Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

জামিল ফোরকানের নাসিরনগর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের দায়িত্বভার গ্রহণ

প্রকাশিত:Sunday ১৯ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৬৮জন দেখেছেন
Image


মোঃ আব্দুল হান্নানঃ নাসিরনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া) সংবাদদাতাঃ--

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরের প্রাণকেন্দ্র নামে খ্যাত হাসপাতাল মোড়ে ১৯৮৭ সালে একটি কলেজ প্রতিষ্টিত হয়। পরর্বতীতে প্রয়াত মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী এডঃ মোহাম্মদ ছায়েদুল হকের  প্রচেষ্টায় কলেজটি সরকারি হয়ে ডিগ্রী কলেজের মর্যাদা লাভ করে। 

 তখন থেকেই দীর্ঘদিন যাবৎ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষের দায়িত্বে ছিলেন আলমগীর হোসেন।


১৬ জুন ২০২২ তারিখে  আলমগীর হোসেনেন চাকুরীর মেয়াদ পূর্ণ হওয়া তাকে চাকুরী থেকে বাধ্যতা মুলক অবসরে যেতে হয়।


১৮ জুন২০২২ রোজ শনিবার বিদায়ী অধ্যক্ষ আলমগীর হকের দায়িত্ব হতে অব্যাহতি ও দায়িত্ব অর্পন উপলক্ষে নাসিরনগর সরকারি কলেজ ক্যাস্পাসে বিদায় সংবর্ধনা ও নতুন অধ্যক্ষ কে বরণ করে নেওয়ার এক অনুষ্টান অনুষ্টিত হয়।এ অনুষ্টানে নতুন অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহন করেন উক্ত কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক মোঃ জামিল ফোরকান।তিনিও ওই কলেজের প্রতিষ্ঠালগ্ন হতেই কলেজের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। 


আনুষ্ঠানিকভাবে কলেজের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ ফুলেল সংবর্ধনা দিয়ে সাবেক অধ্যক্ষ  আলমগীর হোসেনকে  বিদায় ও নতুন অধ্যক্ষ জামিল ফোরকান কে বরণ করে নেন।

নতুন অধ্যক্ষ জামিল ফোরকানের নিজ বাড়ি রাজবাড়ি জেলার পাংশা ।


আরও খবর



‘যে ছাত্রদের পড়িয়েছি তারাই আমার হাতের কবজি কেটেছে’

প্রকাশিত:Friday ০৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
Image

ঢাকা মেডিকেল কলেজে (ঢামেক) হসপাতালের ১০২ নম্বর ওয়ার্ডের ১১ নম্বর বিছানায় শুয়ে কবজি বিচ্ছিন্ন হওয়া হাতের দিকে অপলক তাকিয়ে ছিলেন কলেজশিক্ষক তোফাজ্জেল হোসেন (৫২)। যে হাতে লিখে শিক্ষার্থীদের পড়াতেন তিনি সেই ডান হাতের কবজি বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে সন্ত্রাসীদের ধারালো অস্ত্রের কোপে। এই শিক্ষকের কাছে সবচেয়ে কষ্টের বিষয়, তিনি যে ছাত্রদের পড়িয়েছেন তারাই ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার কবজি বিচ্ছিন্ন করেছেন।

আহত শিক্ষক কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহম্মেদ কলেজের অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর শেষ করে প্রায় ১২ বছর ধরে ওই কলেজে শিক্ষকতা করেন তোফাজ্জেল হোসেন।

কুপিয়ে কবজি বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় কুমারখালী থানায় তোফাজ্জেল হোসেনের বড় ছেলে একটি মামলা করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার (৩১ মে) দুপুরে কলেজ থেকে বের হয়ে বংশীতলা এলাকা দিয়ে শহরে যাচ্ছিলেন তোফাজ্জেল হোসেন। এ সময় তাকে কয়েকজন সন্ত্রাসী ঘিরে ধরে পেটাতে থাকেন। তিনি সেখান থেকে দৌড়ে কয়েক শ গজ দূরে নির্মাণাধীন একটি সেতুর ওপর যান। সেখানে অবস্থান নেওয়া আরও ১০-১২ জন সন্ত্রাসী রামদা-চাপাতি দিয়ে তাকে কোপাতে থাকেন। এ সময় তার ডান হাতের কবজি থেকে ওপরের এক ইঞ্চিসহ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

শিক্ষক তোফাজ্জেল হোসেন পড়ে গেলে তার পিঠেও এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন হামলাকারীরা। এরপর হামলাকারীরা চলে গেলে স্থানীয় লোকজন তোফাজ্জেলকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। ওই দিন সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি কোপে তার বাঁ পাজর, মেরুদণ্ডের হাড়সহ শরীরের ১৩টি স্থানে গুরুতর জখম হয়। কুষ্টিয়া জেলারেল হাসপাতালে অস্ত্রোপচার শেষে ওই দিন রাতেই ঢামেকে নিয়ে আসা হয় তাকে।

ঢামেক হাসপাতালের পুরোনো ভবনের নিচতলার ১০২ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসা চলছে তোফাজ্জেল হোসেনের। শুক্রবার (৩ জুন) ওই ওয়ার্ডের ১১ নম্বর বিছানায় তোফাজ্জেল হোসেনকে শুয়ে থাকতে দেখা যায়। জ্ঞান ফিরলেও কথা বলতে কষ্ট হচ্ছিল তার। খুব ধীরে ধীরে দু-একটি কথা বলছেন তিনি।

কথা বলতে চাইলে কলেজশিক্ষক তোফাজ্জেল হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, ১০ থেকে ১২ জন মিলে রামদা আর চাপাতি দিয়ে কুপিয়েছেন। আমিতো কোনোদিন কারও ক্ষতি করিনি। দীর্ঘ ১২ বছর যে হাত দিয়ে লিখে শিক্ষাদান করে আসছি সেই হাত কেটে দিল সন্ত্রাসীরা! যারা হামলা করেছেন তাদের সবাইকে আমি চিনি। এলাকায় তারা চুরি, ডাকাতি করেন।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে আহত এই শিক্ষক বলেন, সবচেয়ে কষ্টের কথা আমি যে ছাত্রদের শিক্ষা দিয়েছি তারাই আমাকে কুপিয়েছে। হামলায় অংশ নেওয়া তিন-চারজন আমার সরাসরি ছাত্র। যাদেরকে এই হাতে শিক্ষা দিলাম সেই ছাত্ররাই আমার হাতের কবজি কেটে দিয়েছে! এখন পুরোপুরি সুস্থ হয়ে আবারও শিক্ষকতায় ফিরে যেতে চান বলে জানান এই শিক্ষক।

তোফাজ্জেল হোসেনের ছোট ছেলে নাজমুস হাসিব জাগো নিউজকে বলেন, আমার বাবা খুব সহজ-সরল একজন মানুষ। তিনি কোনো অন্যায় সহ্য করতে পারেন না। সন্ত্রাসীরা স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত। তাদের অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় এবং তাদের বিরুদ্ধে কথা বলার কারণে আমার বাবার আজকের এই পরিস্থিতি। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই।


আরও খবর



দুটি পদের নামের পরিবর্তন করে পরমাণু শক্তি কমিশন বিল সংসদে

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
Image

পরমাণু শক্তি কমিশনের দুটি পদের নামের পরিবর্তন সোমবার (৬ জুন) সংসদে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন (সংশোধন) বিল-২০২২ সংসদে উত্থাপন করা হয়েছে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান বিলটি উত্থাপন করলে তা ৩০ দিনের মধ্যে পরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

বিদ্যমান আইনে বলা আছে পরমাণু শক্তি কমিশনের কাজে সহায়তার জন্য সরকার একজন সার্বক্ষণিক অর্থ উপদেষ্টা ও একজন সচিব নিয়োগ করবে। এই দুটি পদের নাম পরিবর্তন করার জন্য বিলটি আনা হয়েছে।

বিলে বলা হয়েছে, ‘অর্থ উপদেষ্টা’ পদের নাম হবে সার্বক্ষণিক কার্য নির্বাহক (অর্থ) এবং ‘সচিব’ পদের নাম হবে ‘সার্বক্ষণিক কার্য নির্বাহক (প্রশাসন)’।

মন্ত্রণালয়/বিভাগের সংযুক্ত দপ্তর/অধস্তন অফিসগুলোর সাংগঠনিক কাঠামোতে সহকারী সচিব, উপসচিব, যুগ্মসচিব, অতিরিক্ত সচিব ও সচিব পদনাম থাকলে ওই পদের নাম পরিবর্তন করতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর নির্দেশনা দেয়। এ পদনামগুলো সচিবালয়ের বাইরে বিধিবহির্ভূতভাবে ব্যবহার করা হয়। তাই সরকার সিদ্ধান্ত নেয় এই পদের নামগুলো পরিবর্তন করতে হবে।

পরমাণু শক্তি কমিশনের ‘অর্থ উপদেষ্টা’ পদের নাম পরিবর্তনের জন্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় উদ্যোগ নেয়।


আরও খবর



যুক্তরাষ্ট্রে তিন শহরে বন্দুক হামলা, নিহত ৯

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৭৩জন দেখেছেন
Image

যুক্তরাষ্ট্রের তিন শহরে বন্দুক হামলায় কমপক্ষে ৯ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও দুই ডজন মানুষ। আল জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

স্থানীয় সময় শনিবার রাতে এবং রোববার সকালের এসব বন্দুক হামলায় উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে। দেশটিতে কোনভাবেই বন্দুক হামলার ঘটনা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। সাম্প্রতিক সময়ে এসব হামলার সংখ্যা অনেক বেড়ে গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ফিলাডেলফিয়ায় শনিবার রাতে দুই ব্যক্তির মধ্যে বাকবিতণ্ডা থেকে বন্দুক হামলার সূত্রপাত হয়। ওই হামলায় তিনজন নিহত এবং আরও ১২ জন আহত হয়েছে। হামলা থেকে বাঁচতে লোকজন পালানোর চেষ্টা করলে চারদিকে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, টেনেসি অঙ্গরাজ্যের চাট্টানোগার একটি বারের কাছে মধ্যরাতে একই ধরনের আরও একটি হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে তিনজন নিহত এবং আরও ১৪ জন আহত হয়েছে।

অপরদিকে স্থানীয় সময় রোববার সকালে মিশিগানের সাগিনাওয়ে অপর একটি হামলার ঘটনায় তিনজন নিহত এবং আরও দুজন আহত হয়েছে। চলতি বছর যুক্তরাষ্ট্রে কমপক্ষে ২৪০টি বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে।

দেশটিতে উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে বন্দুক হামলা। প্রায়ই দেশটির কোনো না কোনো অঙ্গরাজ্যে নৃশংস বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটছে। যা থেকে রেহাই পাচ্ছে না শিশুরাও। ২০২১ সালে যুক্তরাষ্ট্রে ৬১টি বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটে। যা আগের বছর অর্থাৎ ২০২০ সালের তুলনায় ৫২ শতাংশ বেশি। এফবিআইয়ের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া গেছে। ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) জানায়, গত বছর ৩০টি অঙ্গরাজ্যে হামলার ঘটনা ঘটে। এতে প্রাণ হারান ১০৩ জন ও আহত হন ১৪০ জন।

২০২০ সালে ১৯ অঙ্গরাজ্যে ৪০টি বন্দুক হামলা হয়। এতে নিহত হয় ৩৮ জন ও আহত হয় ১২৬ জন। যদিও এসময় করোনার মহামারির কারণে লকডাউনের মতো কঠোর করোনা বিধিনিষেধ জারি ছিল।


আরও খবর



মেহেরপুরে উচ্ছেদ অভিযান, ব্যবসায়ীদের সড়ক অবরোধ

প্রকাশিত:Tuesday ০৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৮জন দেখেছেন
Image

একদিকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অবৈধ স্থাপনা বলে বুলডোজার দিয়ে দোকান ভাঙা হচ্ছে। অন্যদিকে দোকানগুলো বৈধ দাবি করে উচ্ছেদের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করছেন দোকান মালিকরা। তাদের দাবি, একযুগ আগে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে বন্দোবস্ত করে দোকান চালিয়ে আসছেন তারা। দিয়েছেন নিয়মিত ভাড়া। অথচ এখন তাদের অবৈধ বলে উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে প্রশাসন।

মঙ্গলবার (৭ জুন) সকাল ১০টা থেকে মেহেরপুর শহরের কোর্ট মোড়ের অবৈধ দোকান উচ্ছেদে অভিযান শুরু করে জেলা প্রশাসন। এর প্রতিবাদে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা সড়ক অবরোধ করেন। তাতেও মেলেনি কোনো সমাধান। অনড় অবস্থানে থাকা প্রশাসন পুলিশের সহায়তায় দোকানগুলো ভেঙে গুড়িয়ে দেয়।

বেলা ১১টার দিক থেকে সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু সাইদের নেতৃত্বে প্রশাসনের একটি টিম কোর্ট মসজিদের সামনের দোকানপাট ভাঙা শুরু করে। এসময় দোকান মালিক ও তাদের পরিবারের লোকজন অনুরোধ করে সময় প্রার্থনা করেন। কিন্তু জেলা প্রশাসকের নির্দেশের কথা অভিযান অব্যাহত রাখা হয়।

jagonews24

এ বিষয়ে দায়িত্বরত সহকারী কমিশনার আবু সাঈদের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, ওপরের নির্দেশে এ অভিযান চালানো হচ্ছে। এ বিষয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করবেন না।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ দারা জানান, তাদের কাজ প্রশাসনকে সহায়তা করা। সেই কাজটিই পুলিশ করছে।

ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী ইয়াসিন আলী বলেন, আজ থেকে ১২ বছর আগে আমরা জেলা প্রশাসকের সঙ্গে বন্দোবস্ত করে এ দোকান চালিয়ে আসছি। নিয়মিত ভাড়াও দিয়েছি। অথচ আজ আমাদের অবৈধ বলে উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছে প্রশাসন। কোনোরকম নোটিশ ছাড়াই আমাদের দোকান উচ্ছেদ করেছে। মালামালও সরিয়ে নিতে পারিনি।

তিনি আরও বলেন, বারবার অনুরোধ করেও কোনো সমাধান মেলেনি। অথচ আমরা নিয়মিত জেলা প্রশাসনকে ভাড়া দিয়েছি। এখন এ দোকান ভেঙে দিলে কোথায় গিয়ে দাঁড়াবো? ব্যবসা না করতে পারলে তো সংসার চালানো সম্ভব হবে না।

jagonews24

মেহেরপুর হোটেল বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুল হান্নান বলেন, ১২ বছর ধরে বৈধভাবে ব্যবসা করে আসছে কোর্ট মসজিদ এলাকার সাতজন ব্যবসায়ী। অথচ তাদের পুনর্বাসন না করে উচ্ছেদ করা হয়েছে। এ উচ্ছেদের প্রতিবাদ জানিয়ে সকালে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করেছে ব্যবসায়ীরা। বিকেলে উচ্ছেদের প্রতিবাদে প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করবে ব্যবসায়ীরা।

তবে এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক ড. মুনসুর আলম খান কোনো কথা বলতে রাজি হননি।


আরও খবর



ওয়ার্নারের যে পরামর্শে বদলে গেলো ফিঞ্চের ব্যাটিং

প্রকাশিত:Wednesday ০৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
Image

শ্রীলঙ্কা সিরিজ শুরুর করার আগে অধিনায়ক অ্যারোন ফিঞ্চের ফর্ম নিয়েই সবচেয়ে বেশি দুশ্চিন্তায় ছিল অস্ট্রেলিয়া। দলের অধিনায়কের ব্যাটে রান নেই। আইপিএলে মাত্র ৫টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন কেকেআরের হয়ে। তাতে রান করেছেন কেবল ৮৬টি। এর মধ্যে ছিল একটি হাফ সেঞ্চুরি।

অ্যারোন ফিঞ্চের ব্যাটিংয়ের এই বাজে অবস্থা প্রত্যক্ষ করে তাকে বেশ কিছু পরামর্শ দিলেন ডেভিড ওয়ার্নার। তার সেই পরামর্শই দারুণ কাজ দিয়েছে ফিঞ্চকে। আইপিএল চলাকালীনই নিজ দলের অধিনায়ককে ফর্মে ফেরাতে যে ওয়ার্নার উপদেশ দিয়েছিলেন, সেগুলো তিনি নিজেই জানালেন।

আইপিএল চলাকালীন ওয়ার্নার মেসেজ করে ফিঞ্চকে বলেছিলেন, একেবারেই বলকে তাড়া না করতে। বলকে তার ব্যাটের কাছাকাছি আসার পর শট খেলার পরামর্শ দেন তিনি। সেই পরামর্শ মেনেই মূলতঃ ফর্মে ফিরেছেন ফিঞ্চ।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচেই যার প্রমাণ দেখা গেছে। লঙ্কানদের ছুঁড়ে দেয়া মাত্র ১২৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে কোনো উইকেট না হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় অসিরা। ফিঞ্চ ৪০ বলে ৬১ রান এবং ওয়ার্নার ৭০ রান করে অপরাজিত থাকেন। ফিঞ্চের ব্যাটে ৪টি করে বাউন্ডারি এবং ছক্কার মার ছিল।

প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের পর ডেভিড ওয়ার্নার বলেন, ‘আমি ওকে (ফিঞ্চকে) শুধু এটুকুই বলেছিলাম, বলের দিকে এগিয়ে গিয়ে সে যে ‘ওয়াক আউট' শটটা খেলে তা যেন না খেলে। যদি ফুল লেন্থে বল আসে, তাহলে বলকে বাতাসে মুভ করতে দাও তারপর খেল। যদি স্থিরভাবে থাক এবং লেগ স্ট্যাম্প লাইনে থাক তাহলে বলের সঙ্গে ব্যাটের সম্পূর্ণ সম্পর্ক হবে। যদি বল লেট সুইং করে তাহলে বল লেগের দিকে বেরিয়ে যাবে। আমি সবসময় ওর সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছিলাম। এটা আমরা করেই থাকি। দুজন দু'জনকে সবসময় সাহায্য করি। ছোট ছোট জিনিস আমরা মেসেজ করি একে অপরকে জানাই।'


আরও খবর