Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

ইতালিতে প্রথম চিকিৎসকের সহায়তায় আত্মহত্যা

প্রকাশিত:Friday ১৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৭৬জন দেখেছেন
Image

ইতালিতে প্রথমবারের মতো ৪৪ বছর বয়সি ফ্রেডরিকো কার্বনি চিকিৎসকদের সহায়তায় স্বেচ্ছায় মৃত্যুবরণ করেছেন। গলা থেকে নিচ পর্যন্ত পক্ষাঘাতে অসাড় হয়ে গিয়েছিল তার শরীর। বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) ওই অসুস্থ মানুষটি আত্মহত্যা করেন।

ইতালির আইন অনুযায়ী, কারও মৃত্যুতে সাহায্য করা অপরাধ। কিন্তু ২০১৯ সালে সাংবিধানিক আদালত জানিয়ে দেন, সামান্য কিছু ব্যতিক্রম হতে পারে। তবে তার জন্য কঠিন শর্ত পালন করা জরুরি।

জানা গেছে, বিশেষ মেশিনের সহায়তায় তার শরীরে মৃত্যুর জন্য ওষুধ দেওয়া হয়। তার অন্তিম শয্যায় তার বন্ধু ও স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

ফ্রেডরিকো কার্বনির মৃত্যুর ঘোষণা করে লুকা কসিওনি অ্যাসোসিয়েশন। এই সংস্থাটি ইউথেনেশিয়া বা স্বেচ্ছামৃত্যুর সমর্থনে প্রচার চালায়। কার্বনির বিষয়টি নিয়েও তারা দীর্ঘদিন ধরে প্রচার চালাচ্ছিল।

ফ্রেডরিকো কার্বনি ছিলেন অবিবাহিত ট্র্যাক চালক। প্রায় দশ বছর আগে দুর্ঘটনার পর তিনি পক্ষাঘাতগ্রস্ত হন।

লুকা কসিওনি অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, মৃত্যুর আগে কার্বনি বলেছেন, ‘এভাবে জীবন থেকে বিদায় নিতে আমার আক্ষেপ হচ্ছে। কিন্তু বাঁচার জন্য আমি সবরকম চেষ্টা করেছি। আর সম্ভব নয়। শারীরিক ও মানসিকভাবে জীবনের শেষ সীমায় এসে পৌঁছেছি। আমি সমুদ্রে নৌকার মতো ভাসছি।’

কার্বনির জন্য ২৪ ঘণ্টা সাহায্যকারী থাকতেন। স্বাধীনভাবে তিনি কিছুই করতে পারতেন না। বিদায় নেয়ার আগে তিনি বলেন, ‘এখন আমি যেখানে খুশি উড়ে যেতে পারবো।’

২০১৯ সালে ইতালির সুপ্রিম কোর্ট কিছু ক্ষেত্রে স্বেচ্ছামৃত্যুর অনুমতি দিয়েছিল। কিন্তু রোমান ক্যাথলিক চার্চ ও রক্ষণশীল দলগুলো এর বিরোধিতা করে।

আদালত তাদের নির্দেশে বেশ কিছু মাপদণ্ড ঠিক করে দেন। সেই মাপদণ্ড মেনেই একমাত্র চিকিৎসকদের সহায়তায় জীবন দেওয়ার অনুমোদন দেওয়া হয়।

অন্যতম মাপদণ্ড হলো, রোগী আর কখনো ভালো হবেন না, তিনি জীবনধারণের জন্য সবসময় অন্যের উপর নির্ভরশীল থাকবেন এবং শারীরিক ও মানসিক দিক থেকে তিনি অসহনীয় যন্ত্রণা ভোগ করছেন। আর তার এই চেতনা থাকবে যে, তিনি নিজের মৃত্যুবরণের সিদ্ধান্ত নিজে নিতে পারবেন।

কার্বনি গত নভেম্বরে এথিক্স কমিটির কাছ থেকে স্বেচ্ছামৃত্যুর অনুমতি পান। তারপর তিনি জীবন শেষ করে দেয়ার জন্য পাঁচ হাজার ইউরোও জোগাড় করেন। ড্রাগ ও মেশিনের জন্য ওই পরিমাণ অর্থ জরুরি ছিল তার।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে, নিউইয়র্ক টাইমস


আরও খবর



‘তাজউদ্দীনকে না জানলে জ্ঞানের জগতে শূন্যতা দেখা দেবে’

প্রকাশিত:Sunday ৩১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ নানাভাবে অচর্চিত রয়ে গেছেন উল্লেখ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন, তাকে নিয়ে জানা-শোনার অনেক বাকি আছে। আজকের বাংলাদেশ গঠনে তার অবদান ব্যাপক। তাকে নিয়ে চর্চা না হলে, তাকে জানতে না পারলে, আমাদের জ্ঞানের জগতে এক বিশাল শূন্যতা দেখা দেবে।

রোববার (৩১ জুলাই) বিকেলে ঢাবির নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত ‘তাজউদ্দীন আহমদ স্মারক বক্তৃতা ২০২২’ -এ প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

আখতারুজ্জামান বলেন, বাংলাদেশের আর্থসামাজিক ও মনস্তাত্ত্বিক উন্নয়ন ঘটেছে। কারণ সৃষ্টিশীল, সুন্দর ও জ্ঞানমূলক কাজে মানুষের আগ্রহ বাড়ছে। আজকের অনুষ্ঠানে অধিক সংখ্যক মানুষের উপস্থিতি তারই প্রমাণ দেয়। আমরা আশাবাদী শুধু অবকাঠামোগত উন্নয়নই নয়, বাংলাদেশিদের মননের উন্নতি সাধন করাটাও ভীষণ দরকার।

ব্যক্তি তাজউদ্দীন আহমদকে মূল্যায়ন করে উপাচার্য বলেন, তাজউদ্দীন আহমদ অবিনশ্বরতার মূল্যবোধ ধারণ করেছেন। এই ক্ষুদ্র জীবনটাকে তিনি কর্মে ও গুণে পূর্ণ করতে চেয়েছেন। নিষ্ঠা, শ্রদ্ধা, নম্রতা, সততা ও কৃতজ্ঞতাবোধের এক অপূর্ব সংমিশ্রণ ছিলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন তাজউদ্দীন আহমদের মেয়ে সিমিন হোসেন রিমি। পিতাকে নিয়ে স্মৃতিচারণে তিনি বলেন, বাংলাদেশের রাজনীতির এক উজ্জ্বল নক্ষত্র তাজউদ্দীন আহমদ, যিনি মেধা ও মনন দিয়ে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তিনি নিজেকে সবসময় কাজে ব্যস্ত রাখতেন।

jagonews24

তিনি বলতেন এতোটা কাজ করুন, যেন ইতিহাসের পাতায় আপনি অনুপস্থিত থাকেন। তার মতে, বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু সমার্থক। উন্নত বাংলাদেশ গড়ার জন্য আমাদের দরকার তাজউদ্দীন আহমদের মতো লোক, যারা নিরবে-নিভৃতে দেশের কল্যাণ করবেন, যোগ করেন সিমিন।

অনুষ্ঠানে ২০১৮ সালের বিএসএস সম্মান (ব্যাচেলর ইন সোস্যাল সাইন্স) পরীক্ষায় সর্বোচ্চ সিজিপিএ অর্জন করায় ঢাবির শান্তি ও সংঘর্ষ অধ্যয়ন বিভাগের ছাত্রী ত্রপা সরকারকে ‘তাজউদ্দীন আহমদ শান্তি স্বর্ণপদক’ দেওয়া হয়। এছাড়া একই বিভাগের ছাত্রী সানজিদা জামান রাইসাকে ‘তাজউদ্দীন আহমদ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ফান্ড বৃত্তি’ দেওয়া হয়।

এছাড়া তাজউদ্দীন আহমদ রচনা প্রতিযোগিতায় যথাক্রমে প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম স্থান লাভ করায় বিভিন্ন বিভাগের পাঁচজন শিক্ষার্থীকে ‘তাজউদ্দীন আহমদ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ফান্ড পুরস্কার’ দেওয়া হয়।

পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন- সুমাইয়া খানম (উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগ), রিফাত ফেরদৌস অনন্যা (প্রাণিবিদ্যা বিভাগ), আরজু আফরিন ক্যাথি (ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগ), সুহৃদ সাদিক (বাংলা বিভাগ) ও ইফরাত জাহান (বাংলা বিভাগ)।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাবির উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সামাদ। এ সময় স্মারক বক্তৃতা পাঠ করেন প্রকৌশলী ও কথা সাহিত্যিক সুহান রিজওয়ান।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাবির উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, গণসংহতি আন্দোলনের আহ্বায়ক জোনায়েদ সাকি এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে আগত শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।


আরও খবর



‘কমনওয়েলথ পয়েন্টস অব লাইট’ পুরস্কার পেলেন কিশোর কুমার

প্রকাশিত:Friday ২২ July 20২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
Image

ব্যতিক্রমী স্বেচ্ছাসেবা ও মানবিক উদ্যোগের জন্য ‘কমনওয়েলথ পয়েন্টস অব লাইট’ পুরস্কার পেয়েছেন বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা কিশোর কুমার দাশ।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) দুপুরে প্রতিষ্ঠানটির মিরপুর কার্যালয়ে ব্রিটেনের রাণীর প্রতিনিধি হিসেবে ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসন তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

এসময় বিদ্যানন্দের বোর্ড মেম্বারসহ স্বেচ্ছাসেবকরা উপস্থিত ছিলেন।

পুরস্কার তুলে দেওয়ার সময় ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশের মানুষ সব সময় অনুপ্রেরণামূলক কাজ করে থাকে। বিদ্যানন্দ তারই প্রতিনিধিত্ব করছে। ব্রিটিশ সরকার খুবই গর্বিত এমন একটি প্রতিষ্ঠানকে সম্মান জানাতে পেরে।

পুরস্কার প্রাপ্তির অনুভূতি জানাতে গিয়ে কিশোর কুমার জানান, পুরস্কার বা স্বীকৃতিকে আমি কখনো অর্জন বলতে চাই না। এটা শুধু আমাদের অনুপ্রাণিত করে। বিদ্যানন্দে অসংখ্য মানুষ শ্রম দেয় এবং অনুদান পাঠান। তাই এটা আমার জন্য নয়, বরং আমাদের দেশের জন্য একটি অনুপ্রেরণার।

কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর অনুপ্রেরণামূলক স্বেচ্ছাসেবকদের ধন্যবাদ জানাতে এই পুরস্কার দেওয়া হয় ব্রিটিশ রানীর পক্ষ থেকে।


আরও খবর



সাভারে নৌকা ডুবে কলেজছাত্রের মৃত্যু

প্রকাশিত:Sunday ০৭ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ১১জন দেখেছেন
Image

সাভারে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজের প্রায় ১৪ ঘণ্টা পর হৃদয় মাহমুদ (২৫) নামে এক কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। এ ঘটনায় আরও দুই শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে সাভার সুপার ক্লিনিকে ভর্তি রয়েছেন।

রোববার (০৭ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে সাভারের জাহাঙ্গীরনগর সোসাইটি খাল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে শনিবার রাত ৯টার দিকে প্রায় ৭ বন্ধু মিলে ওই খালে নৌকায় করে ঘুরতে যান। এ সময় নৌকাটি ডুবে যায়।

নিহত হৃদয় মাহমুদ সাভার কলেজের স্নাতক শেষবর্ষের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। তিনি ছায়া বিথি এলাকার আলমাস আলীর ছেলে।

অসুস্থ অপর দুইজন হলেন- নাইম (২৪) ও শামীম (২৬)। তাদের বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবার রাত ৯টার দিকে হৃদয়, শামীম ও নাইমসহ ৭ বন্ধু মিলে জাহাঙ্গীরনগর সোসাইটির বিলে নৌকা নিয়ে ঘুরতে যান। এ সময় তাদের নৌকাটি ডুবে যায়। পরে একে অপরের সহায়তায় তীরে উঠতে পারলেও হৃদয় নিখোঁজ হন। উদ্ধার হওয়া ৬ জনের মধ্যে দুইজন গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ব্যাপারে টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের লিডার আবু বকর সিদ্দিক বলেন, রাত বেশি হওয়ায় আমরা উদ্ধার কাজ করতে পারিনি। পরে সকালে আমরা উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে নিখোঁজ হৃদয়ের মরদেহ উদ্ধার করি।

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন বলেন, নিহতের পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরও খবর



ডলারের দাম আরও ২৫ পয়সা বাড়লো

প্রকাশিত:Monday ২৫ July ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
Image

ডলারের দাম আরও ২৫ পয়সা বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ফলে প্রতি ডলারের দাম বেড়ে হয়েছে ৯৪ টাকা ৭০ পয়সা, যা আগে ছিল ৯৪ টাকা ৪৫ পয়সা।

সোমবার (২৫ জুলাই) টাকার বিপরীতে ডলারের দাম বাড়ানোর দিনে ১৩ কোটি ২০ লাখ ডলার বিক্রি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। নতুন দামকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, আন্তঃব্যাংক দর।

ফলে বাংলাদেশ ব্যাংক ও খোলাবাজারে ডলারের দামের পার্থক্য দাঁড়িয়েছে ৭ টাকারও বেশি। আর খোলাবাজারে ডলার বিক্রি হচ্ছে ১০৫ টাকায়। চলতি জুলাই মাসের প্রথম ২১ দিনে দেশে এসেছে ১৬৪ কোটি ২৭ লাখ ডলার রেমিট্যান্স। যা আগের মাসে (জুন) এসেছিল ১৮৩ কোটি ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ডলারের দাম ২৫ পয়সা বাড়ানো হয়েছে। অর্থাৎ আজ প্রতি এক ডলার বিক্রি করা হচ্ছে ৯৪ টাকা ৭০ পয়সায়। নতুন এ দামেই রিজার্ভ থেকে ডলার বিক্রি করা হয়েছে।

সোমবার (২৫ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে ব্যাংকগুলোর এমডিদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশের বৈঠক হয়।

পরে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম জানান, ডলারের বাজার স্বাভাবিক রাখতে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে ৭ বিলিয়ন ডলার সাপোর্ট দেওয়া হয়েছে ব্যাংকগুলোকে। এখনো প্রায় দেড় বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স বিদেশে আটকে আছে। এ দেড় বিলিয়ন ডলার এখনো আসেনি বা আনা হয়নি। তাছাড়া ব্যাংকগুলোর অকেজো অ্যাকাউন্টে প্রায় ৯ বিলিয়ন ডলার এক্সপোর্ট রিকনসলেশন হিসাবে আটকে আছে।

সবমিলিয়ে ব্যাংকগুলোকে সাড়ে ১০ বিলিয়ন ডলার আনার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ব্যাংকগুলো যদি এসময়ে এসব ডলার বিদেশ থেকে না নিয়ে আসে তাহলে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে আর ডলার সাপোর্ট দেওয়া হবে না। ব্যাংকগুলোর সাপোর্টের ওপর ভিত্তি করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।


আরও খবর



বিপৎসীমার ১০ সেন্টিমিটার ওপরে তিস্তার পানি

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

কয়েকদিনের বৃষ্টি আর উজান থেকে নেমে আসা ঢলে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ১০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। সোমবার (১ আগস্ট) বিকেলে তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করে প্রবাহিত হতে থাকে।

এর আগে রোববার রাত থেকে তিস্তা নদীর পানি বাড়তে থাকে। এক সময় সোমবার সকালে পানি বিপৎসীমা ছুঁইছুঁই করছিল। সোমবার বিকেল তিনটায় নীলফামারীর ডালিয়া তিস্তা ব্যারেজ পয়েন্টে পানি বেড়ে বিপদসীমার ১০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক নূরুল ইসলাম জানান, সোমবার সকাল ছয়টা থেকে তিস্তার পানি বিপৎসীমার ২ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হলেও দুপুর ১২টার পর থেকে তিস্তার পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হতে থাকে। বিকেল তিনটায় পানি আরও বেড়ে বিপৎসীমার ১০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

তিস্তার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তিস্তাবেষ্টিত নিম্নাঞ্চলে ফের নতুন করে পানি ঢুকতে শুরু করেছে। বাইশ পুকুর এলাকার বাসিন্দারা জানান, এর আগে দুই দফায় এলাকায় পানি ঢুকে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছিল। সোমবার সকাল থেকে আবারও এলাকায় পানি ঢুকতে শুরু করায় মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ডিমলা ও জলঢাকা উপজেলার চরের মানুষের মধ্যে আবারও ভয়ভীতি দেখা দিয়েছে। টেপাখড়িবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান ময়নুল ইসলাম বলেন, পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তিস্তা নদীবেষ্টিত কিছু এলাকায় আবারও পানি ঢুকতে শুরু করেছে। নদীবেষ্টিত এলাকার মানুষদের আমরা সতর্ক থাকতে বলেছি। পানি অব্যাহত বৃদ্ধি পেলে নিচু এলাকায় যারা বসবাস করেন তাদের সরে যেতে অনুরোধ করা হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড নীলফামারীর ডালিয়া ডিভিশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আসফাউদ দৌলা বলেন, সকাল থেকে তিস্তার নদীর পানি বাড়তে বাড়তে দুপুর থেকে বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়া শুরু করে। বর্তমানে পানি বিপৎসীমার ১০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। পানি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যারেজের সবকয়টি (৪৪টি) জলকপাট খুলে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, এক মাসেরও বেশি সময় পর ফের তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এর আগে সর্বশেষ ২৯ জুন তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করেছিল।


আরও খবর