Logo
আজঃ Tuesday ০৭ February ২০২৩
শিরোনাম

কিংবদন্তি নায়করাজের জন্মদিন উপলক্ষে তিন দিনব্যাপী আয়োজন

প্রকাশিত:Saturday ২১ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ | ৪০জন দেখেছেন
Image

বিনোদন প্রতিবেদক : কিংবদন্তি অভিনেতা নায়করাজ রাজ্জাকের ৮১তম জন্মদিন আগামী সোমবার। ১৯৪২ সালের ২৩ জানুয়ারি দক্ষিণ কলকাতার নাকতলায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। এরপর ১৯৬৪ সালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে (বর্তমান বাংলাদেশ) চলে আসেন কিংবদন্তি এই অভিনেতা।

প্রয়াত এই নায়কের জন্মদিন ঘিরে চ্যানেল আই তিন দিনব্যাপী বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এর মধ্যে রয়েছে নায়করাজ রাজ্জাক অভিনীত সিনেমা, বিশিষ্টজনদের স্মৃতিচারণ, বিশেষ তারকাকথন এবং তার অভিনীত সিনেমার গান।

আগামীকাল রোববার প্রচার হবে রাজ্জাক অভিনীত সিনেমা ‘বড় ভালো লোক ছিল’। এদিন দুপুরে ‘এবং সিনেমার গান’ অনুষ্ঠানে তার অভিনীত সিনেমার গান দেখানো হবে। আর সকালে ‘গান দিয়ে শুরু’তে থাকবে রাজ্জাক স্মরণে বিশেষ পরিবেশনা।

সোমবার প্রচার হবে তার অভিনীত সিনেমা ‘অভিযান’। এদিন বেলা ১২টা ৫ মিনিটে থাকবে রাজ্জাককে নিয়ে ববিতার স্মৃতিকথা ‘অন্তরঙ্গ ববিতা’। সাড়ে ১২টায় ‘তারকাকথন’ অনুষ্ঠানে নায়করাজ রাজ্জাকের স্মৃতিচারণ করবেন সৈয়দ হাসান ইমাম ও রাজ্জাক তনয় সম্রাট। এর আগে সকাল সাড়ে ৭টায় ‘গান দিয়ে শুরু’র বিশেষ পর্বে অংশ নেবেন শিল্পী মো. খুরশীদ আলম ও অন্যরা। আর মঙ্গলবার প্রচার হবে নায়করাজ পরিচালিত সিনেমা ‘আয়না কাহিনি’।

উল্লেখ্য, রাজ্জাক নায়করাজ নামে পরিচিত হলেও তার পরিবারিক নাম আবদুর রাজ্জাক। রূপালি পর্দায় তার অভিষেক ঘটে ‘১৩ নম্বর ফেকু ওস্তাগার লেন’ সিনেমায় অভিনয়ের মধ্য দিয়ে। নায়ক হিসেবে তার আত্মপ্রকাশ হয় জহির রায়হানের ‘বেহুলা’ সিনেমায় সুচন্দার বিপরীতে। তারপর থেকে একাধারে অভিনয়, প্রযোজনা ও পরিচালনার মাধ্যমে সিনেমা অঙ্গনে দাপিয়ে বেড়িয়েছেন গুণী এই অভিনেতা।

অভিনয়ের পাশাপাশি রাজ্জাক পরিচালনা করেছেন ১৬টি সিনেমা। গড়ে তোলেন রাজলক্ষী প্রোডাকশন হাউজ। প্রযোজক হিসেবে তার যাত্রা হয় ‘রংবাজ’ সিনেমার মাধ্যমে। এরপর বেশ কিছু সিনেমা প্রযোজনাও করেছেন তিনি।

রাজ্জাক ১৯৬২ সালে খায়রুন নেসার (লক্ষ্মী) সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। এই দম্পতির ঘরে জন্ম নেন রেজাউল করিম (বাপ্পারাজ), খালিদ হোসেইন (সম্রাট), নাসরিন পাশা (শম্পা), রওশন হোসেন (বাপ্পি), আফরিন আলম (ময়না)।

দেশের শিল্প-সংস্কৃতিতে বিশেষ ভূমিকা রাখার স্বীকৃতি হিসেবে নায়করাজ ২০১৫ সালে ‘স্বাধীনতা পদক’ পুরস্কারে ভূষিত হন। শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন মোট পাঁচবার। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে আজীবন সম্মাননা পুরস্কার পান ২০১৩ সালে। এছাড়াও পেয়েছেন অসংখ্য সম্মাননা।

২০১৭ সালের ২১ আগস্ট সবাইকে শোকের সাগরে ভাসিয়ে ৭৫ বছর বয়সে পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে যান ঢাকাই সিনেমার এই রাজা।


আরও খবর