Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদন শুরু ১৫ জুন

প্রকাশিত:Monday ০৬ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৭৯জন দেখেছেন
Image

গুচ্ছভুক্ত ২২ বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের (প্রথম বর্ষে) ভর্তির আবেদন আগামী ১৫ জুন থেকে শুরু হবে। ২৫ জুন পর্যন্ত চলবে এ আবেদন প্রক্রিয়া। তবে চলতি শিক্ষাবর্ষের ভর্তি আবেদনে নির্দিষ্ট তারিখ শেষে আর অতিরিক্ত সময় বাড়ানো হবে না।

রোববার (৫ জুন) গুচ্ছভুক্তবিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্যদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সভাশেষে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইমদাদুল হক এই তথ্য জানান।

আবেদন সম্পন্ন হওয়ার পর আগামী ৩০ জুলাই থেকে এসব বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। ৩০ জুলাই ‘ক’ ইউনিট, ১৩ আগস্ট ‘খ’ ইউনিট এবং ২০ আগস্ট ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতা হত্যায় ১১ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ১৩জন দেখেছেন
Image

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় যুবলীগ নেতা রিয়াজ উদ্দিন দুলাল হত্যা মামলায় ১১ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের তারাটি গ্রামের নাজিরুল হক, হুমায়ুন, শান্ত, বিল্লাল, মোফাজ্জল, শাহিন, সেলিম, আবুল কাশেম, আনোয়ার, শাহীন, কামাল।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক সাবরিনা আলী এ রায় দেন।

আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) সঞ্জীব কুমার সরকার জানান, ওই মামলায় ১৩ আসামির মধ্যে দুজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে। বাকি ১১ আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেওয়া হয়।

তিনি আরও জানান, ২০১১ সালের ২ জুন জেলার তারাকান্দায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১৮ নম্বর রামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিলেন রিয়াজ উদ্দিন দুলাল। নির্বাচনে তিনি হেরে যান। তার এ পরাজয়ের জন্য ওই সময়ই বিএনপির ডামি প্রার্থী নাজিরুল হক তালুকদারকে দায়ী করেন। এসব নিয়ে দ্বন্দ্বে ওই মাসের ১৬ জুন রাতে তারাকান্দার কাশিগঞ্জ বাজার থেকে তারাটি নিজ গ্রামে যাওয়ার পথে আসামিরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। পরে স্থানীয়রা রিয়াজ উদ্দিন দুলালকে গুরুতর আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২২ জুন মারা যান তিনি।

ঘটনার পরদিন নিহতের ছোট ভাই মোফাজ্জল হোসেন বাদী হয়ে নাজিরুল হক তালুকদারসহ ১১ জনের নামে একটি হত্যা মামলা করেন। পরে পুলিশ ওই মামলায় তদন্ত শেষে ১৩ জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ও মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে ১১ জনকে যাবজ্জীবন ও দুইজনকে খালাস দেন আদালত।


আরও খবর



লক্ষ্মীপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে বৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

লক্ষ্মীপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মো. হোসেন আহমেদ (৫৫) নামের এক বৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও চারজন।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরে সদর উপজেলার দিঘলী ইউনিয়নের উত্তর রমাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। আটকরা হলেন- জাহানারা বেগম, আব্দুর রহিম ও মেহেদি হাসান বাবুল।

নিহত হোসেন উত্তর রমাপুর গ্রামের মৃত আলী আহমেদের ছেলে। আহতরা হলেন- আমির হোসেন (৫০), তার ছেলে আকরাম হোসেন (১৯), নাজমুল ইসলাম (১৫), মনির আহমেদের ছেলে কামরুল হোসেন (২৩)।

jagonews24

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উত্তর রমাপুর গ্রামের আব্দুস সাত্তার মাস্টারের পরিবারের সঙ্গে ইউনুস মাস্টারের জমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। সকালে ইউনুসের ছেলে সাইফুর রহমান দুলাল, সাইদুর রহমান মিলন ও লিটন ভাড়াটে লোকজন নিয়ে বিরোধীয় জমিতে ঘর নির্মাণ করতে যান। এতে বাধা দিলে তারা সাত্তারের মেয়ে জামাই হোসেন আহমেদসহ আহতদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে আনার পথে হোসেন আহমেদ মারা যান। আহত আমির, আকরাম, নাজমুল ও কামরুলকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তাদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এদিকে ঘটনার পর থেকেই হামলাকারীরা পলাতক। এ জন্য কারো বক্তব্য নেওয়া যায়নি।

সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক শামিম মোহাম্মদ আফজাল বলেন, নিহতের গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। আহতদের হাত-পা, মাথা ও পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে ধারালো অস্ত্রে আঘাত রয়েছে। তাদের এখানে রেখে চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব নয়।

লক্ষ্মীপুর শহর পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (তদন্ত) জহিরুল আলম বলেন, হামলার ঘটনায় একজন মারা গেছেন। আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পাঠানো হয়েছে৷

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) পলাশ কান্তি নাথ বলেন, ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনাটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।


আরও খবর



যুদ্ধের মধ্যে ইউক্রেনের রাজধানীতে বিয়ে বেড়েছে ৮ গুণ

প্রকাশিত:Thursday ২৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৩৬জন দেখেছেন
Image

রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে চলছে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ। এরই মধ্যে লাখ লাখ ইউক্রেনীয় দেশ ছেড়ে পালিয়েছে। প্রতিনিয়তই হতাহতের ঘটনা ঘটছে। রাশিয়ার ধারাবাহিক হামলায় বিধ্বস্ত হচ্ছে ইউক্রেনীয়দের বাড়ি-ঘর। এমন পরিস্থিতিতেই এল এল ভিন্ন খবর। যুদ্ধ চলার মধ্যেই ইউক্রেনজুড়ে বিয়ের সংখ্যা বেড়েছে। কেবল রাজধানীতেই বিয়ে বেড়েছে আট গুণ বেশি। খবর এনডিটিভির।

জানা গেছে, গত পাঁচ মাসে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির রাজধানীতে নয় হাজার ১২০টি বিয়ের নিবন্ধন হয়েছে। ২০২১ সালের একই সময়ে এ সংখ্যা ছিল এক হাজার একশ ১০টি। সে হিসেবে বিয়ের সংখ্যা আট গুণ বেড়েছে।

যুদ্ধে যাওয়ার আগমুহূর্তে পুরোপুরি সেনা পোশাকে ২২ বছর বয়সী আনাস্তাসিয়ার সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে যাচ্ছিলেন ২৫ বছর বয়সী ভিতালি চার্নিখ। তিনি বলেন, যুদ্ধের সময় বিয়ে করা একটি সাহসী ও কঠিন সিদ্ধান্ত। কারণ কেউ জানে না পরবর্তীতে কী হতে যাচ্ছে। যেকোনো মুহূর্তে যুদ্ধক্ষেত্রে যাওয়ার কথাও জানান তিনি।

ইউক্রেনে বিয়ে করতে আইনি জটিলতায় পড়তে হচ্ছে না। প্রথমে নিবন্ধন না করে যেকেউ তাৎক্ষণিক বিয়ে করতে পারে। আর এ সুবিধাই নিচ্ছেন দম্পতিরা।

১৯৪২ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ যখন চূড়ায় গিয়ে ঠেকেছে, তখন যুক্তরাষ্ট্রে ১২ মাসে ১৮ লাখ বিয়ে হয়। এই সংখ্যা এক দশক আগের চেয়ে ৮৩ শতাংশ বেশি।


আরও খবর



শেখ কামাল আমাদের হৃদয়ে চিরজাগরূক হয়ে থাকবেন: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:Friday ০৫ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ১৩জন দেখেছেন
Image

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ শেখ কামাল তার স্বল্পসময়ের কর্মের মাধ্যমে আমাদের হৃদয়ে চিরজাগরূক হয়ে থাকবেন।

বঙ্গবন্ধুর বড় ছেলে শহীদ শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শুক্রবার (৫ আগস্ট) টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘শহীদ শেখ কামালকে দুষ্কৃতিকারীরা হত্যা করলেও তার স্বল্প বয়সের কর্মের মাধ্যমেই যুগ যুগ ধরে, যতদিন বাংলাদেশ থাকবে ততদিন তিনি আমাদের মধ্যে জাগরূক থাকবেন। এ অল্প বয়সের মধ্যেই যে প্রতিভা ও সাংগঠনিক দক্ষতার স্বাক্ষর তিনি রেখেছিলেন, তাতে আমি মনেকরি, তিনি বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ আরও অনেক উপকৃত হতো।’

দেশের সংস্কৃতি ও ক্রীড়াঙ্গনকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে, সর্বোপরি বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষেত্রে শহীদ শেখ কামাল বিরাট ভূমিকা রাখতে পারতেন। আমরা তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি।

এসময় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন বলেন, ছাত্রাবস্থায় ৬ দফা প্রচারে নেতৃত্ব দিয়েছেন এবং স্বাধীনতার পর সংস্কৃতি ও ক্রীড়া অঙ্গনকে গড়ে তুলেছেন।

এরপর টুঙ্গিপাড়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে দিনটি উপলক্ষে প্রান্তিক চাষিদের মধ্যে বীজ বিতরণ করেন তথ্যমন্ত্রী। এসময় কেন্দ্রীয়, গোপালগঞ্জ জেলা ও টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে শহীদ শেখ কামালের ৭৩তম জন্মদিন উপলক্ষে ড. হাছান মাহমুদ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধে এবং এর পূর্বে ঢাকায় আবাহনী মাঠে দলীয়ভাবে শহীদ শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মন্ত্রী।


আরও খবর



এক পায়ে লিখে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার স্বপ্ন পূরণ তামান্নার

প্রকাশিত:Friday ০৫ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
Image

এক পা দিয়ে লিখে বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন তামান্না আক্তার নুরা এবার গুচ্ছভুক্ত ২২ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ‘ক’ ইউনিটে উত্তীর্ণ হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি ওয়েবসাইটে গুচ্ছের ‘ক’ ইউনিটের ফল প্রকাশিত হয়। এবারের পরীক্ষায় পাসের হার ৫৫ দশমিক ৬৩ শতাংশ। এর মধ্যে প্রকাশিত ফলাফলে তামান্নার নম্বর এসেছে ৪৮.২৫। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তামান্না আক্তার নুরা নিজেই।

৩০ জুলাই যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের কেন্দ্রীয় গ্যালারিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেন তামান্না। তিনি যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া আলীপুরের রওশন আলী ও খাদিজা পারভীন শিল্পী দম্পতির সন্তান।

অদম্য এ তরুণী শুধুমাত্র একটি পা দিয়ে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে সবকটি পাবলিক পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়ে চমক দেখিয়েছিলেন। তার এ সাফল্যে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার বোন শেখ রেহেনা খোঁজ নেন। একইসঙ্গে তারা দুই বোন তামান্নার স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে আসেন। তার চিকিৎসার যাবতীয় ব্যবস্থাও করেন বঙ্গবন্ধুর এ দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহেনা।

এদিকে, মেধাতালিকায় প্রাথমিকভাবে উত্তীর্ণ হয়ে উচ্ছ্বসিত তামান্না। তিনি বলেন, ‘প্রাথমিক রেজাল্টে খুশি লাগছে। মার্কসও ভালো। আশা করি যে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাবো। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার ইচ্ছা থাকলেও অন্য ভাই-বোনদের খরচ চালিয়ে বাবার পক্ষে আমাকে পড়ানো কঠিন হয়ে পড়বে। তাই যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (যবিপ্রবি) পড়ার ইচ্ছা।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার যে মার্কস এসেছে তা দিয়ে যবিপ্রবিতে মাইক্রোবায়োলজি অনুষদভুক্ত চয়েজ দিতে পারবো।’

তামান্নার বাবা রওশন আলী বলেন, ‘মেয়ের স্বপ্ন গবেষণাধর্মী কোনো বিষয়ে পড়াশোনা করে বিসিএস দিয়ে সরকারি চাকরি নেওয়ার। স্বপ্ন পূরণে কয়েক মাস আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছিল। দুর্ভাগ্যবশত সেখানে তার সুযোগ হয়নি। যবিপ্রবিতে সে বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষায়  অংশ নেয়। সেই রেজাল্টে উত্তীর্ণ হয়েছে। আশা করি স্বপ্ন পূরণে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাবে সে। তবে যবিপ্রবিতে হলে তামান্না আর আমার পরিবারের জন্য ভালো। কেন না বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাব ও ব্যবহারিকের জন্য বিভিন্ন ভবনে যাওয়া-আসা করা লাগতে পারে তার। অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে লিফট নাই। যবিপ্রবিতে আছে। সেটা তামান্নার পড়াশোনার ক্ষেত্রে ভালো ভূমিকা রাখবে।


আরও খবর