Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

জমকালো আয়োজনে ‘জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা ৪৩তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালিত

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১০জন দেখেছেন

Image
রবি ইসলাম:জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা ৪৩তম প্রতিষ্ঠা দিবসে কেক কাটার মধ্য দিয়ে জমকালো আয়োজনে জাতীয় প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়। 

সংস্থার ৪৩ প্রতিষ্ঠা দিবস কার্যক্রম শুরু করেন জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহম্মদ আলতাফ হোসেন।রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ইং সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে র‌্যালী এবং আবদুস সালাম মিলনায়তনে আলোচনা সভা, কেক কাটা ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। 

অনুষ্ঠানে সংস্থার মহাসচিব মুহাম্মদ কামরুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত  ছিলেন সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় সভাপতি  মুহম্মদ আলতাফ হোসেন। 

উক্ত অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্থার প্রধান উপদেষ্টা লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল, প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ আবুল বাসার মজুমদার। 

উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নির্বাহী সভাপতি মোঃ শাহজাহান মোল্লা।এসময়ে বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা বক্তব্য রাখেন।

এবং সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহম্মদ আলতাফ হোসেন এর ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশের সকল বিভাগ, জেলা, মহানগর ও উপজেলায় শাখায় আনুষ্ঠানিক ভাবে সংস্থার ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালন করা হবে।

আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ধানী জমির আইলে দানাদার বীষ ১২ টির মত মুরগির মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫৬জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:বিলের ধানী জমির আইলে পরিকল্পিত ভাবে গমের সাথে  দানাদার বিষ দিয়ে রাখেন কৃষক ডালার। রবিবার সকালের দিকে  সেই বিষ খেয়ে অসহায় দরিদ্র ব্যাক্তিদের ১২ টির মত মুরগী মারা যায়। রাজশাহীর তানোর পৌর সদর শীতলীপাড়া গ্রামে ঘটে মুরগী মারা যাওয়ার ঘটনাটি। এঘটনায় সুবিচার পেতে ডলারের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী দরিদ্র মৎস্য জীবিরা। এখবর ছড়িয়ে পড়লে ডলারের শাস্তিসহ ক্ষতিপূরুনের দাবি তুলেছেন ভুক্তভোগীরা। 

জানা গেছে, পৌর সদর এলাকার শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামের পূর্ব দিকে শীতলীপাড়া গ্রাম। গ্রামের চারদিকে আবাদি জমি। জমিগুলোতে বোরো রোপন করা আছে। গ্রামের প্রায় সবাই মৎস্য জীবি বা বিল থেকে মাছ মেরে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। গ্রামের নিচে  উপজেলা ক্যাম্পাস এলাকার কৃষক হাজী ইউনুস আলীর ছেলে ডলারের জমি রয়েছে। জমির ধানগুলো কালচে আকার ধারন করেছে। এখনো ধানে শীষ গজায়নি।শীতলীপাড়া গ্রামের মধুবালার ৪ টি, তারা বিবির ৪ টি ও রানীর একটি এবং গোলাপীর একটি মুরগী মারা যায়।

ভুক্তভোগীরা জানান, সংসারে একটু সাচ্ছন্দ্য আনতে মুরগী লালন পালন করে থাকি। গ্রামের চারদিকে ধানী জমি। ধানে এখনো শীষ গজায়নি। মুরগী খাবে এমন কিছুই নেই। শুধু হিংসাত্মক ভাবে ডলার জমির আইলে গমের সাথে দানাদার বীষ দিয়ে রেখেছিল মুরগীগুলো মেরে ফেলার জন্য। তার ভয়ে কেউ হাঁস লালন পালন করতে চায়না। গত বছরও তিনি গ্রামের কয়েক ব্যক্তির হাঁস বিষ দিয়ে মেরেফেলেছিল। প্রতি বছর মুরগী হাস মারলেও ভয়ে কেউ কিছুই বলতে পারেনা। তার জমির কাছে হাস বা ছাগল গেলেই খোয়াড়ে দেয়। কিন্তু মুরগীর কি অপরাধ যে গমের সাথে বিষ প্রয়োগ করে মেরে ফেলতে হবে। আমরা থানায় অভিযোগ করেছি ন্যায্য বিচার পাওয়ার জন্য। 

কৃষক ডলার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি কেন জমির আইলে গমের সাথে বিষ দিব, আমি কি পাগল। হ্যাঁ হাস, ছাগল খোয়াড়ে দিই। তবে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। এত কৃষকের জমি থাকতে আপনার নামে কেন অভিযোগ করল জানতে চাইলে তিনি জানান, কেউ অভিযোগ করলেই যে সঠিক হবে কে বলেছে, তদন্ত করে দেখুক বলে দায় সারেন তিনি।
থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আব্দুর রহিম বলেন, অভিযোগ আমার হাতে এসে পৌছেনি, পৌছলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও খবর



ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে সরকার নয় বরং শ্রমিকরা মামলা করেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ড. মুহাম্মদ ইউনূসের মামলায় সরকার কোনো পক্ষ নয়, যেসব শ্রমিক-কর্মচারীরা বঞ্চিত হয়েছেন তারাই তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।বলেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে ১৪টি দেশের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

ড. ইউনূসের বিচারের বিষয়ে গত ২৯ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট-এ বিজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, প্রকৃতপক্ষে এটি বিবৃতি নয় বরং বিজ্ঞাপন। এর আগেও এমন ছাপা হয়েছে। ড. ইউনূসের প্রতি সম্মান রেখে বলতে চাই, বাংলাদেশের বিচার প্রক্রিয়া অত্যন্ত স্বচ্ছ। তার বিরুদ্ধে সরকার নয় বরং শ্রমিকরা মামলা করেছেন। এর আগেও লবিস্ট ফার্মের মাধ্যমে এমন বিজ্ঞাপন ছাপা হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ১৪টি দেশের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত, তারা মূলত নতুন সরকারকে অভিনন্দন জানাতে বাংলাদেশে এসেছেন। সোমবার (২৯ জানুয়ারি) তারা গিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধুর সমাধিস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণ করতে। তাদের কেউ কেউ আরও ১০ বছর আগে আমাদের এখানে এসেছিলেন। তারা সেই উন্নয়নের প্রশংসা করেছেন। ১০ বছরে অনেক পরিবর্তন হয়েছে এখানে। প্রতিটি দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের ডিপ্লোম্যাটিক রিলেশন আছে। বিজনেস রিলেশন আছে। কেউ কেউ ইনভেস্টমেন্ট করার কথাও বলেছেন।

উল্লেখ্য, রোববার ২৮ জানুয়ারি ৬ দিনের সফরে ঢাকায় আসেন ১৪ দেশের অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত। মূলত ভারতে নিযুক্ত এসব দেশের দূতাবাসের কর্মকর্তারা এ সফরে এসেছেন। সফর শেষে ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা ছাড়বেন তারা।

দেশগুলো হলো- ভারত, কম্বোডিয়া, হাঙ্গেরি, গাম্বিয়া, চেক রিপাবলিক, জ্যামাইকা, লুক্সেমবার্গ, বতসোয়ানা, মঙ্গোলিয়া, পেরু, স্লোভানিয়া, উরুগুয়ে, ভেনেজুয়েলা, নর্থ মেসিডোনিয়া।


আরও খবর



খাগড়াছড়ি পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১৯১ কার্টুন বিদেশী সিগারেট সহ গ্রেপ্তার ১

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮২জন দেখেছেন

Image
জসীম উদ্দিন জয়নাল,পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধি:খাগড়াছড়ি জেলার সদর থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে চোরাই পথে নিয়ে আসা অবৈধ বিদেশী ১৯১ কার্টুন সিগারেট সহ তনয় চাকমা (২৭)নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১৪ফেব্রুয়ারি)  সন্ধ্যার দিকে খাগড়াছড়ি সদর  থানাধীন ভাইবোনছড়া পুলিশ ফাঁড়ির একটি চৌকস টিম  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভাইবোনছড়া ইউপিস্থ ভাইবোনছড়া পুলিশ ফাঁড়ির বিপরীত পার্শ্বে মাসুদের চায়ের দোকানের সামনে পাঁকা রাস্তার উপর অভিযুক্ত আসামী তনয় চাকমা (২৭)  এর টমটম তল্লাশী করে টমটমের ছাদের পর্দার নিচে রক্ষিত সারিবদ্ধভাবে ১৯১ কার্টুন/বক্স SILVER NANO ORIS  ব্র্যান্ডের বিদেশী সিগারেট সহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত আসামী  তনয় চাকমা (২৭)খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার ভাইবোনছড়া ইউনিয়ন এর চিত্তরঞ্জনপাড়ার বাসিন্দা বরেন্দ্র চাকমার ছেলে।

খাগড়াছড়ি জেলা  পুলিশ সূত্রে জানা গেছে অভিযুক্ত ব্যাক্তির দেহ ও টমটম তল্লাশীকালে 
টমটমের ছাদের পর্দার নিচে রক্ষিত সারিবদ্ধভাবে ১৯১ কার্টুন/বক্স SILVER NANO ORIS  ব্র্যান্ডের বিদেশী সিগারেট যার মূল্য (১৯১X১০০০)  = ১,৯১,০০০/- (এক লক্ষ একানব্বই হাজার) টাকা।আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে জানান সিগারেটের  প্যাকেটগুলো সীমান্তবর্তী এলাকা হতে সংগ্রহ করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিল।আসামীর বিরুদ্ধে খাগড়াছড়ি সদর থানায় মামলা রুজু করে তাকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




কালিয়াকৈরে জোড়া পুলিশ বক্সের পাশে যুবক খুনের রহস্য উন্মোচন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৭৯জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে জোড়া পুলিশ বক্সের পাশে সেই যুবককে খুনের রহস্য উন্মোচন করেছে কালিয়াকৈর থানা পুলিশ। মর্গে মিলে লাশের পরিচয়। ওই খুনের সঙ্গে জড়িত দুজনকে গ্রেপ্তারের পর তার খুনের রহস্য জানা যায়। মঙ্গলবার দুপুরে থানার ভেতরে প্রেসব্রিফিং করে এসব তথ্য জানান থানার ওসি এএফএম নাসিম।

নিহত যুবক হলেন, সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া থানার বানিয়াকৈড় এলাকার হায়দার আলী প্রামানিকের ছেলে ইমরান হোসেন শান্ত (২৪)।তার খুনের রহস্য উন্মেচন করার পর মঙ্গলবার দুপুরে প্রেসবিফিং করে কালিয়াকৈর থানা পুলিশ। এসময় উপস্থিত ছিলেন- কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম নাসিম, ওসি অপারেশন মোঃ যোবায়ের, সেকেন্ড অফিসার এসআই আজিম হোসেন, এসআই আনোয়ার হোসেনসহ অন্যান্য পুলিশ ও বিভিন্ন ইলেকটনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিক

বৃন্দ। পুলিশ জানায়, গত ১৮ জানুয়ারী সন্ধ্যায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকায় নাওজোড় হাইওয়ে ও গাজীপুর জেলা পুলিশের দুটি বক্সের পাশে চুরিকাঘাতে এক যুবক খুন হয়।

তাৎক্ষনিকভাবে তার পরিচয় ও খুনের কারণ জানা যায়নি। তবে ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

বিভিন্ন মিডিয়ায় সংবাদ ছাপার বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনার দুদিন পর মর্গে গিয়ে লাশ সনাক্ত করেন নিহতের চাচা দেওয়ান লিখন। নিহত ওই যুবকের নাম ইমরান হোসেন শান্ত। গত ২০ জানুয়ারী নিহতের ওই চাচা বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপর গাজীপুরের পুলিশ সুপার ও কালিয়াকৈর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপারের দিক নির্দেশনায়, কালিয়াকৈর থানার ওসির তত্বাবধানে চৌকশ অফিসার এসআই আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান শুরু করে। অভিযান চালিয়ে কালিয়াকৈরের বিভিন্ন এলাকা থেকে খুনের সাথে জড়িত মাহাবুব হোসেন ওরফে বাধন ও সুজন মিয়া

খোকনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এসময় খুনের কাজে ব্যবহৃত একটি ধারালো ছুরি উদ্ধার করা হয়। পরে গ্রেপ্তারকৃতদের গাজীপুর বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হলে আসামীরা স্বীকারক্তিমুলক জবানবন্দি দেয়। তারা জানায়, মোবাইল ফোন ও টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে এ ঘটনা ঘটান।গ্রেপ্তারকৃত আসামী বাধন নাওগাঁর সদর থানার পিরোজপুর (মধ্যপাড়া) এলাকার রুহুল আমিনের ছেলে ও অপর আসামী খোকন গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর থানার এনায়েতপুর এলাকার নজল মিয়ার ছেলে।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম নাসিম জানান, আসামীরা দীর্ঘদিন যাবত কালিয়াকৈর ও আশুলিয়া থানা এলাকায় ভাড়া থেকে নানা অপকর্ম করে আসছিল। তাদের নামে বিভিন্ন থানায় চুরি, ছিনতাই ও মাদক মামলা রয়েছে। জোড়া পুলিশ বক্সের পাশে খুনের ঘটনার বিষয়ে তিনি বলেন, ওই দুটি পুলিশ বক্স ট্রাফিক ও হাইওয়ে যানবাহন নিয়ন্ত্রণে ব্যবহৃত হয়। রাঁতে যখন ওই ঘটনা ঘটে তখন হয়তো বক্সে পুলিশ ছিলেন না। তবে সবার সহযোগীতায় সুন্দর পরিছন্ন কালিয়াকৈর গড়তে চান এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



হোমনায় পুলিশ-ফায়ার সার্ভিসের ২৪ ঘণ্টার চেষ্টায় পানির ট্যাংকি থেকে লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭৫জন দেখেছেন

Image

শাজু,হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:কুমিল্লার হোমনায় পুলিশ ও দমকল বাহিনীর চব্বিশ ঘণ্টার যৌথ চেষ্টায় পৌরসভার নির্মাণাধীন একশ ফুট উচ্চতার একটি পানির ট্যাংক থেকে অর্ধ গলিত অজ্ঞাত পুরুষের একটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ সোমবার দুপরে পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের পুরাতন ডাকবাংলো এরিয়া থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে পুলিশ ও দমকল বাহিনী লাশটি উদ্ধার অভিযান চালান।

হোমনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ক্ষেমালিকা চাকমা বলেন, দেবিদ্বার পৌরসভায় পানি সপ্লায়ের জন্য অনুরূপ একটি ট্যাংকি নির্মাণ করতে হোমনা পৌরসভার নির্মানাধীন পানির ট্যাংকটি পরিদর্শনে আসেন দেবিদ্বার পৌরসভার লোকজন। পরে মেসার্স জিলানী কনস্ট্রাকশনের নির্মাণ শ্রমিক মিজান ট্যাংকটি পরিদর্শনের জন্য ওপরে ওঠেন। মিজান তেইশ ফুট গভীরতার ওই ট্যাংকটির এক পাশের ভয়েড দিয়ে ভেতরে উঁকি দিলে এটির ভেতরে আধো আলো আধো অন্ধকারে মানুষের লাশ সদৃশ একটা কিছু দেখতে পান। তখন তিনি এটাকে মুর্তি হতে পারে মনে করে প্রথমে তেমন গুরুত্ব দেননি। এরপর বিষয়টি সাইট প্রকৌশলীকে জানান। রবিবার সাইট ম্যানেজার মো. রায়হান সওদাগর বিষয়টি আমাকে জানান। আমি তাৎক্ষণিক থানা ও ফায়ার সার্ভিসকে লাশটি উদ্ধারেরর নির্দেশ দেই।

হোমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জয়নাল আবেদিন জানান, চব্বিশ ঘণ্টা পর লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিনি ধারনা করে বলেন, কোনো ভারসাম্যহীন ব্যক্তি সিঁড়ি বেয়ে সুউচ্চ পানির ওই ট্যাংকিতে ওঠে ভেতরে কী আছে দেখতে গিয়ে পড়ে মৃত্যুবরণ করেন। তার বয়স আনুমানিক ৩০-৩৫ হতে পারে। পরনে কোনো জামা কাপড় ছিল না। ধারণা করা হচ্ছে ১০/১২ দিন আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। তবে এর কারণ অনুসন্ধানে পুলিশের তদন্ত অভিযান অব্যাহত আছে।

হোমনা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন অফিসার মাজেদুল ইসলাম জানান, পানির ট্যাংকিটি ছিল ভূমি থেকে ১০০ ফুট ওপরে এবং এর গভীরতা ছিল ২৩ ফুট। এর ভেতরে প্রবেশের মুখটি খুব সরু এবং বন্ধ থাকায় রবিবার দপুর থেকে রাত পর্যন্ত চেষ্টা করেও লাশটি বের করা যায়নি। আজ (গতকাল) সোমবার সকাল থেকে চেষ্টার পর এর ঢাকনাটি ভেঙ্গে ভেতর থেকে লাশটি বের করা হয়।


আরও খবর

বিনামূল্যে বই পেল ২৬৬ কলেজ শিক্ষার্থী

শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪