Logo
আজঃ Monday ০৮ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড নিখোঁজ সংবাদ প্রধানমন্ত্রীর এপিএসের আত্মীয় পরিচয়ে বদলীর নামে ঘুষ বানিজ্য

গরুর মাংসের আচার তৈরির রেসিপি

প্রকাশিত:Thursday ০৪ August ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
Image

গরুর মাংসের বাহারি পদ কমবেশি সবাই খেয়ে থাকেন। তবে গরুর মাংসের জিভে জল আনা আচার হয়তো অনেকেই খাননি। চাইলেই কিন্তু তারা ঘরেই খুব সহজে এই পদ তৈরি করে দীর্ঘদিন খেতে পারেন।

একবার তৈরি করে এই আচার অন্তত ৬ মাস সংরক্ষণ করে খাওয়া যায়। জেনে নিন গরুর মাংসের আচার তৈরির রেসিপি-

উপকরণ

১. পাঁচ ফোড়ন ১ চা চামচ
২. শুকনো লাল মরিচ ৩/৪টি
৩. আস্ত ধনিয়া ১ চা চামচ
৪. গরুর মাংস ১ কেজি হাড়-চর্বি ছাড়া
৫. মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ
৬. হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ
৭. গরম মসলার গুঁড়া আধা চা চামচ
৮. ভাজা জিরার গুড়া আধা চা চামচ
৯. ধনিয়ার গুঁড়া আধা চা চামচ
১০. আদা বাটা ১ চা চামচ
১১. রসুন বাটা ১ চা চামচ
১২. লবণ সামান্য
১৩. সরিষার তেল ১ টেবিল চামচ
১৪. পানি পরিমাণেমতো
১৫. লেবুর রস ১টি
১৬. চিনি ১ চা চামচ
১৭. দারুচিনি ২/৩ টুকরো
১৭. শুকনো লাল মরিচ ২/৩টি
১৮. আস্ত রসুনের কোয়া আধা কাপ
১৯. রসুন বাটা ১চা চামুচ।
২০. সাদা সরিষা বাটা ১ টেবিল চামচ
২১. মরিচের গুঁড়া আধা চা চামচ
২২. হলুদের গুঁড়া আধা চা চামচ
২৩. ভাজা জিরার গুড়া আধা চা চামচ
২৪. তেতুলের ক্বাথ ২ টেবিল চামচ
২৫. সেদ্ধ মাংস
২৬. আচারের মসলা-আগে থেকে করে রাখা ও
২৭. বিট লবণ আধা চা চামচ।

পদ্ধতি

প্রথমে আচারের মসলা তৈরির জন্য ১-৩ নম্বরের সবগুলো উপকরণ হালকা টেলে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর মাংস ছোট ছোট কিউব করে কেটে ধুয়ে পানি ঝড়িয়ে নিতে হবে।

প্যানের মধ্যে মাংস দিয়ে সঙ্গে ৫-১৪ নম্বরের সবগুলো উপকরণ একে একে মিশিয়ে দিতে হবে। চুলায় দিয়ে অল্প আঁচে মাংস ঢেকে সেদ্ধ করে নিতে হবে। মাঝে মাঝে ঢাকনা সরিয়ে নেড়ে দিন। মাংস সেদ্ধ হয়ে পানি শুকিয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে নিতে হবে।

তারপর চুলায় প্যান বসিয়ে তাতে সরিষার তেল দিতে হবে এক কাপ। তেল হালকা গরম হলে দারুচিনি, আস্ত রসুনের কোয়া আর শুকনো মরিচ ভেজে নিন। এর মধ্যে সেদ্ধ করা মাংস ঢেলে দিন। তারপর একে একে ২০-২৭ নম্বরের সবগুলো উপকরণ পরিমাণমতো দিয়ে দিন।

অল্প আঁচে এভাবে রান্না করুন। কিছুক্ষণ পর দেখবেন মাংসের রং কালচে হয়ে এসেছে। তখনই দিয়ে দিন একটি লেবুর রস। এর সঙ্গে ১ চা চামচ চিনিও মিশিয়ে দিন। ২/১ বার নেড়েই চুলা থেকে নামিয়ে নিতে হবে।

তেলের নিচে ডুবে থাকলে এই আচার একদমই নষ্ট হবে না। মাঝে মধ্যে রোদে দিলেই অনেক দিন ভালো থাকবে। পরিষ্কার শুকনো কাচের এয়ার টাইট পাত্রে ৬ মাস পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যাবে মাংসের আচার।

রেসিপি ও ছবি: ঝুমুর’স কিচেন


আরও খবর



ময়মনসিংহ বিভাগের সদরদপ্তর স্থাপনে ১২২৪ কোটি টাকা অনুমোদন

প্রকাশিত:Tuesday ০২ August 2০২2 | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ২১জন দেখেছেন
Image

নবগঠিত ময়মনসিংহ বিভাগের বিভাগীয় সদরদপ্তর স্থাপনে প্রস্তাবিত ভূমির অধিগ্রহণ, ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া ও পুনর্বাসনের জন্য ১ হাজার ২২৪ কোটি ৮১ লাখ টাকা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) রাজধানীর শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এ সভায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি সভাপতিত্বে করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা। এতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য ও সচিবরা অংশ নেন। সভা শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম।

এ সময় পরিকল্পনা সচিব মামুন-আল রশীদ, ভৌত অবকাঠামো বিভাগের সদস্য সত্যজিৎ কর্মকার, তথ্য ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিন এবং আইএমইডির সচিব আবু হেনা মোরশেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ব্রিফংয়ে জানানো হয়, নবগঠিত ময়মনসিংহ বিভাগের বিভাগীয় সদরদপ্তর স্থাপনে প্রস্তাবিত ভূমির অধিগ্রহণ, ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া ও পুনর্বাসন এবং আধুনিকায়নের জন্য ১ হাজার ২২৪ কোটি ৮১ লাখ টাকা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এটাসহ একনেক সভায় মোট সাত প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সাত প্রকল্পের মোট ব্যয় ২ হাজার ৭ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। এর মধ্যে বৈদেশিক ঋণ ১২২ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। বাকি টাকার মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ১ হাজার ৮৩১ কোটি ৪০ লাখ টাকা, বাস্তবায়নকারী সংস্থা থেকে ৫৩ কোটি ৪১ লাখ টাকা এবং বৈদেশিক ঋণ সহায়তা থেকে ১২২ কোটি ৭৬ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে।

অঞ্চলভিত্তিক জলবায়ু সহনশীল জাত উদ্ভাবন ও ফসলের উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি করতে বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) উন্নত গ্রিনহাউজ স্থাপন করবে। এছাড়া বিনার প্রধান কার্যালয়ের গবেষণাগারগুলোতে আধুনিক যন্ত্রপাতি সংযোজনসহ র্যাপিড জেনারেশন অ্যাডভান্স টেকনোলজি স্থাপন করা হবে। এজন্য বিনার গবেষণা কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। জানুয়ারি ২০২২ থেকে ডিসেম্বর ২০২৬ মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

প্রকল্প এলাকা:
বিনার ১৫টি কেন্দ্রের মাধ্যমে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

প্রধান কার্যক্রমগুলো:
বিনার প্রধান কার্যালয়ে ৫০০ বর্গমিটার জেনারেশন অ্যাডভান্স টেকনোলজি স্থাপন, ২১০ বর্গমিটার রেইন আউট শেল্টার, ৫০ বর্গমিটার গ্রোথ চেম্বারসহ প্রয়োজনীয় গবেষণা অবকাঠামো নির্মাণ। মাঠ ও উদ্যানতাত্ত্বিক ফসলের ২৫টি উচ্চফলনশীল জাত এবং ১৫টি প্রযুক্তি উদ্ভাবন করা। দেশের বিভিন্ন কৃষি অঞ্চলে ১৪টি ‘বিনা কৃষি ভিলেজ’ স্থাপন। কৃষকপর্যায়ে ৩৫০০ টন প্রজনন ও মানসম্মত বীজ উৎপাদন, ক্রয়, সংরক্ষণ ও বিতরণ। মাঠপর্যায়ে ৭৪২টি এডাপটিভ ট্রায়াল এবং জাত/প্রযুক্তি বিস্তারে ২৫ হাজার প্রদর্শনী স্থাপন করা হবে।

এছাড়া ৩৫০টি জার্মপ্লাজম সংরক্ষণ, মূল্যায়ন, বৈশিষ্ট্যায়ন ও ব্যবহার করে জাত উদ্ভাবন। ১৪৮টি খামার যন্ত্রপাতি, ৪৩২টি গবেষণা যন্ত্রপাতি, ৪০টি তথ্য ও টেলিযোগাযোগ যন্ত্রপাতি, ১৩০টি কম্পিউটার ও আনুষঙ্গিক যন্ত্রপাতি, ৩৬টি অফিস সরঞ্জাম, ৬২টি বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম, ৫২১টি আসবাবপত্র, দুটি পিকআপ ও ৮টি মোটরসাইকেল কেনা হবে। ১৫ জন বিজ্ঞানীর দেশের অভ্যন্তরে উচ্চশিক্ষা (পিএইচডি), ৬০ জন বিজ্ঞানীর বৈদেশিক প্রশিক্ষণ, ১৫০ জন বিজ্ঞানী ও ২৮০ জন কর্মকর্তার স্থানীয় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে। মাঠপর্যায়ের ২ হাজার জন কৃষি কর্মকর্তা, ১ হাজার ৫০০ জন উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা এবং ১৫ হাজার কৃষককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

দেশের সাতটি সিটি করপোরেশন ও ৩৭টি জেলা পর্যায়ে প্রথম শ্রেণির পৌরসভায় আধুনিক যন্ত্রপাতি বিশেষত ৮১টি হুইল লোডার, ২৪টি ব্যাকহো লোডার এবং ৬৪টি এসফল্ট রোলার কেনা হবে। এতে মোট ব্যয় হবে ১৫০ কোটি ৬২ লাখ টাকা। ‘প্রকিউরমেন্ট অব মেশিনারিজ অ্যান্ড ইক্যুইপমেন্ট ফ্রম বেলারুশ ফর সিলেকটেড মিউনিসিপলিটিস’জুলাই ২০২২ হতে জুন ২০২৩ মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। মঙ্গলবার প্রকল্পটি একনেক সভায় অনুমোদন দেওয়া হয়।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য:
যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম সংগ্রহের মাধ্যমে দেশের সাতটি সিটি করপোরেশন ও ৩৭টি জেলা পর্যায়ে প্রথম শ্রেণির পৌরসভাসমূহের উন্নয়ন কার্যক্রমের সক্ষমতা বাড়ানো, সিটি করপোরেশন ও পৌরসভাসমূহের টেকনিশিয়ান ও চালকদের যথাযথ প্রশিক্ষণ দেওয়া, মেশিনারিজ এবং ইক্যুইপমেন্ট সংগ্রহের মাধ্যমে সিটি করপোরেশন ও পৌরসভাসমূহের বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় দক্ষতা বাড়ানো, সিটি করপোরেশন ও পৌরসভাসমূহের ড্রেন মানসম্মতভাবে পরিষ্কার রাখা এবং রাস্তা বা কালভার্ট যান চলাচলের উপযোগীকরণের মাধ্যমে নাগরিক সেবা বাড়ানো।

অন্যান্য প্রকল্পগুলো হচ্ছে— কক্সবাজার জেলার বাংলাদেশ-মিয়ানমারে সীমান্ত নিরাপত্তা উন্নত করার জন্য উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলায় নাফ নদী বরাবর পোল্ডারগুলোর (৬৭/এ, ৬৭, ৬৭বি এবং ৬৮) পুনর্বাসন প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ২২৭ কোটি টাকা। উত্তরা লেক উন্নয়ন প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৩ কোটি ৪১ লাখ টাকা। ঢাকা কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্র সম্প্রসারণ ও আধুনিকীকরণ প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ১৬২ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। কারা প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, রাজশাহী প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ২৫ কোটি ৩৬ লাখ টাকা।

এছাড়া ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় টেলিটকের নেটওয়ার্ক বাণিজ্যিকভাবে ফাইভ-জি প্রযুক্তি চালুকরণ প্রকল্প ২৩৬ কোটি ৫৪ লাখ টাকা ব্যয়ের প্রস্তাব একনেক সভায় উপস্থাপন করা হলে ডলার সাশ্রয়ে আপাতত তা স্থগিত করা হয়েছে।


আরও খবর



দুই যুগের আক্ষেপ ঘোচানো হলো না দক্ষিণ আফ্রিকার

প্রকাশিত:Monday ২৫ July ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ০৮ August ২০২২ | ১৬জন দেখেছেন
Image

সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতে আশা জাগিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু বৃষ্টিবিঘ্নিত দ্বিতীয় ম্যাচে পাত্তাই পায়নি তারা। ফলে রোববার শেষ ম্যাচটি হয়ে যায় সিরিজ নির্ধারণী। যেখানে জয় পেলে দীর্ঘ ২৪ বছর পর ইংল্যান্ডের মাটিতে সিরিজ জয়ের স্বাদ পেতো প্রোটিয়ারা।

কিন্তু তাদের এই স্বপ্নে বাগড়া দিলো বৃষ্টি। প্রকৃতির কাছে হার মেনে ম্যাচটি শেষ হয়ে গেছে অমীমাংসিত অবস্থায়। ফলে ১-১ ব্যবধানে ড্র হয়েছে সিরিজ। শিরোপা ভাগাভাগি করেছে দুই দল। অথচ বৃষ্টিতে খেলা পরিত্যক্ত হওয়ার আগে বেশ ভালো অবস্থানে ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা।

হেডিংলিতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ২৭.৪ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান করেছিল সফরকারীরা। জানেমান মালান ১১ ও রসি ফন ডার ডুসেন ২৬ রান করে আউট হন। সেঞ্চুরির আশা জাগিয়ে মাত্র ৭৬ বলে ৯২ রানে অপরাজিত ছিলেন কুইন্টন ডি কক। এইডেন মারক্রাম করেন ২৪ রান।

এরপর বৃষ্টির কারণে আর খেলা সম্ভব হয়নি। সবশেষ ১৯৯৮ সালে ইংল্যান্ডের মাটি থেকে সিরিজ জিতেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর খেলা চার সিরিজে দুইটিতে হেরেছে তারা। আর এবারের সিরিজটিসহ ড্র হলো বাকি দুইটি।


আরও খবর



আজকের কৌতুক: সদা সত্য বললেই বিপদ

প্রকাশিত:Thursday ২৮ July ২০২২ | হালনাগাদ:Saturday ০৬ August ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

আজকের কৌতুক: সদা সত্য বললেই বিপদ
চাকরির ইন্টারভিউ দিতে গেছে এক যুবক। প্রশ্নকর্তা তার কাছে জানতে চাইলেন-
প্রশ্নকর্তা: কখন বুঝবেন, আপনার ইনসমনিয়া (ঘুম না-আসা রোগ) গুরুতর হয়ে উঠেছে?
উত্তরদাতা: যখন অফিসের মিটিংয়ে বসেও আপনার ঘুম পাবে না!

****

ঘুমপাড়ানি গান শুনে প্রতিবেশীর অবস্থা
স্ত্রী রাত করে অফিস থেকে ফিরে দেখলেন বাচ্চা কান্নাকাটি করছে। পাশে তার বাবা হতবুদ্ধি অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে। তার হাতে বাবুর অনেকগুলো খেলনা। এটা দেখে স্ত্রী বিরক্ত হয়ে বললেন-
স্ত্রী: এত সার্কাস না করে বাচ্চাকে ঘুমপাড়ানি গান শোনালেই তো পারতে! জান না, ওই গান শুনলে সে ঘুমিয়ে পড়ে!
স্বামী: সেই চেষ্টাও করেছি। কিন্তু তাতে বাচ্চার চোখে ঘুম তো এলোই না, উল্টা পাশের ফ্ল্যাটের ভাবি এসে বলে গেলেন, ‘এর চেয়ে বাচ্চাকে কাঁদতে দিন’। আপনার গানের চেয়ে ওর কান্না বেশি সুরেলা।

****

বিশাল মূল্য ছাড়
এক লোকের স্ত্রী বেড়াতে এসে এক জায়গায় একটা সাইনবোর্ড দেখল। তাতে লেখা, ‘বিশাল মূল্য ছাড়। সিল্কের শাড়ি ১০ টাকা, জামদানি ৮ টাকা ও সুতি শাড়ি ৫ টাকা।’ এটা দেখে সে তার স্বামীকে বললো—
স্ত্রী: দেখো, কী বিশাল ডিসকাউন্ট, অবিশ্বাস্য। এখনই আমাকে ৩০০ টাকা দাও। ইচ্ছেমতো শাড়ি কিনে আনি।
স্বামী: এতো উত্তেজিত হওয়ার কিছু নেই। ওটা লন্ড্রির দোকান।


আরও খবর



উচ্চতায় বুর্জ খলিফাকে হার মানাবে ‘স্কাই মাইল টাওয়ার’

প্রকাশিত:Friday ২২ July 20২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ৩১জন দেখেছেন
Image

যদি বলা হয়, বিশ্বের উচ্চতম স্থাপনা কী? চোখ বুঝেই বলা যায়, দুবাইয়ের বুর্জ খলিফা অথবা চীনের সাংহাই টাওয়ার। তবে এবার মনে হয়, সেই দিন ফুরাতে চলেছে। কারণ জাপান এমন একটি টাওয়ার নির্মাণ করতে যাচ্ছে যা হবে বিশ্বের সবচেয়ে উচ্চতম ভবন।

এই টাওয়ারের নাম করা হয়েছে ‘স্কাই মাইল টাওয়ার’। এর উচ্চতা ১ হাজার ৭০০ মিটার (৫ পাঁচ হাজার ৫৭৭ ফুট)। উচ্চতার নিরিখে বুর্জ খলিফাকেও পার করবে স্কাই মাইল। কারণ বুর্জ খলিফার উচ্চতা ২ হাজার ৭১৭ ফুট।

Sky-Mile-Tower

এই টাওয়ার নির্মাণ হবে জাপানের রাজধানী টোকিওতে। বিশ্বের অন্যতম স্থাপত্য নির্মাণ সংস্থা কোহন পেডেরসেন ফক্স অ্যাসোসিয়েটস এই টাওয়ার তৈরি করবে।

টাওয়ারের ইঞ্জিনিয়ার লেসলি ই রবার্টসন। এর আগেও বহু বিখ্যাত ইমারত নির্মাণের সঙ্গে তার নাম রয়েছে। হংকংয়ের ব্যাঙ্ক অব চায়না টাওয়ার থেকে শুরু করে সাংহাই ওয়ার্ল্ড ফিন্যান্সিয়াল সেন্টার, কুয়ালালামপুরের পিএনবি ১১৮ এগুলো রবার্টসনের পরিকল্পনায় হয়েছে।

তবে এই টাওয়ার নির্মাণের জন্য কোনো জমি খুঁজে পাওয়া যায়নি টোকিওতে। তাই দেশটির সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সমুদ্রে কৃত্রিম দ্বীপপুঞ্জ তৈরি করে তার ঠিক মাঝখানে এই টাওয়ারটি বানানো হবে।

Sky-Mile-Tower

এই দ্বীপপুঞ্জে পাঁচ লাখ মানুষ থাকতে পারবে বলে জানানো হয়েছে। আর টাওয়ারে রেস্তরাঁ থেকে শুরু করে জিম, শপিং মল, হাসপাতাল, হোটেল, লাইব্রেরির ব্যবস্থাও থাকবে।

তবে সমুদ্রের মাঝে এত উঁচু টাওয়ার তৈরি করতে অনেক সমস্যার মুখে পড়তে হবে। আর সে সব সমস্যা মোকাবিলায় পরিকল্পনাও করা হয়েছে।

উচ্চতা বেশি হওয়ায় ঝোড়ো হাওয়ার হাত থেকে বাঁচতে টাওয়ারটি বানানো হবে ষড়ভুজ আকারে।

Sky-Mile-Tower

তবে বড় সমস্যা যেটা, সেটা হলো এতো ওপরে পানি পৌঁছনো। এজন্য টাওয়ারের ভেতরে পানি রাখার বিশেষ ব্যবস্থা করে রেখেছেন রবার্টসন।

পরিকল্পনা মাফিক ২০৩০ সাল থেকে শুরু হবে এর নির্মাণকার্য। ২০৪৫ সালের মধ্যে শেষ করার পরিকল্পনা রয়েছে। ফলে সে পর্যন্ত বুর্জ খলিফাই বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবন হিসেবে থেকে যাবে।


আরও খবর



বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ২০ টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব

প্রকাশিত:Sunday ০৭ August ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ০৭ August ২০২২ | জন দেখেছেন
Image

ডলারের মূল্যবৃদ্ধি পাওয়ায় দাম সমন্বয়ের জন্য বোতলজাত ভোজ্যতেলের দাম প্রতি লিটারে ২০ টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন।

জানা গেছে, গত ৩ আগস্ট বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশনকে (বিটিটিসি) দেওয়া এক চিঠিতে লিটারপ্রতি ২০ টাকা বাড়িয়ে সয়াবিন তেলের দাম ১৮৫ টাকা থেকে ২০৫ টাকা করার কথা বলা হয়েছে। এছাড়া খোলা সয়াবিন তেল ১৬৬ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৮০এবং পাঁচ লিটারের বোতল ৯১০ থেকে ৯৬০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

বিস্তারিত আসছে....


আরও খবর