Logo
আজঃ বুধবার ২২ মে ২০২৪
শিরোনাম

গলাচিপায় কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির উদ্বোধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ১০২জন দেখেছেন

Image

রিয়াদ হোসাইন,গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:পটুয়াখালীর গলাচিপায় কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচি খরিপ-১/২০২৪-২৫ এর আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণের উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টায় উপজেলা কৃষি অফিসের আয়োজনে উপজেলা কৃষি অফিস হল রুমে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন পটুয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য এসএম শাহজাদা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মহিউদ্দিন আল হেলালের সভাপতিত্বে ও উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. নাহিদ হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আরজু আক্তার। 

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. নাসিম রেজা, গলাচিপা থানার ওসি তদন্ত মোকাম্মেল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি হাজী মু. মজিবর রহমান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সরদার মু. শাহ আলম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোফাজ্জেল হোসেন মাসুদ, কৃষক প্রতিনিধি কাওসার আহম্মেদ তালুকদার, উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ফিরোজ আলম, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন ও মো. দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।

এছাড়া সরকারী কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, সুশীল সমাজসহ প্রান্তিক কৃষকরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর

গলাচিপায় বকনা বাছুর বিতরণ

বৃহস্পতিবার ১৬ মে ২০২৪




সংসদ নির্বাচনের চেয়ে উপজেলা ভোট প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হচ্ছে: সিইসি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | ১২৯জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:মন্ত্রী-এমপির স্বজনরা প্রার্থী হওয়ায় নির্বাচন কমিশন (ইসি) বেকায়দায় নেই,বলেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল।

মঙ্গলবার (৭ মে) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে উপজেলা ভোট নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সিইসি একথা বলেন।

সিইসি বলেন, এটা নিয়মরক্ষার ভোট নয়, নির্বাচন অনিবার্যভাবে প্রয়োজন। আমাদের কাজ নির্বাচন আয়োজন করা, কে কোন দলের প্রার্থী এটা কোনো বিষয় না।

এমপি-মন্ত্রীদের ভোটে প্রভাব বিস্তার প্রসঙ্গে কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, আমরা কোনো বেকায়দায় নেই। নির্বাচন অবাধ হবে। নির্বাচন প্রভাবিত করতে চাইলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, ১৪০ উপজেলায় ভোট হবে। ২২ উপজেলায় ইভিএমে ভোট হবে। প্রতিটি কেন্দ্রে ১৭-১৯ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য থাকবেন। পার্বত্য এলাকায় ১৯-২১ জন থাকবেন।

সিইসি আরও বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চেয়ে উপজেলা নির্বাচনের ভোট প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হচ্ছে। নির্বাচন যাতে প্রভাবিত না হয় সে ব্যাপারে কমিশনের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


আরও খবর



গাংনী উপজেলা নির্বাচনের প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ মে 2০২4 | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ মে ২০২৪ | ১০৯জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ,মেহেরপুর প্রতিনিধি:দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ১৪ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ‌ আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্বপ্রাপ্ত অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক তানভীর রুম্মন আহমেদ প্রতীক বরাদ্দ করেন।

চেয়ারম্যান পদে জেলা বিএনপ্র সাংগঠনিক সম্পাদক জুলফিকার আলী ভুট্টো কৈ মাছ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান এম এ খালেক-আনারস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক একেএম শফিকুল আলম- কাপ পিরিচ, গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোখলেছুর রহমান মুকুল- হেলিকপ্টার, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক লায়লা আরজমান বানু - দোয়াত কলম, আওয়ামী লীগ নেতা রাশেদুল ইসলাম জুয়েল- ঘোড়া, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি মোশাররফ হোসেন- মোটরসাইকেল ও আওয়ামী লীগ কর্মী মুকুল আহমেদ- শালিক পাখি প্রতীক পেয়েছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি দেলোয়ার হোসেন মিঠু-তালা, আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক হোসেন- টিউবওয়েল এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রেজাউল করিম- চশমা প্রতীক পেয়েছেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এবং যুব মহিলা লীগ নেত্রী ফারহানা ইয়াসমিন- হাঁস, নাসিমা খাতুন- ফুটবল এবং জাকিয়া আক্তার আলপনা- কলস প্রতীক পেয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গাংনী উপজেলা পরিষদের এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জনসহ মোট ১৪ প্রার্থী প্রতীক নিয়ে আজ থেকে মাঠে লড়বেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে শুধুমাত্র জুলফিকার আলী ভুট্টো বিএনপি নেতা। বাকি ১৩ জন প্রার্থী আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ সহযোগীসংগঠনের নেতাকর্মী।


আরও খবর



রাস্তায় নিম্মমানের বিটুমিন ও সামগ্রী ব্যবহার ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | ৭৪জন দেখেছেন

Image
আব্দুস সবুর তানোর থেকে:রাজশাহীর তানোরের কামারগাঁ ইউনিয়নের (ইউপি) নেজামপুর-হাতিনান্দা পর্যন্ত্য ৩০০মিটার রাস্তা নির্মাণের কার্পেটিংয়ে নিম্নমাণের বিটুমিন ও বেডে নিম্নমাণের ইটের খোয়া ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, রাস্তা নির্মাণকাজের শুরুতেই ব্যাপক অনিযমের অভিযোগ এনে গ্রামবাসি নির্মাণকাজে বাধা দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ করেন। সম্প্রতি ইউপি চেয়ারম্যান ফজলে রাব্বি ফরহাদ প্রয়াত হবার সুযোগে সাব-ঠিকাদার সুরুজ আলী তার নিজের ইচ্ছেমতো কাজ করেছেন।স্থানীয় ইউপি সদস্যকে(মেম্বার) অবগত ও তার উপস্থিতি কাজ করার কথা থাকলেও তাকে জানানোই হয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, রাস্তার সাববেইজ করার সময় ইটের খোয়া ও বালু একইরকম ব্যবহার করার কথা থাকলেও এখানে চার ভাগের একভাগ খোয়া ব্যবহার করা হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কার্যসহকারি বলেন, এমনিতে বিটুমিনের মান খারাপ তার ওপর প্রায় ২৫ কিলোমিটার দুরের পরানপুর মাঠ থেকে ট্রলিতে করে পাথর নিয়ে আশায় টেম্পারেচারের মান নস্ট হয়েছে।

জানা গেছে, দেশের সড়ক-মহাসড়ক উন্নত করার লক্ষ্যে ২০১৫ সালে বিটুমিন ব্যবহার নিয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়। সেই প্রজ্ঞাপণে বিটুমিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে ইআরএল-এর বিটুমিন ব্যবহার করতে বলা হয়েছে। সেটি পাওয়া না গেলে ৬০ থেকে ৭০ গ্রেডের 
বিটুমিন ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কিন্ত্ত নেজামপুর রাস্তায় সেই মাণের বিটুমিন ব্যবহার করা হয়নি। এখানে আমদানি করা নিম্নমাণের বিটুমিন ব্যবহার করা হয়েছে। এবিষয়ে জানতে চাইলে সাব-ঠিকাদার সুরুজ আলী বলেন,স্থানীয়রা যে অভিযোগ করছেন তা ঠিক নয়। তিনি বলেন, সিডিউল মোতাবেক কাজ করা হয়েছে।এছাড়াও প্রকাশনগর পরানপুর গ্রাম থেকে চরশত মিটার রাস্তাও একই ভাবে অনিয়ম করে কার্পেটিং করা হয়েছে। খোয়ার ওপর করা হয়েছে কার্পেটিং। 

সরেজমিনে এমন অবস্থা দেখলে এসও শাহিন সালাম দ্রুত শ্রমিকদের বলেন পরিস্কার করে পিচ দিয়ে কার্পেটিং করতে হবে। প্রায় প্রতিটি রাস্তা দরপত্রে যে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান পায় তার কাছ থেকে এলজিইডির একশ্রেণির কর্মকর্তারা পছন্দের ঠিকাদারের কাছে বিক্রি করতে বলেন। প্রায় রাস্তা অগ্রিম লাভ দিয়ে কিনে করার কারনে ব্যাপক অনিয়ম করা হয় বলে অহরহ অভিযোগ থাকলেও রহস্য জনক কারনে কর্তৃপক্ষ একেবারেই নিরব। যার কারনে বিভিন্ন দোহায়ে ও এলজিইডি অফিস কে ম্যানেজ করে চলছে অনিয়ম দূর্নীতির কাজ৷ যা সরেজমিনে তদন্ত করলেই বেরিয়ে পড়বে ভয়াবহ দূর্নীতি। 
 
উপজেলা প্রকৌশলী সাইদুর রহমান বলেন, রাস্তার কাজের অনিয়মের ব্যাপারে আমার জানা নেই, কেউ কোনো অভিযোগও করেনি। তিনি বলেন, রাস্তা পরিদর্শনে অনিয়মের কোনো সত্যতা পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।এবিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য (মেম্বার) বুলু বলেন, ঠিকাদারের বিল পরিশোধের আগে, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে রাস্তা সরেজমিন পরিদর্শনের দাবি জানান।

আরও খবর



মিল্টন সমাদ্দারের আরও অনেক লোমহর্ষক ঘটনা আছে: হারুন

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড এজ কেয়ার নামে আশ্রয়কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা মিল্টন সমাদ্দারের আরও অনেক ভয়াবহ ও লোমহর্ষক ঘটনা আছে,বলেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

সোমবার (৬ মে) দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ তথ্য জানান।

হারুন অর রশীদ বলেন, মিল্টনের ভয়াবহ ও লোমহর্ষক ঘটনার বিষয়ে তদন্ত শেষ না হলে বলা ঠিক হবে না। মিল্টন কিছু অসহায়, বৃদ্ধ, অনাথ, মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে পুঁজি করে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে অর্থ নিয়েছেন। এ অর্থ তার ব্যাংক হিসাবে জমা হচ্ছিল। কিন্তু তিনি কোনো টাকা খরচ করছিলেন না। আশ্রয়কেন্দ্রের কাউকে তিনি চিকিৎসা দিচ্ছিলেন না।

তিনি বলেন, মিল্টনের আশ্রয়কেন্দ্রে থাকা অসহায় বৃদ্ধ ও শিশুদের ব্যয়ভার বহন করবে শামসুল হক ফাউন্ডেশন; পাশাপাশি তারা একজন চিকিৎসককে সার্বক্ষণিক আশ্রয়কেন্দ্রে রাখার ব্যবস্থা করবে।

প্রসঙ্গত, গেল বুধবার প্রতারণাসহ বিভিন্ন অভিযোগে মিল্টন সমাদ্দারকে রাজধানীর মিরপুর থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত তিনটি মামলা হয়েছে। মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনের মামলায় মিল্টন বর্তমানে ডিবির হেফাজতে রিমান্ড আছেন।


আরও খবর



অ্যাকাডেমিক ব্যাংকিং সেবা ‘প্রাইমঅ্যাকাডেমিয়া’ চালু করলো প্রাইম ব্যাংক পিএলসি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | ৪১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের এক জায়গায় সকল ব্যাংকিং সেবা দিতে ‘প্রাইমঅ্যাকাডেমিয়া’ নামে একটি নতুন সেবা চালু করেছে প্রাইম ব্যাংক।

একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নানানমুখী আর্থিক প্রয়োজনীয়তার কথা মাথায় রেখেই ‘প্রাইম‌অ্যাকাডেমিয়া’ সেবাটি চালু করা হয়েছে। এই সেবার আওতায় রয়েছে যথাক্রমে: শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য টিউশন ফি কালেকশন, স্টাফদের জন্য পেরোল ব্যাংকিং সেবা, বিশেষ সুবিধাসহ শিক্ষার্থীদের সেভিংস অ্যাকাউন্টস সেবা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য আকর্ষণীয় মুনাফা আয়ের সুবিধাসহ প্রতিষ্ঠানিক অ্যাকাউন্ট সেবা, শিক্ষকদের ইন্স‌্যুরেন্স সুবিধাসহ টিচার্স সেভিংস অ্যাকউন্ট সেবা, সন্তানের শিক্ষা নিশ্চিতে আর্থিক সুরক্ষার জন্য অভিভাবকদের জন্য ঋণ সুবিধা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন ও প্রসারে আর্থিক সহায়তা করতে প্রতিষ্ঠানিক ঋণ/বিনিয়োগ সুবিধা এবং বিদেশে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণে শিক্ষার্থীদের জন্য স্টুডেন্ট ফাইল সেবা।

সম্প্রতি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সিলেটের স্বনামধন্য ব্লু বার্ড হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজে প্রাইম‌অ্যাকাডেমিয়ার প্রথম গ্রাহক হিসাবে প্রাইম ব্যাংকের এই সেবা চালু করা হয়। অনুষ্ঠানে ব্লুবার্ড হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ হুসনে আরা এবং প্রাইম ব্যাংক পিএলসি’র ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর নাজিম এ. চৌধুরী নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিনামা হস্তান্তর করেন।

অনুষ্ঠানে প্রাইম ব্যাংক পিএলসি’র ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর নাজিম এ. চৌধুরী বলেন, ‘দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য এই ধরণের একটি ব‌্যতিক্রমী অর্থিক সেবা চালু করতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। আমরা আমাদের দেশের ভবিষ্যৎ তরুণদের উন্নয়নের সর্বাধুনিক সুযোগ-সুবিধা ও পরিষেবাসহ উন্নত শিক্ষা প্রদানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সক্ষম করে গড়ে তুলতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

ব্লুবার্ড হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ হুসনে আরা বলেন, ‘শিক্ষা খাতের উন্নয়নে এই ধরণের একটি সেবা নিয়ে এগিয়ে আসার জন্য আমরা প্রাইম ব্যাংক পিএলস্রি কাছে কৃতজ্ঞ। সন্তানদের শিক্ষা সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় সকল প্রয়োজন মেটাতে এই সেবা আমাদের শিক্ষক এবং অভিভাকদের জন্য সত‌্যিই সহায়ক হিসেবে করবে।’

প্রাইমএকাডেমিয়া বিভিন্ন সুবিধা ও আর্থিক সক্ষমতা সরবরাহ করে এই খাতের আর্থিক চিত্র পরিবর্তন করতে প্রস্তুত। সকল স্কুলসহ বাংলাদেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এই সেবার আওতায় আনার লক্ষ্যমাত্র নির্ধারণ করেছে, যা দেশব‌্যাপী সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতির অংশ।


আরও খবর