Logo
আজঃ Wednesday ২৬ January ২০২২
শিরোনাম
অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সহ-শিল্পীদের নগ্ন ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিদেশের মাটিতে কৃষিপণ্য সরবরাহ বাড়াণোর লক্ষ্যে : ইরান রাজনৈতিক কঠিন চাপে রয়েছেন মেয়র আরিফুল স্বপ্নের মেট্রোরেল রওনা হলো আগারগাঁওয়ের উদ্দেশে ওমিক্রনের সংক্রমণে ভারতে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত নিয়মিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ মুরাদ হাসান এমিরেটসের ফ্লাইটে কানাডা গেলেন সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ আগামী বিশ্বকাপে ব্যাটসম্যানদের উন্নতি দেখতে চান করোনাভাইরাসে আরও ছয়জনের মৃত্যু বিশ্বের ৪৩তম ক্ষমতাধর নারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

হিরো এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফির প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশের শোচনীয় হার

প্রকাশিত:Thursday ১৬ December ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ২২৮জন দেখেছেন
Image


আজাদ হোসেনঃ 

ঢাকার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে স্বাগতিক বাংলাদেশসহ পাঁচটি দেশের অংশগ্রহণে চলছে এশিয়া হকির সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ আসর ‘হিরো এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ২০২১’। বাংলাদেশ স্বাধীনতার পর এবারই প্রথম সবচেয়ে কঠিন এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ আসরে খেলার সুযোগ পেয়েছে স্বাগতিক দেশ হওয়ার সুবাদে।


গতকাল বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়েছে গুরুত্বপুর্ন ম্যাচ।এশিয়ান হকি চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে শেষ পর্যন্ত ৯-০ ব্যবধানে শেষ হয়েছে ম্যাচ। বাংলাদেশ গোল তো দূরের কথা, লক্ষ্যভেদের দূরতম সম্ভাবনাও তৈরি করতে পারেনি। আক্রমণে ওঠার সুযোগ পেয়েছে কালেভদ্রে। কিন্তু বল হারিয়েছে সেই আক্রমণ জমাট বাঁধার আগেই।


গতকাল তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ অপর ম্যাচে ৩-৩ গোলে ড্র করেছে জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া।ভারতীয়দের চাপে মুখে ক্রমে নিচে নেমে আসতে হয়েছে পুরো দলকে। তাতে একের পর এক পেনাল্টি কর্নার আদায় করে নিয়েছে ভারত। সব মিলিয়ে ১৪টি। ৯ গোলের পাঁচটিই পিসি থেকে। চার কোয়ার্টারের প্রথম দুটি দেখে অবশ্য মনে হয়নি ব্যবধানটা এত বড় হবে। শুরুর ১১ মিনিটে আটটি পিসি আদায় করলেও গোল করতে পারেনি ভারত।


বাংলাদেশ যেকোনোভাবে হোক সেগুলো ফিরিয়ে দিচ্ছিল। ১২ মিনিটে দিলপ্রিত সিং প্রথম এগিয়ে দেন ভারতকে। সেটি আবার ওপেন প্লে থেকে। পোস্টের সামনেই জটলা থেকে আলতো পুশে বল জালে জড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। প্রথম কোয়ার্টারে ব্যবধান ১-০।


দ্বিতীয় কোয়ার্টারে বাংলাদেশ আক্রমণে উঠতে গেলে ডিফেন্স ফাঁকা হয়ে যায়। সেই সুযোগে দিলপ্রিতই গোলরক্ষক আবু সাঈদকে ওয়ান অন ওয়ানে রিভার্স হিটে ব্যবধান বাড়িয়ে নিয়েছেন। এই কোয়ার্টার শেষ হওয়ার আগে আবার পিসি থেকে ললিত কুমারের গোল। হারমানপ্রিতের ফ্লিকে পোস্টের কাছে দাঁড়িয়ে কানেক্ট করে দেন তিনি।


তৃতীয় কোয়ার্টারে আরো তিন গোল হজম করে বাংলাদেশ। প্রথম দুটি পিসি থেকে। আর দুটি গোলই একটি আরেকটির কপি যেন। হারমানপ্রিত ড্র্যাগ না করে পাশে দেন জারমান প্রিতকে।

জারমান জোরালো হিটে দুবারই বল জালে জড়ান। শুরুর দিকে হারমানের সরাসরি ড্র্যাগ ফ্লিকগুলো বাংলাদেশ রুখে দেওয়াতে নতুন পথ খুঁজে নেয় ভারত, সফলতা আসে তাতেই। ওদিকে ওপেন প্লেতেই দিলপ্রিত হ্যাটট্রিক পূরণ করে ফেলেন এই কোয়ার্টারের শেষ দিকে।

বক্সের ভেতরে বাংলাদেশি এক ডিফেন্ডারের পাহারা এড়িয়েই বল জালে পাঠিয়েছেন তিনি। শেষ কোয়ার্টারে আকাশদীপ সিং ৭-০ করেন। এরপর পিসি থেকে হারমান ও মনদীপের আরো দুই গোল।


ম্যাচে  বাংলাদেশ পাল্টা আক্রমণের সামর্থ্যই দেখাতে পারেনি না। নিজেদের পোস্টের সামনে গোল বাঁচানোর প্রাণপণ লড়াই করেও হার ঠেকাতে পারেনি বাংলাদেশ দল।


আরও খবর



খালেদার বিদেশে চিকিৎসার আবেদনে মতামত, যা বললেন আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত:Monday ২৭ December ২০২১ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১৬০জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য পরিবারের আবেদনের বিষয়ে মতামত দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। এই আইনি মতামত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

আজ সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানিয়েছেন। তবে কী মতামত দিয়েছেন সে বিষয়ে কিছু জানাননি আইনমন্ত্রী।

এ বিষয়ে আনিসুল হক বলেন, ‘সেই মতামত জানানো সমীচীন হবে না। কারণ সেটা গোপন বিষয়। এটা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় পর্যন্ত যাবে। তারপর বলা সম্ভব হবে।’

এর আগে গত ১২ ডিসেম্বর আইনমন্ত্রী বলেছিলেন, খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্ত জানতে ‘অপেক্ষা’ করতে হবে। তার আগে গত ৫ ডিসেম্বর সংবাদমাধ্যমকে খালেদা জিয়াকে বিদেশ পাঠাতে ‘আইনি উপায়’ খোঁজার কথা বলেছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ১৩ নভেম্বর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় খালেদা জিয়াকে। ১৭ নভেম্বর তার লিভার সিরোসিস ধরা পড়ে। উন্নত চিকিৎসার জন্য জার্মানি, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য এই তিন দেশের যেকোনো একটিতে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে মেডিকেল বোর্ড।


আরও খবর



ডেমরায় পাঁচ কেজি গাঁজা সহ ৩ মাদক ব্যাবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ

প্রকাশিত:Thursday ০৬ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১৬৫জন দেখেছেন
Image


বজলুর রহমানঃ

রাজধানীর ডেমরা সুলতানা কামাল ব্রীজের ঢাল থেকে পাঁচকেজি গাঁজা সহ তিন জন মাদক ব্যাবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।


গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যাবসায়ীদের নাম (১) মোঃ আসিক মিয়া পিতা: কালু মিয়া সাং- নলগড়িয়া,থানা বিয়নগর, জেলা ব্রাম্মন বাড়ীয়া (২) আব্দুল্লাহ, পিতা:আবু জাহের ওরফে শাহ আলম,সাং- নলগড়িয়া,থানা বিয়নগর, জেলা ব্রাম্মন বাড়ীয়া (৩) নয়ন মিয়া,পিতা:মোবারক মিয়া,সাং- নলগড়িয়া,থানা বিয়নগর, জেলা ব্রাম্মন বাড়ীয়া॥আটক মাদক ব্যাবসায়ীদের বিরুদ্ধে ডেমরা থানায় মাদক আইনে মামলা হয়েছে।


ডেমরা থানার মামলা নং-৬ তাং ৫/০১/২০২২ ইং।মামলার এজাহার সুত্রে জানাগেছে ডেমরা থানার সাব-ইন্সপেক্টর রফিকুল ইসলাম এ.এস.আই ফারুক মিয়া সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে মোটর সাইকেলে ডিউটি করার সময় ৫ জানুয়ারী ২০২২ সন্ধ্যা ৭ টার দিকে গোপন সুত্রে জানতে পারেন যে সুলতানা কামাল ব্রীজের পশ্চিম পাশের ঢালে কতিপয় মাদক ব্যাবসায়ী মাদক দ্রব্য বিক্রয়ের জন্য অবস্থান করছে।

সেই মোতাবেক তথ্যানুযায়ী সঙ্গীয় ফোর্সসহ পুলিশ সদস্যরা ঘটনা স্থলে পৌছে পাঁচকেজি গাঁজা সহ উক্ত ব্যাক্তিদের আটক করতে সক্ষম হয়।


আরও খবর



নাসিরনগরে এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত প্রতারক লিটন র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:Thursday ২০ January ২০22 | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১২৯জন দেখেছেন
Image

      

মোঃ আব্দুল হান্নান,নাসিরনগর(ব্রাক্ষণবাড়িয়া),

জেলার নাসিরনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের সাবেক আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল গাফ্ফারের ছেলে,দৈনিক যুগান্তরের নাসিরনগর উপজেলা প্রতিনিধি মনির হোসেনের বড় ভাই এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত প্রতারক লিটনকে তার নিজ বাড়িতে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করে  র‌্যাব জানা।


জানা গেছে  ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের পৈরতলা নিবাসী মৃত ইদন মিযার ছেলে সুমন মিয়ার কাছ থেকে পার্টনারশীপে ব্যবসা করার কথা বলে বø্যাক চেকে স্বাক্ষর করে ২১ লক্ষ টাকা নেয় প্রতারক লিটন। পরে সুমনকে ব্যবসায়িক পার্টনার না দিয়ে সমূদয় অর্থ আত্মসাৎ করেন লিটন। নিরুপায় হয়ে ২০১৯ সালের ২১ নভেম্বর সুমন বাদী হয়ে প্রতারক লিটনকে আসামী করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে নিগোসিয়েশন ইন্সট্রুমেন্ট  এ্যাক্ট ১৩৮ ধারায় মামলা রুজু করে।


আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে দীর্ঘ শুনানির পর ২০২০ সালের ৩ ডিসেম্বর বিজ্ঞ আদালত প্রতারক লিটনের বিরুদ্ধে ২১ লক্ষ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ বছরের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করে। এরপর থেকে প্রতারক লিটন গা ঢাকা দিয়ে থাকে। গত মঙ্গলবার র‌্যাব-১৪ ভৈরব ক্যাম্পের পরিচালকের নেতৃত্বে ২৫ সদস্যের একটি টিম রাত ১২ ঘটিকার সময় প্রতারক লিটনের বাড়ীতে অভিযান পরিচালনা করে তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। পরে বুধবার প্রতারক লিটন আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করে র‌্যাব।

 

জানা গেছে, প্রতারক লিটন সুমন ছাড়াও গুনিয়াউক ইউনিয়নের চিতনা গ্রামের রবিউল, বুড়িশ্বর ইউনিয়নের সেলিম চৌধুরী, গোকর্ণ ইউনিয়নের সন্তোষ সরকার,বুড়িশ্বর ইউনিয়নের বুড়িশ্বর গ্রামের ও সদর ইউনিয়নের দাঁতমন্ডল গ্রামের আরো বেশ কয়েকজনকে পুলিশে ও প্রাইমারী স্কুলে চাকুরী দেওয়ূার নাম করে অনেক টাকা আত্মসাৎ করেছে। এমনটি প্রতারক লিটনের আপন চাচা নাছির মিয়ারও অনেক টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে নাছির মিয়া জানান।


প্রতারক লিটনের সমস্ত অপকর্মের মূলে তার ছোট ভাই যুগান্তরের সাংবাদিক পরিচয়দানকারী মোঃ মনির হোসেন প্রত্যক্ষ পরোক্ষভাবে লিটনকে সহযোগিতা করে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। মামলার বাদী সুমন মিয়া জানান, লিটনের সমস্ত অপকর্মের মূল চালিকা শক্তি তাহার ছোট ভাই  যুগান্তরের সাংবাদিক মনির হোসেন।


বাদী সুমন আরো জানায় সাংবাদিক মনির যুগান্তর পত্রিকার কার্ড ব্যবহার করে লিটনকে দিয়ে প্রতারনা করিয়ে অর্থ আত্মসাৎ করে বিনিময়ে মনির প্রতারক লিটনের  কাছ থেকে অর্থের ভাগ নেয়। বাদী সুমন বিষয়টি  সুবিবেচনা পূর্বক মনিরের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় সুব্যবস্থা গ্রহণ করতে যুগান্তর কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করে। 

 -খবর প্রতিদিন/ সি.বা



আরও খবর



টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত ইউএনওর পরিচয় ও মতবিনিময়

প্রকাশিত:Tuesday ১১ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১০১জন দেখেছেন
Image


মোঃ আবুল হোসেন আকাশ (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি :

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আসলাম হোসাইন ধনবাড়ী প্রেসক্লাব ও উত্তর উত্তর টাঙ্গাইল সাংবাদিক ফোরামের সাংবাদিকদের সাথে পরিচয় ও মতবিনিময়কালে করেছেন। গতকাল সোমবার বিকালে তাঁর কার্যালয়ে এ পরিচয় ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে নবাগত ইউএনওকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।


উত্তর টাঙ্গাইল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক জয়লান আবেদীনের সভাপতিত্বে ধনবাড়ী প্রেসক্লাবের সম্পাদক আনছার আলীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, ধনবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি স. ম. জাহাঙ্গীর আলম, মধুপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান, গোপালপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সন্তোষ কুমার দত্ত ও যুগান্তরের মধুপুর প্রতিনিধ এসএম শহীদ প্রমুখ। এসময় অন্যান্য সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।


এ সময়  ইউএনও বলেন, আপনাদের সহযোগিতা পেলে দুর্নীতিমুক্ত, ইভটিজিং ও বাল্যবিবাহ বন্ধসহ উপজেলার অবকাঠামোগত উন্নয়ন বিষয়ে ইগয়ে যেতে পারবো।


 


আরও খবর



মাদ্রাসাছাত্রকে রুমে ডেকে নিয়ে বলাৎকার

প্রকাশিত:Friday ০৭ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১২৯জন দেখেছেন
Image

ফেনীর দাগনভূঞায় এক মাদ্রাসাছাত্রকে রুমে ডেকে নিয়ে বলাৎকার করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় তিন শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার মাদ্রাসা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে ভুক্তভোগী ওই ছাত্রের মা বাদী হয়ে মাদ্রাসার প্রিন্সিপালসহ চার শিক্ষককে আসামি করে দাগনভূঞা থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ভুক্তভোগী মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র। সে মাদ্রাসার আবাসিকে থেকে পড়ালেখা করত। গত ৩০ ডিসেম্বর বিকেলে হেফজ বিভাগের শিক্ষক মো. কাউসার ওই ছাত্রকে মসজিদে যাওয়ার আগে রুমে যেতে বলে। ছাত্রটি যখন তার কক্ষে আসে তখন তাকে মাদ্রাসার টয়লেটে নিয়ে বলাৎকার করে।

পরবর্তীতে ছাত্র বিষয়টি তার পরিবারকে জানালে ছাত্রের অভিভাবকেরা মাদ্রাসার প্রিন্সিপালকে জানায়। কিন্তু তারা কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় বৃহস্পতিবার ওই ভুক্তভোগী ছাত্রের মা বাদী হয়ে দাগনভূঞা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি মো. কাউসার ছাড়া অপর তিন আসামিকে মাদ্রাসা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আসামিরা হলেন- মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল আব্দুস সত্তার (৪০), শিক্ষক জাকিরুল ইসলাম (৩৯) ও শিক্ষক আফতাব উদ্দিন (৪০)।

দাগনভূঞা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) পার্থ প্রতিম দেব গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘গ্রেপ্তার আসামিদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’


আরও খবর