Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

কোথাও হালকা কোথাও ভারি বৃষ্টি হতে পারে

প্রকাশিত:Tuesday ২৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
Image

দেশের কোথাও হালকা, কোথাও ভারি বৃষ্টি হতে পারে আজ (মঙ্গলবার)। আবার কোনো কোনো স্থান থাকতে পারে বৃষ্টিহীন।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) আবহাওয়াবিদ খো. হাফিজুর রহমান জানান, মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়, ঢাকা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

এসময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী তিন দিনে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, দিনাজপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে এক নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এদিকে, সোমবার (২৭ জুন) সকাল ৬টা থেকে মঙ্গলবার (২৮ জুন) সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সব বিভাগেই কম-বেশি বৃষ্টি হয়েছে। তবে খুলনা ও রংপুর বিভাগে বৃষ্টি প্রবণতা বেশি ছিল। এসময়ে সবচেয়ে বেশি ১৩১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে মোংলায়। পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ১১৮ ও সীতাকুণ্ডে ১৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া আর দেশের কোথাও বৃষ্টির পরিমাণ ১০ মিলিমিটার পার হয়নি। অন্যদিকে গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টিহীন ঢাকা, এতে ফের গরমের দুর্ভোগে পড়েছে নগরবাসী।

এদিন দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল চুয়াডাঙ্গায়। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


আরও খবর



বেলআউট চাওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি: মুখ্য সচিব

প্রকাশিত:Thursday ২৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ০৩ August ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছে ‘বেলআউট’-এর কোনো প্রস্তাব দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস।

তিনি বলেছেন, বেলআউট চাওয়ার মতো কোনো পরিস্থিতি বাংলাদেশে তৈরি হয়নি। আমাদের পাঁচ মাসেরও অধিক সময়ের আমদানি ব্যয় মেটানোর মতো পর্যাপ্ত বৈদেশিক মুদ্রা মজুত আছে। তবে ব্যালেন্স অব পেমেন্ট ও বাজেট সহায়তা হিসেবে সংস্থাটির কাছে সহজ শর্তের ঋণ চাওয়া হয়েছে।

বুধবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে নিজ অফিস কক্ষে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

আহমদ কায়কাউস বলেন, বেলআউট শব্দ নিয়ে আমার চরম আপত্তি। বেলআউট চাওয়া হয়েছে, এমন খবর কোনো কোনো গণমাধ্যম পরিবেশন করছে। বিষয়টা অত্যন্ত অনভিপ্রেত এবং আত্মসম্মানে লেগেছে।

তিনি বলেন, বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে ভবিষ্যতে যদি ব্যালেন্স অব পেমেন্টের ঘাটতি বাড়ে, সেজন্যই মূলত অর্থ মন্ত্রণালয় আলোচনা সাপেক্ষে সহায়তা চেয়েছে। এটি সহজ শর্তের ঋণ।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব আরও বলেন, করোনাকালীন বিশ্বব্যাংক, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি), জাইকা এবং আইএমএফ সবার কাছ থেকে বাজেট সহায়তা নেওয়া হয়েছে। তখন কেউ সমালোচনা করেনি।

তিনি বলেন, করোনার সময় আইএমএফ এর কাছ থেকে ৭৩২ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের ব্যালেন্স অব পেমেন্ট সহায়তা নেওয়া হয়েছে, সেটার পরিশোধও শুরু হয়েছে। তাহলে বর্তমান বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে আমরা এ ধরনের ঋণ সহায়তা নিলে, সেটি তো খারাপ কিছু নয়। অপরাধও নয়। আমরা মাথা উচুঁ করে এই ঋণ চাইতে পারি।

আহমদ কায়কাউস এ প্রসঙ্গে বলেন, আইএমএফ এর কাছ থেকে নিয়মিত চার ধরনের তহবিল সহায়তা পাওয়া যায়। আমাদের সঙ্গে প্রতি বছর সেটি নিয়ে আলোচনা হয়। এবারও ব্যালেন্স অব পেমেন্ট ও বাজেট সহায়তার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি জলবায়ুর প্রভাব মোকাবিলায় সেটি ব্যয় করা হবে।

তিনি বলেন, আমাদের ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা বাড়ায় এখন প্রকল্প নির্ভর ঋণের পরিবর্তে বাজেট সহায়তা ঋণ পাচ্ছি। এর মানে হচ্ছে, আমাদের পছন্দ মোতাবেক এই টাকা ব্যয় করতে পারবো। এটি আমাদের জন্য ভালো।

ভারতের আদানি গ্রুপের বিদ্যুৎকেন্দ্র উৎপাদনে যাওয়ার আগেই ভাড়া দিতে হবে বলে কেউ কেউ খবর প্রকাশ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এটি সঠিক নয়। উৎপাদনে যাওয়ার আগে কোনো ভাড়া দেওয়া লাগবে না। প্রত্যেকটা বিদ্যুৎ কেন্দ্র যতক্ষণ উৎপাদনে আসবে না, ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা কোনো ভাড়া দেবো না।

বিদ্যুৎ কেন্দ্রকে ক্যাপাসিটি চার্জ দেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটি কেবল বাংলাদেশে নয়, বিশ্বব্যাপী এই ব্যবস্থা আছে। বিদ্যুতের ক্ষেত্রে ৬৫ শতাংশ ব্যয় হয় জ্বালানিতে এবং ৩৫ শতাংশ ব্যয় হয় বিনিয়োগজনিত। দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের জন্য ক্যাপাসিটি চার্জ রাখার দরকার বলে তিনি মন্তব্য করেন।

এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, কোনো দেশের কাছ থেকে কম দামে জ্বালানি তেল কেনার সুযোগ থাকলে বাংলাদেশ সেই সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করবে। এছাড়া জ্বালানি তেলনির্ভর অনেকগুলো বিদ্যুৎকেন্দ্রকে ক্যাপাসিটি চার্জ দেওয়া হয় না বলে তিনি উল্লেখ করেন।


আরও খবর



মদনে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে কর্মচারীদের অনাস্থা

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
Image

নেত্রকোনার মদন উপজেলা জনস্বাস্থ্যের উপ-সহকারী প্রকৌশলী এএসএম আল-মামুনুর রশীদের অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবাদে কর্মবিরতি পালন করেছেন ওই অফিসের কর্মচারীরা। বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) সকাল থেকে ওই অফিসের কর্মচারীরা নিয়মিত দাপ্তরিক কাজ থেকে বিরত থাকেন।

এর আগে ওই অফিসের ছয় কর্মচারী জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী বরাবর ছয়জন কর্মচারী লিখিত অনাস্থার অভিযোগ দায়ের করেন। এছাড়া শামীম ও মোস্তাফিজ নামের দুই মেকানিক পৃথক আরেকটি অভিযোগ করেন।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, উপজেলা জনস্বাস্থ্য বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী এএসএম আল-মামুনুর রশীদ ঘুস নিয়ে সুবিধাভোগীদের নামে গভীর নলকূপ বরাদ্দ দেন। দাপ্তরিক কাজকর্ম রেখে তিনি অধিকাংশ সময় মোবাইল চেটিংয়ে ব্যস্ত থাকায় সুবিধাভোগীদের ফোন রিসিভ করেন না। ঘুস দিয়েও সময়মতো নলকূপ না পেয়ে সুবিধাভোগীরা অফিসে গিয়ে কর্মচারীদের সঙ্গে অসদাচরণ করেন। এমন কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ হয়ে কর্মচারীরা মামুনুর রশীদের অপসারণ চেয়ে নির্বাহী প্রকৌশলীর বরাবর একমাস আগে অনাস্থা দেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মামুনুর রশীদ তার অফিসের মেকানিক মোস্তাফিজ ও শামীমকে মাদক মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। এ ঘটনায় মেকানিক মোস্তাফিজ ও শামীম ১ আগস্ট আরেকটি পৃথক অভিযোগ দেন। কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে কর্মবিরতি শুরু করেন ওই অফিসের কর্মচারীরা।

মদন জনস্বাস্থ্য অফিসের মেকানিক শামীম বলেন, তার অপকর্ম ও ঘুস বাণিজ্যের জন্য কর্মচারীরা অনাস্থা দিয়েছে। তার স্ত্রী পুলিশের চাকরি করার সুবাধে আমাদের মাদক মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছেন। আমরা এ নিয়ে আতংকে রয়েছি।

উপজেলা জনস্বাস্থ্যের উপ-সহকারী প্রকৌশলী এএসএম আল-মামুনুর রশীদ জানান, অফিসের কর্মচারীরা কেউ ঠিকমতো অফিস করে না। এ বিষয়ে জানতে চাওয়ায় আমার বিরুদ্ধে কর্মচারীরা অভিযোগ দিয়েছেন। আমি কোনো রকম দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত নই।

জেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মশিউর রহমান জানান, প্রকৌশল অফিসের অপকর্মের প্রতিবেদন বুধবার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। এ অফিসের প্রত্যেককে অচিরেই বদলি করা প্রয়োজন।


আরও খবর



টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে আইন সচিবের শ্রদ্ধা

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
Image

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারওয়ার।

২৮ জুলাই তিনি আইন ও বিচার বিভাগের সচিব পদে যোগদান করেন। এর আগে একই বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) সড়ক পথে দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছান আইন সচিব মো. গোলাম সারওয়ার। এরপর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে গভীর শ্রদ্ধা জানান। এ সময় কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি।

শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় আইন সচিবের সঙ্গে ছিলেন গোপালগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ অমিত কুমার দে, জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা, আইন ও বিচার বিভাগের উপ-সচিব ড. শেখ গোলাম মাহবুব, শেখ হুমায়ুন কবীর, ড. একেএম এমদাদুল হক, এস. মোহাম্মদ আলী ও আবু সালেহ মো. সালাউদ্দিন খাঁ, উপ-সলিসিটর কাজী শহিদুল ইসলাম ও নুসরাত জাহান।

এছাড়া সচিবের একান্ত সচিব এসএম মাসুদ পারভেজসহ বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শহিদ সদস্যদের রুহের মগফিরাত কামনা করে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন আইন সচিব মো. গোলাম সারওয়ার।

এর আগে বঙ্গবন্ধুর সমাধি কমপ্লেক্সে রক্ষিত পরিদর্শন বইয়ে স্বাক্ষর করেন তিনি।


আরও খবর



অন্তঃসত্ত্বা চাচিকে হত্যা, ২৭ বছর পর ভাতিজা গ্রেফতার

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

ময়মনসিংহে হত্যার ২৭ বছর পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি সাইফুল ইসলাম ওরফে সাইফুলকে (৪৫) গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১৪। তিনি ফুলবাড়িয়া উপজেলার হুরবাড়ি এলাকার মৃত মিজান মিয়ার ছেলে।

রোববার (৩১ জুলাই) দুপুরে র‍্যাব-১৪ এর কার‍্যালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে শনিবার (৩০ জুলাই) দিনগত রাত আড়াইটার দিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকার দারুস সালাম থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এ বিষয়ে র‍্যাব-১৪ এর কোম্পানি অধিনায়ক মেজর আখের মুহম্মদ জয় বলেন, ফুলবাড়ীয়া উপজেলার হুরবাড়ী গ্রামের মো. আব্দুল আউয়ালের সঙ্গে মনোয়ারা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর মনোয়ারাকে যৌতুকের দাবিতে নির‍্যাতন করতেন স্বামী। বিয়ের আনুমানিক দুই বছর পর অন্তঃসত্ত্বা হন মনোয়ারা বেগম। এমতাবস্থায় ১৯৯৪ সালের ১১ ডিসেম্বর রাতে যৌতুকের দাবিতে আব্দুল আউয়াল, তার দুই বোন শামছুন্নাহার, হাফেজা খাতুন এবং আউয়ালের ভাতিজা সাইফুল ইসলাম মিলে পিটিয়ে মনোয়ারাকে হত্যা করেন।

র‍্যাবের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, হত্যার ঘটনা ধামাচাপা দিতে মনোয়ারার মুখে বিষ দিয়ে আত্মহত্যা বলে প্রচার করা হয়। এ ঘটনার পরে নিহত মনোয়ারার ভাই মো. শহিদুল্লাহ বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেন। পরে ওই মামলায় ২০০৪ সালের জানুয়ারি মাসে সাইফুলকে যাবজ্জীবন সাজা দেন আদালত। তবে হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই পলাতক ছিলেন তিনি।


আরও খবর



আড়াই বছর ধরে সোনামসজিদ দিয়ে যাত্রী নিচ্ছে না ভারত

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
Image

করোনায় বন্ধ থাকার পর সড়ক পথে ট্যুরিস্ট ভিসা চালু হলেও চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে প্রায় আড়াইবছর ধরে ভারত যেতে পারছেন না পাসপোর্টধারী যাত্রীরা। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন অনেকে।

বুধবার (২৭ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টার দিকে জাগো নিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন সোনামসজিদ স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাফর ইকবাল।

তিনি বলেন, ২০২০ সালের ১৫ মার্চ সারাদেশে করোনাভাইরাস বেড়ে যাওয়ার পর সোনামসজিদ ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে যাত্রী পারাপার বন্ধ করা হয়। এখনো বন্ধ রয়েছে। তবে বিশেষ সুপারিশ নিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ করছেন যাত্রীরা। কিন্তু ভারতের অভ্যন্তরে সমস্যার কারণে এ রুট ব্যবহার করে ভারতে যেতে পারছেন না কেউ। এতে ভোগান্তিতে পড়ছে অনেকে।’

সোনামসজিদ ইমিগ্রেশন দিয়ে যাত্রী যেতে কোনো বাধা না দিলেও ভারতীয় ইমিগ্রেশন নিতে চায় না বলেও জানান এসআই।

সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ জাগো নিউজকে বলেন, করোনার সময় থেকেই সোনামসজিদ স্থলবন্দরের ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে যাত্রী পারাপার বন্ধ রয়েছে। তবে মাঝে মধ্যে ভারত থেকে বাংলাদেশে কিছু যাত্রী আসতে দেখা যায়। আমার জানামতে কিছুদিনের মধ্যেই এ ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট খুলে দেওয়া হবে। তখন সব পাসপোর্টধারী যাতায়াত করতে পারবে।’

২০২০ সালের ১৫ মার্চ সারাদেশে করোনা ভাইরাস বেড়ে যাওয়ায় সোনামসজিদ ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে যাত্রী যাতায়াত বন্ধ করা হয়। সে হিসেবে প্রায় দুইবছর ৪ মাস ১৩ দিন থেকে বন্ধ রয়েছে এ ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট।


আরও খবর