Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

খিলক্ষেতে শশী আক্তার শাহীনার উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরন

প্রকাশিত:Sunday ০১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৫৪জন দেখেছেন
Image

নাজমুল হাসানঃ

ঢাকা মহানগর উত্তর খিলক্ষেত থানা মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী শশী আক্তার শাহীনার উদ্যোগে গরীব অসহায় ওদুস্থ মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে।রাজধানীর কুর্মিটোলা হাই স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গনে ১ মে ২০২২ রবিবার  ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ৬০০ পরিবারের মধ্যে এসব শাড়ি,লুঙ্গি বিতরন করা হয়েছে।


ঢাকা-১৮ আসনের এমপি আলহাজ মো. হাবিব হাসান এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।


দুস্থ ও অসহায় মানুষকে ঈদ সামগ্রী প্রদান করে যেকোনো দুঃসময়ে তাদের পাশে থাকার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন ঢাকা-১৮ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য।তিনি তার এলাকার প্রতিটি ওয়ার্ড ও থানার জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে প্রায় ১০ থেকে ১৫ হাজার দুস্থ ও অসহায়দের মধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পাঠানো ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেছেন গত কয়েক দিন যাবৎ এবং এ ধারা অব্যাহত থাকবে আগামী দিনগুলোতেও।


শশী আক্তার শাহীনা বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শের ধারক একজন নারী নেত্রী।খিলক্ষেত থানা মহিলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বকে গতিশীল করতে তিনি নিরলস পরিশ্রম করে চলেছেন।তার নেতৃত্বে ঢাকামহানগর উত্তর খিলক্ষেত থানা মহিলা আওয়ামী লীগ সুসংগঠিত হয়েছে।ঢাকা-১৮ আসনের এমপি আলহাজ মো. হাবিব হাসানের একজন অনুগত কর্মী হিসেবে সব সময় অসহায় দুস্থ মানুষের পাশে থেকে কাজ করেন শশী আক্তার শাহীনা।


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লায় কিশোরী ধর্ষণের পাঁচ দিন পর মামলা

প্রকাশিত:Thursday ১৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১২৪জন দেখেছেন
Image

রূপগঞ্জ নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মোঃ আবু কাওছার মিঠু 

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পাশের রুমের যুবককে পানি খাওয়াতে গিয়ে এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ১০ জুন রাত ৮টায় ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।


ঘটনার ৫ দিন পর বুধবার এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করেছেন কিশোরীর বাবা।


ঘটনার পর থেকেই ধর্ষক রিয়াজ হোসেন (২০) পলাতক রয়েছে। সে জামালপুর জেলার ইসলামপুর থানার বেপারীপাড়ার রফিক আলী সরদারের ছেলে।


মামলায় উল্লেখ্য করা হয়, একই বাড়িতে ভাড়া থাকায় রিয়াজ হোসেন প্রায়ই কিশোরীকে প্রেম নিবেদনসহ কুপ্রস্তাব দিত। ১০ জুন রাত ৮টার দিকে কিশোরীর কাছে পানি খেতে চায় রিয়াজ। তখন কিশোরী তার রুমে পানি নিয়ে গেলে রিয়াজ তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় কিশোরীর মা-বাবা কেউ বাসায় ছিলেন না।


এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার এসআই শাহাদাত হোসেন জানান, ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত আসামি পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে মামলা হয়েছে।


আরও খবর



‘সিলেট-সুনামগঞ্জে দুই দিনে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হবে’

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

সিলেট ও সুনামগঞ্জে আগামী দুই দিনে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হবে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান।

শনিবার (১৮ জুন) বিকেলে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বন্যাকবলিত এলাকার মধ্যে সিলেট ও সুনামগঞ্জে ভয়াবহ অবস্থা বিরাজ করছে। বলা হচ্ছে, ১২২ বছরের ইতিহাসে সিলেট ও সুনামগঞ্জে এমন বন্যা হয়নি।

তিনি জানান, মঙ্গলবার ও বুধবার থেকে পানি কমে সিলেট ও সুনামগঞ্জে পরিস্থিতির উন্নতি হবে। তবে দেশের মধ্যাঞ্চলে বন্যা দেখা দেবে। এই সময়ে উপরের পানি নেমে যাবে।

গত ১৫ মে এ বর্ষায় প্রথম দফায় বন্যা হয় সিলেটে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের হিসাবে, মে মাসের বন্যায় গত ১৮ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পানি হয় সিলেটে। তবে চলমান বন্যা গত মাসের রেকর্ডও ছাড়িয়ে গেছে।

বুধবার (১৫ জুন) থেকে সিলেটের নিচু এলাকায় পানি জমে যায়। তবে বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে তা ভয়াবহ রূপ নেয়। দুপুর ১২টা থেকে বৃহস্পতিবার দিনগত রাতের মধ্যেই সিলেট নগরের বেশির ভাগ এলাকা তলিয়ে যায় বন্যার পানিতে।

২৪ ঘণ্টার মধ্যেই সিলেটে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানি বাসা-বাড়ি ভাসিয়ে নিয়েছে। একদিনে বন্যার এমন ভয়াবহ রূপ আগে দেখেনি সিলেটের মানুষজন। বন্যার পানির এমন আকস্মিক বৃদ্ধিতে হতভম্ব ক্ষতিগ্রস্ত লাখ লাখ মানুষ। অবাক হয়েছেন সিলেট সিটি করপোরেশনসহ স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারাও।

ভয়াবহ বন্যার শিকার লোকজন আশ্রয়কেন্দ্রে গিয়েও জায়গা পাচ্ছেন না। শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকটে রয়েছেন সিলেটের বানভাসি মানুষ। এছাড়া জেলার কৃষকরা তাদের গৃহপালিত পশু নিয়ে পড়েছেন বিপাকে। এমন পরিস্থিতিতে সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠকরা মানবিক সংকট মোকাবিলায় সবাইকে সাধ্য অনুযায়ী এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন।

এদিকে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জেও গত দুই দিন ধরে ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। পাহাড়ি ঢলের পানিতে তলিয়ে গেছে সুনামগঞ্জের ১২টি উপজেলাই। ফলে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন ৪ লাখেরও বেশি মানুষ।

এরই মধ্যে পুরো সুনামগঞ্জ শহর বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার মতো সুযোগও নেই শহরবাসীর। ফলে পানিবন্দি অবস্থায় না খেয়েই দিন পার করছেন লাখো মানুষ। অনেকে ছোট নৌকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আশ্রয়কেন্দ্রে যাচ্ছেন।


আরও খবর



সার কারখানাগুলোকে লাভে ফেরানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার

প্রকাশিত:Saturday ১১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
Image

শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সার কারখানাগুলোকে লাভে ফেরানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ লক্ষ্যে ট্রেড গ্যাপ কমানো এবং গ্যাসের দাম ও বর্তমান বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট বিবেচনায় নিয়ে দ্রুত উচ্চপর্যায়ের সভার মাধ্যমে কর্মপন্থা নির্ধারণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

শনিবার (১১ জুন) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ ফার্টিলাইজার অ্যান্ড কেমিক্যাল কোম্পানি লিমিটেড পরিদর্শন করেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব জাকিয়া সুলতানা। এর আগে তিনি সেখানকার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করে। সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতকালে এসব কথা বলেন।

শিল্পসচিব বলেন, ‘সার কারখানার সবাইকে স্ব স্ব দায়িত্ব সর্বোচ্চ সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করতে হবে। আত্মপ্রত্যয়ী হয়ে ওভারহেড কস্টসহ সিস্টেম লস কমিয়ে কারখানার উৎপাদন বৃদ্ধিতে নজর দিতে হবে। এগুলো করতে পারলে প্রতিষ্ঠানগুলো অচিরেই সোনালী অতীত ফিরে পাবে।’

এসময় শিল্পসচিব শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সার কারখানাগুলোতে উৎপাদন ব্যয়ের তুলনামূলক বিবরণী তৈরির পাশাপাশি কার্যকর কর্মপন্থা বের করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেন।

মতবিনিময় সভায় শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এস এম আলম, বিসিআইসির পরিচালক (পরিকল্পনা), আশুগঞ্জ ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

পরে তিনি সার উৎপাদন কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেন এবং বাল্ক গোডাউন, স্টোর ও অন্যান্য স্থাপনা ঘুরে দেখেন। তিনি কারখানার সামগ্রিক পরিবেশ উন্নত করতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখাসহ বিভিন্ন স্থাপনা রক্ষণাবেক্ষণ ও সংস্কারের বিষয়ে উদ্যোগ নেওয়ার নির্দেশ দেন।


আরও খবর



সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণে দগ্ধ খালেদের করোনা শনাক্ত, ঢামেকে ভর্তি

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৬৫জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম ডিপোতে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ খালেদুর রহমানের (৫৮) করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (৬ জুন) রাতে তাকে ঢামেক বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের কোভিড ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছে। তার শরীরের ১২ শতাংশ দগ্ধ।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. আইউব হোসেন জানান, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম ডিপোতে বিস্ফোরণের ঘটনায় খালেদুর রহমানের শরীরের ১২ শতাংশ দগ্ধ হয়। তিনি শঙ্কামুক্ত নন। তবে খালেদের করোনা শনাক্ত হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটের কোভিড ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছে।

ঢামেক বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের ওয়ার্ড মাস্টার মো. বাবুল জানান, করোনা পজিটিভ হওয়ায় শেখ হাসিনা বার্ন থেকে খালেদুর রহমান নামের একজনকে আমাদের কোভিড ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেন।


আরও খবর



শরৎচন্দ্র পণ্ডিতের মজার ঘটনা: শ্রমিক আশ্রমিক

প্রকাশিত:Wednesday ০৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

বাংলা সাহিত্যের এক রসিক লেখক দাদাঠাকুর শরৎচন্দ্র। হাস্যরস ছিল তার জীবনজয়ের মন্ত্র। অসম্ভব চরিত্রের দৃঢ়তা, অনমনীয় মানসিক শক্তি, কঠোর কর্তব্যপরায়নতা। দাদাঠাকুর ছিলেন স্বভাব কবি এবং তীক্ষ্ণধী, সমাজ সচেতন লেখক। তবে দাদাঠাকুর সেসময় সবার কাছে বেশ জনপ্রিয় ছিলেন তার রসবোধের জন্য।

তিনি একপার্ট এডভার্টাইজিং-এর কানাই বাবুর ঘরে নিয়মিত আসতেন। দুজনের মধ্যে মাঝে মাঝে কবিতার লড়াই লেগে যেত। দাদাঠাকুরের সঙ্গে কানাই। বাবু পেরে উঠতেন না।

দাদাঠাকুর সেকালের বিখ্যাত কবি রামশৰ্মার পুত্র রামেন্দ্রকৃষ্ণ ঘোষকে বিশেষ পছন্দ করতেন। একদিন রামেন্দ্ৰীকৃষ্ণর এক পরিচিতের সঙ্গে দেখা হলে দাদাঠাকুর জানতে চান, রামু (অর্থাৎ রামেন্দ্রকৃষ্ণ) কোথায় জানিস?

পরিচিত ব্যক্তি উত্তর দেন, উনি তো আশ্রমে আছেন।

এ কথা শুনে দাদাঠাকুর বলেন, তাই নাকি? বেশ আছে। তবে একটা কথা জেনে রাখা যারা শ্রম করে খায় তারা হল শ্রমিক আর যারা বিনাশ্রমে খায়। তারা আশ্রমিক। এই কথাটা রামুকে জানিয়ে দিস। বলবি, আমি বলেছি।

লেখা: সংগৃহীত
ছবি: সংগৃহীত

প্রিয় পাঠক, আপনিও অংশ নিতে পারেন আমাদের এ আয়োজনে। আপনার মজার (রম্য) গল্পটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়। লেখা মনোনীত হলেই যে কোনো শুক্রবার প্রকাশিত হবে।


আরও খবর