Logo
আজঃ Wednesday ১০ August ২০২২
শিরোনাম
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ২৪৩৫ লিটার চোরাই জ্বালানি তেলসহ আটক-২ নাসিরনগরে বঙ্গ মাতার জন্ম বার্ষিকি পালিত রূপগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ডিজিটাল সনদ ও জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ কাউন্সিলর সামসুদ্দিন ভুইয়া সেন্টু ৬৫ নং ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসুচীতে অংশগ্রহন করেন চান্দিনা থানায় আট কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার নাসিরনগরে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ নাসিরনগর বাজারে থানা সংলগ্ন আব্দুল্লাহ মার্কেটে দুই কাপড় দোকানে দুর্ধষ চুরি। ই প্রেস ক্লাব চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির মতবিনিময় সম্পন্ন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ কেজি গাঁজাসহ হাইওয়ে পুলিশের হাতে আটক এক। সোনারগাঁয়ে পুলিশ সোর্স নাম করে ডাকাত শাহ আলমের কান্ড

গো-খাদ্যের চড়া বাজারের মধ্যে সিরাজগঞ্জে কমেছে ভুসির দাম

প্রকাশিত:Wednesday ০৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ১১৫জন দেখেছেন
Image

সিরাজগঞ্জে সব ধরনের গো-খাদ্যের দাম বাড়ায় বেশ বিপাকে পড়েছিলেন খামারিরা। তবে আশার খবর হলো অন্য পশুখাদ্যের দাম এখনো বাড়তি থাকলেও জেলায় কমেছে ভুসির দাম। এতে কিছুটা স্বস্তিবোধ করছেন খামারিরা।

তবে খামারিদের দাবি, যদি ভুসির মতো অন্য সব গো-খাদ্যের দাম ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে না আনা যায় তাহলে এই অঞ্চলের গবাদি পশুর খামারে ধস দেখা দেবে।

মঙ্গলবার (৭ জুন) সরেজমিনে সিরাজগঞ্জের কয়েকটি বাজারের পশুখাদ্যের দোকান ঘুরে দেখা গেছে, ভুসির দাম বস্তাপ্রতি ৪০০ টাকা কমেছে। আগে এক বস্তা ভুসির দাম ছিল ১ হাজার ৯৫০ টাকা। বর্তমানে তা বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ৫৫০ টাকায়।

তবে গম মাসখানেক আগে ৩২ টাকা কেজি বিক্রি করলেও এখন তা বিক্রি হচ্ছে ৪২-৪৫ টাকায়। খৈল আগে ৪০ টাকায় বিক্রি হলেও এখন তা ৪৫ টাকা। প্যাকেটজাত দানাদার খাদ্য ছিল ১৮ টাকা কেজি, এখন তা বেড়ে হয়েছে ৩৫ টাকা।

জেলার শাহজাদপুর উপজেলার উল্টাডাব গ্রামের কৃষক আফাজ উদ্দিন বলেন, আমার খামারে বর্তমানে ১০টি গরু আছে। এখান থেকে যা দুধ পাই তা স্থানীয় ব্যাপারীর কাছে বিক্রি করি। কিন্তু খাদ্যের দাম বাড়াতে গরুকে ঠিকমতো খাবার দিতে পারছি না। তাই দুধ আগের চেয়ে কম হচ্ছে।

পোঁতাজিয়া গ্রামের খামারি আবুল কালাম বলেন, গম, ভুট্টা, খৈল, ময়দাসহ সব খাদ্যের দাম বেড়েছে। তবে দুই-তিনদিন হলো ভুসির দাম কমেছে। এতে আমরা যারা খামারি আছি তাদের একটু হলেও খাদ্য নিয়ে চিন্তা কমেছে। তবে ভুসির সঙ্গে আরও যেসব খাদ্যসামগ্রী রয়েছে সেগুলোর দাম কমলে খামারিদের খরচ কমবে।

বেলকুচি উপজেলার তামাই গ্রামের ফিরোজ হোসেন বলেন, প্রতিবছর কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে কিছু গরু মোটাতাজা করে বিক্রি করে থাকি। এবছরও বেশ কয়েকটা গরু মোটাতাজা করছি। তবে খাবারের যে দাম তাতে খরচ বেড়ে গেছে। যা খরচ হয়েছে গরু বিক্রি করে তা তুলতে পারবো কী না তা নিয়ে চিন্তায় আছি।

jagonews24

সিরাজগঞ্জ সদরের হাজী গো-খাদ্য ভাণ্ডারের ম্যানেজার রফিকুল ইসলাম বলেন, কয়েকদিন হলো ভুসির দাম কমেছে। আগে প্রতি বস্তা ১ হাজার ৯৫০ টাকা বিক্রি করলেও এখন তা ১ হাজার ৪৫০ টাকায় বিক্রি করছি। তবে অন্য সব খাদ্যের দাম বৃদ্ধি অব্যাহত আছে।

বেলকুচি উপজেলার মুকুন্দগাঁতি বাজারে গো-খাদ্যের পাইকারি বিক্রেতা আব্দুল হালিম বলে, ভুসি বাদে সব খাবারের দাম বেড়েছে। আমি সপ্তাহখানেক আগে প্রতি বস্তা ভুসি বিক্রি করেছি ১ হাজার ৯৫০ টাকায়। এখন তা বিক্রি করছি ১ হাজার ৫৫০ টাকায়।

একই বাজারের ভুসি ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন বলেন, বর্তমানে গো-খাদ্যের মধ্যে খৈল, গম, দানাদার খাবারের দাম চড়া রয়েছে। তবে দাম কমেছে ভুসির। বর্তমানে প্রতি বস্তা ভুসি আমরা ১ হাজার ৫৫০ টাকায় বিক্রি করছি। সামনে ভুসির দাম আরও কমার সম্ভাবনা রয়েছে।

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. গৌরাঙ্গ কুমার তালুকদার বলেন, গো-খাদ্যের দাম বাড়ায় এ অঞ্চলের খামারিদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। তবে আমরা জেলা প্রাণিসম্পদ অফিস থেকে খামারিদের সবসময় কাঁচা ঘাস খাওয়াতে পরামর্শ দিয়ে আসছি।


আরও খবর



নারীদের বঙ্গমাতার জীবনাদর্শ অনুসরণ করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:Monday ০৮ August ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ১৩জন দেখেছেন
Image

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জীবনাদর্শ অনুসরণ করে নারীদের অতিরিক্ত চাওয়া-পাওয়া ও বিলাসিতা ত্যাগ করে মানুষের কল্যাণে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (৮ আগস্ট) বঙ্গমাতার ৯২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন ও ‘বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব’ পদক প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ আহ্বান জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, রাষ্ট্র চালিয়েছেন আমার বাবা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। কিন্তু অনেক বিষয়ে আমার মা তার পাশে থেকে সাহস যুগিয়েছেন। নানান কাজে সহযোগিতা করেছেন।

‘আমার বাবার সৌভাগ্য যে, তিনি এমন একটা জীবনসঙ্গী পেয়েছিলেন বলেই এত সফলতা পেয়েছেন। দেশ স্বাধীন করতে পেরেছেন।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমার মা কখনোই এটা লাগবে, ওটা লাগবে বলেননি। এটা না হলে ঘর ছেড়ে চলে যাবো বলেও হুমকি দেননি। যখন যে অবস্থায় ছিলেন, মানিয়ে নিয়েছেন। সবাই আমার মায়ের জন্য দোয়া করবেন।

দেশের নারীসমাজের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার দেশের নারসমাজ যেন আমার মায়ের আদর্শ ধারণ করে চলে। চাওয়া পাওয়া ও বিলাসিতাই জীবন নয়, ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত হয়ে মানুষের কল্যাণে কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন নারী ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরাসহ পদস্থ কর্মকর্তাগণ।


আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় বিপৎসীমা ছাড়াতে পারে তিস্তার পানি

প্রকাশিত:Monday ০১ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

উজানে ও দেশের উত্তরাঞ্চলে ভারি বৃষ্টির কারণে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রংপুরের নীলফামারীর ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করতে পারে। এতে উত্তরাঞ্চলের লালমনিরহাট ও নীলফামারী জেলায় স্বল্পমেয়াদি বন্যা দেখা দিতে পারে।

সোমবার (১ আগস্ট) বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (বাপাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণকেন্দ্র বৃষ্টিপাত ও নদ-নদীর অবস্থার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা ও গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি বাড়ছে, যা আগামী ৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। দেশের উত্তরাঞ্চল ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রধান নদ-নদীগুলোর পানিও বাড়ছে।

আবহাওয়া সংস্থাগুলোর পূর্বাভাস তুলে ধরে প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী ২৪ ঘণ্টায় দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং তৎসংলগ্ন ভারতের উজানের কতিপয় স্থানে ভারি বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা রয়েছে। এর ফলে আগামী ২৪ ঘণ্টায় দেশের উত্তরাঞ্চলের নদীগুলোর (তিস্তা, ধরলা, দুধকুমার, পুনর্ভবা, কুলিখ, ট্যাঙ্গন, আপার করতোয়া, আপার আত্রাই) এবং উত্তর পূর্বাঞ্চলের প্রধান নদ-নদীগুলোর (সুরমা, কুশিয়ারা, যাদুকাটা, সারিগোয়াইন, সোমেশ্বরী, ভুগাই-কংশ) পানি কিছু পয়েন্টে সময় বিশেষে দ্রুত বাড়তে পারে।

আগামী ২৪ ঘন্টায় তিস্তা নদীর পানি বেড়ে ডালিয়া পয়েন্টে বিপৎসীমা অতিক্রম করতে পারে এবং লালমনিরহাট ও নীলফামারী জেলার নিম্নাঞ্চলে স্বল্পমেয়াদি বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

রোববার সকাল ৯টা থেকে সোমবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশের মধ্যে রহনপুরে (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) ১১৪, রংপুরে ৮২, জারিয়াজাঞ্জাইলে (নেত্রকোনা) ৬২, দূর্গাপুর (নেত্রকোনা) ১১০, জকিগঞ্জে (সিলেট) ৭৯, মহেশখোলায় (সুনামগঞ্জ) ৯০, ঠাকুরগাঁওয়ে ৬৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড আরও জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিকিম, অরুণাচল, আসাম, মেঘালয় ও ত্রিপুরা অঞ্চলের মধ্যে জলপাইগুড়িতে ৯২ ও চেরাপুঞ্জিতে ৭৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।


আরও খবর



উচ্চ রক্তচাপের কারণে খেলতেই পারলেন না বাংলাদেশের বক্সার

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৫ August ২০২২ | ১৮জন দেখেছেন
Image

ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে শুরু হয়েছে ২২তম কমনওয়েলথ গেমস। বৃহস্পতিবার রাতে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে প্রতিযোগীদের লড়াই। প্রথম দিনই বাংলাদেশের খেলা চার ডিসিপ্লিনে।

এর মধ্যে প্রথম হতাশার খবর পাঠিয়েছেন বক্সার সুরকৃষ্ণ চাকমা। এ সময়ের দেশের অন্যতম সেরা বক্সারের শুক্রবার খেলার কথা ছিল ফিজির প্রতিযোগীর বিপক্ষে। তবে সকালে তার রক্তচাপ বেড়ে যাওয়ায় খেলতেই পারেননি।

বার্মিংহাম থেকে বাংলাদেশ কন্টিনজেন্টের শেফ দ্য মিশন অ্যাডভোকেট আবদুর রকিব মন্টু জাগো নিউজকে বলেছেন, ‘খেলার আগে নিয়মমাফিক তার ফিজিক্যাল চেকের সময় অতিরিক্ত রক্তচাপ ধরা পড়ে। একটু পর রক্তচাপ স্বাভাবিক হলেও তাকে খেলতে দেওয়া হয়নি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে মেডিক্যাল চেকআপে উত্তীর্ণ না হতে পারায়।’


আরও খবর



৪ মাসের ছুটি নিয়ে ৬ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রধান শিক্ষক

প্রকাশিত:Friday ২২ July 20২২ | হালনাগাদ:Tuesday ০৯ August ২০২২ | ৪২জন দেখেছেন
Image

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় চার মাসের ছুটি নিয়ে ছয় বছর ধরে অনুপস্থিত উপজেলার মর্ণেয়া ইউনিয়নের লাখেরাজটারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাজমা খাতুন। দীর্ঘদিন ধরে অনুপস্থিত থেকেও চাকরিতে বহাল রয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন প্রধান শিক্ষক অনুপস্থিত থাকায় বিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ও একাডেমিক কার্যক্রম ভেঙে পড়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০১৫ সালের জানুয়ারি মাসে লাখেরাজটারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন নাজমা খাতুন। যোগদানের দেড় বছর পর ২০১৬ সালের জুলাই মাসে দুই মাসের ছুটি নিয়ে চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যান। সেখানে থাকা অবস্থায় আরও দুই মাসের ছুটি বাড়িয়ে নেন। এরপর তার ছুটি শেষ হলেও তিনি বিদ্যালয়ে আসেননি এবং ছুটিও নেননি।

দীর্ঘদিন ধরে বিনা ছুটিতে বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকলেও চাকরিতে বহাল রয়েছেন নাজমা খাতুন। বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা অফিসে জানানো হলেও ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা নেয়নি কর্তৃপক্ষ। এনিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।

লাখেরাজটারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক তারেক রহমান বলেন, ‘নাজমা খাতুন ম্যাডাম চিকিৎসার জন্য চার মাসের ছুটি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র গেছেন। সেখানে তিনি যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী স্বামীর সঙ্গে বসবাস করছেন। তখন থেকেই আমি এই প্রতিষ্ঠানে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি।’

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাগমা সিলভিয়া খান বলেন, ‘বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। কয়েকবার তদন্ত হয়েছে। কিন্তু কী কারণে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি তা বলতে পারছি না।’

এ বিষয়ে বিভিন্ন মাধ্যমে যোগাযোগের চেষ্টা করেও প্রধান শিক্ষক নাজমা খাতুনের মন্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।


আরও খবর



টাঙ্গাইলে অ্যাসিড বিক্রির অপরাধে ৩ জনের কারাদণ্ড

প্রকাশিত:Tuesday ১৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১০ August ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

টাঙ্গাইলে অবৈধভাবে অ্যাসিড বিক্রির অপরাধে তিনজনকে তিন বছর সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সেইসঙ্গে প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিনমাস কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) দুপুরে অ্যাসিড অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক জেলা ও দায়রা জজ ফাহমিদা কাদের এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন টাঙ্গাইল সদর উপজেলার গালা ইউনিয়নের পাছ বেথৈর গ্রামের আনন্দ দত্তের ছেলে অনন্ত দত্ত, হেলাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল লতিফ এবং করটিয়া ইউনিয়নের নগরজলফৈ গ্রামের কাদের মিয়ার ছেলে চান মিয়া।

টাঙ্গাইল আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) এস আকবর খান রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১৯ জুলাই শহরের ছয়আনী বাজার এলাকার অনামিকা জুয়েলার্সের সামনে থেকে ৩৫ কেজি নাইট্রিক অ্যাসিডসহ তিনজনকে আটক করে র্যাবের একটি টহল দল। তারা সেখানে অবৈধভাবে অ্যাসিড বিক্রি করছিলেন। তারা অ্যাসিড বিক্রির বৈধ লাইসেন্স দেখাতে ব্যর্থ হন। পরে র্যাবের উপ-সহকারী পরিচালক মো. নাজিম উদ্দিন বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর মডেল থানায় মামলা করেন।

তদন্ত শেষে টাঙ্গাইল সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন ২০১৮ সালের ২০ অক্টোবর ওই তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। মামলায় ১১ জনকে সাক্ষী করা হয়। মঙ্গলবার আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

রায় ঘোষণা শেষে দণ্ডিত তিনজনকে টাঙ্গাইল জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর