Logo
আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪
শিরোনাম

গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক ফুটবল টুর্নামেন্ট- ২০২৪ এর শুভ উদ্বোধন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ২৮৫জন দেখেছেন

Image

মুশফিকুর রহমানঃ 

রুপগঞ্জ উপজেলা কায়েত পাড়া ইউনিয়নের পূর্ব গ্রাম স্পোর্টস এন্ড ইয়থস ওয়েলফেয়ার ক্লাবের উদ্যোগে গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক) ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২৪ (সিজন-৫) এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার ২৪ মে বিকাল ৪ ঘটিকায় পূর্ব গ্রাম বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক স্বর্ণপদক প্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ নুরুজ্জামান খান।  সভাপতিত্ব করেন কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান, পূর্ব গ্রাম স্পোর্টস এন্ড ইয়থস ওয়েলফেয়ার ক্লাবের সভাপতি এবং কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ মোঃ জাহেদ আলী। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন মোহাম্মদ সাইদুর রহমান, মোহাম্মদ আনিস খান, মোঃ আসলাম হোসেন।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ কর্নেল কামরুজ্জামান খান, সরকারি চৌমুহনী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ শহিদুল্লাহ ভূঁইয়া, স্কয়ার হসপিটাল লিমিটেডের কনসালটেন্ট মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক মোঃ সাজ্জাদ হোসেন তুহিন, সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ নিউরোলজি প্রফেসর ডাক্তার রাশেদুন নবী খান সোহেল, কায়েত পাড়া ইউনিয়ন ৭ নং ওয়ার্ডের সদস্য প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন, ডিএসসিসির ৬৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ মাহমুদুল হাসান পলিন,পূর্ব গ্রাম স্পোর্টস এন্ড ইয়থস ওয়েলফেয়ার ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কে.এম ওবায়দুল্লাহ খান রাকিব।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি সার্বিক পরিচালনায় ছিলেন, সংগঠনের ক্রীড়া সম্পাদক আলমগীর হোসেন, সহ-ক্রীড়া সম্পাদক মোঃ শরিফুল ইসলাম (শাকিল সওদাগর)। উক্ত ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে আশেপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার লোক উপস্থিত হন। 


টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিনে সারুলিয়া স্পোর্টিং ক্লাব এবং পূর্বগ্রাম স্পোর্টস এন্ড ইয়থস ক্লাব এর মধ্য  দিয়ে প্রথম ম্যাচ আয়োজন করা হয়। খেলার প্রথমার্ধে ১-১ গোলে ম্যাচে সমতা বজায় থাকে, দ্বিতীয়র্ধ্বে ৬৫ মিনিটের সময় সারুলিয়া স্পোটিং ক্লাবের ৭ নং জার্সি পরিহিত খেলোয়াড়ের দেওয়া গোলে বিজয় সুনিশ্চিত হয়। খেলায় ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন সাব্বির আহমেদ। 

ডিএসসিসির ৬৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান পলিন সারুলিয়া স্পোর্টিং ক্লাব বিজয়ী হওয়ায় সকল খেলোয়াড় এবং আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান।


আরও খবর



রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২০

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | ১৪১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে ২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

রোববার (১৯ মে) সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদকসহ তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। ডিএমপি সূত্রে জানা যায়, গ্রেপ্তারের পাশাপাশি তাদের হেফাজত থেকে ৩৭৩ পিস ইয়াবা, ২ গ্রাম হেরোইন ও ১২ কেজি ৩০ গ্রাম গাঁজা জব্দ করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ১৪টি মামলা করা হয়েছে।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




সৈয়দপুরে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ,থানায় অভিযোগ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ মে 20২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | ১১৮জন দেখেছেন

Image
সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:বাড়িতে একা পেয়ে সৈয়দপুরের এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে । ধর্ষণের শিকার ওই কলেজছাত্রী ২৪ মে শুক্রবার দুপুরে হাসানুল ইসলাম (৩০)নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে সৈয়দপুর থানায় মামলা করেছে। অভিযুক্ত যুবক হাসানুল ইদলাম অনিক শহরের আতিয়ার কলোনী এলাকার মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে। সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহা আলম  এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

মামলার অভিযোগ ও ভুক্তভোগীর পরিবার সুত্রে জানা যায়, অনিকের সাথে সৈয়দপুর শহরের রসুলপুর এলাকার এক কলেজের একাদশ শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রীর দুই বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মেয়েটির মা বৃহস্পতিবার সকালে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে আনসার ভিডিপির সদস্যের মিটিংয়ে যান। এ সময় মেয়েটি একাই বাড়িতে অবস্থান করছিল । এই সুযোগে ওইদিন দুপুরে কলেজছাত্রীকে তার ঘরে একা পেয়ে হাসানুল ইসলাম ধর্ষণ করেন। পরে মেয়েটির মা বাড়িতে এসে খবর পেয়ে স্হানীয় থানায় অভিযোগ করেন। পুলিশ  হাসানুলকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। 

সৈয়দপুর থানার ওসি শাহা আলম বলেন, ওই কলেজছাত্রী নিজে বাদী হয়ে হাসানুলকে আসামি করে সৈয়দপুর থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন।হাসানুলকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ছাত্রীর পরীক্ষার জন্য নীলফামারী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি। 

আরও খবর



নতুন রেকর্ড গড়ে চেয়ারম্যান হলেন এবাদুর রহমান প্রামানিক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ১০১জন দেখেছেন

Image

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: তৃতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হয়ে ভিন্ন রেকর্ড গড়েছেন নওগাঁর আত্রাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ এবাদুর রহমান প্রামানিক।

টানা ১৫ বছর উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনের পর চতুর্থ মেয়াদে নির্বাচিত হয়ে আত্রাইয়ের রাজনীতির ইতিহাসে একটানা চার বারের উপজেলা চেয়ারম্যানের রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

ফলাফল পর্যাবেক্ষণে দেখা গেছে, এ নির্বাচনে মোট ৬৭ টি ভোট কেন্দ্রের ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী ২১ হাজার ৪৭৬ভোট পেয়ে চতুর্থ বারের মত  আবারও চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আলহাজ¦ এবাদুর রহমান প্রামানিক (কৈ মাছ প্রতীক)। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আজিজুর রহমান পলাশ (জোড়াফুল প্রতীক) পেয়েছেন ১৩ হাজার ৪৭৮ভোট। 

ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩৩ হাজার ২৩৩ ভোট পেয়ে বেসরকারী ভাবে দ্বিতীয় বারের মত আবারও নির্বাচিত হয়েছেন শেখ মো. হাফিজুল। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি মো. আফছার আলী প্রাং পেয়েছেন ৩২ হাজার ৮১ ভোট । মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নতুন মুখ ফেরদৌসী ইয়াসমিন চৌধুরী ৩৬ হাজার ৪২৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি মোছা. মিতু বানু মণি পেয়েছেন ২২ হাজার ৮ ভোট। এ উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৭০ হাজার ১৫২ জন। উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করেছেন।

জয়ের ব্যাপারে অনুভূতি ব্যক্ত করে আলহাজ¦ এবাদুর রহমান প্রামানিক বলেন, এমন নজির গড়তে পেরে অনেক ভালো লাগছে। গত ১৫ বছর উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে আত্রাইয়ের জনগণের জন্য কাজ করেছি। সাধারণ মানুষ আমাকে ভালোবেসে গ্রহণ করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় এবারের নির্বাচনেও জনগণ আমার পক্ষে রায় দিয়েছেন। 


আরও খবর



বাড্ডায় বোমা তৈরির কারখানার সন্ধান, র‌্যাবের অভিযান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | ১৪৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) রাজধানীর পূর্ব বাড্ডার টেকপাড়া এলাকায় বোমা তৈরির একটি কারখানা ঘিরে রেখেছে । বুধবার (২২ মে) র‍্যাব-৩ এর সহকারী পুলিশ সুপার মো. শামীম হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রাজধানীর বাড্ডা থানাধীন পূর্ব বাড্ডার টেকপাড়া এলাকায় একটি বাড়িতে বিপুল পরিমাণ অবৈধ হাতবোমা ও বোমা তৈরির কারখানার সন্ধান পাওয়া গেছে। বাড়িটি ঘিরে রেখেছেন র‍্যাব-৩ এর সদস্যরা।

তিনি আরও জানান, ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা হয়েছে র‌্যাবের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট। এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য পরে জানানো হবে।


আরও খবর

মেট্রোরেল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে

বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪




ফুলবাড়ীতে প্রধান শিক্ষক নিয়োগদানের প্রতিবাদে বিক্ষোভসহ মানববন্ধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | ৪৫জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের যোগসাজসে তাদের মনোনিত ব্যক্তিকে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগদানের উদ্যোগের প্রতিবাদে বিক্ষোভসহ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারি-অভিভাবকসহ এলাকাবাসী।

সোমবার (১০ জুন) সকাল ১১ টায় ফুলবাড়ী উপজেলার দৌলতপুর ইউপির জয়নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারি-অভিভাবকসহ এলাকাবাসী বিদ্যালয় চত্বরে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালনসহ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে দাবির সমর্থনে বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মো. রায়হান আলী, সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মোছা. তাহেরা বেগম, সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মো. শাহানুর আলম, সহকারী শিক্ষক ওয়াহেদ আলী, সহকারী শিক্ষক আশরাফুল আলম, বিদ্যালয়ের জমিদাতা আফজাল তালুকদার, অভিভাবক মোহাম্মদ আলম, এজাজ ম-ল, শিক্ষার্থী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সুমাইয়া আক্তার, ফাহারিয়া আক্তার রিয়া, জান্নাতুন তাজরিন, মোহনা জান্নাত, ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী ¯িœগ্ধা আক্তার ইতিমনি, তাজমুন নাহার রীতা সহ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন।

মানবন্ধন শেষে বিদ্যালয় চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল প্রদর্শন করেন শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারি-অভিভাবকসহ এলাকাবাসী।

জয়নগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মো. রায়হান আলী, সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মোছা. তাহেরা বেগম ও সহকারী শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মো. শাহানুর আলম বলেন, ম্যানেজিং কমিটিকে পাশ কাটিয়ে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আব্বাস উদ্দিন মন্ডল ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সুনীল চন্দ্র রায় যোগসাজস করে সরকারি বিধি বহির্ভূতভাবে পার্শ্ববর্তী বিরামপুরের মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মামুনুর রশিদকে প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগের পাঁয়তারা করছেন। গত ১৮/০৫/২০২৪ ইং তারিখের ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্তে প্রধান শিক্ষকের পদের নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও সেই সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে এবং কমিটির কাউকে কোনো কিছু না জানিয়ে গোপনে মামুনুর রশিদকে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য আজ সোমবার (১০ জুন) সকাল ১০টায় দিন ধার্য করেন প্রধান শিক্ষক ও কমিটির সভাপতি। এজন্য আবেদনকারিদের কাউকে মৌখিকভাবে আবার কাউকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। বিষয়টি জানাজানি হলে বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মচারি-অভিভাবকসহ এলাকাবাসী বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেছেন। এরই অংশ হিসেবে তারা অবৈধ প্রক্রিয়া মামুনুর রশীদকে প্রধান শিক্ষকের পদে নিয়োগের উদ্যোগ বন্ধসহ অবৈধ পন্থা অবলম্বনকারিদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভসহ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। তবে বিক্ষোব ও মানববন্ধনের জন্য সকালে নিয়োগ পক্রিয়া স্থাগিত করেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক। তবে বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ ১১/০৬/২০২৪ ইং তারিখ মঙ্গলবার শেষ হয়ে যাবে। এ কারণে সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক তড়িঘড়ি করে নিয়োগ পক্রিয়া শেষ করে তাদের অসৎ উদ্দেশ্য হাসিলের অপচেষ্টা চালাচ্ছেন। 

বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থী সুরাইয়া আক্তার রিতু ও রিক্ত চন্দ্র রায় বলে, কোনো বিতর্কিত ব্যক্তিকে প্রধান শিক্ষক হিসেবে বিদ্যালয়ে চাই না। মামুনুর রশিদকে নিয়োগ দেওয়া হলে তারা বিদ্যালয়ে তারা ঝুঁলিয়ে দেবেন বলে জানান। 

 অভিভাবক মোহাম্মদ আলম ও এজাজ ম-ল বলেন, কোনো বিতর্কিত ব্যক্তিকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিতে দেবে এলাকাবাসী। স্বচ্ছ ও সরকারি বিধি মোতাবেক একজন যোগ্য ব্যক্তিকে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ দিতে হবে। এটা করা না হলে এলাকাবাসী বিদ্যালয়ে তালা ঝুঁলিয়ে দিতে বাধ্য হবেন।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সুনীল চন্দ্র রায়কে তার ০১৩০৯ ১২০৪২৩ এবং ০১৭৬১ ৩৮১৮৭৯ নম্বরে মুঠোফোন একাধিকবার ফোন করা হলে মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্বাস উদ্দিন মন্ডলের ০১৭৪৭ ৫৪৭৭২৫ নম্বরের মুঠোফোনে ফোন করা হলে ফোনে গ্রহণ করেন’নি।

নিয়োগ বোর্ডের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষার মহাপরিচালকের প্রতিনিধি বিরামপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যায়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল খালেক মুঠোফোনে বলেন, ওই বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে মৌখিকভাবে বলেছেন, তবে লিখিতভাবে এখনও জানাননি। ফলে এ বিষয়ে কোনো কিছু জানেন না তিনি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নূর আলম বলেন, মৌখিকভাবে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে বলা হলেও লিখিতভাবে কোনো কিছু বলা হয়নি। ফলে নিয়োগ হবে কি না তাও তিনি জানেন না।

জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ জাফর আরিফ চৌধুরী বলেন, ওই বিদ্যালয়ে নিয়োগ বোর্ডের সদস্য হিসেবে তাকে লিখিতভাবে কোনো কিছু জানানো হয়নি। ফলে তিনিও জানেন না নিয়োগ হবে কি না।


আরও খবর