Logo
আজঃ বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুস্হতার জন্য দোয়া

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১২৯জন দেখেছেন

Image

ষ্টাফ রিপোর্টারঃআজ (৮ জুলাই, ২০২৪) বিকেলে বিএনপি চেয়ারপার্সন সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া'র আশু রোগমুক্তি কামনায় বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটি'র অন্যতম সদস্য ও জাসাস কেন্দ্রীয় কমিটি'র আহবায়ক  চিত্রনায়ক  হেলাল   খান 

সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলায় তার বাস ভবনে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত করেন।


আরও খবর

রাজধানীতে তাজিয়া মিছিল শুরু

বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪




জয়পুরহাটে পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্সের বীমাদাবীর ১২ লক্ষ টাকার চেক হস্তান্তর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ৫৫জন দেখেছেন

Image

এস এম শফিকুল ইসলাম,জয়পুরহাট প্রতিনিধি:পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের একক বীমা প্রকল্পের জয়পুরহাট অঞ্চলের মেয়াদ উত্তীর্ণ গ্রাহকদের বীমাদাবীর ১১ লক্ষ ৯৭হাজার ৫২৭ টাকার চেক হস্তান্তর ও প্রশিক্ষণ কর্মশালা  অনুষ্ঠিত  হয়েছে। 

সোমবার বিকেলে পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের জয়পুরহাটে সার্ভিস সেল কার্যালয়ে এ  বীমাদাবীর চেক হস্তান্তর ও প্রশিক্ষণ কর্মশালা  অনুষ্ঠিত হয়।

পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের একক বীমা প্রকল্পের জয়পুরহাট সার্ভিস সেলের ইনচার্জ মনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে মেয়াদ উত্তীর্ণ বীমাদাবীর চেক হস্তান্তর ও প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের উর্দ্ধতন উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ( ব্রাঞ্চ কন্ট্রোল)  সৈয়দ মোতাহার হোসেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের একক বীমা প্রকল্পের প্রকল্প ইনচার্জ আফজাল হোসেন, পপুলার ডিপিএস প্রকল্পের মহাব্যবস্থাপক (উঃ), একুশে টেলিভিশন ও দৈনিক আজকালের খবরের জেলা প্রতিনিধি এস এম শফিকুল ইসলাম, হিসাব কর্মকর্তা রাজু সরদার, অবলিখন কর্মকর্তা মহিউদ্দিন, ব্রাঞ্চ ম্যানেজার সানজিদা খাতুন জুই, ব্রাঞ্চ ম্যানেজার  মুক্তি ঘোষ, ব্রাঞ্চ ম্যানেজার শাহানাজ তালুকদার, ইউনিট ম্যানেজার নার্গিস শাহানাজ, হিসাব কর্মকর্তা শ্রীফল, ফিনান্সিয়াল অ্যাসোসিয়েট রুনা লায়লা প্রমুখ। 

সমাবেশ  শেষে ১১ লক্ষ ৯৭ হাজার ৫২৭ টাকার বীমা দাবীর চেক গ্রাহকদের হাতে হস্তান্তর করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের উর্দ্ধতন উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ( ব্রাঞ্চ কন্ট্রোল)  সৈয়দ মোতাহার হোসেন।

-খবর প্রতিদিন/ সি.


আরও খবর



রূপগঞ্জ তারাবো পৌরসভার বাজেট ঘোষণা

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০২জন দেখেছেন

Image

আবু কাওছার মিঠু রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ- নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার তারাবো পৌরসভার ২০২৪-২৫ অর্থ বছরে ১৭৩কোটি ১৫লক্ষ ২হাজার ১০৫টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। বাজেটের ব্যয় ধরা হয়েছে ১৬৪কোটি ৩৩লক্ষ ২৫হাজার টাকা। উদ্ধৃত্ব ধরা হয়েছে ৮কোটি ৮১লক্ষ ৭৭হাজার ১৫০টাকা। মাদক বিরোধী, ক্রীড়া অনুষ্ঠান, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থা, পানি সরবরাহ, জলবদ্ধতা নিরসন, পয়নিষ্কাশন ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, বৃক্ষ রোপণ রক্ষণাবেক্ষণ, রাস্তা-ঘাট, কালভার্ট ও ড্রেন নির্মাণে এ অর্থ ব্যয় করা হবে। গতকাল ৭জুলাই রবিবার তারাবো পৌরসভা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তারাবো পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী।


বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ হাবিবুর রহমান হাবিব, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান মাহমুদ রাসেল, ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, কাউন্সিলর আমির হোসেন ভুঁইয়া, রফিকুল ইসলাম মনির, রাসেল সিকদার, মাহবুবুর রহমান জাকারিয়া, আতিকুর রহমান, রূপগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম এ মোমেন, সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেন প্রমুখ।

পরে তারাবো পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী বাজেট ঘোষণা করেন। 

   -খবর প্রতিদিন/ সি.ব

আরও খবর



ভোলার দৌলতখানে জমি নিয়ে বিরোধ, বসত ঘরের বারান্দায় বৃদ্ধাকে দাফন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১০২জন দেখেছেন

Image

শরীফ হোসাইন, ভোলা বিশেষ প্রতিনিধি:ভোলার দৌলতখানে জমি জমা বিরোধের জের ধরে জোবেদা খাতুন (৫৫) নামে এক বৃদ্ধা নারীকে তার বসত ঘরের বারেন্দার মধ্যে দাফন করা হয়েছে। বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে দৌলতখানের দক্ষিণ জয়নগর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সর্দার বাড়িতে।

স্থানীয়সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ দেড় বছর পূর্বে জোবেদা খাতুনের স্বামী আব্দুর রশিদ মৃত্যুবরণ করেন। তখন তাকে দাফন করা হয়েছিল তার ভাতিজা রফিক এর জায়গায়। পারিবারিক কলহের জের ধরে ঐ কবরের উপরে রফিকের স্ত্রী তাসনুর বেগম ঝাড়ু দিয়ে কবরকে অসম্মান করায় জোবেদা খাতুন তার ছেলে-মেয়েকে মৃত্যুর আগে অছিয়ত করেছিল তাকে যেন মৃত্যুর পর কারো জায়গায় দাফন না করা হয়। প্রয়োজনে তার ঘরের মধ্যে দাফন করতে বলেছেন।

মৃত জোবেদা খাতুনের বড় ছেলে রফিজল জানান, তাদের বাড়িতে সাড়ে ৫ শতক জমি রয়েছে। ঘরের ভিটায় আড়াই শতক এবং বাকি ৩ শতক জমি তার চাচাতো ভাই রফিক দখল করে বিল্ডিং নির্মাণ করিতেছেন। ঘরের ভিতর তার মাকে দাফন না করলে হয়তো এক সময় তাঁর চাচাতো ভাই রফিক বাকি জমি জবর দখল করে নিয়ে যাবে। তিনি আরো বলেন, এক দিকে মায়ের কবর হলো; অন্যদিকে তাদের ঘর ভিটা তাদের নিয়ন্ত্রণে রহিলো। রফিকের বিল্ডিংয়ের দরজার সামনেই জোবেদা খাতুনকে কবর দেয়া হয়েছে। পরে এলাকাবাসী জোবেদা খাতুনের কবরটি ইট দিয়ে পাকা করে দিয়েছে। যাতে করে রফিক ভবিষ্যতে জোবেদা খাতুনের কবরসহ ঘর ভিটা দখল করতে না পারে। রফিকের বাবার সাথে কথা বললে তিনি জানান, এ বাড়িতে সব জমি আমার। এখানে অন্য কারো জমি নেই।


আরও খবর



জুনের ২৩ দিনে এলো ২০৫ কোটি ডলার রেমিট্যান্স

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৪৮জন দেখেছেন

Image

ঈদুল আজহা থাকায় এ মাসে ২৩ দিনে দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ২০৫ কোটি মার্কিন ডলার। এর মধ্যে শুধু ২৩ জুনই এসেছে ১৩ কোটি ৮০ লাখ ডলার। এ তথ্য পাওয়া গেছে বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে। প্রতিদিন গড়ে দেশে এসেছে ৮ কোটি ৯১ লাখ ডলার।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, চলতি মাসের প্রথম ১২ দিনে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ব্যাংকের মাধ্যমে দেশে ১৪৬ কোটি ডলারের প্রবাসী আয় পাঠিয়েছেন। আর ২৩ জুন পর্যন্ত তারা পাঠান ২০৫ কোটি ২০ লাখ ডলার। গত বছরের ১ থেকে ২১ জুন প্রবাসী আয় এসেছিল ১৬৬ কোটি ৬০ লাখ ডলার।

গত মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক একলাফে ডলারের দাম ৭ টাকা বাড়িয়ে ১১৭ টাকা নির্ধারণ করার পর বৈধ পথে প্রবাসী আয় আসা বেড়ে যায়। এতে মাসের প্রথম ২৩ দিনেই এসেছে ২০৫ কোটি ২০ লাখ ডলার। আর শুধুমাত্র সোমবার (২৩ জুন) এই এক দিনেই এসেছে ১৩ কোটি ৮০ লাখ মার্কিন ডলার। ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, গত মাসে বাংলাদেশ ব্যাংক একলাফে ডলারের দাম ৭ টাকা বাড়িয়ে ১১৭ টাকা নির্ধারণ করার পর বৈধ পথে প্রবাসী আয় আসা বেড়েছে। যার প্রভাব দেখা গেছে গত মাসে। চলতি মাসেও এখন পর্যন্ত প্রবাসী আয়ে ঊর্ধ্বমুখী ধারা চলছে। তবে নথিপত্রে ডলারের দাম ১১৭ টাকা হলেও ব্যাংকগুলো ১১৮-১১৯ টাকা দরেও প্রবাসী আয়ের ডলার কিনছে। যে ব্যাংক ডলারের দাম যত বেশি দিচ্ছে, সেটি প্রবাসীদের কাছ থেকে তত বেশি ডলার পাচ্ছে। এসব ব্যাংক অবশ্য বেশি দামে অন্য ব্যাংকগুলোর কাছে ডলার বিক্রি করছে। এতে আমদানিকারকদের বেশি দামে ডলার কিনতে হচ্ছে। মাঝেমধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকও এসব ব্যাংক থেকে ডলার কিনে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়ায়।

২০২০ সালে করোনা ভাইরাসের কারণে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেলে বৈধ পথে প্রবাসী আয় আসা বেড়ে গিয়েছিল। তখন প্রবাসী আয় প্রতি মাসে গড়ে ২০০ কোটি ডলার ছাড়িয়েছিল। এর প্রভাবে তখন বৈদেশিক মুদ্রার মোট রিজার্ভ ৪৮ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যায়। ২০২২ সালে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর ডলার–সংকট শুরু হয়। ফলে মোট রিজার্ভ কমতে কমতে এখন ২৪ বিলিয়ন ডলারে নেমে এসেছে। তবে প্রকৃত রিজার্ভ ১৩ বিলিয়ন ডলার।

দেশে ২০২২-২৩ অর্থবছরে ২ হাজার ১৬১ কোটি ডলারের প্রবাসী আয় আসে। আর চলতি ২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রথম ১১ মাসে (জুলাই-মে) প্রবাসী আয় এসেছে ২ হাজার ১৩৭ কোটি ডলার।


আরও খবর



ভারী বৃষ্টি হতে পারে ৬ বিভাগে

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | ১৬৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ও এর কাছাকাছি উপকূলীয় এলাকায়। এ কারণে শুক্রবার থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে শুরু হয়েছে বৃষ্টি। শনিবার দেশের ৬ বিভাগে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। মৌসুমি বায়ু সক্রিয় থাকার কারণে আগামী তিন দিন এমন বৃষ্টি চলতে পারে বলেও পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

শুক্রবার (২৮ জুন) রাতে দেওয়া পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ স্থানে ; ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সে. হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে।

আরও জানায় আবহাওয়া অফিস, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ বিহার, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল এবং বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র প্রবল অবস্থায় রয়েছে।

উল্লেখ্য, বৃষ্টি ১ থেকে ১০ মিলিমিটার হলে সেটিকে হালকা বৃষ্টি বলা হয়। আর ১১ থেকে ২২ মিলিমিটারের মধ্যে বৃষ্টি হলে তা মাঝারি ধরনের বৃষ্টি। মাঝারি ধরনের ভারী বৃষ্টি বলা হয় ২৩ থেকে ৪৩ মিলিমিটার হলে। আর ৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটারের বৃষ্টি হচ্ছে ভারী বৃষ্টি। যদি ৮৮ মিলিমিটারের চেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়, তবে তা অতি ভারী বৃষ্টি হিসেবে ধরা হয়।


আরও খবর