Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম
গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর বোমা হামলার পর এক ফিলিস্তিনি নারীর আর্তনাদ। ছবি: সংগৃহীত

গাজায় নিহতের সংখ্যা ১৭ হাজার ছাড়াল

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৮১জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:অবরুদ্ধ গাজায় ইসরায়েলি সেনাদের নির্বিচার বোমা হামলায় নিহত ফিলিস্তিনির সংখ্যা ১৭ হাজার ছাড়িয়েছে। যাদের মধ্যে অধিকাংশই শিশু ও নারী।

গাজায় হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্যানুসারে, স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা পর্যন্ত ইসরায়েলি হামলায় নিহত হয়েছে অন্তত ১৭ হাজার ১৭৭ জন। এই সময়ে আহত হয়েছে আরও অন্তত ৪৬ হাজার।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আশরাফ আল-কুদরা হতাহতের সংখ্যা নিশ্চিত করে জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার আগের ২৪ ঘণ্টায় ইসরায়েলি হামলায় অন্তত ৩৫০ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ইসরাইলি হামলায় কমপক্ষে ২৯০ জন চিকিৎসক নিহত হয়েছেন, ১০২টি অ্যাম্বুলেন্স ধ্বংস হয়েছে এবং ১৬০টি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রকে হামলার লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছে। এছাড়া ২০টি হাসপাতাল এবং ৪৬টি প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যা কেন্দ্রকে পরিষেবা বন্ধ করতে বাধ্য করা হয়েছে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এই মুখপাত্র বলেন, চলমান হামলা এবং যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতার কারণে আমরা ইসরাইলি হামলায় নিহত ব্যক্তি ও আহতের সংখ্যা গণনা করতে অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছি।

গত ২৪ থেকে ৩০ নভেম্বর সাত দিন ছাড়া গাজায় দুই মাস ধরে নির্বিচার বোমা হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েল। বৃহস্পতিবারও ছিল না এর ব্যতিক্রম।

এদিন দক্ষিণ গাজার রাফাহ ও খান ইউনিস এবং উত্তর গাজার জাবালিয়া শরণার্থীশিবিরসহ উপত্যকার বিভিন্ন স্থানে বিমান হামলার পাশাপাশি স্থল অভিযান চালিয়েছেন ইসরায়েলি সেনারা। ইসরায়েলের বাহিনী দাবি করেছে, গতকাল তারা বেশ কয়েকজন হামাস যোদ্ধাকে হত্যা করেছে।

গাজা উপত্যকা ছাড়াও পশ্চিম তীরে সহিংসতা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েলি বাহিনী। চলমান সংঘাত শুরুর পর থেকে সেখানে অন্তত ২৬৬ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে তারা।

এ ছাড়া পূর্ব জেরুজালেমে অবৈধ ইহুদি বসতি স্থাপনের অংশ হিসেবে নতুন করে ১ হাজার ৭০০টির বেশি বাড়ি নির্মাণের অনুমতি দিয়েছে ইসরায়েল সরকার। পূর্ব জেরুজালেমকে ভবিষ্যৎ ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে মনে করেন ফিলিস্তিনিরা।

:খবর- আল মনিটর।


আরও খবর



সজনে ডাটা আমদানি হচ্ছে হিলি বন্দর দিয়ে

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩২জন দেখেছেন

Image

মাসুদুল হক রুবেল,হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি হচ্ছে গ্রীষ্মকালিন সবজি সজনে ডাটা। দেশের বাজারে চাহিদা থাকায় এবং দেশীয় সজনে ডাটা না ওঠায় ভারত থেকে আমদানি বৃদ্ধি পেয়েছে। আমদানিকৃত এই সবজিটি ঢাকা,চট্রগ্রামসহ দেশের বিভিন্নস্থানে সরবরাহ হচ্ছে। আসন্ন রমজানে চাহিদা আরো বাড়বে বলে জানান আমদানিকারকরা।

প্রতি মেট্রিকটন আমদানিতে ১৫০ মার্কিন ডলার এবং কেজিতে ২০ টাকা হারে শুল্ক পরিশোধ করতে হচ্ছে। বন্দরের পাইকারি পর্যায়ে বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ৯০ টাকায়। বগুড়া পাইকার আব্দুল মমিন বলেন,ভারত থেকে আমদানি হওয়া সজনে ডাটা মান ভালো হওয়ায় এর চাহিদা বাড়ছে। আমি বন্দর থেকে ৮০ থেকে ৯০ টাকা কেজি দরে কিনে ১০০ থেকে ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করে থাকি।

মের্সাস রহমান টের্ডাস এর প্রতিনিধি মাহাবুব হোসেন জানান,গ্রীষ্মকালিন সবজি সজনে দেশের বাজারে আসতে এখনো অন্তত এক মাস সময় লাগবে। তাছাড়া ভারতীয় সজনে ডাটার মান ভালো হওয়ায় এর চাহিদা দেশ জুড়ে রয়েছে। সেকথা ভেবেই ভারত থেকে চলতি মাসের ১৩ তারিখে প্রথম সজনে ডাটা আমদানি করা হয়। এরপর চাহিদা বেশ ভালো থাকায় নিয়মিত সজনে ডাটা আমদানি করা হচ্ছে।


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সিএনজিতে চড়ে সংসদে এলেন সর্বকনিষ্ঠ এমপি আজিজ

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৩১জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিন প্রায় সব সংসদ সদস্যই (এমপি) হাজির হন ব্যক্তিগত গাড়িতে চেপে। কিন্তু একমাত্র ব্যতিক্রম সর্বকনিষ্ঠ এমপি আজিজুল ইসলাম খন্দকার আজিজ। তিনি সংসদে আসেন সিএনজিচালিত অটোরিকশায় চড়ে। যা দেখে উপস্থিত সবাই অবাক হয়ে যান।

জানা যায়, বিকেল ৩টায় সংসদ অধিবশেন শুরু হয়। তার আগে অন্য সবার মতো আজিজুলও এসে পৌঁছান সংসদ ভবনে। তাকে সিএনজি থেকে নামতে দেখে অনেকেই কৌতূহলী হন। এ সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

আজিজুল প্রথমেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, তিনি সুযোগ দিয়েছেন বলেই আমার মতো মানুষ আজকে সংসদ সদস্য হতে পেরেছে। প্রধানমন্ত্রী যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়েছেন আমরা তরুণরা সেটা গড়তে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করব।

নির্বাচনে জয় পাওয়া প্রসঙ্গে আজিজুল বলেন, এখানে কোনো ম্যাজিক না, মানুষের ভালোবাসা। আমি যখন ভোট চাইতে গিয়েছিলাম, মানুষ এতো পরিমাণ আমাকে দোয়া দিয়েছে, এতো মানুষের চোখের পানি আমার গায়ে লেগে আছে। এই মানুষের চোখের পানি দিয়েই কিন্তু আজকে আমি সংসদে আসছি।

মানুষের কল্যাণে কাজ করা দায়িত্ব হয়ে গেছে জানিয়ে আজিজুল ইসলাম বলেন, আজকে প্রথম অধিবেশন। আমি সর্বকনিষ্ঠ সদস্য। আমার ভেতরটা অনেক ভারী। কারণ আমার যে দায়িত্ব এটা অবশ্যই পূরণ করতে হবে।

সার্টিফিকেট অনুযায়ী বর্তমানে আজিজুল ইসলামের বয়স মাত্র ২৮ বছর। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি যশোর-৬ (কেশবপুর) সংসদীয় আসন থেকে ৯ হাজার ৫৭৫ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হন।

আজিজুল ইসলাম খন্দকার আজিজের প্রতিপক্ষও ছিলেন দুই হেভিওয়েট প্রার্থী। একজন নৌকা প্রতীকের আলোচিত-সমালোচিত যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদ্য সাবেক সংসদ সদস্য শাহীন চাকলাদার।অন্যজন স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও দু’বারের উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন।


আরও খবর



কালিয়াকৈরে এবার সাংবাদিকের গাড়িতে তালা ঝুলালেন ইউএনও

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৮৮জন দেখেছেন

Image

সাগর আহম্মেদ,কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:গাজীপুরের কালিয়াকৈরে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরের ভিতরে পাকিং করায় এক সাংবাদিকের গাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের জেরেই ওই কর্মকর্তা এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে ধারণা করছেন অনেকে। সোমবার পর্যন্ত গাড়িটি তালাবন্ধ থাকায় নিন্দা জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সাংবাদিক ও সচেতন মহলের লোকজন।

এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী সাংবাদিক সূত্রে জানা গেছে, গত দ্বাদশ নির্বাচন সুষ্ঠ, সুন্দর নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ করার লক্ষে ঢাকার ধামরাই উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকীকে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বদলি করা হয়। তিনি কালিয়াকৈরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদানের পর নৌকার বিপক্ষে কাজ করে সমালোচিত হন। এরপর তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মাটি খেকোদের চারটি ভেকু জব্দ করে। এতে আলোচিত হলেও কয়েকদিন পরই জব্দকৃত ভেকু ছেড়ে দিয়ে আবারো সমালোচিত হন ওই কর্মকর্তা। পরে তার অলিখিত অনুমোদনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার মাটি খেঁকোরা বেপরোয়া হয়ে উঠে। প্রায় অর্ধশত পয়েন্টে অবৈধ ভাবে ফসলি জমির মাটি, উচু জমি, খালের পাড়, টিলা, নদীর তীরসহ মাটি কাটার উৎসবে পরিণত হয়েছে। এসব বিষয়ে সংবাদ প্রচারের লক্ষ্যে ওই কর্মকর্তা বক্তব্য নিতে গেলে দুজন টেলিভিশন সাংবাদিকের ওপর চটে যান।

এক পর্যায় তার আনসার সদস্য দিয়ে ওই সাংবাদিকদের ক্যামেরা ও মোবাইল ফোন কেড়ে নেওয়া হয়। ওই তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের মাধ্যমে তার অফিস থেকে বের করে দেন ওই কর্মকর্তা। শুধু তাই নয়, গত ৪ ফেব্রুয়ারী অবৈধ ইটভাটায় লোক দেখানো অভিযান করে তিনি। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বৈষম্যের জরিমানায় ক্ষুব্দ হন ইটভাটার মালিক ও স্থানীয়রা। মনগড়া উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটি করে আরো বিতর্কিত হন ওই ইউএনও। এসব বিষয়ে বিভিন্ন মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশিত হলে সাংবাদিকদের ওপর ক্ষিপ্ত হন। এর আক্রোশে কালিয়াকৈর প্রেসক্লাবের সদস্য ও দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিন পত্রিকার প্রতিনিধি দেলোয়ার হোসেনকে তার গাড়ি উপজেলা চত্ত্বরে পাকিং করতে নিষেধ করেন ওই কর্মকর্তা। এরপর থেকে ওই সাংবাদিক কয়েকদিন ধরে উপজেলা চত্ত্বরে তার গাড়ি রাখেন না। কিন্তু গত রোববার সকালে ওই সাংবাদিক তার গাড়িটি উপজেলা চত্ত্বরে রেখে অন্যত্র চলে যান। দুপুরের পরও তার নির্দেশে ওই সাংবাদিকের গাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেন তার দেহ রক্ষী আনসার সদস্য। পরে তালা সম্বলিত গাড়ির ছবি ওই সাংবাদিকের মোবাইল ফোনে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। মুলত ইউএনও’র বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের জেরেই তিনি এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে ধারণা করছেন অনেকে। সোমবার পর্যন্ত গাড়িটি তালাবন্ধ থাকায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সাংবাদিক ও সচেতন মহলের লোকজন। তারা বলছেন, আসলে দেশে সাংবাদিকরা এখন নিরাপদ না, সেখানে সাধারণ জনগন কতটুকু নিরাপদ আছে? তিনি এখানে যোগদানের পর থেকেই একের পর এক সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। তবে এসব একজন ইউএনওর কারনে দেশের সকল ইউএনও, প্রশাসন ও সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে বলেও জানান তারা। ওই গাড়ির মালিক সাংবাদিক দেলোয়ার হোসেন বলেন, গত কয়েক দিন আগে উপজেলা চত্বরে গাড়ি রাখায় ওই ইউএনর দেহ রক্ষী (আনসার) আমাকে গাড়ি রাখতে নিষেধ করেন। এর পরে আমি সেখানে আর গাড়ি রাখি না। কিন্তু রোববার অফিস সময়ে ওই চত্বরে গাড়ি রেখে বাহিরে গেলে গাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেয়া হয়।

মাটি খেঁকোদের পক্ষে সাফাই গেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকী জানান, যদি মাটি কাটা বন্ধ হলে বাড়িঘর হবে কিভাবে? আইনে নিয়ম না থাকলেও বাস্তবে বন্ধ করা সম্ভব নয়। এছাড়া সাংবাদিকের গাড়িতে তালা ঝুলানোর বিষয়ে তিনি মুঠোফোনে বলেন, উপজেলা পরিষদ পাকিংয়ের জায়গা না।

এখানে কেউ অবৈধ ভাবে পাকিং করলে আমরা তালা বদ্ধ করতেই পারি। এখানে বক্তব্য নেওয়ার দরকার নাই। তবে ওনার আসার দরকার বলে তিনি উত্তেজিত কন্ঠে বলেন, এটা কি নিউজ করার বিষয়?


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




কুমিল্লায় কাভার্ড ভ্যান-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ৫

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১০০জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক:কাভার্ড ভ্যান এবং সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে কুমিল্লার দাউদকান্দিতে ঘটনাস্থলে পাঁচজন নিহত হয়েছে।

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার কচুয়া এলাকার মহানন্দে এ দুর্ঘটনা ঘটে।দাউদকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোজাম্মেল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মোজাম্মেল হক বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত সিএনজিটি গৌরিপুরের দিকে যাচ্ছিল। আর কাভার্ড ভ্যানটি কচুয়ার দিকে। এ সময় যানবাহন দুইটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছে ৫ জন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের নামপরিচয় জানা যায়নি।


আরও খবর



আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু ইজতেমার প্রথম পর্ব

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১৮জন দেখেছেন

Image

তরিকুল ইসলাম:আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু ইজতেমার প্রথম পর্ব,টঙ্গীর তুরাগ তীরে চলছে মুসলিম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জমায়েত বিশ্ব ইজতেমা।শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) ফজর নামাজের পর পাকিস্তানের মাওলানা আহমদ বাটলার আমবয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু করেন।আর তা তাৎক্ষণিকভাবে বাংলায় তরজমা করছেন মাওলানা নুরুর রহমান।

আজ ভোরে এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের মিডিয়া সমন্বয়ক মো. হাবিবুল্লাহ রায়হান।

মো. হাবিবুল্লাহ রায়হান তিনি বলেন, মাওলানা আহমদ বাটলা সাহেবের বয়ানের পর সকাল ১০টায় তালিম করবেন পাকিস্তানের মাওলানা জিয়াউল হক সাহেব। তার তালিমের পরপরই দেশের বৃহত্তম জুমার নামাজের প্রস্তুতি শুরু করা হবে। শুক্রবার জুমার নামাজ পড়াবেন মাওলানা জুবায়ের সাহেব।

মো. হাবিবুল্লাহ রায়হান তিনি আরও বলেন, জুমার নামাজের পর বয়ান করবেন জর্ডানের মাওলানা খতিব সাহেব, আছরের নামাজের পর বাংলাদেশের হাফেজ মাওলানা জুবায়ের সাহেব ও মাগরিবের পর ভারতের মাওলানা আহমদ লাট সাহেব বয়ান করবেন।

বিশ্ব ইজতেমা ময়দানসহ আশপাশের এলাকা শীত ও বৃষ্টিসহ নানা ভোগান্তি উপেক্ষা দেশবিদেশের বিভিন্ন প্রান্তের মুসল্লিদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে। ইজতেমার প্রথম পর্ব শেষ হবে আগামী রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে। ৯ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা শুরু হবে। ইতোমধ্যে মুসল্লির আগমনে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে গেছে ইজতেমা ময়দান।

মো. মাহবুব আলম গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশের কমিশনার বলেন, বিশ্ব ইজতেমা ঘিরে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ইজতেমায় গাজীপুর মেট্টোপলিটন পুলিশের ছয় হাজার সদস্যের পাশাপাশি র‌্যাব, ঢাকা মেট্টোপলিটন পুলিশ এবং সাদা পোশাকে গোয়েন্দা বাহিনীর পর্যাপ্ত সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

উল্লেখ্য,ইজতেমায় এ পর্যন্ত তিনজন মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার দুজন ও বৃহস্পতিবার একজন মুসল্লির মৃত্যু হয়।


আরও খবর