Logo
আজঃ Tuesday ০৭ February ২০২৩
শিরোনাম

ফারদিন হত্যা মামলায় ২ মাস পর কারামুক্ত বুশরা

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Tuesday ০৭ February ২০২৩ | ৮৫জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক ;গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে দুই মাস পর জামিনে মুক্তি পেলেন আমাতুল্লাহ বুশরা। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র ফারদিন নূর পরশ হত্যা মামলার আসামি তিনি।

আজ মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বুশরা জামিনে মুক্তি পান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার ফারহানা আক্তার বলেন, ‘আদালতের কাগজপত্র কারাগারে এসে পৌঁছালে তা যাচাই-বাছাই করা হয়। পরে আমাতুল্লাহ বুশরাকে দুপুর ২টার দিকে কারাগার থেকে মুক্তি দেওয়া হয়।’

কারামুক্তির পর আমাতুল্লাহ বুশরাকে তার বাবা মঞ্জুরুল ইসলাম নিয়ে যান।

জানা গেছে, ৫ জানুয়ারি দুপুরে বুশরার পক্ষে জামিন শুনানি হয়। আদালত শুনানি শেষে আদেশের জন্য অপেক্ষামান রাখেন। ওই দিন জামিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী মোখলেসুর রহমান বাদল ও আবদুর রহমান হাওলাদার। পরে গত রোববার সপ্তম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ তেহসীন ইফতেখার তার জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ১০ নভেম্বর সকালে রাজধানীর রামপুরার নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই দিন তার ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। গত ১৬ নভেম্বর তাকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়।

গত ৪ নভেম্বর রাতে রাজধানীর রামপুরা এলাকায় বুশরাকে বাসায় যাওয়ার জন্য এগিয়ে দেন ফারদিন। এরপর থেকেই নিখোঁজ ছিল ফারদিন। ৭ নভেম্বর সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ফারদিনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

গত ৯ নভেম্বর দিবাগত রাতে ডিএমপির রামপুরা থানায় ফারদিনের বাবা নূর উদ্দিন রানা বাদী হয়ে বুশরাসহ অজ্ঞাত বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। বুশরা একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগের ছাত্রী।


আরও খবর