Logo
আজঃ শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪
শিরোনাম

ফেনীতে বাংলা সাহিত্যের কবিদের মহামিলন মেলা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | ৩২৮জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 

আজ ফেনীর ফরহাদ নগর, কবি ভবনে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক বাংলা সাহিত্য কাব্য পরিষদের উদ্যোগে আট দেশীয় আন্তর্জাতিক কবিতা উতসব।

এবারের উৎসবে সার্ক দেশ ভুক্ত দেশ সমুহের গূণী কবি গণ অংশ গ্রহণ করবেন।


বাংলাদেশ,ভারত,শ্রীলংকা,মিয়ানমার,পাকিস্তান,আফগানিস্তান,ভুটান এর ৪৫০ জন কবির আগমন ঘটবে কবিদের এই মহা মিলন মেলায়।কবি,গীতিকার,সুরকার,বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা নজরুল বাঙালীর পৃষ্ঠপোষকতায় এই অনুষ্ঠানের শুরু আজ ১৯নভেম্বর, শনিবার,সকাল ১০টায়।আর চলবে একটানা বিকাল ৫টা পর্যন্ত।


আরও খবর

আজ বইমেলা শুরু হচ্ছে

বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




গাজায় নিহতের সংখ্যা প্রায় ২৭ হাজার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৪২জন দেখেছেন

Image

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি হামলায় নিহতের সংখ্যা প্রায় ২৭ হাজারে পৌঁছেছে। আহত হয়েছেন আরও প্রায় ৬৬ হাজার মানুষ। গাজার প্রশাসনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছরের ৭ অক্টোবর শুরু হওয়া ইসরায়েলি হামলায় এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছে অন্তত ২৬ হাজার ৯০০ জন। একই সময়ে ইসরায়েলি হামলায় আহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৫ হাজার ৯৪৯ জনে। এদিকে গাজার খান ইউনিস অঞ্চলে ইসরায়েলি হামলায় সব হারিয়ে এখন পর্যন্ত উদ্বাস্তু হয়েছে ১ লাখ ৮৪ হাজারের বেশি মানুষ।

জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা সংস্থা ইউএনওসিএইচএ জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত খান ইউনিসের উপকণ্ঠে অন্তত ১ লাখ ৮৪ হাজার মানুষ মানবিক সহায়তা চেয়ে আবেদন করেছে। সংস্থাটি এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘এই লোকগুলো সম্প্রতি পশ্চিম খান ইউনিস থেকে অব্যাহত হুমকি ও শত্রুতার কারণে বাস্তুচ্যুত হয়েছে।


আরও খবর

সোনার খনি ধসে ভেনেজুয়েলায় নিহত ২৩

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




পোরশায় ডাকাত সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৫৪জন দেখেছেন

Image

ডিএম রাশেদ,পোরশা (নওগাঁ) প্রতিনিধি :নওগাঁর পোরশায় মামুনুর রশিদ(৪০) নামের এক ডাকাত সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পোরশা থানা পুলিশ। সে উপজেলার নিতপুর ইউপির চকবিষ্ণুপুর গ্রামের আব্দুল গাফফারের ছেলে। মামুনুর রশিদ দীর্ঘদিন ধরে একটি ডাকাত দলের সাথে বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতি করে আসছিল। পূর্বেই তার বিরুদ্ধে পোরশা থানায় মামলা থাকায় পুলিশ তাকে খুজছিল। ডাকাত মামুনুর রশিদ দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল।

পোরশা থানার অফিসার ইনচার্জ আতিয়ার রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানা পুলিশ গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার নিতপুর ইউপির চকবিষ্ণুপুর ব্র্যাক অফিসের নিকট থেকে তাকে আটক করে। মামুনুর রশিদ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ডাকাতিসহ বড় বড় অপরাধের সাথে জড়িত। তার বিরুদ্ধে পোরশা থানায় একাধীক মামলা রয়েছে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ চত্বরে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৬১জন দেখেছেন

Image

ফুলবাড়ী, দিনাজপুর প্রতিনিধি;দিনাজপুরের ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ চত্বরে অধ্যক্ষ ও উপধ্যক্ষের অপসরনের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন অনুষ্টিত। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১টায় ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ চত্বরে অধ্যক্ষ প্রফেসর আলতাফ হোসেন ও উপধ্যক্ষ মোঃ আহসান হাবীব এর অপসারনের দাবীতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ঘন্টা ব্যাপি মানববন্ধন করেন। মানববন্ধনে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ তৌহিদুজ্জমান রাসেল, সাধারণ সম্পাদক রাজিউল ইসলাম রাজু, প্রচার সম্পাদক মোঃ তানভির আহম্মেদ, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আসাদ সহ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনের মোঃ তৌহিদুজ্জমান রাসেল বলেন, ফুলবাড়ী সরকারি কলেজ অব্যবস্থাপনা মধ্যদিয়ে পরিচালনা করা হয়েছে। এখানে কোন পানি সাপ্লই ব্যবস্থা নেই, কোন বিনোদন মূলক স্থান নেই, ভালো কোন বসার জায়গা নেই, ছাত্রবাসে ভালো থাকার ব্যবস্থা  নেই, লাইট গুলোর নিভু নিভু অবস্থা, ওয়াশরুম গুলোতে যাওয়ার কোন উপাই নেই, কলেজ ক্যাম্পাসের চারপাশে ফেন্সিডিল সহ অন্যন্যা মাদকের ছড়াছড়ি দেখার কেউ নেই। অধ্যক্ষ ও উপধ্যক্ষ শুধু বিল ভাউচার করা নিয়েই ব্যস্ত থাকে। কলেজের লেখা পাড়া সঠিক ভাবে হয়েছে সে দিকে কোন নজর নেই। ছোট ছোট প্রোগ্রাম গুলেও খরচের চেয়ে দ্বিগুন তিনগুন বিল ভাইচার করেছেন বলে অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীরা। সব মিলিয়ে কলেজের পরিবেশ একেবারে নষ্ট করে ফেলেছে অধ্যক্ষ ও উপধ্যক্ষ। এ বিষয়ে উপধ্যক্ষ আহসাব হাবীব অফিসিয়ালি কোন কথা বলতে নারাজ। অন্যদিকে ফুলবাড়ী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আলতাফ হোসেন এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায় নি। এতে সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। তারাও তাদের অপসরণ চান। এ সময় প্রিন্ট মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



মাগুরায় অপহৃত নারীকে উদ্ধারে পুলিশের ওপর হামলা চার পুলিশ আহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ৪৯জন দেখেছেন

Image

স্টাফ রিপোর্টার মাগুরা থেকে:অপহরণের পর ইটভাটায় আটকে রাখা এক নারীকে উদ্ধার করতে গিয়ে সোমবার বিকালে অপহরণকারীদের হামলায় পুলিশের একজন এসআইসহ ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ সময়  গুলিবর্ষনের পাশাপাশি অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সোমবার সন্ধ্যা ৬ টারদিকে মাগুরা জেলা ও দায়রা জজ আদালত প্রাঙ্গন থেকে ঐ নারীকে অপহরণ করা হয়।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে পুলিশ অপহৃত মেয়েটিকে উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করলেও পুলিশের ওপর হামলা এবং অপহরণের ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মাগুরার সদর উপজেলার বেঙ্গা বেরইল গ্রামের হারুন মোল্যার পরিবার মেয়ে মাসুরা খাতুনের বিয়ে রেজিস্ট্রির উদ্দেশ্যে সোমবার দুপুরে মাগুরা জেলা জজ আদালত প্রাঙ্গণে উপস্থিত হয়। এ সময় মাগুরা সদর উপজেলার কাশিনাথপুর গ্রামের রজব আলি মোল্যার ছেলে জামির হোসেন বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল নিয়ে জোরপূর্বক বিয়ের কনে মাসুরাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

অপহরণকারীরা মেয়েটিকে শহরতলী ইটখোলার সোনালী ইটভাটায় নিয়ে গিয়ে আটকে রাখে। এ ঘটনার পর থানায় অভিযোগ দিলে পুলিশ সন্ধ্যা ৬ টার দিকে ওই ইটভাটায় গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চালায়।

এ সময় সোনালী ইটভাটার ম্যানেজার জামির হোসেনের নেতৃত্বে ভাটা শ্রমিকেরা লাঠিসোটা নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে মেয়েটিকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। অপহরণকারীদের হামলায় এসআই হাফিজ এবং এরশাদ, সাইফুল ও ওমর নামে ৩ কনস্টেবল আহত হন। পরে সদর থানার অতিরিক্ত পুলিশ এবং ডিবি পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং অপহৃত মেয়েটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অপহরণের শিকার মাসুরা খাতুন বলেন, ১২ বছর আগে মাগুরার সদর উপজেলার দেড়ুয়া গ্রামের দুলাল মোল্যার ছেলে ফারুকের সঙ্গে তার বিয়ে হয়; কিন্তু  নির্যাতনের কারণে চার বছর আগে তাদের  ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে। ওই ঘটনার পরও তার পরিবার নতুন করে বিয়ে ঠিক করলে পূর্বের স্বামী বারবার বাধা দিয়ে আসছে। সোমবার একইভাবে তার পূর্বের স্বামীর ইন্ধনে জজ আদালতে বিয়ের আসর থেকে তাকে তুলে নিয়ে ইট ভাটায় আটকে মারধর করে। সেখানে তার ছোট ভাই উপস্থিত হলে তাকেও মারাত্মকভাবে  পেটাায়।

মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) দেবাশীষ কর্মকার পুলিশের ওপর হামলা ভাঙচুর এবং গুলিবর্ষণের ঘটনা স্বীকার করে বলেন, অপহরণের খবর পেয়ে সোনালী ভাটায় গিয়ে দেখা যায় কয়েকজন মিলে মাসুরা নামের ওই মেয়েটিকে আটকে নির্যাতন চালাচ্ছে। এ অবস্থায় তাকে উদ্ধারের পর পুলিশ ভ্যানে ওঠানো হলে ভাটা শ্রমিকেরা পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে মেয়েটি ও তার ভাইকে মারধর করে। এ সময় তারা পুলিশের ওপর হামলা চালায়।

তিনি বলেন, অপহরণের ঘটনায় ব্যবহৃত ৪টি মোটরসাইকেল ওই ইটভাটা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান। এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কলিমুল্লাহ রাত সাড়ে ১০ টায় এক ব্রিফিংয়ে বিস্তারিত জানান।


আরও খবর



নবীনগর সাহারপাড়ে, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা দেখতে দর্শকদের উপচেপড়া ভিড়

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | ১৫৪জন দেখেছেন

Image

মোহাম্মাদ হেদায়েতুল্লাহ্ নবীনগর ব্রাহ্মণবাড়ীয়া  প্রতিনিধিঃ-

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়ন সারারপাড় দক্ষিণ পাড়া যুব সমাজের উদ‍্যোগে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।রবিবার বিকালে সাহারপাড় চৌরাস্তা মোড় সংলগ্নে এই লাঠি খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়। লাঠি খেলা টি দেখতে শিবপুর ইউনিয়নসহ আশেপাশের বিভিন্ন গ্রাম থেকে হাজারো দর্শকদের উপচে পড়া ভীর দেখা যায়।ঢাক, ঢোল আর সানাইয়ের শব্দে চারপাশ আলোড়িত হয়।


বাদ্যযন্ত্রের তালে নেচে নেচে লাঠি খেলে নানান অঙ্গভঙ্গির মাধ্যমে বাঙালি সংস্কৃতি ও গ্রামীণ জনজীবনের নানা দিক প্রদর্শন করে লাঠিয়ালরা।তারপরই শুরু হয় লাঠির কসরত। প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাত থেকে নিজেকে রক্ষা ও তাকে আঘাত করতে ঝাঁপিয়ে পড়ার অসাধারণ দৃশ্য দেখতে হাজারো দর্শক উপস্থিত হন। দর্শকদের করতালি আর হৈ-হুল্লোড়ে আরো জাঁকজমকপূর্ণ হয়ে উঠে লাঠি খেলার আসর। বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এই  সাহারপাড় গ্রামে লাঠি খেলা দেখতে দর্শকদের উপচেপড়া ভিড় ছিল।


উক্ত লাঠি খেলায় শিবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক অলিউর রহমান ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে ও রাসেল আহমেদ নুর নবীর সঞ্চালনায় উদ্ভোধনি বক্তব্য রাখেন শিবপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ, ও সমাজ সেবক, মোঃ শাহীন সরকার।অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী , জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস।


প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন হাজী মোঃ লিটন মেম্বার।প্রধান মেহমান হিসেবে বক্তব্য রাখেন কাতার প্রবাসী দেলোয়ার হোসেন ও প্রধান পৃষ্ঠপোষকতায় ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ রুবেল ভূঁইয়া।ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলায় উপস্থিত ছিলেন,সমাজ সেবক কবির আহমেদ,আশ্রাফ হোসেন আকছির , রফিকুল ইসলাম রতন , মাইনুদ্দিন মেম্বার, রাসেল ভূঁইয়া সহ এলাকার মান্যবর ব্যাক্তিবর্গগণ ।

-খবর প্রতিদিন/ সি.ব


আরও খবর