Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

ইনিংস হারের শঙ্কা নিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১১৪জন দেখেছেন
Image

 

ব্যাটিং ব্যর্থতা পিছু ছাড়েনি বাংলাদেশের। অ্যান্টিগা টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১০৩ রানে অলআউট হওয়ার পর দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নেমেও ১০৯ রান তুলতে ৬ উইকেট হারিয়ে বসেছে টাইগাররা।

ফলে ইনিংস পরাজয় চোখ রাঙানি দিচ্ছে সফরকারীদের। ৬ উইকেটে ১১৫ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের লাঞ্চ বিরতিতে গেছে সাকিব আল হাসানের দল। ইনিংস হার এড়াতে এখনও দরকার ৪৮ রান। সাকিব ৫ আর নুরুল হাসান সোহান ২ রানে অপরাজিত আছেন।

দ্বিতীয় দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ২ উইকেটে ৫০ রান। আগের দিন অভিজ্ঞ ওপেনার তামিম ইকবাল ও প্রমোশন পেয়ে ওপরে ওঠা মেহেদি হাসান মিরাজের উইকেট হারায় সফরকারীরা। ১১২ রানে পিছিয়ে থেকে দিন শুরু করে বাংলাদেশ।

এর আগে মেহেদি মিরাজের চার উইকেটের সঙ্গে খালেদ আহমেদ ও এবাদত হোসেনদের জোড়া শিকারে ক্যারিবীয়দের ২৬৫ রানে অলআউট করে বাংলাদেশ। তবে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১০৩ রানে গুটিয়ে যাওয়ায় স্বাগতিকরা পেয়ে যায় ১৬২ রানের বড় লিড।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ইতিবাচক শুরুর আভাসই দিয়েছিলেন তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল হাসান জয়। একপ্রান্তে রয়েসয়ে খেলেন জয়, তামিম ছিলেন স্বপ্রতিভ। কিন্তু দশম ওভারে আক্রমণে এসেই তামিমকে ফিরিয়ে দেন আলজারি জোসেফ।

উইকেটের পেছনে ক্যাচ হওয়ার আগে চারটি চারের মারে ৩১ বলে ২২ রান করেন তামিম। তিন নম্বরে নাইটাওয়াচম্যান হিসেবে নামানো হয় মেহেদি মিরাজকে। নিজের পরের ওভারে এ ডানহাতি অলরাউন্ডারকেও ফিরিয়ে দেন জোসেফ। আউট হওয়ার আগে মাত্র ২ রান করতে পেরেছেন মিরাজ।

এরপর দিনের শেষভাগের প্রায় আধঘণ্টা সময় নির্বিঘ্নেই কাটিয়ে দিয়েছেন মাহমুদুল জয় ও নাজমুল হোসেন শান্ত। এ দুজনের অবিচ্ছিন্ন ৫০ বলের জুটিতে আসে ১৫ রান। জয় ১৮ ও শান্ত ৮ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের ব্যাটিং শুরু করেন।

তৃতীয় দিনের সকালটাও দেখেশুনে শুরু করেছিলেন মাহমুদুল হাসান জয় আর নাজমুল হাসান শান্ত। প্রথম আধ ঘণ্টা কাটিয়েও দিয়েছিল এই জুটি। কিন্তু এরপরই ভুল করে বসেন শান্ত।

কাইল মায়ার্সের বাউন্সি ডেলিভারিতে ব্যাট ছুঁইয়ে দিয়ে দ্বিতীয় স্লিপে সহজ ক্যাচ হন বাঁহাতি এই ব্যাটার। ৪৫ বলে ৩ বাউন্ডারিতে তিনি করেন ১৭ রান। প্রথম ইনিংসে কেমার রোচের বলে শান্ত বোল্ড হয়েছিলেন, আরও একবার দৃষ্টিকটু আউট হলেন।

এরপর দ্রুতই ফিরেছেন মুমিনুল হক। নেতৃত্বের চাপে ভেঙে পড়ছেন, এমনটা ভেবেই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়া বাঁহাতি এই ব্যাটার টানা ৯ ইনিংস দশের নিচে আউট হয়েছেন।

এবার মুমিনুল সাজঘরে ফিরেছেন ৪ রানে। কাইল মায়ার্সের ডেলিভারি প্যাডে লাগলে আঙুল তুলে দেন আম্পায়ার। মুমিনুল রিভিউ নিয়েছিলেন। কিন্তু লেগ স্ট্যাম্প অল্প একটু পেয়ে যাওয়ায় আম্পায়ার্স কলে ফিরতে হয়েছে বাঁহাতি এই ব্যাটারকে। প্রথম ইনিংসে তিনি করেছিলেন শূন্য।

ফর্মে থাকা লিটন দাসের ওপর বড় আশা ছিল টাইগার সমর্থকদের। মাহমুদুল জয়ের সঙ্গে ২৫ রানের একটি জুটিও গড়েছিলেন তিনি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বাকিদের মতো বাজে শট খেলেই আউট হয়েছেন।

ব্যক্তিগত ১৭ রানে সাজঘরের পথ ধরেন ডানহাতি এই ব্যাটার। কেমার রোচের শরীরের অনেক বাইরে থাকা ডেলিভারি অযথা শট খেলতে গিয়ে দ্বিতীয় স্লিপে ক্যাচ হন লিটন।

অভিজ্ঞ ব্যাটাররা একের পর এক ফিরে যাচ্ছেন সাজঘরে। কিন্তু তরুণ মাহমুদুল হাসান জয় ধৈর্যর পরিচয় দিয়ে যাচ্ছিলেন। একদম টেস্ট মেজাজেই খেলছিলেন টাইগার ওপেনার। হাফসেঞ্চুরিটা তার প্রাপ্যই ছিল।

কিন্তু চল্লিশের ঘরে গিয়ে ভুল করে বসেন ২১ বছর বয়সী এই তরুণ। কেমার রোচের বেরিয়ে যাওয়া ডেলিভারিতে শট খেলতে গিয়ে এজ হয়ে উইকেটরক্ষকের হাতে ধরা পড়েন জয়। ১৫৩ বলে ৩ বাউন্ডারিতে তার ৪২ রানের ধৈর্যশীল ইনিংসটির সমাপ্তি তাতেই।


আরও খবর



জুমার দিনের মর্যাদাপূর্ণ আমল ও প্রস্তুতি

প্রকাশিত:Friday ১৭ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
Image

গরিবের হজের দিন জুমা। সপ্তাহের শ্রেষ্ঠ দিনও এটি। জুমার নামাজের প্রস্তুতিতে করণীয় ও গুরুত্বপূর্ণ ফজিলত বর্ণনা করেছেন নবিজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। এ দিনের গুরুত্বপূর্ণ করণীয় ও ফজিলতপূর্ণ আমলগুলো তুলে ধরা হলো-

জুমার দিন যা করবেন
১. জুমার দিন মসজিদে যাওয়ার আগে গোসল করা;
২. উত্তম পোশাক পরা;
৩. সুগন্ধি ব্যবহার করা;
৪. জুমার নামাজ আদায়ের জন্য মসিজদে যাওয়া;

৫. মসজিদে কাউকে অতিক্রম করে বা ঘাড় টপকিয়ে সামনে না যাওয়া;
৬. যেখানে জায়গা পাবেন সেখানেই বসে যাওয়া;
৭. মনোযোগ সহকারে ইমামের খুতবা বা বক্তব্য শোনা;

৮. খুতবা বা বক্তব্য চলাকালীন সময়ে নীরবতা পালন করা;
৯. বিশেষ করে ছানি (দ্বিতীয়) খুতবায় ইমামের সঙ্গে দোয়ার সময় ‘আমিন’, ‘আমিন’ বলা;
১০. জুমার দিন নামাজের আগে ‘সুরা কাহফ’ পুরোপুরি তেলাওয়াত করা। সম্ভব না হলে দিনের যে কোনো সময় তেলাওয়াত করা।

১১. জুমার নামাজের আগেই চুল, গোফ, নখ কেটে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন হওয়া।
১২. জুমার দিন আসর থেকে মাগরিব পর্যন্ত মসজিদে অবস্থান করা।
১৩. বেশি বেশি দরূদ শরিফ পাঠ করা।
জুমার দিনের গুরুত্বপূর্ণ ফজিলত
যারা এ কাজগুলো সুন্দরভাবে পালন করবে, তাদের এক জুমা থেকে অপর জুমা পর্যন্ত যাবতীয় গোনাহের কাফফার হয়ে যাবে। হাদিসের একাধিক বর্ণনায় জুমার দিনের ফজিলত ও মর্যাদা ওঠে এসেছে-
১. হজরত ইবনু আওস আস সাক্বাফি রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছি, যে ব্যক্তি জুমার দিন গোসল করবে এবং (স্ত্রীকেও) গোসল করাবে, ভোরে ঘুম থেকে উঠবে এবং অন্যকে ঘুম থেকে উঠাবে; জুমার জন্য বাহনে চড়ে নয়, বরং পায়ে হেঁটে মসজিদে যাবে এবং কোনোরূপ অনর্থক কথা না বলে ইমামের নিকটে বসে খুতবা শুনবে; তার (মসজিদে যাওয়ার) প্রতি পদক্ষেপ সুন্নাত হিসেবে গণ্য হবে। আর প্রতিটি পদক্ষেপের বিনিময় সে এক বছর যাবত সিয়াম পালন ও রাতভর নামাজ আদায়ের (সমান) প্রতিদান পাবে। (আবু দাউদ, ইবনু মাজাহ, তিরমিজি)

২. হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি জুমার দিন জানাবাতের (অপবিত্রতার) গোসলের ন্যায় (ভালোভাবে) গোসল করে সর্ব প্রথম জুমার নামাজের জন্য মসজিদে চলে আসবে, সে একটি উট কুরবানির ছওয়াব পাবে।
আর যে ব্যক্তি তার পরে আসবে, সে একটি গাভি কুরবানির ছওয়াব পাবে।
তার পর তৃতীয় নম্বরে যে আসবে সে একটি ছাগল কুরবানির ছওয়াব পাবে।
তারপর চতুর্থ নম্বরে যে আসবে সে একটি মুরগি কুরবানির ছওয়াব পাবে।
তারপর পঞ্চম নম্বরে যে আসবে সে আল্লাহর পথে একটি ডিম সাদক্বাহ করার ছওয়াব পাবে।
অতঃপর ইমাম যখন খুতবা দেয়ার উদ্দেশ্যে বের হয়ে আসেন তখন মালিয়া তথা ফিরিশতারা খুতবা শোনার জন্য উপস্থিত হন।’

৩. হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, ‘আরো তিন দিনের গোনাহ কাফফার হয়ে যাবে। কেননা নেক কাজের ছওয়াব দশগুণ হয়।’

৪. হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, জুমার দিনে এমন একটি সময় রয়েছে, যে সময়টি কোনো মুসলিম বান্দা যদি নামাজে দাঁড়িয়ে আল্লাহর কাছে কিছু প্রার্থনা করে, তবে অবশ্যই তিনি তাকে (চাহিদা মোতাবেক) দান করেন। তিনি (রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) তার হাত দ্বারা ইঙ্গিত করে বুঝিয়ে দিলেন যে, সেই সময়টিই খুবই সংক্ষিপ্ত। (বুখারি)
৫. কোনো কোনো বর্ণনায় এসেছে, সেই সময়টি আসরের পর থেকে সূর্যাস্তের মধ্যে।
৬. কোনো কোনো বর্ণনায় রয়েছে, ইমামের বসা থেকে নামাজ শেষ করার মধ্যবর্তী সময়ের মধ্যে সেই সময়টি রয়েছে।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে জুমার দিনের করণীয় কাজগুলো যথাযথ পালনের মাধ্যমে জুমার উল্লেখিতি ফজিলতগুলো লাভ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।


আরও খবর



রূপগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে ভাংচুর, কলেজ ছাত্রীসহ ৬ জনকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশিত:Wednesday ০১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৬৫জন দেখেছেন
Image

স্টাফ রিপোর্টারঃ মোঃআবু কাওছার মিঠু 

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বাড়িঘরে হামলা, ভাংচুর, কলেজ ছাত্রীসহ ৬ জনকে  কুপিয়ে জখমের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ  বুধবার  বিকেলে উপজেলার ভোলাব ইউনিয়নের মোচার তাল্লুক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।


আহতরা হলেন, মরিয়ম (৫২), কলেজ পড়ুয়া শাহনাজ আক্তার (২০), রেজুয়ানা (১১), ওমর ফারুক (১৭), ইসলাম (১৬), খালেদা (২৭)। এ ঘটনায় আঃ রউফ  বাদি হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। বাদি আঃ রউফ জানান,  বাড়ির পাশে ১৮ শতাংশ একটি জমি কিনে ৯ শতাংশ জমির চারপাশে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করে এক পাশে টিনসিট ঘর নির্মাণ করি।


কিন্তু বেআইনি ভাবে জমি দখলের উদ্যেশে একই এলাকার এবাদুর রহমানের ছেলে আওলাদ হোসেন আলো তার ভাড়াটে সন্ত্রাসী শামিম মিয়া (৪৫), আবদুল লতিফ (৫৫), আজিজুল (২৩), রিপন  মিয়া (২২), নাইম (২৯), শাওন (২৭) সোহেল, (২৪) সজীব মিয়া ( ২১), কালা মনির (২৬), রাজু (৩০), সাহানাজ (২৬)  শান্তাসহ (৩০) আরো অজ্ঞাত ৪০/৫০ জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের নিয়ে বাড়িঘরে হামলা ও ব্যাপক ভাংচুর করে। এতে বাধা দিতে গেলে সন্ত্রাসীরা ধারালো  অস্ত্র দিয়ে তাদেরকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুত্বর জখম করে। পরে তাদের ডাক চিৎকারে সন্ত্রাসীরা প্রাণনাশের হুমকী দিয়ে পালিয়ে যায়।


আহতরা বর্তমানে রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছে। এ ঘটনার সুষ্ট বিচার দাবি করেন ভুক্তভোগী পরিবার সহ স্থানীয়রা। 

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার  ওসি এএফএম সায়েদ বলেন,  সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



নৌকা নিয়ে জনসভায় শাজাহান

প্রকাশিত:Saturday ২৫ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

পদ্মা সেতু উদ্বোধনী জনসভায় উপস্থিত হতে সকাল থেকে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল থেকে আসতে থাকে হাজারো মানুষ। শেখ হাসিনাকে এক নজর দেখার জন্য বিভিন্ন জেলা থেকে সভাস্থলে আসেন তারা। এর মধ্যে দিনমজুর শাজাহান সরদার নৌকা নিয়েই সভাস্থলে আসেন।

শনিবার (২৫ জুন) সকালে মাদারীপুরের শিবচরে বাংলাবাজার ঘাটে জনসভায় গিয়ে এমনটাই দেখা যায়।

শাজাহান সরদা গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার চরকুশলী গ্রামের বাসিন্দা। কয়েক বছর আগে তিনি ওই নৌকা বানিয়েছিলেন। সেই নৌকা নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে জাজিরা ঘাটে আসেন তিনি। এরপর শুক্রবার মাদারীপুর শিবচর বাংলাবাজার ঘাটে জনসভাস্থলে। সেখানে শনিবারও রয়েছেন তিনি।

এসময় জাগো নিউজকে শাজাহান সরদার বলেন, ‘আমরা কল্পনাও করি নাই পদ্মার ওপরে এতো বড় সেতু হবে। ফরিদপুর খুলনা বরিশাল এই এলাকার মানুষের কষ্ট হয়েছিল। অনেক মানুষ মারা যাইতো। এখন ব্রিজ দিয়া চইলা যাবে।’

jagonews24

তি জানান, প্রধানমন্ত্রী এখানে আসবে। বিশাল সমাবেশ। শেখ হাসিনকে দেখতেই নৌকা নিয়ে তিনি চলে আসেন।

খুলনা সদরের মহেশ্বর পাশা থেকে আসা হেলাল বেপারী। রংয়ের কাজ করেন ৪৭ বছর বয়সী হেলাল। খুলনা থেকে ভাঙ্গায় বাসে করে নিয়ে আসেন নিজের পুরনো এক সাইকেলের সামনে লাগানো পিতলের তৈরি নৌকা নিয়ে। সেখান থেকে নৌকা লাগানো সাইকেল নিয়ে হেঁটে আসেন সভাস্থলে।

জাগো নিউজকে হেলাল বলেন, এক বছর বয়সে আমি আমার মা-বাবাকে হারিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও তার বাবা মাকে হারিয়েছেন। এইজন্য তার যে দুঃখ বুঝতে পারি। তাই তিনি আমার প্রিয় মানুষ। যেখানে তার সমাবেশ হয় সেখানে ছুটে যায়।


আরও খবর



পদ্মা সেতুর কারণে মাথাপিছু বাড়বে আয়: পরিবেশমন্ত্রী

প্রকাশিত:Saturday ১১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বলেছেন, পদ্মা সেতু নির্মাণের ফলে শুধু দক্ষিণাঞ্চলে ২১ জেলার নয় বরং সারা বাংলাদেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি পাবে।

পদ্মা সেতু নির্মাণে দুর্নীতির বিষয়ে বিশ্বব্যাংকের অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণের শক্তি কাজে লাগিয়ে বিশ্বের অন্যতম খরস্রোতা নদীতে এই ব্রিজ নির্মাণ করেছেন।

তিনি বলেন, গভীর পাইলিং সমৃদ্ধ পদ্মাসেতু বড় ধরনের ভূমিকম্প সহনশীল ও টেকসই হবে। শাহাব উদ্দিন আজ জেলার বড়লেখা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বাস্তবায়নাধীন ‘বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা’ শীর্ষক কর্মসূচির আওতায় উপজেলার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বাইসাইকেল ও শিক্ষাবৃত্তির চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

শাহাব উদ্দিন বলেন, রাজধানীতে নির্মাণাধীন মেট্রোরেল, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র ও কর্ণফুলী টানেলসহ একসাথে চলমান অনেকগুলো মেগাপ্রকল্প বাংলাদেশের সক্ষমতার প্রমাণ। সারা বিশ্ব অবাক হয়ে দেখছে আমরা এখন আর ভিক্ষা নেই না বরং ভিক্ষা দিতে পারি।

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলায় পরিণত হচ্ছে দেশ। সরকারের বিভিন্ন জনকল্যাণকর কর্মসূচির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিধবা ভাতা, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীদের ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতাসহ সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতা ও পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে।

কোভিড ১৯ মহামারি ও ইউরোপে চলমান যুদ্ধের কারণে বৈশ্বিক বাজারে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি হয়েছে বলে উল্লেখ করে অন্যায় ও অযৌক্তিকভাবে দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ানোর ব্যাপারে ব্যবসায়ীদের প্রতি হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী অফিসার খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলীর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বড়লেখা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ, পৌরসভার মেয়র আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী এবং সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সুন্দর।


আরও খবর



ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা তরুণী, প্রাইভেট শিক্ষক কারাগারে

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
Image

নোয়াখালীর চাটখিলে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন এক তরুণী (২১)। এ ঘটনায় ওই তরুণীর প্রাইভেট শিক্ষক ইব্রাহিম খলিলকে (২৪) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (৬ জুন) বিকেলে তরুণীর করা ধর্ষণ মামলায় ওই যুবককে কারাগারে পাঠানো হয়। ভুক্তভোগীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতার ইব্রাহিম তুহিন চাটখিলের নোয়াপাড়া গ্রামের মাইজখালী পাটোয়ারী বাড়ির নাছির আহমদের ছেলে।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গিয়াস উদ্দিন জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা করেন ওই তরুণী। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে রোববার (৫ জুন) রাতে আসামি ইব্রাহিমকে গ্রেফতার করা হয়। সোমবার আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

পুলিশ ও মামলা সূত্র জানায়, ভুক্তভোগীর পাশের বাড়িতে প্রাইভেট মাস্টার হিসেবে পড়াতে আসতো তুহিন। আসা-যাওয়ার এক পর্যায়ে ওই তরুণীর সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ৮ ডিসেম্বর রাতে বাড়ির পাশে বাগানে দেখা করতে বলে বিয়ের প্রলোভনে তাকে ধর্ষণ করেন তুহিন।

পরে ওই তরুণী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে বিয়ের জন্য চাপ দেন। তুহিন এতে অস্বীকৃতি জানান। এমনকী পেটের সন্তান নষ্ট করার জন্য তরুণীকে ভয়ভীতি দেখানোসহ হত্যার হুমকি দেন। পরে তুহিনকে আসামি করে মামলা করেন ভুক্তভোগী।


আরও খবর