Logo
আজঃ Monday ০৮ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড নিখোঁজ সংবাদ প্রধানমন্ত্রীর এপিএসের আত্মীয় পরিচয়ে বদলীর নামে ঘুষ বানিজ্য

জেসিসি বৈঠকে যোগ দিতে দিল্লি যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে যৌথ পরামর্শক কমিশন (জেসিসি) বৈঠকে যোগ দিতে দিল্লি যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। দুই দেশের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করতে দিল্লি সফরে যাচ্ছেন তিনি।

শনিবার (১৮ জুন) দিল্লির উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সফরকালে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে যোগাযোগ, পানি, কানেকটিভিটি, নিরাপত্তা, বিদ্যুৎ, জ্বালানি, সীমান্ত ব্যবস্থাপনা, ব্যবসা-বাণিজ্যসহ সব বিষয় আলোচনা হবে। শনিবার দিল্লিতে কনফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান ইন্ডাস্ট্রির (সিআইআই) প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন ড. মোমেন। পরদিন (রোববার) দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বৈঠকে মিলিত হবেন।

দিল্লি সফরের বিষয়ে সম্প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, জেসিসি বৈঠকে দুই দেশের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হবে। তবে জ্বালানি নিরাপত্তা ইস্যুতে আমরা এবার জোর দিচ্ছি। জেসিসি বৈঠকের আগে যৌথ নদী কমিশনের বৈঠক না হলেও পানি বণ্টন ইস্যুতে আলোচনা হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

এর আগে ২৭ মে আসাম সফর করেন ড. এ কে আব্দুল মোমেন। সেখানে তিনি নদী বিষয়ক একটি আন্তর্জাতিক কনক্লেভে যোগ দেন।


আরও খবর



নিউনেসকে তরুণদের ব্র্যান্ড বানাতে চান নিয়াজ মোর্শেদ

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ১৩জন দেখেছেন
Image

শব্দটি নিউনেস (Newness)! পৃথিবী যখন ঘোর অন্ধকারে ২০২০ সালে। যখন করোনায় বিশ্ব থেমে গিয়েছিল অনিশ্চয়তায়। ঠিক তখনই এর প্রতিষ্ঠাতা নিয়াজ মোর্শেদ দিন-রাত ভাবতে থাকেন, চলমান অনলাইন সেবার মাধ্যমে কীভাবে আরও ভালো কিছু করা যায়।

শত বিপত্তি পেরিয়ে বাংলাদেশে তখন ই-কমার্সের জয়জয়কার চলছে। এমন অবস্থায় অফলাইন আর অনলাইন মার্কেটের পরিস্থিতি বিবেচনায় একদল তরুণ নিয়ে শুরু করলেন নিজের উদ্যোগ নিউনেস।

নিয়াজ ছিলেন মধ্যপ্রাচ্যের দেশ বাহরাইনে। সেখানে থেকে শুরু করেছিলেন আরেকটি অনলাইন ক্রয়-বিক্রয়ের প্লাটফর্ম ‘শপাইন’। ধীরে ধীরে সেবার মান বড় করে সৌদি আরব এবং দুবাইয়ে পূর্ণোদ্দমে সেবা দিয়ে যাচ্ছিলেন। তখন ভাবলেন, এবার নিজের দেশে নয় কেন?

সেই চিন্তা থেকেই নিজের দেশের মানুষের জন্য কিছু করার ইচ্ছায় ‘নিউনেস’র স্বপ্ন বুনলেন। বাংলাদেশের মানুষও যেন বিশ্বমানের পণ্য এবং পরিষেবার অন্তর্ভুক্ত হতে পারে, এ স্বপ্ন থেকে ৩০ জুলাই তাদের যাত্রা শুরু হয় বাংলাদেশে।

নিয়াজ মোর্শেদ বলেন, ‘নিউনেস এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যা বদলে দেবে আপনার অনলাইন শপিংয়ের অভিজ্ঞতা। কারণ আমাদের অ্যাডভান্সড টেকনোলজি নিশ্চিত করবে আপনাকে নিজের মতো উপস্থাপন করার ক্ষমতা। আইএস, অ্যান্ড্রোয়েড এবং ডেস্কটপে আমাদের এ শপিং প্ল্যাটফর্ম আছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা প্রস্তুত আছি ১০ হাজার ব্র্যান্ডের ২৫ লাখ বিশ্বমানের পণ্যের সাথে। পোশাক, কসমেটিক্স, জুয়েলারি, ইলেক্ট্রনিক্সসহ সব ধরনের পণ্যই আছে এ ওয়েবসাইটে। যা বদলে দেবে আপনার সম্পূর্ণ লাইফস্টাইল।’

এক অ্যাপে দেশি-বিদেশি হাজারো ব্র্যান্ডের পণ্যের সাথে পুরো দুনিয়া চলে আসবে ক্রেতার হাতের মুঠোয়। আপনার বয়স, চয়েস, কিংবা প্রোফেশন যেটাই হোক; বিশ্বমানের দেশি-বিদেশি ব্র্যান্ডের সব আসল পণ্য এবং ১৪ দিনের মধ্যে সুনিশ্চিত ক্যাশঅন ডেলিভারির সাথে খুব সহজেই সাজিয়ে নিতে পারবেন লাইফস্টাইল।

নতুন প্রজন্মকে বিশ্বমানের পণ্যের সাথে পরিচিত করা এবং ঝামেলাহীন টেকনোলজির মাধ্যমে মানুষের জীবনকে সহজ করার লক্ষ্যেই এর যাত্রা।

তরুণ এ উদ্যোক্তা বিশ্বাস করেন, মূলধনের পরিমাণ যা-ই হোক, ব্যবসায়িক বুদ্ধিতে যদি একদল পরিশ্রমী গড়া যায়, তবে অনেক সমস্যাই আর সমস্যা থাকে না।

ভবিষ্যতে সারাদেশে অফলাইনে মার্চেন্ট সেবা দিতে নানারকম কাস্টমার পয়েন্ট খোলার মাধ্যমে গ্রাহকসেবায় এক নাম্বারে থাকার লক্ষ্য তাদের।


আরও খবর



হাসপাতালের কেবিনে ‘আত্মহত্যা’ করেছিলেন নার্স রিমা

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ১১৩জন দেখেছেন
Image

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে বেসরকারি ইউনাইটেড হাসপাতালের নার্স রিমা প্রামাণিক (১৮) আত্মহত্যা করেছিলেন বলে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) সকালে ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গোলাম মোস্তফা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নার্স রিমা নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার পিরিজকান্দি গ্রামের সেন্টু প্রামাণিকের মেয়ে। তিনি ভৈরব বাসস্ট্যান্ড এলাকার ওই হাসপাতালে দুই বছর ধরে নার্স হিসেবে কর্মরত ছিলেন এবং ওই হাসপাতালের পঞ্চম তলায় স্টাফ কোয়ার্টারে থাকতেন।

গত ১১ জুলাই সকালে হাসপাতালের একটি কেবিন থেকে নার্স রিমার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ভোর ৪টার দিকে তিনি আত্মহত্যা করেছিলেন বলে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন সূত্রে জানা গেছে।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্র জানায়, ঈদের ছুটিতে বাড়িতে যান নার্স রিমা। ৮ জুলাই কর্মস্থলে ফিরেই হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হানিফুর রহমানের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন। কিন্তু এমডি সেটি গ্রহণ করেননি। ১০ জুলাই দিনগত রাত ৩টার দিকে নার্স ইনচার্জ লিজা বেগমের মাধ্যমে ফোনে এমডির সঙ্গে কথা বলেন রিমা। ফোনে তখন জানান, সকালে তিনি বাড়ি ফিরে যেতে চান। এর এক ঘণ্টা পর ২০৩ নম্বর কেবিনে বৈদ্যুতিক পাখার সঙ্গে রিমাকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

রিমার মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় তার বাবা হানিফুর রহমান ও লিজা বেগমকে আসামি করে মামলা করেন। হানিফুর এরই মধ্যে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে কিশোরগঞ্জ কারাগারে রয়েছেন। তবে লিজা পলাতক।

এ ঘটনায় হানিফুরের বিচার চেয়ে স্থানীয় লোকজন বিক্ষোভ করেন এবং হাসপাতালে ভাঙচুর চালান। পরে মামলার রহস্য উদ্ঘাটনে পুলিশ হানিফুরকে তিন দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

ভৈরব থানার ওসি গোলাম মোস্তফা বলেন, রিমা আত্মহত্যা করেছেন বলে হত্যা মামলাটি পুরোপুরি নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে এমন নয়। তিনি কেন এত অল্প বয়সে আত্মহত্যা করলেন, আত্মহত্যার পেছনে কারও প্ররোচনা ছিল কি না এসব বিষয় তদন্ত করা হবে। বিশেষ করে হাসপাতালের এমডি হানিফুর রহমান ও নার্স ইনচার্জ লিজা বেগমের এ ঘটনায় জড়িত ছিলেন কি না সেটিও তদন্ত করে দেখবেন।


আরও খবর



জাবিতে ভর্তিচ্ছু সেজে মধ্যরাতে ফোন চুরি, শিক্ষার্থীদের হাতে ধরা

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ১১জন দেখেছেন
Image

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ভর্তিচ্ছু সেজে আবাসিক হলের কমনরুমে রাতে অবস্থান করে ভর্তিচ্ছুদের মোবাইল চুরির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় এক তরুণকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে আবাসিক শিক্ষার্থী ও হল প্রশাসন।

বুধবার (৩ আগস্ট) দিনগত রাত ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হলের কমনরুমে এ ঘটনা ঘটে।

আটক তরুণের নাম আরিফ হোসেন (২৩)। তার বাড়ি পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভর্তিচ্ছু সেজে আরিফ হোসেন হলের এক আবাসিক ছাত্রের কক্ষে ওঠেন। রাতে তিনি সে কক্ষে না ঘুমিয়ে হলের কমনরুমে অন্যান্য ভর্তিচ্ছুদের সঙ্গে ঘুমান। সেখানে তিনি রাত ৩টা পর্যন্ত অবস্থান করে চারটি মোবাইল ফোন চুরি করে রুম ত্যাগ করেন। তার রুম ত্যাগ করার বিষয়টি সন্দেহজনক মনে হলে এক ভর্তিচ্ছু অন্যান্যদের ঘুম থেকে ডেকে মোবাইল-ফোন, মানিব্যাগ ঠিকঠাক আছে কি না জানতে চান। এ সময় চারজনের মোবাইল ফোন চুরির বিষয়টি স্পষ্ট হয়।

রাতেই এ ঘটনা জানাজানি হলে দ্রুত হলের প্রধান ফটক বন্ধ করে দেন আবাসিক শিক্ষার্থীরা। পরে হল মনিটিরিং সেলের অভিযান ও সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আরিফকে আটক করেন শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) সকালে তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা শাখার হাতে তুলে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার (নিরাপত্তা) সুদিপ্ত শাহিন জাগো নিউজকে বলেন, অভিযুক্তকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় মামলা করা হয়েছে।


আরও খবর



খেলতে গিয়ে গলায় ফাঁস লেগে শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:Saturday ৩০ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | ২১জন দেখেছেন
Image

রাজধানীতে গলায় ফাঁস লেগে মো. আরাফাত ইসলাম আরজু (১০) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (৩০ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কদমতলীতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আরজু স্থানীয় একটি স্কুলের শিক্ষার্থী ছিল। তাদের গ্রামের বাড়ি বগুড়ায়।

আরজুর মা রুনা আক্তার বলেন, বাসার বারান্দার খেলার সময় পাটের রশির সঙ্গে ফাঁস লেগে যায় ছেলের। পরে তাকে দ্রুত অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শন) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর নিশ্চিত করে বলেন, কদমতলীতে এক শিশু খেলতে গিয়ে গলায় ফাঁস লেগে মারা যায়। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ নিয়ে গেছে তার পরিবার।


আরও খবর



নির্বাচনে জনগণের ভোটে ক্ষমতা পরিবর্তন হবে: কাদের

প্রকাশিত:Saturday ২৩ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ৩৬জন দেখেছেন
Image

নির্বাচনে জনগণের ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতার পরিবর্তন হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, সংবিধান বহির্ভূত যেকোনো বিধান দেশের গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক শাসনব্যবস্থাকে বাধাগ্রস্ত করার নামান্তর।

শনিবার (২৩ জুলাই) দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে মির্জা ফখরুলের রাজনৈতিকভাবে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, মনগড়া ও অর্বাচীন বক্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

বিবৃতিতে কাদের বলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের মাধ্যমে দলটির মানসিক দেউলিয়াত্ব ফুটে উঠেছে। মির্জা ফখরুল ইসলাম বারবার নির্বাচনে না আসার মতো শিশুসুলভ বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন। আমরাও বারবার বলেছি, দেশের সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়েই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি আরও বলেন, কোনো শর্ত দিয়ে নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে থামিয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র ও অগণতান্ত্রিক অশুভ অপশক্তির হাতে রাষ্ট্রক্ষমতার প্রত্যাবর্তন জনগণ মেনে নেবে না। বিএনপি তার অতীত অপকর্মের জন্য জনগণের মুখোমুখি হতে ভয় পায় বলেই তারা সাংবিধানিক পন্থার ব্যত্যয় ঘটিয়ে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে তাদের বিদেশি প্রভুদের আজ্ঞাবহ সরকার গঠনের দিবাস্বপ্নে নিমজ্জিত হয়ে আছে।

‘বিএনপি দেশবাসীকে স্বৈরশাসন, দুর্নীতি-লুটপাট, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও উগ্র-সাম্প্রদায়িকতা ব্যতীত জনগণের জন্য কল্যাণকর কোনো কিছুই উপহার দিতে পারেনি। হাওয়া ভবন খুলে তারেক রহমানের নেতৃত্বে দুর্নীতিকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়া হয়েছিল। বাংলাদেশকে পরিণত করা হয়েছিল সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের স্বর্গরাজ্যে।’

‘অবৈধ ক্ষমতাকে নিষ্কণ্ঠক করতে বিএনপির শীর্ষ নেতাদের প্রত্যক্ষ মদদ ও পৃষ্ঠপোষকতায় তৎকালীন প্রধান বিরোধী দল আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করার জন্য ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট নারকীয় গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। বিএনপি যখনই ক্ষমতায় এসেছে, তখনই তাদের রাষ্ট্রীয় ফ্যাসিবাদের আগ্রাসী রূপ দেশের জনগণকে দুঃশাসন ও শোষণের যাতাকলে পিষ্ট করেছে।’

‘বিএনপির সময় দেশে কোনো উন্নয়ন ও অগ্রগতি হয়নি বলেই আজকে দেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন দেখে তাদের গা জ্বালা করে। এ কারণেই তারা গুজব ও অপপ্রচারের মধ্য দিয়ে বর্তমান সরকারের গৃহীত জনকল্যাণকর মেগা প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়ন বাধাগ্রস্ত করতে চায় এবং দুর্নীতির কাল্পনিক অভিযোগ এনে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়ানোর অপচেষ্টা চালায়।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, এরই মধ্যে পদ্মা সেতুর মতো মেগা প্রকল্পের সুবিধা পেতে শুরু করেছে দেশের জনগণ। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগই এদেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে পদক্ষেপ নিয়েছে এবং এ দলের নেতৃত্বেই দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের মধ্য দিয়ে দেশে দারিদ্র্যের হার হ্রাস পেয়েছে।

তিনি বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা মোকাবিলায় সফল রাষ্ট্রনায়ক বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ও ভিশনারি নেতৃত্বে বাংলাদেশ সফলতার এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। জাতিসংঘ থেকে শুরু করে কমনওয়েলথ ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাসহ বিশ্ব সভায় বাংলাদেশের সফলতা প্রশংসিত হয়েছে।

‘জাপানের প্রভাবশালী নিক্কি মিডিয়া গ্রুপ ও লন্ডনের ফিন্যান্সিয়াল টাইমস কর্তৃক যৌথভাবে প্রকাশিত ‘নিক্কি কোভিড-১৯ রিকভারি ইনডেক্স’ অনুযায়ী, কোভিড-১৯ অতিমারি হতে উত্তরণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ১২১টি দেশের মধ্যে ৫ম ও দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে শীর্ষস্থানে রয়েছে।’

‘জাতির যেকোনো সঙ্কটে সকল রাজনৈতিক দল এগিয়ে আসবে। দুর্যোগ-দুর্বিপাকে রাজনৈতিক নেতারা জনগণের পাশে থাকবে। এটাই গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দলের প্রধানতম দায়িত্ব। দুর্ভাগ্যজনক হলেও বিএনপি নামক রাজনৈতিক দলটি এ সময় জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে সঙ্কটকে পুঁজি করে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।’

‘তারা জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে পরিস্থিতিকে ভয়াবহতার দিকে ঠেলে দিতে সকল ধরনের অপচেষ্টা চালায়। বিএনপির রাজপথের শক্তি যত হ্রাস পাচ্ছে, মিডিয়ার সামনে তাদের নেতাদের হাস্যকর তর্জন-গর্জন ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে।’

‘আওয়ামী লীগের বিরোধিতা করতে করতে বিএনপির দেশবিরোধী চরিত্র স্পষ্ট হয়ে উঠছে। তারা আন্তর্জাতিক মহলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ও মর্যাদাকে ভূলুণ্ঠিত করতে মরিয়া হয়ে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। আমরা প্রত্যাশা করি, একটি রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপি নেতারা দায়িত্বশীল আচরণ করবে এবং জনগণের স্বার্থপরিপন্থী কর্মকাণ্ড পরিহার করবে। অন্যথায় বাংলাদেশের জনগণ বিএনপিকে ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত করবে।’


আরও খবর