Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

খালেদা জিয়ার অবস্থা গুরুতর, বললেন মির্জা ফখরুল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ২২৩জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা গুরুতর বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।  

মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) একাংশের সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়া অসুস্থ অবস্থায় আছেন। গুরুতর অবস্থা। অন্য রাজনৈতিক নেতারা আজ আমাদের সঙ্গে শরিক হয়েছেন। সবাই কিন্তু আজ এগিয়ে এসেছেন। সুতরাং ঘরে বসে থাকার সময় নেই।

তিনি বলেন, ‘অত্যাচার ও নির্যাতন এমন পর্যায়ে চলে গেছে যে এখান থেকে বেরিয়ে আসতে সবাই মিলে একজোট হয়ে যদি লড়াই ও সংগ্রাম না করি তাহলে এখান থেকে কীভাবে বের হবো-তা আমি নিজেও বুঝতে পারি না। তাই এখন জাতীয় ঐক্য দরকার। সব মানুষকে এক হতে হবে।

ডিইউজের সভাপতি মো. শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক খুরশীদ আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিএফইউজের (একাংশ) সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, বর্তমান সভাপতি এম আবদুল্লাহ, মহাসচিব নুরুল আমিন রোকন, সাবেক মহাসচিব এম এ আজিজ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



তিতাসের মেঢা‌বি‌বি-৫ অফিস এলাকায় বকেয়া বিল আদায় ও অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৫৯জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হাসানঃতিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসি'র মেঢা‌বি‌বি-৫ ধানমন্ডি অফিসের উদ্যোগে বকেয়া আদায় এবং অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ৪ জুলাই ৫ টি অভিযানিক টীম পরিচালিত হয়।এসব অভিযানে সংযোগ বিচ্ছিন্নকারী টিম কর্তৃক ৫০ টি গ্রাহক আঙিনা পরিদর্শন করা হয়েছে।এ সময় বকেয়া গ্রাহকদের কাছ থেকে তাৎক্ষণিক ৪.৮৮ লক্ষ টাকা আদায় করা হয়। বকেয়া বিলের জন্য ১৮ টি গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। এছাড়াও অবৈধ গ্যাস সংযোগ ব্যবহার করায় আরো ১৮ টি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। বকেয়া পরিশোধের মাধ্যমে ৮ জন গ্রাহককে পুনরায় গ্যাস সংযোগ প্রদান করা হয়।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশনপিএলসি'র মেঢা‌বি‌বি-৫ ধানমন্ডি অফিসের উপমহাব্যবস্থাপক মোঃ এমদাদুল হক জানান, এই ধরনের অভিযান মাস ব্যাপী চলমান থাকবে।



আরও খবর

রাজধানীতে তাজিয়া মিছিল শুরু

বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪




তিস্তায় বাংলাদেশের সিদ্ধান্তে সম্মান জানাবে চীন: রাষ্ট্রদূত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৯০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:তিস্তা নদীতে প্রকল্প নেওয়ার সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের। চীন বাংলাদেশের সিদ্ধান্তে সম্মান জানাবে,বলেছেন ঢাকায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) জাতীয় প্রেস ক্লাবে ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ডিক্যাব) আয়োজিত ‘ডিক্যাব টক’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন রাষ্ট্রদূত।

ইয়াও ওয়েন বলেন, তিস্তা সম্পর্কে আপনারা অবগত আছেন। আমি এটা নিয়ে কি বলতে পা‌রি। তিস্তা নদী বাংলাদেশের সীমানায়, এটা বাংলাদেশের নদী। তিস্তা নদীতে প্রকল্প নেওয়ার সিদ্ধান্ত বাংলাদেশ নেবে। চীন সেই সিদ্ধান্তে সম্মান জানাবে। এই মুহূর্তে আমি এটাই বলতে পা‌রি।

রাষ্ট্রদূত বলেন, তিস্তা বাংলাদেশের নদী, সে তার অংশে যেকোনো প্রকল্প নিতে পারে। তিস্তা নদী ব্যবস্থাপনা নিয়ে কাজ করতে চীন প্রস্তাব দিয়েছে। বাংলাদেশ ফি‌জিবল স্টা‌ডি করার কথা বলেছে। এখন প্রস্তাব গ্রহণ করার বিষয় বাংলাদেশের।

ভারতের সঙ্গে যৌথভাবে তিস্তা প্রকল্প বাস্তবায়নে এক প্রশ্নের জবাবে রাষ্ট্রদূত বলেন, আমরা প্রস্তুত এবং ওপেন। সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আগামী ৮ জুলাই (সোমবার) সকালে ঢাকা থেকে বেইজিংয়ের উদ্দেশে রওনা হবেন প্রধানমন্ত্রী। ৯ জুলাই (মঙ্গলবার) তিনি বেইজিংয়ে বিজনেস ফোরামে যোগ দিয়ে বক্তব্য দেবেন। পরদিন ১০ জুলাই (বুধবার) বঙ্গবন্ধুকন্যা চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াংয়ের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠকে বসবেন। বৈঠকে আর্থিক সহায়তা এবং নতুন প্রকল্পে অর্থায়নের মতো বিষয়গুলো গুরুত্ব পাবে। পরে প্রধানমন্ত্রী চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে আলোচনা করবেন। প্রধানমন্ত্রীর বেইজিং সফরের সময় দেশটির সঙ্গে বেশ কয়েকটি দলিল সইয়ের কথা রয়েছে। এছাড়া সরকারপ্রধান বঙ্গবন্ধুর বই ‘আমার দেখা নয়াচীন’র চাইনিজ ভাষায় অনুবাদের মোড়ক উন্মোচন করবেন।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ডিক্যাব প্রেসিডেন্ট নূরুল ইসলাম হাসিব ও সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান অপু।


আরও খবর

রিজার্ভ কমল ১৩২ কোটি ডলার

বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪

বাড়ল স্বর্ণের দাম

রবিবার ০৭ জুলাই ২০২৪




ফোর্বস এর প্রচ্ছদে রিয়েলমি’র সিইও স্কাই লি: আবারও জিটি সিরিজ আনার ঘোষণা

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৩৪জন দেখেছেন

Image

প্রযুক্তি ডেস্ক:ফোর্বস ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে এবার জায়গা করে নিয়েছেন জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি’র প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও স্কাই লি। দীর্ঘ দুই বছরের বিরতির পর বিশ্ব স্মার্টফোনের বাজারে আবারও জিটি সিরিজ আনার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের স্মার্টফোনপ্রেমীদের জন্য এ ঘোষণা একটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক। কেননা এবার এআই (কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা) প্রযুক্তির উদ্ভাবনকে সঙ্গী করে নতুন প্রাণশক্তি নিয়ে তীব্র প্রতিযোগিতাপূর্ণ স্মার্টফোনের বাজারে হাজির হতে প্রস্তুত রিয়েলমি’র জিটি সিরিজ।

 ফোর্বস এর সঙ্গে একটি সাম্প্রতিক সাক্ষাত্কারে, প্রতিযোগিতামূলক স্মার্টফোনের বাজারে আলোড়ন তোলার ব্যাপারে রিয়েলমি’র সক্ষমতার ওপর আস্থা প্রকাশ করেছেন স্কাই লি। তিনি তরুণ ব্যবহারকারীদের চাহিদা বোঝার এবং আসন্ন জিটি ৬ সিরিজ গ্রাহকদের প্রত্যাশাকেও ছাড়িয়ে যাওয়ার বিষয়ে ব্র্যান্ডের প্রতিশ্রুতির উপর গুরুত্ব দেন। জিটি সিরিজের ফোন আবারও বাজারে আনতে ব্র্যান্ডের ভক্তদের কাছ থেকে তুমুল দাবির বিষয়টি স্বীকার করে স্কাই লি নিশ্চিত করেন যে, রিয়েলমি তার বিশ্বস্ত গ্রাহকদের হতাশ করতে পারে না।

 স্মার্টফোনের তীব্র প্রতিযোগিতাপূর্ণ বাজারে এমন সময়ে রিয়েলমি’র এ ফোনটি আনার ঘোষণা এলো যখন গ্রাহকরা বিদ্যমান ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনের উদ্ভাবনী বিকল্প খুঁজছেন। জিটি ৬ আনার মাধ্যমে রিয়েলমি’র লক্ষ্য হলো ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনের ধারণাকে নতুন করে সংজ্ঞায়িত করা, যা অতুলনীয় পারফরম্যান্স প্রদর্শনের পাশাপাশি স্মার্টফোন ব্যবহারকারীকে এআই এর অভিজ্ঞতাও প্রদান করবে। ফোনটির আগের সিরিজ রিয়েলমি জিটি ৫জি, যা ভারতে “ফ্ল্যাগশিপ কিলার ২০২১” হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছিল, তার সাফল্যের ওপর ভিত্তি করে নতুন জিটি সিরিজটি পারফরম্যান্স ও ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতায় নতুন মানদণ্ড স্থাপন করতে প্রস্তুত।

 মোবাইল ইন্ডাস্ট্রির কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার যুগে প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গে রিয়েলমি একটি এআই নেতৃত্বাধীন স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হিসেবে যাত্রা করতে প্রস্তুত। স্কাই লি প্রযুক্তির ক্ষেত্র পুনর্নির্মাণে এআই-এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা তুলে ধরেন। ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনগুলোতে অত্যাধুনিক এআই প্রযুক্তিসমূহকে একীভূত করার জন্য রিয়েলমি’র প্রতিশ্রুতির ওপর জোর দেন তিনি। ইমেজিং এবং দৈনন্দিন কাজের বিষয়গুলোতে ফোকাস করে, নতুন রিয়েলমি জিটি সিরিজ সহজবোধ্য এআই সল্যুশন দিয়ে তরুণ ভোক্তাদের ক্ষমতায়ন করবে, যা তাদের ক্রমবর্ধমান চাহিদা ও পছন্দ পূরণে সহায়ক হবে।

 তীব্র প্রতিযোগিতাপূর্ণ স্মার্টফোনের বাজারে রিয়েলমি’র ফিরে আসা এবং এআই উদ্ভাবনের প্রতি গুরুত্ব দেওয়া ব্র্যান্ডের যুগান্তকারী প্রযুক্তি সরবরাহের প্রতি অটল প্রতিশ্রুতিকে তুলে ধরে, যা বাংলাদেশ এবং এর বাইরের তরুণ ভোক্তাদের আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



হিলিতে স্বল্পমূল্য টিসিবি পণ্য পেয়ে খুশি নিম্মআয়ের মানুষেরা

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৬৩জন দেখেছেন

Image

মাসুদুল হক রুবেল,হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:সীমান্তবর্তী দিনাজপুরের হাকিমপুর হিলিতে স্বল্পমূল্যে ফ্যামেলি কার্ডের মাধ্যমে টিসিবি পণ্য বিক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। স্বল্পমূল্য এই সব টিসিবির পণ্য পেয়ে খুশি নিম্নআয়ের মানুষেরা।তবে পণ্যের পরিধি বাড়ানোর দাবি সাধারণ মানুষের।

আজ বুধবার (১৫ জুলাই ) বেলা ১১ টায় বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে টিসিবি পণ্য বিক্রির  উদ্বোধন করেন টেগ অফিসার উপজেলা মৎস্য ক্ষেত্র সহকারী অফিসার কামাল হোসেন। এসময় টিসিবি পণ্য বিক্রয় কেন্দ্রর ডিলার আলম হোসেনসহ অনেকে। 

জানা যায়,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনায় উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ১০ হাজার ৫ শ ৭১ জন স্বল্প আয়ের মানুষের (ফ্যামেলি কার্ডধারী) মাঝে জুলাই মাসের ২ কেজি মসুর ডাল, ২ লিটার সোয়াবিন তেল, ৫ কেজি চালসহ একটি প্যাকেজ ৪৭০ টাকা দিয়ে বিক্রি করা হচ্ছে। আগামী তিন দিন পর্যায়ক্রমে পৌরসভার ৯ টি ওয়ার্ডে টিসিবি পণ্য বিতরণ করা হবে। 

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



রাজধানীতে তাজিয়া মিছিল শুরু

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৩৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজধানীতে পবিত্র আশুরা উপলক্ষ্যে ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ পরিবেশে হাজার হাজার মানুষের অংশগ্রহণে তাজিয়া মিছিল শুরু হয়েছে।

বুধবার (১ জুলাই) সকাল ১০টায় পর বের হওয়া এই মিছিলে শিয়া সম্প্রদায়ের হাজারো মানুষ অংশ নিয়েছেন। মিছিলটি সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য পুলিশ কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে।

পুরান ঢাকার হোসেনি দালান থেকে শুরু হয় মিছিলটি। খালি পায়ে, বুক চাপড়ে ‘হায় হোসেন, হায় হোসেন’ মাতম তুলে, লালবাগ, আজিমপুর, নিউ মার্কেট, নীলক্ষেত ঘুরে, সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড় হয়ে ধানমণ্ডির দিকে এগিয়ে যায়। পরে ধানমণ্ডি লেকের পাড়ে প্রতীকী ‘কারবালা’ প্রান্তে গিয়ে শেষ হবে শোকের মিছিল। তাজিয়া মিছিলে কারবালার স্মরণে কালো মখমলের চাঁদোয়ার নিচে কয়েকজন বহন করেন ইমাম হোসেনের (রা.) প্রতীকী কফিন। মিছিলের সামনে ছিল ইমাম হাসান ও ইমাম হোসেনের দুটি প্রতীকী ঘোড়াও।

পুলিশ জানিয়েছে, পুরান ঢাকার লালবাগের হোসেনি দালান ইমামবাড়া, বড় কাটারা ইমামবাড়া ও এর আশপাশের শিয়া সম্প্রদায়কেন্দ্রিক বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও ঐতিহ্যবাহী তাজিয়া (শোক) মিছিল ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে।

এর আগে ভোর থেকেই পুরান ঢাকার হোসেনি দালানে জড়ো হন হাজারো মানুষ। শোকের মিছিলে আংশগ্রহণের জন্য পরনে কালো পোশাক, মাথায় কালো ফেট্টি, কারও হাতে আবার ঝালর দেওয়া লাল, কালো, সোনালি রংঙের ঝাণ্ডা দেখা গেছে।

দিবসটি নির্বিঘ্নে পালনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। এছাড়া আশুরায় অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে পুলিশ ও গোয়েন্দা বাহিনীর তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে। একইসঙ্গে সুষ্ঠুভাবে তাজিয়া মিছিল সম্পন্ন করতে দা, ছোরা, কাঁচি, বর্শা, বল্লম, তরবারি, লাঠি বহন নিষিদ্ধ করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। একই সঙ্গে আতশবাজি ও পটকা ফাটানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর