Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

গাংনী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন প্রার্থীদের নেই কোন প্রচার প্রচারনা

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৭জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ, মেহেরপুরঃজাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর গাংনীর রাজনীতি একরকম ঝিমিয়ে পড়েছে। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কোন রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মীদের বা প্রার্থীদের প্রচার প্রচারনা একেবারই নেই। প্রতীক না থাকার বিষয়টি ঘোষিত হবার পর আওয়ামীলীগের কোন নেতাকে প্রার্থী হিসেবে প্রচার প্রচারনা করতে দেখা যায়নি। অন্যান্য দলগুলো কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছে। তবে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি তাদের প্রার্থী দিবেন না বলে সিদ্ধান্ত জানান।

উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ভাইস চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের মেয়াদ রয়েছে আর মাত্র কয়েক মাস। ইতোপূর্বে নির্বাচনের অনেক আগ থেকেই দলীয় নেতা কর্মীদের মাঝে সাজ সাজ রব লক্ষ্য করা গেলেও এবার তেমনটি লক্ষণীয় নয়।

শহর কিংবা হাট বাজারেও কোন প্রচার প্রচারণা নেই। আওয়ামীলীগের কেন্দ্র থেকে দলীয় প্রতীক না থাকার বিষয়টি ঘোষণার পর নেতা কর্মীদের মাঝে নেই নির্বাচনী ইমেজ।এদিকে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কোন নির্বাচনে অংশ নিবে না।বেশ কয়েকজন আওয়ামীলীগ নেতার সাথে কথা বলে জানা গেছে, নির্বাচনে প্রতীক না

থাকলে তারা তাদের পছন্দ মতো প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন। দলের বেঁধে দেয়া প্রার্থী অনেকেরই পছন্দ হয় না। তখন ইচ্ছের বিরুদ্ধে ভোট দিতে হয়। অনেক সময় পরাজিত হতে হয় তাদের। তার পরও বেশ কয়েকজন সম্ভাব্য প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। এরা হচ্ছেন- মেহেরপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ খালেক, সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট একেএম

শফিকুল আলম, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকে রাশেদুল হক জুয়েল, গাংনী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মকলেচুর রহমান মুকুল, সাবেক জেলা পরিষদের সদস্য মজিরুল ইসলাম, যুবলীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন, নারী নেত্রী নুরজাহান বেগম ও সাবেক এমপি পতœী লাইলা আরজুমান বানু শিলা। এ ছাড়াও কয়েকজন ইউপি

চেয়ারম্যানের নাম শোনা যাচ্ছে। বিশেষ করে কাথুলূ ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান রানা ও বর্তমান এমপির একান্ত কাছের মানুষ হিসেবে পরিচিত মটমুড়া ইউপি চেয়ারম্যাস সোহেল আহম্মেদ। তবে প্রাথীদের অনেকেই বলেছেন, দলের নেতাকর্মীরা চাইলে তারা নির্বাচনে অংশ নেবেন। এ ছাড়াও গাংনী উপজেলা জাকের পার্টির যুগ্ম সম্পাদক সাহান কিবরিয়া নির্বাচনে লড়বেন বলে জানিয়েছেন।

চেয়ারম্যান প্রার্থীদের চেয়ে অনেকটা প্রকাশ্যে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীগন। আওয়ামীলীগের কয়েকজন নেতা তাদের প্রার্থীতা ঘোষণা করে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন। এরা হচ্ছে- গাংনী উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক লীগের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন মিঠু, রাব্বি আহমেদ, ঠিকাদার ফারুক আহম্মেদ ও যুবলীগ নেতা আল ফারুক। এরা শহর ও গ্রামগঞ্জে জোরে শোরে প্রচারণা চালাচ্ছেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমীন, নাসিমা ও আল্পনা খাতুনের নাম শোনা যাচ্ছে। তবে ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা সকলের কাছে পরিচিত হলেও অন্য দুই প্রার্থী সকলেরই অচেনা। গ্রাম গঞ্জে ফারহানা ইয়াসমীন প্রচারণা চালালেও অন্যরা দলের ডাক সাইটে নেতাদের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় রয়েছেন।

নির্বাচনে অংশ নেয়ার বিষয়টি জাতীয় পার্টি কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত অনুযায়ি ঘোষিত হবে বলে জানিয়েছেন মেহেরপুর জেলা জাতীয় পার্টির সহ-সভাপতি (দায়িত্ব প্রাপ্ত) কেতাব আলী। অন্যদিকে মেহেরপুর জেলায় নির্বাচনে কোন প্রার্থী দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড আব্দুল মাবুদ।


আরও খবর

জাতীয় পার্টি গৃহপালিত দল: জিএম কাদের

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




কুড়িগ্রামের রৌমারী সিএনজি অটো ও ভটভটির চাদা বন্দের নির্দেশ দিলেন এমপি পলাশ

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃরৌমারীতে সকল সিএনজি, অটোবাইক ও ভটভটি নছিমন করিমন থেকে অবৈধ চাঁদা আদায় বন্ধের ঘোষনা দিলেন এমপি পলাশ। দির্ঘদিন ধরে সারা দেশের ন্যায় রৌমারী উপজেলার দাঁতবাঙ্গা বড়াইকান্দি কত্তিমারী সায়দাবাদে সরকার দলীয় আর্শিবাদ পুষ্ট সিন্ডিকেট ও প্রশাসনের সুক্ষ কৌশলে মাসিক চুক্তির ভিত্তিতে অটোবাইক, ভ্যানগাড়ি, সিএনজি ও নছিমন করিমন ভটভটির ড্রাইভারদের নিকট হতে মাসোহারা বা দৈনিক চাঁদা আদায় করা হতো।

বেকার অসহায় খেটে খাওয়া দিনমজুর অটো সিএনজি ও ভটভটি চালক নিরুপায় হয়ে নিয়মিত চাদা দিয়ে আসছিল। চাদা আদায়ের বিরুদ্ধে পরিবহন চালকরা দির্ঘদিন ধরে রাস্তায় চাদা বন্দের দাবি জানিয়ে আসলেও ক্ষমতা ধরদের পেষী শক্তির কাছে হাড় মানতে হয়েছে। এসব দূনীতি দমনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থি বিপ্লব হাসান পলাশ তার নির্বাচনী মঞ্চে দাঁতভাঙ্গা হতে রাজিবপুর পর্যন্ত সড়ক পথে যানবাহন মালিকদের কোন প্রকার চাঁদা দিতে হবেনা বলে প্রতিশ্রুতি ব্যাক্ত করেন। এরই ধারাবাহিকতায় ৪ ফেব্রুয়ারী সকাল ১১ ঘটিকায় ২৮ কুড়িগ্রাম ৪ আসনের সংসদ সদস্য বিপ্লব হাসান পলাশের প্রতিনিধি হিসাবে রৌমারী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাইদুল ইসলাম রৌমারী অটো ও সিএনজি চালকদের একত্রিত করে তাদের উদ্দেশ্যে বলেন , সংসদ সদস্য বিপ্লব হাসান পলাশের নির্বাচনী ইসতেহার অনুযায়ী তার প্রতিশ্রুতি মোতাবেক আজ থেকে দাঁতভঙ্গা হতে রাজিবপুর পর্যন্ত তার নির্বাচনী এলাকায় যানবাহনে কোন প্রকার চাদা আদায় করা বা চাঁদা দেওয়া যাবেনা বলে নির্দেশ প্রদান করেন।

এব্যাপারে সিএনজি চালক আব্দুর রহিম, জহর উদ্দিন, করিম শহিদ খোকন, হুমায়ুন বলেন, আমরা গরীব অসহায় সিএনজি চালক, দীর্ঘদিন ধরে চাদাবাজদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ ছিলাম। আজ নব নির্বাচিত সংসদ সদস্য আমাদের অভিযোগ আমলে নিয়ে চাদাবজি থেকে রক্ষা করলেন, আমরা তার মহতি উদ্দ্যোগের প্রশংসা করছি।


আরও খবর



পোরশায় ২১শে ফেব্রুয়ারি ও ৭ই মার্চ পালন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১৭জন দেখেছেন

Image

ডিএম রাশেদ পোরশা (নওগাঁ) প্রতিনিধি :নওগাঁর পোরশায় অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি ও ৭ই মার্চ যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে প্রস্ততিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।বুধবার বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মনিরুজ্জামান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ্ধসঢ়; মঞ্জুর মোরশেদ চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান কাজীবুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম। সভায় উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মেহেদী হাসান, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শামসুল আলম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আরিফ সরকার, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা দোস্তদার হোসেনসহ ৬ইউপি চেয়ারম্যান, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, মুক্তিযোদ্ধা প্রমুখ।


আরও খবর



১০ নির্দেশনা মানতে হবে বেসরকারি হাসপাতাল-ক্লিনিককে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়গনস্টিক সেন্টারকে ১০ দফা নতুন নির্দেশনা দিয়েছে । বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) অধিদপ্তরের হাসপাতাল ও ক্লিনিক শাখার পরিচালক ডা. আবু হোসেন মো. মঈনুল আহসান স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এতে বলা হয়, সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জানানো যাচ্ছে যে, বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোর পরিচালনার ক্ষেত্রে বর্ণিত শর্তাবলী আবশ্যিকভাবে প্রতিপালন করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হলো।

নির্দেশনাগুলো হলো

১. বেসরকারি ক্লিনিক হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিকের লাইসেন্সের কপি প্রতিষ্ঠানের মূল প্রবেশ পথের সামনে দৃশ্যমান স্থানে অবশ্যই স্থায়ীভাবে প্রদর্শন করতে হবে।

২. সব বেসরকারি স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় তথ্যাদি সংরক্ষণ ও সরবরাহের জন্য একজন নির্ধারিত দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য কর্মকর্তা-কর্মচারী থাকতে হবে। একইসঙ্গে তার ছবি ও মোবাইল নম্বর দৃশ্যমান স্থানে প্রদর্শন করতে হবে।

৩. যে সব প্রতিষ্ঠানের নাম ডায়াগনস্টিক ও হাসপাতাল হিসেবে আছে, কিন্তু শুধুমাত্র ডায়াগনস্টিক অথবা হাসপাতালের লাইসেন্স রয়েছে, তারা লাইসেন্স পাওয়া ছাড়া কোনেভাবেই নামে উল্লেখিত সেবা প্রদান করতে পারবে না।

৪. ডায়াগনষ্টিক সেন্টার, প্যাথলজিক্যাল ল্যাবরেটরির ক্ষেত্রে যে ক্যাটারগরিতে লাইসেন্সপ্রাপ্ত, শুধুমাত্র সে ক্যাটাগরিতে নির্ধারিত পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া কোনভাবেই অন্যান্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা যাবে না। ক্যাটারগরি অনুযায়ী প্যাথলজি বা মাইক্রোবায়োলজি, বায়োকেমিস্ট্রি ও রেডিওলজি বিশেষজ্ঞ নিয়োগ করতে হবে।

৫. বেসরকারি ক্লিনিক, হাসপাতালের ক্ষেত্রে লাইসেন্সের প্রকারভেদ ও শয্যা সংখ্যা অনুযায়ী সব শর্তাবলী বাধ্যতামূলকভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে।

৬. হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়োজিত সব চিকিৎসকের পেশাগত ডিগ্রির সনদ, বিএমডিসির হালনাগাদ নিবন্ধন ও নিয়োগপত্রের কপি অবশ্যই সংরক্ষণ করতে হবে।

৭. হাসপাতাল, ক্লিনিকের ক্ষেত্রে যে কোনো ধরনের অপারেশন বা প্রসিডিউরের জন্য অবশ্যই রেজিস্ট্রার্ড চিকিৎসককে সার্জনের সহকারী হিসেবে রাখতে হবে।

৮. কোনো অবস্থাতেই লাইসেন্সপ্রাপ্ত বা নিবন্ধিত হাসপাতাল ও ক্লিনিক ব্যতীত চেম্বারে অথবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অ্যানেস্থেসিয়া দেওয়া যাবে না। বিএমডিসি স্বীকৃত বিশেষজ্ঞ ছাড়া যে কোনো ধরনের অপারেশন/সার্জারি/ ইন্টারভেনশনাল প্রসেডিউর করা যাবে না।

৯. সব বেসরকারি নিবন্ধিত লাইসেন্সপ্রাপ্ত হাসপাতাল, ক্লিনিকে লেবার রুম প্রটোকল অবশ্যই মেনে চলতে হবে।

১০. নিবন্ধিত বা লাইসেন্সপ্রাপ্ত হাসপাতাল, ক্লিনিকে অপারেশন থিয়েটারে অবশ্যই ‘Operation Theatre Etiquette’মেনে চলতে হবে।

এ নির্দেশনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরেরের মহাপরিচালকের অনুমোদন রয়েছে বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে।


আরও খবর



মাগুরায় প্রাইম ব্যাংক অনূর্ধ্ব ১৬ ক্রিকেট উদ্বোধন

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮৩জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরায় প্রাইম ব্যাংক অনূর্ধ্ব ১৬ জাতীয় স্কুল ক্রিকেট প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেণ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আব্দুল কাদের। জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপ কমিটির আহবায়ক ও জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদক রানা আমীর ওসমানের সভাপতিত্বে এ উপলক্ষে বুধবার সকালে স্থানীয় স্টেডিয়ামে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফম আব্দুল ফাত্তাহ, সহকারি পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান,  মাগুরা সদর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক কাজী সঞ্জয় জামান। ক্রিকেট কোচ সাদ্দাম হোসেন গোর্কীসহ ক্রিকেটপ্রেমী ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী খেলায় অংশগ্রহন করে মাগুরা পুলিশ লাইন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাগুরা কালেক্টরেট মাধ্যমিক বিদ্যালয়। প্রতিযোগিতায় মোট ৪ টি দল অংশ নিয়েছে।


আরও খবর



বেনাপোলে সাড়ে ৭৬ হাজার ইউএস ডলার সহ নারী যাত্রী আটক

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০৬জন দেখেছেন

Image

ইয়ানূর রহমান শার্শা,যশোর প্রতিনিধি:বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন এলাকা থেকে ভারত হতে আসা নাসরিন আক্তার নামে এক মহিলা পাসপোর্ট যাত্রীকে ৭৬ হাজার ৪০০ ইউএস ডলারসহ আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দার সদস্যরা। মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) তাকে আটক করা হয়।

আটক নাসরিন কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা থানার সাতবাড়িয়া গ্রামের জামাল উদ্দিনের মেয়ে।

বেনাপোল চেকপোস্ট শুল্ক গোয়েন্দার সদস্য আফজাল হোসেন জানান, এক যাত্রী ভারত থেকে বিপুল পরিমাণ ইউএস ডলার নিয়ে দেশে প্রবেশ করছে। এমন গোপন খবরে, ইমিগ্রেশন নজরদারি বাড়ানো হয়। এসময় ওই যাত্রী ইমিগ্রেশনে আসলে তাকে আটক করা হয়। পরে, তার ব্যাগ তল্লাশি করে ৭৬ হাজার ৪০০ ইউএস ডলার উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত ডলারের আনুমানিক বাংলাদেশি মূল্য ৮৫ লাখ টাকা। এব্যাপারে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান গোয়েন্দার সদস্য আফজাল।


আরও খবর