্বর ওয়ার্ডের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন।


মানব বন্ধনে অংশ গ্রহণকারীরা বলেন, ডেমরা থানাধীন প্রতিটি ওয়ার্ডেই তীব্র গ্যাস সংকট রয়েছে। ভোর সকাল ৬-৭ টার মধ্যে আবাসিক গ্যাস চলে যায়। আসে রাত ১১ টার পরে। এলাকা ভেদে কোথাও আবার গ্যাস আসে ভোর ৪ টায়,চলে যায় সকাল ৬ টার পরেই।

প্রায় প্রতিটি ওয়ার্ডেই আবাসিক গ্যাস সরবরাহ হচ্ছে অনিয়মের মধ্যে। এতে রান্না বান্নার তারতম্যের কারণে সব সময় পারিবারিক অশান্তি সৃষ্টিসহ নানা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে।


তারা বলেন, আমরা প্রতি মাসেই গ্যাস বিল পরিশোধ করে আসছি বছরের পর বছর ধরে কিন্তু আমাদের এ সমস্যা দিনে দিনে বাড়ছেই। আর তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের কতিপয় অসাধু কর্ম কর্তাদেরই যোগ সাজশে বিভিন্ন এলাকায় শিল্প কারখানা ও আবাসিক গ্যাসের অবৈধ সংযোগ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে বৈধ গ্রাহকরা বাসা বাড়িতে পর্যাপ্ত গ্যাস পাচ্ছেনা। এতে দূর্বিসহ হয়ে পড়েছে মানুষের জীবন। আমরা এ সমস্যা থেকে স্থায়ীভাবে মুক্তি চাই। অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোল গড়ে তোলা হবে যার প্রস্তুতি চলছে।


এ বিষয়ে ডিএসসিসির ৬৬ ও ৬৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মতিন সাউদ ও মো. ইব্রাহিম খলিল বলেন, তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী অভিযোগ করে আমাদের বলেন গ্যাসের সমস্যা সমাধানে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এক্ষেত্রে বাসা বাড়িতে গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক করতে হবে নয়তো সরকারিভাবে সিলিন্ডার গ্যাসের দাম ১২-১৩ শ থেকে ৪-৫ শ টাকায় নামিয়ে আনলেই সমস্যার বড় একটা সমাধান হয়ে যাবে। অথচ দিন দিন সিলিন্ডার গ্যাসের দামও বেড়ে চলেছে।


তবে বিষয়টি সম্পূর্ণ নির্ভর করছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের ওপর। তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আমাদের দাবি রইল এ বিষয়ে যাতে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।


আরও খবর



নাসিরনগর নির্বাচন অফিস,টাকা ছাড়া মিলে না সেবা

নাসিরনগর নির্বাচন অফিস,টাকা ছাড়া মিলে না সেবা

প্রকাশিত:Saturday ২২ January 20২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১০৬জন দেখেছেন
Image


মোঃআব্দুল হান্নান,

অফিসেরকর্মকর্তা কর্মচারী আর পাঁচ দালালে মিলেই চালাচ্ছে নাসিরনগর নির্বাচন কর্মকর্তার কার্য্যালয়। এমন অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।দালালরা  চাইলেই  তৈরি করে দিতে পারেন নতুন জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি)! ভুল সংশোধন কিংবা স্থান পরিবর্তনসহ নির্বাচন অফিসের যে কোন সেবা দিতে পারেন তারা।এমন কাজ তারা গোপনে নয়, প্রকাশ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ঘোষণা দিয়েই করে যাচ্ছেন দীর্ঘদিন ধরে।


আপনি যদি সচেতন নাগরিক হোন, নির্বাচন কমিশনের নিয়ম মেনে যদি কোন সেবার আবেদন করেন, তাহলে পোহাতে হবে চরম ভোগান্তি।  কাগজে সমস্যা,কাগজে ক্রটি এমন নানা অজুহাতে আপনার কাজ আটকে থাকবে দিনের পর দিন। তবে দালালের হাতে তাদের চাহিদা মত টাকা ধরিয়ে দিলে বা  চুক্তি করলেই মিলবে সেবা। এমনই চিত্র ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার  নাসিরনগর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের।


নির্বাচন অফিসের দালাল জাকারিয়া আহমেদ তাকের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আইডি কার্ডের সকল সমস্যা সমাধানের পরামর্শ দেন। তার স্ট্যাটাসটি হলো কারো যদি জরুরি আইডি কার্ড লাগে তবে যোগাযোগ করুন। অপর আরেকটি স্ট্যাটাসে লেখেন, আইডি কার্ড সংশোধন করে দিতে পারি, যাদের সমস্যা তারা যোগাযোগ করবেন।


ভোক্তভোগীদের অভিযোগ, নাসিরনগর নির্বাচন অফিসের নির্বাচন কর্মকর্তা ও অফিস সহকারী থেকে শুরু করে এমএলএসএস এর সাথে আর্থিক চুক্তি ছাড়া মিলে না সেবা। তাদের সহযোগী স্থানীয় বদপাঁচ দালালও রয়েছে। ওই দালালরা অফিসের আশপাশে সকাল ৯টা থেকে শুরু করে রাত ১০টা পর্যন্ত বসে থাকে। তাদের কাজ হল সেবাগ্রহীতাদের সাথে চুক্তি করে নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে পৌঁছানো।


অভিযোগ রয়েছে, প্রতিটি নতুন এনআইডি কার্ড করতে ২০ হাজার থেকে শুরু করে সর্বনিম্ন ৩/৪ হাজার টাকা, সংশোধনের জন্য ক্যাটাগরিভেদে পাঁচ থেকে ৫০ হাজার টাকা নেন তারা। দালাল ছাড়া সরাসরি নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুসরণ করে অফিস আসলে পোহাতে হয় চরম ভোগান্তি। তবে দালালের মাধ্যমে গেলেই মেলে প্রশান্তি।


সরেজমিন উপজেলা নির্বাচন অফিস ঘুরে দেখা গেছে, দুপুরের দিকে নির্বাচন অফিসের সামনে ও বিভিন্ন কক্ষের ভেতর সেবাগ্রার্থীদের প্রচুর ভিড়। এখানে সর্বত্রই উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি। কারোরই মুখে নেই কোন মাস্ক। নির্বাচন কর্মকর্তা ভিড় ঠেকাতে অফিসের ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে রেখেছে। নতুন আইডি কার্ড করতে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আসা প্রায় শতাধিক সেবাগ্রহীতাকে দেখা গেছে। এদের মধ্যে থাকা ঢাকা কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. রোকন উদ্দিন ভূইঁয়া অভিযোগ করে বলেন, আমি আমার ছেলের আইডি কার্ড করতে নির্বাচন অফিসে আসি। নির্বাচন কর্মকর্তা শতশত সেবাগ্রহীতার জন্মনিবন্ধন আটকে রেখে টাকা আদায় করে হয়রানি করছে।ঢাকা থেকে আসা গোয়াল নগর ইউনিয়নের লালুয়ারটুক গ্রামের গ্রাফিক্স ডিজাইনা জোহাম জানায়,সে ভোট উঠানোর পর প্রিন্টিং কপির জন্য অনেক দিন অফিসে ধর্না দিলেও কোন কাজ হয়নি।কিন্তু অফিসের ইমরান সাহেব কে ৪ হাজার টাকা দেয়ার ২৪ ঘন্টার ভিতরেই পেয়ে যান প্রিন্টিং কপি।ডাঃ রোকন উদ্দিন বলেন,হয়রানির কারণ জানতে চাইলে নির্বাচন অফিসার দুর্ব্যহার করে।


 এদিকে অফিস থেকে বের হওয়ার সময় চোখে পড়ে সেবাগ্রহীতা সালামের সাথে অফিসের দালাল পারভেজের টাকা লেনদেনের চিত্র। সেটি মোবাইলে ধারণ করা হয়। তখন পারভেজ এসে এ প্রতিবদেককে বলেন, আমি সালামের কাছে টাকা পাইতাম সেই টাকাই ফেরৎনিচ্ছি।


ভলাকুট ইউনিয়নের বাঘী গ্রামের বাসিন্দা শ্যামল ভৌমিক অভিযোগ করে বলেন, আমি বিদেশ যেতে দ্রুত আইডি কার্ড করতে অফিসে আসি। কিন্তু নির্বাচন কর্মকর্তা আমার সকল কাগজপত্র দেখে বলেন, তোমার বয়স কম। আইডি কার্ড হবেনা। পড়ে একজন দালাল অফিসের পেছনে নিয়ে আমায় বলল স্যার (নির্বাচন কর্মকর্তাকে) কিছু খরচপাতি দিলে বয়স কোন সমস্যা হবেনা। তখন নির্বাচন অফিসারকে আমি ৩ হাজার টাকা দেই। কবে কার্ড পাব ভগবানই ভাল জানেন।


একই ইউনিয়নের কুটুই গ্রামের উদ্ভব দাস বলেন, আমার আইডি কার্ডে নামের ভুল সংশোধনের জন্য অফিসে আসি। কিন্তু অফিসের কেউ আমার সাথে কথাই বলতে চায়না। পরে একজন দালাল আমাকে বলে ১ সপ্তাহের মধ্যে ঠিক করে দিবে, বিনিময়ে তাকে ৩ হাজার টাকা লাগবে। আমি বাধ্য হয়ে ৩ হাজার টাকা দেই। কিন্তু প্রায় দুই মাস হলেও কার্ড পাচ্ছি না।


হরিপুর ইউনিয়নের মিরাজুল ইসলাম বলেন, আমি ২০২১ সালের ২২ সেপ্টেম্বর নতুন আইডি কার্ড করতে অফিসে সকল কাগজপত্র জমা দেই। কিন্তু টাকা ছাড়া করবেনা বলে ফিরিয়ে দেয়। পরে ৫ হাজার টাকা দেওয়ার পর চার মাস পর কার্ড হাতে পাই। কে টাকা নিয়েছে জানতে চাইলে বলেন, অফিসের আউট সোর্সিং-এ নিয়োগ পাওয়া ইমরান তার কাছ থেকে টাকা গ্রহণ করেছে।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন দালাল বলেন, এ অফিসের বিকাশ, রইস খান, মিজান, রুস্তম ও পারভেজই বেশি কাজ করে। তারাই নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে সেবাগ্রহীতাদের সাথে কন্ট্রাক করে অফিসে নিয়ে আসে।


অনিয়ম ও হয়রানির বিষয়ে জানতে নাসিরনগর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলামের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমি কোন সেবাগ্রহীতার কাছ থেকে ঘুষ নেয়নি। কাউকে হয়রানিও করিনা। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ আপনি নিজে টাকা নিয়ে কাজ করেন এমন প্রশ্ন করলে তিনি আর কথা বলতে রাজি হননি।


-খবর প্রতিদিন/ সি.বা   


আরও খবর



চলতি সপ্তাহে বৃষ্টি, জানুয়ারিতে আসছে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ

প্রকাশিত:Monday ২৭ December ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১৪০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২৭ ডিসেম্বর দিবাগত মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকা ও এর আশপাশের এলাকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্য এলাকায় কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। রাত ও দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বলেন, ‘চলতি মাসের একেবারে শেষদিকে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে বৃষ্টি হতে পারে। এরপর কমতে শুরু করবে তাপমাত্রা। জানুয়ারি মাসের ২-৩ তারিখের দিকেই শৈত্যপ্রবাহ হতে পারে। ৪ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা হতে পারে। ৮-এর নিচে হলে তাকে আমরা মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বলি, আর ৪-৫ হলে তীব্র।’

আবহাওয়া অধিদপ্তরের দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাসে বলা হয়, জানুয়ারি মাসে সামগ্রিকভাবে দেশে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। এ মাসে দেশে ২-৩টি মৃদু (৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস), মাঝারি (৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস) শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। যার মধ্যে দুটি তীব্র অর্থাৎ ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার শৈত্যপ্রবাহে রূপ নিতে পারে।

এ ছাড়া এ মাসে দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে এবং নদ-নদী অববাহিকায় মাঝারি বা ঘন কুয়াশা এবং অন্যত্র হালকা বা মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে।

এদিকে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও আশপাশের এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকা ও আশপাশের এলাকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যান্য এলাকার কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। সারা দেশে রাত এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আজ দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়ায় ৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এ ছাড়া বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ঢাকায় ১৫.৫, ময়মনসিংহে ১২.৭, চট্টগ্রামে ১৫.৫, সিলেটে ১৩.৭, রাজশাহীতে ১২,  রংপুরে ১৩,  খুলনায় ১৪.৫ এবং বরিশালে ১২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান বলেন, তীব্র শৈত্যপ্রবাহ হলেও সেটি শহর এলাকার তুলনায় গ্রামে বেশি অনুভূত হবে। কারণ শহরের তাপমাত্রা গ্রামের তুলনায় স্বাভাবিকভাবেই কিছুটা বেশি থাকে। তিনি বলেন, শহরে শীতের তীব্রতা কিছুটা বাড়তে পারে ওই সময়।


আরও খবর



সরাইলে কম্বল বিতরন করলেন বন্ধু ফাউন্ডেশন।

প্রকাশিত:Tuesday ১৮ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ৯১জন দেখেছেন
Image


মোঃ রুবেল মিয়া (সরাইল)

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে প্রতি বছরের ন্যায় এবার অসহায় ২শ মানুষের  মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন বন্ধু ফাউন্ডেশন।


গতকাল শনিবার সকাল ১১ টার দিকে সরাইল উপজেলার প্রাণী সম্পদ মাঠ প্রাঙ্গণে এ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।


কম্বল বিতরণ অনু্ষ্ঠানে বন্ধু ফাউন্ডেশন এর  সহ- সভাপতি আশীশ কুমার দেব'র  সভাপতিত্বে  ও সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম রিপন এর  সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন,  ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের সাবেক এমপি এড. জিয়াউল হক মৃধা,বিশেষ অতিথি ছিলেন বেসরকারি  শিক্ষক কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্য সচিব শাহজাহান আলম সাজু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আবু হানিফ, সরাইল উপজেলার ৭ সদর ইউপির সদ্য বিজয়ী চেয়ারম্যান আব্দুল জাব্বার, বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি  সাংবাদিক মোশারফ হোসেন বেলাল,  দেশ রূাপান্তর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক মনির, কালিকচ্ছ পাঠশালা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম মানিক,বিশিষ্ট সমাজসেবক সরাইল উচালিয়াপাড়া গ্রামের সন্তান নজরুল ইসলাম।


এছাড়াও এ সময় আরও  উপস্থিতি ছিলেন, নাজিম খান বন্ধু ফাউন্ডেশন এর সদস্যবৃন্দ মনির উদ্দিন (সোহেল), মানিক, সাহেদ আলী, কমল, ইছহাগ,আবদুল মুমিন ।



আরও খবর



পদ্মা সেতুতে হাঁটলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:Friday ৩১ December ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৪ January ২০২২ | ১১৮জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: হঠাৎ করেই স্বপ্নের পদ্মা সেতু ঘুরে গেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শুক্রবার সড়কপথে সকাল ৭টা ২৩ মিনিটে শ্রীনগর উপজেলার দোগাছী পদ্মা সেতু সার্ভিস এরিয়া-১-এ পৌঁছান তিনি। সার্ভিস এরিয়া পরিদর্শন শেষে তিনি গাড়িতে করে পদ্মা সেতু পরিদর্শনে যান। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ছোট বোন শেখ রেহানা।

পদ্মা সেতুর ওপরে ৭ নম্বর পিলারের কাছ থেকে পায়ে হেঁটে দুটি মডিউল ঘুরে দেখেন প্রধানমন্ত্রী। অর্থাৎ, ৭ নম্বর পিলার হতে তিনি পায়ে হেঁটে ১৮ নম্বর পিলার পর্যন্ত যান। এরপর আবার গাড়িতে করে তিনি পদ্মা সেতু পাড়ি দিয়ে ওপারে জাজিরার পদ্মা সেতু সার্ভিস এরিয়া-২ এ যান। সেখানে তিনি তার সঙ্গে থাকা বোন শেখ রেহানাকে নিয়ে নাস্তা করেন। এরপর সেখানে ঘুরে দেখে সকাল ১০টার পর তিনি ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন। এসময় তিনি আবারো পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে গাড়ি নিয়ে ঢাকায় ফেরেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছে সেতু সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র।

এসময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আরও ছিলেন কেবিনেট সেক্রেটারি খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক কানী নাহিদ রসুল ও পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের।

চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারি গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়া থেকে ঢাকায় ফেরার সময় আকাশ পথে পদ্মা সেতু দেখেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তখন হেলিকপ্টার থেকে বঙ্গবন্ধু কন্যার সেতু দর্শনের ভিডিও ধারণ হয়েছিল মোবাইল ক্যামেরায়।


আরও খবর