Logo
আজঃ Tuesday ২৮ June ২০২২
শিরোনাম
নাসিরনগরে বন্যার্তদের মাঝে ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ রাজধানীর মাতুয়াইলে পদ্মাসেতু উদ্ধোধন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল রূপগঞ্জে ভূমি অফিসে চোর রূপগঞ্জে গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাংচুর লুটপাট ॥ শ্লীলতাহানী নাসিরনগরে পুকুরের মালিকানা নিয়ে দু পক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৪ পদ্মা সেতু উদ্ভোধন উপলক্ষে শশী আক্তার শাহীনার নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল করোনা শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২ জনের র‍্যাব-১১ অভিমান চালিয়ে ৯৬ কেজি গাঁজা,১৩৪৬০ পিস ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে বন্যাকবলিত ভাটি অঞ্চল পরিদর্শন করেন এমপি সংগ্রাম পদ্মা সেতু উদ্বোধনে রূপগঞ্জে আনন্দ উৎসব সভা ॥ শোভাযাত্রা

এনএসআইয়ের ভুয়া কার্ড ঝুলিয়ে পুলিশের কাছে দাঁড়িয়েছিলেন রুবেল

প্রকাশিত:Friday ১০ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ২৭৬জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানার ঢাকা উদ্যান কেন্দ্রীয় মসজিদের সামনে থেকে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) পরিচয়দানকারী এক যুবককে আটক করা হয়েছে। এ সময় তার কাছ থেকে এনএসআইয়ের সহকারী পরিচালক পদের একটি ভুয়া পরিচয়পত্র জব্দ করা হয়। আটক ব্যক্তির নাম রুবেল ইসলাম (২৮)।

আটক রুবেল দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার বানিয়াপাড়ার তসলিম উদ্দিনের সন্তান। তিনি ঢাকা উদ্যানের বি-ব্লকের তিন নম্বর রোডের একটি বাসায় ভাড়া থাকেন। তার সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন জব্দ করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১০ জুন) রাতে জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ট্রাফিক মোহাম্মদপুর জোনের এটিএসআই মো. আহসান।

তিনি জানান, এনএসআই পরিচয় দেওয়া এক যুবককে আটক করা হয়েছে। আটক যুবক রুবেল নীলক্ষেতের একটি কম্পিউটারের দোকান থেকে এনএসআইয়ের ভুয়া কার্ড তৈরি করে প্রতারণা করে আসছিলেন। তাকে মোহাম্মদপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

এটিএসআই মো. আহসান আরও জানান, শুক্রবার জুমআর নামাজ শেষে ঢাকা উদ্যান কেন্দ্রীয় মসজিদের সামনে বিক্ষোভ করছিলেন মুসল্লিরা। এ সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে অবস্থান করছিলেন রুবেল। তার বুকে ঝুলানো আইডি কার্ড দেখে কর্তব্যরত গোয়েন্দা সদস্যদের সন্দেহ হলে তারা বিষয়টি মোহাম্মদপুর থানা পুলিশকে জানান। পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে রুবেলকে আটক করে হেফাজতে নেয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিজেকে ভুয়া এনএসআই সদস্য পরিচয় দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন রুবেল। পুলিশকে তিনি জানিয়েছেন, নীলক্ষেতের একটি কম্পিউটারের দোকান থেকে এনএসআইয়ের ভুয়া কার্ড তৈরি করে প্রতারণা করে আসছিলেন। রুবেল নির্দিষ্ট কোনো পেশা নেই।

রুবেলে বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে এনএসআইয়ের একটি সূত্র।


আরও খবর



গাইবান্ধায় নদ-নদীর পানি বাড়ছে

প্রকাশিত:Saturday ১৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

গাইবান্ধায় ঘাঘট, তিস্তা, ব্রহ্মপুত্র ও করতোয়া নদীর পানি বেড়ে চলছে। ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে ঘাঘট নদীতে বিপৎসীমা ছুঁই ছুঁই করছে। এতে বন্যা আতংকে রয়েছে নদী পাড়ের মানুষ।

এদিকে নদীতে পানি বাড়ায় সুন্দরগঞ্জ, ফুলছড়ি, সাঘাটা, গাইবান্ধা সদরের চর অঞ্চলের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। নদীতে ভাঙন দেখা দিয়েছে। বাড়িঘর, গাছপালাসহ অনেক ফসলি জমি নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। জেলার চার উপজেলার শতাধিক পরিবার ভাঙনের শিকার হয়ে নিঃস্ব হয়েছেন।

গাইবান্ধায় নদ-নদীর পানি বাড়ছে

শনিবার (১৮ জুন) সন্ধ্যা ৬টার দিকে গাইবান্ধা সদর পয়েন্টে বিপৎসীমার সমান হয়ে ঘাঘট নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে। একইভাবে তিস্তার কাউনিয়া পয়েন্টে ৩০ সেন্টিমিটার, ব্রহ্মপুত্র নদের ফুলছড়ি পয়েন্টে ২৬ সেন্টিমিটার ও করতোয়ার নদীর চর রহিমাপুর পয়েন্টে ১ দশমিক ৫৪ সেন্টিমিটার বিপৎসীমার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

গাইবান্ধায় নদ-নদীর পানি বাড়ছে

ফুলছড়ি উপজেলার কটিয়ারা গ্রামের আলমগীর হোসেন বলেন, কয়েকদিনে নদীর পানি ব্যাপক হারে বাড়ছে। নদীর ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। পাটের জমিসহ অনেক আবাদি জমি নদীতে ভেঙে গেছে।

জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিবার্হী প্রকৌশলী মো. আবু রায়হান বলেন, জেলার সব নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঘাঘট নদীর দুই পাশের বাঁধ রয়েছে। সেগুলো মেরামতের কাজ চলছে। পানি বিপৎসীমার অতিক্রম করলেও এ মুহূর্তে বাঁধ ভাঙার কোনো সম্ভাবনা নেই।


আরও খবর



'পদ্মা সেতু দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনীতিতে অভাবনীয় পরিবর্তন আনবে'

প্রকাশিত:Friday ০৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
Image

পদ্মা সেতু দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনীতিতে অভাবনীয় পরিবর্তন আনবে বলে মন্তব্য করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। তিনি বলেন, পদ্মা সেতু দক্ষিণের মানুষের জীবনমানের পরিবর্তন করবে, তাদের আধুনিক আকাঙ্ক্ষা পূরণ হবে। এ সেতু দক্ষিণাঞ্চলের জন্য আশীর্বাদ।

শুক্রবার (৩ জুন) পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় পর্যটন হলিডে কমপ্লেক্সে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএফআরআই) আয়োজিত সীউইড মেলার উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতু দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের জন্য আশীর্বাদ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা না থাকলে এটি কখনোই সম্ভব হতো না। প্রক্রিয়াজাতকরণের ব্যবস্থা না থাকায় এ অঞ্চলে উৎপাদিত মাছ, মাংস, দুধ ও ডিমসহ অন্যান্য কৃষিসামগ্রী ঢাকায় পৌঁছানো বা রপ্তানির সুযোগ ছিল না।

‘পদ্মা সেতুর সংযোগের ফলে দক্ষিণাঞ্চলে উৎপাদিত কৃষিসামগ্রী দ্রুততার সঙ্গে ঢাকায় যেতে পারবে। পাশাপাশি এ অঞ্চলে প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প প্রতিষ্ঠা হবে। প্রক্রিয়াজাত করা সামগ্রী সরাসরি বিদেশে পাঠিয়ে দেওয়া যাবে। এ সেতু দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের ঢাকায় আসা-যাওয়াই শুধু সহজ করবে না, এ অঞ্চলের অর্থনীতিকেও সমৃদ্ধ করবে।’

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন মাছে স্বয়ংসম্পূর্ণ। সমুদ্র থেকে টুনা জাতীয় মাছ আহরণে মৎস্য অধিদপ্তর প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। বিশ্বের অন্তত ৯০টি দেশে বাংলাদেশের মাছের চাহিদা রয়েছে।

‘পদ্মা সেতু হওয়ার কারণে দক্ষিণাঞ্চলে মাছ প্রক্রিয়াজাতকরণ ও প্যাকেটজাতকরণ শিল্প গড়ে উঠবে। বিশ্বের অনেক দেশে মাছ পাঠানো যাবে। এখান থেকে প্যাকেটজাত করে সরাসরি মাছ রপ্তানি করতে পারলে মৎস্য সংশ্লিষ্ট শিল্পেই দক্ষিণাঞ্চল এগিয়ে যাবে, এ অঞ্চলের অর্থনীতি সমৃদ্ধ হবে।’

মেলার উদ্বোধনকালে শ ম রেজাউল বলেন, সীউইড বা সামুদ্রিক শৈবাল বাণিজ্যিক গুরুত্বসম্পন্ন একটি সমুদ্রসম্পদ। এ সম্পদ কাজে লাগাতে হবে। মানুষের পুষ্টি চাহিদা মেটাতে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ও সুস্বাদু খাবারের জোগান দিতে সীউইড অত্যন্ত সহায়ক। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সীউইডের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। সীউইড পণ্যের প্রয়োজনীয়তা ও গ্রহণযোগ্যতা তারা উপলব্ধি করে।

jagonews24

তিনি আরও বলেন, সীউইড প্রাপ্তির একটি বড় অঞ্চল কুয়াকাটা। এ অঞ্চলের পর্যটন হোটেলসহ অন্যান্য হোটেল-মোটেল সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। সীউইডের আহরণ ও বিপণনে যেন কোনো বাধার সৃষ্টি না হয়, সে বিষয়ে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে। এর আহরণ, চাষ পদ্ধতি ও গুণাবলি সবার কাছে পৌঁছে দিতে হবে।

সীউইড জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে জানিয়ে রেজাউল করিম বলেন, সুনীল অর্থনীতির অন্যতম সম্ভাবনাময় সম্পদ সীউইড। খাদ্য, ঔষুধ শিল্প ও প্রসাধনী শিল্পসহ নানা ক্ষেত্রে সীউইডের বহুমুখী ব্যবহার রয়েছে। এ সম্পদকে কাজে লাগিয়ে আমাদের অর্থনীতিকে সুদৃঢ় করতে হবে। বিদেশে সীউইড রপ্তানির বড় বাজার রয়েছে, সেটা আমরা ধরতে চাই।

এ সময় সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, সমুদ্রগামী প্রতিটি নৌযানের রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সমুদ্রগামী সব মাছধরার নৌযানে আধুনিক প্রযুক্তি সংযোজন হচ্ছে। এর মাধ্যমে সমুদ্রে মাছধরা নৌযানের অবস্থান জানা যাবে। ফলে অবৈধ উপায়ে এবং যত্রতত্র মাছধরা ট্রলার যাওয়া বন্ধ হয়ে যাবে।

‘বৈধ উপায়ে মাছ ধরতে গিয়ে জেলেরা দুর্ঘটনায় পড়লে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা করবে। গভীর সমুদ্রে অবৈধ উপায়ে মৎস্য আহরণে যাওয়াকে সরকার নিরুৎসাহিত করছে।’

মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদ। অনুষ্ঠানে সীউইড নিয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিএফআরআইয়ের ‘বাংলাদেশ উপকূলে সীউইড চাষ ও সীউইডজাত পণ্য উৎপাদন গবেষণা প্রকল্প’র পরিচালক মো. মহিদুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী। এছাড়াও এতে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. তৌফিকুল আরিফ ও মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক খ. মাহবুবুল হক, পটুয়াখালীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. ওবায়দুর রহমান ও কলাপাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম রাকিবুল আহসান, বিএফআরআই ও মৎস্য অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগের কর্মকর্তা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও মৎস্য খাতের অংশীজনরা।


আরও খবর



জুরাইনে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার ২৩

প্রকাশিত:Friday ১০ June ২০২২ | হালনাগাদ:Monday ২৭ June ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর ওয়ারীর জুরাইন রেলগেট এলাকায় তিন পুলিশ সদস্যকে বেধড়ক মারধরের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১০ জুন) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা (ডিবি) ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) আশরাফ হোসেন জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রাজধানীর ওয়ারীর জুরাইন রেলগেট এলাকায় উল্টোপথে আসা মোটরসাইকেল আটকে কাগজপত্র দেখতে চাওয়াকে কেন্দ্র করে ট্রাফিক সার্জেন্টসহ তিন পুলিশ সদস্যকে বেধড়ক মারধরের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এর আগে, মঙ্গলবার (৭ জুন) রাতে এ ঘটনায় আটক তিনজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত সাড়ে ৪০০ জনের বিরুদ্ধে শ্যামপুর থানায় আহত ট্রাফিক সার্জেন্ট মো. আলী হোসেন বাদী হয়ে মামলা করেন।

মামলায় উল্লেখ করা আসামিরা হলেন- মোটরসাইকেলচালক বার্তা বিচিত্রা নামক পত্রিকার সাংবাদিক পরিচয় দেওয়া সোহাগ-উল ইসলাম রনি, তার স্ত্রী ইয়াসিন জাহান নিশান ভুইয়া ও শ্যালক ইয়াসির আরাফাত ভুইয়া।

এ ঘটনায় আহত সার্জেন্ট আলী হোসেনের হাতে ২১টি সেলাই দিতে হয়েছে। তিনি আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় আহত অন্য পুলিশ সদস্যরা হলেন ট্রাফিক কনস্টেবল সিরাজুল ইসলাম ও শ্যামপুর থানার উপ-পরিদর্শক উৎপল চন্দ্র।

মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে জুরাইন রেলগেট এলাকায় ওই পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলার এ ঘটনা ঘটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়।


আরও খবর



পাকিস্তানকে বাঁচাতে সাহায্যের হাত বাড়ালো চীন

প্রকাশিত:Thursday ২৩ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
Image

পাকিস্তানের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের অবস্থা খারাপ। পাকিস্তানি রুপির মূল্যমানও কমে গেছে ভয়ংকরভাবে। এই সংকট থেকে দেশটিকে উদ্ধারে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলো বেইজিং। ইসলামাবাদকে মোট ২৩০ কোটি ডলার দেবে চীনের একাধিক ব্যাংকের কনসোর্টিয়াম।

পাকিস্তানি অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইল বলেছেন, আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে এই অর্থ তাদের হাতে পৌঁছাবে। এর ফলে পাকিস্তানের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়বে এবং রুপির অবমূল্যায়নও ঠেকানো যাবে।

চলতি অর্থবছরে মার্কিন ডলারের বিপরীতে পাকিস্তানি মুদ্রার মান ৩৪ শতাংশ কমে গেছে। গত ১০ জুনের হিসাব বলছে, পাকিস্তানের স্টেট ব্যাংকের কাছে ৯০০ কোটি ডলার রয়েছে, যা দিয়ে সর্বোচ্চ ছয় সপ্তাহের আমদানির খরচ মেটানো সম্ভব। এ কারণে চীনের থেকে পাওয়া ২৩০ কোটি ডলারের খুবই প্রয়োজন ছিল পাকিস্তানের।

বিপৎকালে অর্থসাহায্য দেওয়ায় চীনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো। এক টুইটে তিনি বলেছেন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই এবং চীনা জনগণের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। পাকিস্তানের সব সময়ের বন্ধু চীন।

অর্থসংকট কাটাতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গেও আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। সংস্থাটির কাছ থেকে আগের মতো এক্সটেন্ডেড ফান্ড ফ্যাসিলিটি পাওয়ার বিষয়ে জোর তৎপরতা চালাচ্ছে ইসলামাবাদ।

গত বুধবার ২০২২-২৩ বাজেট নিয়ে আলোচনায় বসেছিল আইএমএফ ও পাকিস্তান সরকার। সেখানে কীভাবে খরচ কমানো ও আয় বাড়ানো হবে তা নিয়ে মতৈক্যে পৌঁছেছে দুই পক্ষ।

দ্য ডন জানিয়েছে, সমঝোতা অনুসারে প্রতি মাসে পাঁচ টাকা করে পেট্রোলিয়াম লেভি বসানো হবে। ১০ মাস লেভি বসবে। কর আদায়ের টার্গেট করা হয়েছে ৪২ হাজার ২০০ কোটি টাকা। সংস্থাগুলোকে পোভার্টি ট্যাক্স দিতে হবে। অতিরিক্ত বেতন ও পেনশনের জন্য যে তহবিল রাখা হয়েছিল, সেটাও বন্ধ করা হবে।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে


আরও খবর



রাস্তায় পড়েছিল ব্যবসায়ীর মাথাবিহীন মরদেহ

প্রকাশিত:Friday ১০ June ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৮ June ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

পার্বত্য খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় থেকে মো. জাহাঙ্গীর আলম নামের এক ব্যবসায়ীর মাথাবিহীন মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১০ জুন) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার মেরুং ইউনিয়নের হাজাছড়া দক্ষিণপাড়ায় রাস্তার ওপর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত জাহাঙ্গীর আলম হাজাছড়ার এলাকার বাসিন্দা মৃত রবিউল ইসলামের ছেলে। তিনি মেরুং বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মো. জাহাঙ্গীর আলম মেরুং বাজারে চা, সিঙ্গারা, পেঁয়াজু বিক্রি করে সংসার চালান। প্রতিদিনই বেচাকেনা শেষে রাতে বাসায় আসতেন। বৃহস্পতিবার (৯ জুন) রাতে বাসায় না ফিরলে একাধিকবার ফোন করেও তার মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

ভোর ৪টার দিকে তার স্ত্রী খাদিজা আক্তার প্রতিবেশীকে বিষয়টি জানান। প্রতিবেশী খলিল মিয়া মেরুং বাজারের দোকানে খুঁজতে গেলে বাজারের আগেই সড়কে তার মাথাবিহীন রক্তাক্ত মরদেহ দেখতে পান।

দীঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম পেয়ার আহম্মেদ জাগো নিউজকে বলেন, খবর পাওয়া মাত্র ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে। এ বিষয়ে আইনি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।


আরও খবর