Logo
আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ফুলবাড়ীতে রঙিন পাতাকপি চাষ

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৪৫জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি:দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার খয়েরবাড়ী গ্রামে কৃষক মিলন রানা তার জমিতে রঙিন পাতাকপি চাষ শুরু করেছেন। ফুলবাড়ী উপজেলায় এই প্রথম রঙিন পাতাকপি চাষ শুরু হয়েছে। ফুলবাড়ী উপজেলা কৃষি অফিস থেকে রুবি কিং মৌসুম ২৩-২৪ অর্থ বছরের টেকশই কৃষি উন্নয়ন কৃষক গ্রুপ। প্রদর্শনী ক্ষেতে কৃষক মিলন রানার ২০ শতক জমিতে গত ২৯/১০/২০২৩ইং তারিখে রঙিন পাতা কপির চাষ শুরু করেন। জমিতে লাগানোর দুই মাসে মধ্যে এই রঙিন ফুলকপি পরিপুক্ত হয়। যাহা উত্তোলন করে বাজারে বিক্রয় করা সম্ভব। বর্তমান বাজারে এই রঙিন পাতাকপি প্রতি কেজি ৫০টাকা দরে বিক্রয় হচ্ছে। ফুলবাড়ী উপজেলার খয়েরবাড়ীতে কৃষক মিলন রানা এই প্রথম রঙিন পাতা কপি চাষ করে কৃষকদেরকে তাক লাগিয়েছেন। ২০শতক জমিতে ৭২০ পিচ চারা রোপন করেন সাবলম্বি হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন।

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোছাঃ রুম্মান আক্তার জানান, ফুলবাড়ীতে এই প্রথম রঙিন পাতা কপির চাষ প্রদর্শনী হিসেবে লাগানো হয়েছে কৃষক মিলন রানা সফল হয়েছে। আমরা কৃষি দপ্তর থেকে সব রকম সহযোগিতা করেছি কৃষক মিলন রানাকে। সরেজমিনে প্রদর্শনীর ক্ষেত দেখতে এসে তিনি খুব আনন্দিত এবং সফলতা বোধ মনে করছেন। খয়েরবাড়ি গ্রামের কৃষক মিলন রানা জানান, আগামীতে ব্যাপক ভাবে রঙিন পাতা কপির চাষ শুরু করা হবে। এই কপি বাজারে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ফুলবাড়ী উপজেলা কৃষি অফিসের অতিরিক্ত কৃষি অফিসার মোঃ শাহানুর। কৃষ প্রদর্শনীর আয়োজনে ছিলেন দিনাজপুর অঞ্চল টেকসই কৃষি উন্নয়ন প্রকল্প। এ সময় ফুলবাড়ী থানা প্রেস ক্লাবের সভাপতি ও সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ আফজাল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক উপজেলা মাইটিভি প্রতিনিধি মোঃ ফিজারুল ইসলাম ভুট্টু সহ প্রিন্ট মিডিয়ার সহ সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



মেহেরপুরে জমি নিয়ে বিরোধ, আহত- ৭

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৭২জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ,মেহেরপুর প্রতিনিধিঃমেহেরপুর সদর উপজেলার কালী গাংনী গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দু-পক্ষের সংঘর্ষে কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল আক্তার, ফুরকান আলী, নাহিদুজ্জামান রাসেল, আবুল কালাম, লিজন, বদরুদ্দীন ও সাবদুল নামের ৭ জন আহত হয়েছে। আহতদের মেহেরপুর-২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ সোমবার সকালের দিকে এর সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন বাবুল আক্তার কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, আজিজুর রহমানের ছেলে ফুরকান, নাসির উদ্দিনের ছেলে নাহিদুজ্জামান রাসেল, কামরুলের ছেলে আবুল কালাম, আবুল কালাম এর ছেলে লিজন, মৃত রিয়াজউদ্দিনের ছেলে বদর উদ্দিন, এবং তার ভাই সবদুল।

জানা গেছে ঘটনার সময় বদরুদ্দিনের নেতৃত্বে তার লোকজন বিরোধপূর্ণ একটি জমিতে চাষ দিতে যান। এ সময় বাবুল আক্তার বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত চাষ না করার জন্য আহ্বান জানান। এ সময় বাবুল আক্তারের উপরে হামলা করা হলে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়।

এই ঘটনায় উভয়পক্ষের ৭জন আহত হলে তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর-২৫০ বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। 


আরও খবর



গাংনীতে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৯জন দেখেছেন

Image

মজনুর রহমান আকাশ, মেহেরপুরঃঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিক বণিক বার্তার সাবেক সহকারী বিজ্ঞাপণ ম্যানেজার ও মেহেরপুরের গাংনীর মালসাদহ গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম কাউসার হত্যা মামলার মৃত্যুদ-প্রাপ্ত আসামী আবু সাদাত মোঃ ফয়সাল ওরফে প্যাডিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে গাংনী থানা পুলিশের একটি টীম র‌্যাব-২ শেরেবাংলানগর ক্যাম্পের সহায়তায় তাকে তুরাগ থানাধিন বাউনিয়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে।আবু সাদাত মোঃ ফয়সাল ওরফে প্যাডি গাংনী উপজেলার মালসাদহ গ্রামের মৃত মাহাতাব উদ্দীনের ছেলে। তাকে মঙ্গলবার দুপুরে মেহেরপুর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্যাডির নামে খাগড়াছড়ি জেলায় একটি হত্যা মামলা ও অস্ত্র গুলি ও বিষ্ফোরক দ্রব্য আইনে গাংনী থানাসহ অন্যান্য থানায় আরো ৬ টি মামলায় গ্রেপ্তারী পরওয়ানা রয়েছে। জানা গেছে, জাহাঙ্গীর আলম কাউসার ২০১৫ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর বাসা থেকে অফিসের উদ্দেশ্যে বের হয়ে নিখোঁজ হন। তিন দিন পর খিলক্ষেত এলাকার নামাপাড়া বোর্ডঘাট

এলাকার একটি বাসায় স্যুটকেস ভর্তি অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এঘটনায় প্যাডি ও তার সহযোগি রাইহান, নাজমুল হাসান রাকিব ও ফয়সাল ফাহিম নামের ৪ জনকে আসামী করে খিলক্ষেত থানায় মামলা করেন জাহাঙ্গীর হোসেন কাউসারের স্ত্রী রোক্সানা। যার মামলা নং- ১৬, তাং ১৮-৯-১৫ ইং। টাকা লেন দেনকে কেন্দ্র করে পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে মর্মে এজাহারে উল্লেখ করা হয়। পুলিশ তাদেরকে গ্রেপ্তার করে। পরে ঢাকা মেট্রোপলিন স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিজ্ঞ বিচারক ২০১৮ সালে প্রধান আসামী আবু সাদাত মোঃ ফয়সাল ওরফে প্যাডিকে মৃত্যুদন্ড ও অন্যান্য আসামীদেরকে যাবজ্জীবন কারাদ- প্রদান করেন।

গাংনী থানার ওসি (তদন্ত) মনোজিৎ কুমার নন্দী জানান, রায় ঘোষণার সময় থেকে প্যাডি পলাতক ছিল। সে ঢাকার বাউনিয়া এলাকায় রুবেল নামে পরিচিত হয়ে বসবাস করছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে এসআই জহির রায়হান ও সঙ্গীয় ফোর্স তাকে গ্রেপ্তার করে।


আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মাগুরা হাসপাতালের লাশঘর থেকে মৃত বধুর গহনা চুরির অভিযোগ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৯৬জন দেখেছেন

Image
স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:মাগুরায় সদর হাসপাতালের অস্থায়ী লাশ ঘরে থাকা নববধূর গলা থেকে গহনা চুরির অভিযোগ পাওয়া গেছে।নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে অভিযোগ জানানো হলেও  চুরির কোনো কূলকিনারা এখনও হয়নি।

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার কাদিরপাড়া ইউনিয়নের সোনাতুন্দি গ্রামের রিয়াজুল ইসলাম জানান, তার মেয়ে বৃষ্টি (১৯) জেলার শ্রীপুর উপজেলার দারিয়াপুর ডিগ্রি কলেজে পড়াশোনা করছে। গত বছরের মার্চ মাসে মাগুরার সদর উপজেলার কুচিয়ামোড়া ইউনিয়নের চাপড়া গ্রামের কসমেটিক ব্যবসায়ী সাদাত রহমান সর্বুর সঙ্গে মেয়ের বিয়ে হয়। লেখাপড়ার পাশাপাশি মেয়ে খুশি মনে সংসার করছিল; কিন্তু রাতে খবর পাই তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে শ্বশুরবাড়ির একটি ঘরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে বৃষ্টি আত্মহত্যা করেছে। 

খবর পেয়ে আমরা হাসপাতালে গেলে বৃষ্টির নাক, কান এবং গলায় স্বর্ণের গহনা দেখতে পাই। পুলিশ রাতেই সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে লাশ হাসপাতালের নীচতলায় অস্থায়ী লাশঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে।

তিনি জানান, বুধবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য বের করার সময় গলায় থাকা স্বর্ণের গহনা দেখতে না পেয়ে পুলিশকে জানানো হয়। তারা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে গহনা উদ্ধারের চেষ্টা করবে বললেও তারা আমাদের আর কিছুই জানায়নি।

মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার বিকাশ কুমার শিকদার বলেন, হাসপাতালে কোনো রোগীর মৃত্যু হলে তাৎক্ষণিকভাবে যেখানে রাখা হয় সেই ঘরটির তালা চাবি নিয়ন্ত্রণ করে হাসপাতালের পুলিশ ব্যারাকের সদস্যরা। 

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বৃষ্টি (১৯) নামের মেয়েটিকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক এহসানুল হক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে ব্যারাকের পুলিশ সদস্যরাই মরদেহটি লাশঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন। কিন্তু সেখান থেকে কিভাবে গহনা হারিয়ে গেছে সেটি আমাদের জানার বিষয় নয়।

হাসপাতালের পুলিশ ব্যারাকের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তারা এ বিষয়ে কিছু বলতে রাজি হননি। তবে মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মেহেদী রাসেল বলেন, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে গহনা চুরির বিষয়টি জানানো হলেও এ বিষয়ে লিখিত কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। রাতে সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করার সময় সেখানে নিহতের পরিবারের অনেক সদস্য উপস্থিত ছিলেন।কখন কিভাবে স্বর্ণের গহনাটি খোয়া গেছে সেটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সুন্দরগঞ্জে বয়স্কভাতা ভুগিদের টাকা চুরি,প্রতিকারের দাবিতে অবস্হান

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৩১জন দেখেছেন

Image

সুন্দরগঞ্জ( গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃসুন্দরগঞ্জ উপজেলার ১৫ টি ইউনিয়নে সমাজসেবা অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রনাধীন সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনির আওতায় বয়স্ক,-বিধুবা,-প্রতিবন্ধি ভাতা-ভূগিদের ভাতার টাকা  একাউন্টে ঢোকার সাথে সাথেই ভাতার টাকা অভিনব কায়দায় চুরি হচ্ছে। ফলে সরকার যে উদ্দ্যেশে গরীব--অসহায়,,ভূখা-দের সাহায্যকরছে, সে উদ্দেশ্য ব্যাহত হয়ে টাকা যাচ্ছে মোবাইল হ্যাকারদের পকেটে। এব্যাপারে উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মোঃ রফিকুজ্জামান খাঁন বলেন,, ভাতা-ভূগিদের টাকার ব্যাপারে আমাদের করার কিছুই নেই।তিনি বলেন,,ভাতা-ভূগিদের সব বিষয় ট্যেককেয়ার করেন সমাজ সেবা অধিদপ্তর,বাংলাদেশ ব্যাংক,ও নগদ মোবাইল ব্যাংকিং কতৃপক্ষ।সচেতন মহলের অভিযোগ,নগদ কোম্পানির লোকজনই হ্যাকারের কাছ করে টাকাগুলো তুলে নিচ্ছে।তা ছারা যখনই টাকা ঢুকছে তখনই কিংবা টাকা মোবাইলে ঢুকার পূর্বমহুর্তে ফোন করেই টাকা দিয়ে তুলে নিচ্ছেন।তাই ভাতা প্রদান পদ্ধতি পরিবর্তন করে পূবের ন্যায় ব্যাংকিং পদ্ধতিতে টাকা প্রদান করার জোর দাবি জানান।গাইবান্ধা জেলা পরিষদ সদস্য এমদাদুল হক নাদীম বলেন,,ভাতা-চোর মোবাইল হ্যাকারদের সনাক্ত করে আইনের আওতায় নিয়ে দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবি করেন।ভাতা-ভূগি  তারাপুর ইউনিয়নের খোদ্দাগ্রামের,,ইসমাঈল হোঃ,(৮৫) নিজাম খাঁ গ্রামের ইসলাম উদ্দিন(৯২) বিধুবা ভাতা ভূগি,ঘঘোয়া গ্রামের গুলজান বেওয়া(৭৭),তারাপুর গ্রামের রেজিয়া বেওয়(৮৭)তাদের ভাতার টাকা ফেরতের দাবীতে  উপজেলা নির্বাহী অফিসের গেটে অবস্হান কর্মসুচী পালন করেন।


আরও খবর

সন্দ্বীপ থানার ওসি কবীর পিপিএম পদকে ভূষিত

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




৬ কোটি টাকার বিজনেস সিক্রেট নিয়ে মোড়ক উন্মোচন হল কোচ কাঞ্চনের ক্যাশ মেশিন

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১১৫জন দেখেছেন

Image
মারুফ সরকার, স্টাফ রিপোর্টার:'একসাথে সমৃদ্ধ' শ্লোগান নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে কোচ কাঞ্চন একাডেমির মিলনমেলা। আর এই মিলন মেলায় ৬ কোটি টাকার বিজনেস সিক্রেট নিয়ে মোড়ক উন্মোচন  হল কোচ কাঞ্চনের 'ক্যাশ মেশিন'। 

মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে কোচ  কাঞ্চন বলেন, আমি আমার বইটি আমার এক বন্ধুর জন্য উৎসর্গ করলাম। এখানে বইয়ের ভিতরে বন্ধুর সমস্ত কথা তুলে ধরা হয়েছে। আমাকে ঢাকাতে নিয়েছিল আমার ওই বন্ধু। এমনকি তার মৃত্যুর সময় আমি তার জানাজার ওখানে যেতে পারিনি। এটা আমার জন্য জীবনের সবচেয়ে বড় কষ্ট। আমি অন্য মানুষের থেকে তার জানাজার বর্ণনা শুনেছিলাম। আপনারা সবাই আমার ওই বন্ধুর জন্য  দোয়া করবেন। 
 

অনুষ্ঠানে এক লাখ কোটিপতি তৈরির ঘোষণাও দেন কোচ কাঞ্চন। তিনি মনে করেন দক্ষ উদ্যোক্তা তৈরি করা গেলে দেশের অর্থনীতি পালটে দেয়া সম্ভব।

দশ লক্ষ দক্ষ উদ্যাক্তা তৈরির মিশনে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে কোচ কাঞ্চন টিম। ২০১৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৩০ হাজারেরও বেশি প্রশিক্ষণার্থী কোচ কাঞ্চন একাডেমির বিভিন্ন সেশনে অংশগ্রহণ করে উপকৃত হয়েছে। কোচ কাঞ্চনের বই পড়েছেন ৫০ হাজারেরও বেশি পাঠক। কোচ কাঞ্চন একাডেমির এই মেগা মিলনমেলা ছিল পারস্পারিক সু-সম্পর্ক তৈরি ও হাতে হাত ধরে এগিয়ে যাওয়ার দারুণ সুযোগ।

আরও খবর

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪