Logo
আজঃ Monday ২৯ November ২০২১
শিরোনাম
নৌকা পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান হলো তৃতীয় লিঙ্গের ঋতু! তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা কুমিল্লায় নৌকা পেয়েও সরে দাড়ালেন বাহালুল, প্রাথমিক সদস্য না হয়েও মনোনীত নূরুল! মাতুয়াইলে সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্ধোধন করলেন সংসদ সদস্য কাজী মনু পলো উৎসবে মাছ ধরায় মেতেছে মানুষ, চির চেনা বাংলা গাজীপুরে ৩০ সেকেন্ডেই মা-মেয়ের জীবন শেষ করল দুই খুনি হয়নি হাফ পাসের সিদ্ধান্ত,টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব আলেম-ওলামাদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা-ভক্তি রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রংপুরের তারাগঞ্জে ট্রাকচাপায় তিন নারী শ্রমিক নিহত কুমিল্লার তিতাস ও মেঘনা উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী যারা !
সচল হয়েছে মোবাইল ফোনে থ্রিজি ও ফোরজি ইন্টারনেট

ফের সচল হলো থ্রিজি-ফোরজি ইন্টারনেট

প্রকাশিত:Friday ১৫ October ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১৮৩জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


ডেস্ক এডিটর :

 

সচল হয়েছে মোবাইল ফোনে থ্রিজি ও ফোরজি ইন্টারনেট। শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) বিকেল ৪টার পর ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলার অনেক ব্যবহারকারী তাদের মোবাইল ফোনে থ্রিজি ও ফোরজি ইন্টারনেট সেবা পেতে শুরু করেন।

 

এর আগে ভোর ৫টার দিক থেকে ইন্টারনেটের এ সেবা বন্ধ হয়ে যায়। তবে কোথাও কোথাও ধীরগতির টুজি ইন্টারনেট সেবা পাওয়া যাচ্ছিল। ব্রডব্যান্ডে ইন্টারনেট সেবাও থেকেছে নির্বিঘ্ন।

 

এত দীর্ঘ সময় উচ্চগতির থ্রিজি ও ফোরজি সেবা বন্ধ থাকার বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, সকালে কারিগরি ত্রুটি দেখা দিয়েছিল, যেজন্য আমরা সারাদেশে থ্রিজি-ফোরজি সচল রাখতে পারিনি। তবে ত্রুটি চিহ্নিত করে সেটা দূর করে বিকেলে ঢাকায় থ্রিজি ও ফোরজি ইন্টারনেট সেবা চালু করা হয়েছে।

 

কারিগরি বিষয় বিধায় সারাদেশে এই সেবা চালু হতে কিছুটা সময় লাগতে পারে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘টেকনিক্যাল বিষয় যেহেতু, সেজন্য আমরা একসঙ্গে হয়তো চালু করতে পারছি না। তবে ক্রমান্বয়ে এই সেবা চালু হয়ে যাবে। আশা করছি, ৭টা-৮টার মধ্যে পুরো দেশে থ্রিজি-ফোরজি সেবা সচল হয়ে যাবে।

 

বিভিন্ন অপারেটর সূত্র জানিয়েছে, বুধবার (১৩ অক্টোবর) প্রথমে কুমিল্লা এবং পরে আরও পাঁচ জেলায় দ্রুতগতির মোবাইল ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করা হয়। শুক্রবার ভোর থেকে ঢাকাসহ সারাদেশে অচল হয়ে পড়ে থ্রিজি-ফোরজি ইন্টারনেট সেবা। বিকেল ৪টার পর আবার বেশিরভাগ জেলায় এই ইন্টারনেট সেবা পেতে শুরু করেছেন গ্রাহকরা।

  

খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর



নৌকা পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান হলো তৃতীয় লিঙ্গের ঋতু!

প্রকাশিত:Sunday ২৮ November ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১৭৬জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


 

 

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার ৬নম্বর ত্রিলোচনপুর ইউনিয়ন নির্বাচনে আনারস প্রতীকের তৃতীয় লিঙ্গের স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম ঋতু জয় লাভ করেছেন।

 

রবিবার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বড় ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন নজরুল ইসলাম ঋতু। নির্বাচনে তিনি নৌকা প্রতীকের নজরুল ইসলাম ছানা ও হাতপাখা প্রতীকের মাহবুবুর রহমানকে পরাজিত করেছেন।

 

উপজেলা নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত ফলে জানা যায়, নজরুল ইসলাম ঋতু ৯ হাজার ৫৩৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের নজরুল ইসলাম ছানা পেয়েছেন ৪ হাজার ৪০৪ ভোট। বিজয়ী চেয়ারম্যান ঋতু উপজেলার ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নের দাদপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের সন্তান।

 

জয়ের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া সাংবাদিকদের ঋতু বলেন, এ জয় ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নবাসীর। প্রতিটি মানুষের কাছে আমি ঋণী। কাজের মাধ্যমে মানুষের ঋণ শোধ করার চেষ্টা করব।

 

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 

নিউজ ট্যাগ: ইউনিয়ন নির্বাচন

আরও খবর



ডোমার পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মনছুরুল ইসলাম দানু নির্বাচিত

প্রকাশিত:Tuesday ০২ November 2০২1 | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১৮৪জন দেখেছেন
Image


 

মনিরুজ্জামান লেবু , নীলফামারী :

 

 

নীলফামারীর ডোমার পৌরসভায় প্রথমবারের মতো ইভিএম’এ অনুষ্ঠিত নির্বাচনের বেসরকারীভাবে ফলাফল ঘোষনা করা হয়েছে। মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী নারিকেল গাছ প্রতীকের মনছুরুল ইসলাম দানু ৪ হাজার ৫৩৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

 

তিনি টানা ৩য়বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হলেন। এর আগে ডোমার ইউনিয়ন পরিষদে টানা ৫বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান ছিলেন। 

 

অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী মোবাইল ফোন প্রতীকের আফরোজা নাজনীন রুমি ৩ হাজার ৬৭৪ভোট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন। তবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী গনেশ কুমার আগরওয়ালা পেয়েছেন ২ হাজার ৩২৫ ভোট। 

 

মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত শান্তিপূর্নভাবে ৯টি কেন্দ্রের ৫১টি বুথে ভোটাররা আনন্দঘন পরিবেশে তাদের ভোটাধীকার প্রয়োগ করেন। নির্বাচনকালীন সময়ে কোন কেন্দ্রে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং অফিসার মোহাম্ম জাহাঙ্গীর হোসেন।

 

 খবর প্রতিদিন/ সি.বা

 


আরও খবর



জাতীয যুব দিবস পালিত

সৈয়দপুরে জাতীয় যুব দিবস পালন

প্রকাশিত:Monday ০১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Sunday ২৮ November ২০২১ | ১১৭জন দেখেছেন
Image


আমিরুল হক, সৈয়দপুর, নীলফামারী :

“দক্ষ যুব সমৃদ্ধ দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নীলফামারীর সৈয়দপুরে  পালিত হয়েছে জাতীয যুব দিবস। সোমবার (১ নভেম্বর) দুপুরে এ উপলক্ষ্যে যুবকদের মাঝে শতাধিক গাছের চারা বিতরণ করা হয়। যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর ও সেতুবন্ধন যুব উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে এ চারা বিতরণ করা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামীম হুসাইন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সানজিদা বেগম লাকী, উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার  হাসান আলী, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার নূর মোহাম্মদ, আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব মজিবর রহমান ও সেতুবন্ধন যুব উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি আলমগীর হোসেন।


খবর প্রতিদিন/ সি.বা

নিউজ ট্যাগ: যুব দিবস

আরও খবর



পরাজয় থেকে বেড়িয়ে আসতে চায় বাংলাদেশ

আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে পরাজয় থেকে বেড়িয়ে আসতে চায় বাংলাদেশ

প্রকাশিত:Monday ০১ November ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১৪৪জন দেখেছেন
স্পোর্টস ডেস্ক

Image


সেমিফাইনালের দৌঁড় থেকে ছিটকে পড়ার দ্বারপ্রান্তে থাকলেও পরাজয়ের বৃত্ত থেকে বেড়িয়ে আসতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এমন লক্ষ্য নিয়েই আগামীকাল দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-২০ বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে আবু ধাবির শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মাঠে নামবে টাইগাররা।

 

এখন পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-২০ ফরম্যাটে ছয়টি ম্যাচ খেলে সবকটিতেই পরাজিত হয়েছে বাংলাদেশ।  ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরমাটে আফ্রিকান দেশটির বিপক্ষে জয়ের খরা কাটাতে ২০১৭ সালের পর প্রথমবারের মতো তেম্বা বাভুমার দলের মুখোমুখি হবে টাইগাররা বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় শুরু হওয়া ম্যাচটি সরাসরি দেখাবে গাজী টিভি ও টি-স্পোটর্স।

 

সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকার কাছে ৫ উইকেটে হারে বাংলাদেশ। এরপর ইংল্যান্ডের কাছে হারে ৮ উইকেটে। তবে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ৩ রানে হার ছিলো হৃদয় বিদারক। শ্রীলংকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জিততে পারলে টুর্নামেন্টে দারুণভাবে লড়াইয়ে থাকতো টাইগাররা।

 

গাণিতিকভাবে বাংলাদেশের শেষ চারে উঠার সুযোগ এখনও সম্ভব।  কিন্তু  এ জন্য একসঙ্গে অনেক কিছু ঘটতে হবে, যার অনেক কিছুই বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রনে নেই।

তবে বাংলাদেশ যা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে তা হলো - দক্ষিণ আফ্রিকা এবং অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের শেষ দু’টি ম্যাচে জয়, যা বাংলাদেশি সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটাতে পারে। কিন্তু এই ইভেন্টে টাইগাররা বারবার ব্যর্থ হওয়ায় ভক্ত-সমর্থকরা হতাশ। তার ওপড় টাইগার দলের বড় ধাক্কা হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়েছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

 

এমন অবস্থার পরও প্রয়োজনীয় সময়ে সতীর্থদের জ্বলে ওঠার আহ্বান অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। সম্প্রতি দেশের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে বাংলাদেশ।  তবে এ ক্ষেত্রে নিজেদের পরিকল্পনা মত উইকেট বানিয়ে ম্যাচগুলো জিতেছিল তারা।

টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচে দু’টি করে জয় পেয়ে দারুণ ফর্মে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়া। নিজেদের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। আবার ইংল্যান্ডের কাছে পরাজিত হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। গ্রুপ-১তে পারফরমেন্সের বিচারে ইংল্যান্ডক ভয়ংকর দল।  যেমনটা গ্রুপ-২এ পাকিস্তান।

এমন অবস্থায় গ্রুপ থেকে দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালে যাবার দৌঁড়ে টিকে থাকতে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজেদের ম্যাচগুলোতে জিততে চাইবে দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়া।

তবে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয়  ছাড়া নেট রান-রেটও বাড়ানোর লক্ষ্য তাদের থাকবে বলে আগেই জানিয়েছিলেন মাহমুদুল্লাহ। সেমিফাইনালে যাবার সামান্য সুযোগও কাজে লাগাতে চান তিনি।

হতাশাজনক বিশ্বকাপ যাত্রায় কিছুটা সান্তনা পেতে ও গাণিতিকভাবে বাংলাদেশের সম্ভাবনাকে বাঁচিয়ে রাখতে, শেষ দু’টি ম্যাচে জয়ের জন্য লক্ষ্য স্থির করেছেন মাহমুদউল্লাহ।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বাংলাদেশ উদ্বিগ্ন কারণ এখনও টি-২০ ফরম্যাটে আফ্রিকান দেশের বিপক্ষে কোন জয় পায়নি টাইগাররা।

টি-২০ ক্রিকেটে বাংলাদেশের পারফরমেন্স আশানুরুপ নয়। এখন পর্যন্ত ১১৮ ম্যাচ খেলে ৪৩টি জিতেছে তারা। ৭৩ ম্যাচে হার ও দু’টি পরিত্যক্ত হয়েছে।

এখন পর্যন্ত ক্রিকেটের এই সংক্ষিপ্ত সংস্করণের বিশ্বকাপে ৩০টি ম্যাচ খেলেছে এবং মাত্র সাতটিতে জিতেছে বাংলাদেশ। ২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাছাই পর্বে একটি ম্যাচ জিতেছে তারা।

 

 খবর প্রতিদিন /সি.বা


আরও খবর



হাজার হাজার শৌখিন মৎস শিকারিদের আনা গোনায় রহুল বিল

পলো উৎসবে মাছ ধরায় মেতেছে মানুষ, চির চেনা বাংলা

প্রকাশিত:Saturday ২৭ November ২০২১ | হালনাগাদ:Monday ২৯ November ২০২১ | ১০৪জন দেখেছেন
ডেস্ক এডিটর

Image


 

মাছ ধরা বা মাছ শিকার করা বিলাঞ্চলের মানুষদের আজন্ম শখ। বিশেষ করে চলন বিল এলাকায় বর্ষা মৌসুমে নিম্নাঞ্চলের খাস বা সরকারি জলাভূমিতে পানি অল্প থাকাকালে মাছ শিকারিরা দল বদ্ধ হয়ে পলো, ছোট জাল নিয়ে একটি নিদিষ্ট দিনে মাছ শিকার করে থাকে। এলাকায় এটি পলো উৎসব বা বাউত উৎসব নামের পরিচিত।

 

শনিবার পাবনার ভাঙ্গুড়ার উপজেলার পারভাঙ্গুড়া ইউপির বিল রুহুলে এমনই এক শৌখিন মাছ শিকারিদের মিলন মেলা হয়েছে। এতে সবার কাছে মাছ ধরা পড়ুক বা না পড়ুক এক সঙ্গে বছরের এই দিনে মাছ ধরতে আসার মজাই যেন অন্য রকম।

 

সরেজমিন শনিবার উপজেলার বিল রুহুল এলাকা ঘুরে দেখা যায় , পাবনাসহ পার্শ্ববর্তী জেলাগুলো থেকে শৌখিন মাছ শিকারিরা ভোর বেলার কুয়াশা ভেদ করেই বিভিন্ন যানবাহন বাস, নছিমন, আটো ভ্যান, ভটভটি যোগে এই বিল পাড়ে আসতে থাকে। তাদের হাতে পলো, জাল ঠেলাজাল, ধর্মখরাসহ মাছ ধরার বিভিন্ন উপকরণ নিয়ে বিলের পাড়ে এসে হাজির হয়ে এক সঙ্গে মাছ ধরতে পানিতে নামে। তারা মাছ ধরার সময় বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে। কেউ মাছ পেলে সবাই মিলে তাকে আরো উৎসাহ দিতে থাকে।

 

এদিনে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে বিলপাড়ে বিস্কুট রুটি ও চায়ের দোকান নিয়েও বসেছে। মাৎস শিকারিদের কেউ কেউ পেয়েছে সোল, বোয়াল, রুই, গজার । আবার অনেকেই মাছ পায় নি। তবে প্রায় সবার মুখেই ছিল মাছ ধরতে আসতে পারায় আনন্দের ছোয়া।

শিশু, কিশোর, যুবক, বৃদ্ধসহ সব ধরণের হাজার হাজার শৌখিন মৎস শিকারিদের আনা গোনায় রহুল বিল ছিল কানায় কানায় পরিপূর্ণ।

জানা গেছে, ভাঙ্গুড়া উপজেলার পারভাঙ্গুড়া ইউপি ও পার্শ্ববর্তী চাটমোহর উপজেলার পার্শ্বডাঙ্গা ইউপির কিছু অংশ নিয়ে কয়েক হাজার একর জমি নিয়ে রয়েছে রুহুল বিল। বিশেষত বর্ষার পানি চলে যাওয়ার পর কয়েক শ’ একর জমিতে বিভিন্ন গভীরতায় পানি থাকে। সেখানে বর্ষার পানিতে আটকে থাকা বোয়াল, সোল, গজার, পুঁটি, সিং সহ দেশীয় প্রজাতির বিভিন্ন মাছ।

 

বছরের একটি নিদিষ্ট দিনে একে অন্যেরে সঙ্গে মোবাইল ফোন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যোগাযোগ করে নাটোর, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল থেকে বাস, ভটভটি, নছিমন যোগে ভোরে এই বিলে মাছ ধরার জন্য এসে হাজির হয়। এদিনে তাদের হাতে ধরা পড়ে নানা ধরণের মাছ। বেলা বাড়ার  সঙ্গে সঙ্গে মাছ শিকারির সংখ্যাও কমতে থাকে।

মাছ ধরতে আসা নাটোরের পঞ্চাশোর্ধ আলম হোসেন বলেন, এই দিনটিতে রহুল বিলে মাছ ধরার জন্য প্রতি বছর অপেক্ষা করে থাকি। লোক মুখে খবর পেয়ে মাছ ধরতে এসেছি।

টাঙ্গাইলের বাছের উদ্দীন বলেন, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মাছ ধরার খবর পেয়ে তারা একাধিক বাস রিজার্ভ করে পলো ও মাছ ধরার উপকরণ নিয়ে কয়েকশ শৌখিন মাৎস শিকারি মাছ ধরতে এসেছেন।

 

-খবর প্রতিদিন/ সি.বা 


আরও খবর