Logo
আজঃ Wednesday ২৬ January ২০২২
শিরোনাম
অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সহ-শিল্পীদের নগ্ন ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বিদেশের মাটিতে কৃষিপণ্য সরবরাহ বাড়াণোর লক্ষ্যে : ইরান রাজনৈতিক কঠিন চাপে রয়েছেন মেয়র আরিফুল স্বপ্নের মেট্রোরেল রওনা হলো আগারগাঁওয়ের উদ্দেশে ওমিক্রনের সংক্রমণে ভারতে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত নিয়মিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ মুরাদ হাসান এমিরেটসের ফ্লাইটে কানাডা গেলেন সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ আগামী বিশ্বকাপে ব্যাটসম্যানদের উন্নতি দেখতে চান করোনাভাইরাসে আরও ছয়জনের মৃত্যু বিশ্বের ৪৩তম ক্ষমতাধর নারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

এজেন্ডা বাস্তবায়নে মাহবুব তালুকদার

প্রকাশিত:Thursday ০৬ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১১১জন দেখেছেন
Image

চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের দেওয়া বক্তব্যকে ‘মিথ্যাচার’ আখ্যায়িত করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। তিনি বলেছেন, মাহবুব তালুকদার মিথ্যাচার করেন। তিনি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বক্তব্য দেন। হয়তো তার কোনো এজেন্ডা আছে, সেটা বাস্তবায়নের জন্য তিনি এমন বক্তব্য দেন।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে এক কর্মশালা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সিইসি এসব কথা বলেন।

এর আগে গতকাল বুধবার পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচন পর্যবেক্ষণ শেষে মাহবুব তালুকদার বলেছিলেন, সন্ত্রাস ও সংঘর্ষ যেন ইউপি নির্বাচনের অনুষঙ্গ হয়ে উঠেছে। এখন ভোটযুদ্ধে যুদ্ধ আছে, ভোট নেই। ইউপি নির্বাচনে এখন উৎসবের বাদ্যের বদলে বিষাদের করুণ সুর বাজছে। নির্বাচন ও সন্ত্রাস একসঙ্গে চলতে পারে না।

মাহবুব তালুকদারের এ বক্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধান নির্বাচন কমিশনার সাংবাদিকদের বলেন, উনি তো সব সময় এরকম বলেন। একেকটা সময় একেকটা শব্দ চয়ন করেন। এই কথাগুলো অপ্রাসঙ্গিক, অপ্রচারমূলক। নির্বাচন কমিশনকে অপবাদ দেওয়া কথা।

সিইসি আরও বলেন, ‘ভোটযুদ্ধ আছে, ভোট নেই! তাহলে ৭৫ শতাংশ ভোটার কোথা থেকে আসে? টেলিভিশনে দেখেছেন, সারিবদ্ধভাবে নারী-পুরুষ দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দেন। তাহলে এরা কারা? এরা কি ভোটার নন? সুতরাং ওনার কথার কোনো সংগতি নেই।’


আরও খবর



ড. ইউনূসের ব্যাংক হিসাব তলব

প্রকাশিত:Monday ২৪ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: শান্তিতে নোবেলজয়ী অধ্যাপক ড. মুহম্মদ ইউনূসের ব্যাংক হিসাবের তথ্য তলব করা হয়েছে। ব্যাংকগুলোকে চিঠি দিয়ে তার সব ধরনের ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়েছে আর্থিক গোয়েন্দা সংস্থা বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)।

গত বৃহস্পতিবার ড. ইউনূসের সব ধরনের ব্যাংক ও ক্রেডিট কার্ডের লেনদেনের তথ্য চেয়ে ব্যাংকগুলোকে চিঠি পাঠিয়েছে বিএফআইইউ। চি‌ঠিতে গ্রামীণ ব্যাংকের সাবেক এই ব্যবস্থাপনা পরিচালকের (এমডি) কোনো লেনদেনের রেকর্ড থাকলে তা আগামীকাল মঙ্গলবারের মধ্যে বিএফআইইউকে পাঠাতে বলা হয়েছে।

তবে কী কারণে ড. ইউনূসের ব্যাংক লেনদেনের তথ্য চাওয়া হয়েছে, তা জানানো হয়নি।

বিএফআইইউ সূত্রে জানা যায়, তদন্তের প্রয়োজনে বিভিন্ন সংস্থা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির ব্যাংক লেনদেনের তথ্য চাওয়া হয়। ড. ইউনূসের ক্ষেত্রে তেমন কোনো সংস্থা এ ধরনের কোনো তথ্য চায়নি। বাংলাদেশ ব্যাংক তাদের নিজস্ব প্রয়োজনে এই তথ্য চেয়েছে।

এর আগে, ২০১৬ সালে একবার ড. ইউনূস ও তার পরিবারের সদস্যদের ব্যাংক হিসাবের তথ্য নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

১৯৮৩ সালে গ্রামীণ ব্যাংক প্রতিষ্ঠার সময় থেকেই ব্যাংকটিতে এমডির দায়িত্ব পালন করে আসছেন ড. ইউনূস। ২০০৬ সালে গ্রামীণ ব্যাংকের সঙ্গে যৌথভাবে শান্তিতে নোবেল পান তিনি। তবে অবসরের বয়সসীমা পেরিয়ে যাওয়ার কারণে ২০১১ সালে সরকার তাকে এমডি পদ থেকে সরিয়ে দেয়। সরকারের ওই সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে গেলে হেরে যান ড. ইউনূস।


আরও খবর



বই উৎসব শুরু

প্রকাশিত:Thursday ৩০ December ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১৬৩জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিয়ে বই উৎসবের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণের উদ্বোধন করেন তিনি। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এবারও নিজের হাতে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিতে না পারার দুঃখটা রয়েই গেল।’

নতুন শিক্ষাবর্ষের প্রথম দিন বই উৎসব করার কথা থাকলেও করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় এ বছর তা হচ্ছে না। তবে বছরের প্রথমদিন থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বই বিতরণ কার্যক্রম চলবে।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যের পাঠ্যবই তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী। এ ছাড়া দুই মন্ত্রণালয়ের সচিব, সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



২০২২ সালে সপ্তাহে কতদিন ক্লাস, জানাল মাউশি

প্রকাশিত:Friday ৩১ December ২০২১ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ১৬৩জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক: নতুন বছরে (২০২২ সালে) মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্লাস রুটিন প্রকাশ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। শ্রেণিভেদে সপ্তাহের বিভিন্ন দিনে এসব ক্লাস হবে।

মাউশি গতকাল বৃহস্পতিবার এই সময়সূচি ঘোষণা করে। এর আগে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, করোনার সংক্রমণ পরিস্থিতি মার্চ পর্যন্ত দেখা হবে। এর মধ্যে সংক্রমণ না বাড়লে তারপর শিক্ষা কার্যক্রম পুরোপুরি স্বাভাবিক হতে পারে। শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণার সঙ্গে মিল রেখেই স্বল্পপরিসরে ক্লাস চালিয়ে যাওয়ার সময়সূচি ঘোষণা করা হয়েছে, তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় অনলাইনেও শ্রেণি কার্যক্রম চলমান রাখতে হবে।

করোনার সংক্রমণের কারণে দীর্ঘ প্রায় দেড় বছর বন্ধের পর গত সেপ্টেম্বরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললেও স্বল্পপরিসরে শিক্ষা কার্যক্রম চলছে। নতুন সময়সূচি অনুযায়ী ২০২২ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য সপ্তাহে প্রতিদিন চারটি বিষয়ের ওপর ক্লাস নিতে হবে। দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে প্রতিদিন তিনটি বিষয়ের ক্লাস নেওয়া হবে। অষ্টম ও নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য সপ্তাহে দুই দিন ক্লাস হবে। এই দুই দিনের প্রতিদিন তিনটি করে বিষয়ের ওপর ক্লাস নিতে হবে। ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য সপ্তাহে এক দিন তিনটি বিষয়ে ক্লাস নেওয়া হবে। আর প্রাথমিকের শ্রেণিগুলোর শ্রেণি কার্যক্রম হবে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুসারে।


আরও খবর



বাংলাদেশ স্কাউটস ঢাকা মেট্রোপলিটন যাত্রাবাড়ী থানার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন জিয়াউদ্দিন জিয়া

বাংলাদেশ স্কাউটস ঢাকা মেট্রোপলিটন যাত্রাবাড়ী থানার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন জিয়াউদ্দিন জিয়া

প্রকাশিত:Monday ১০ January ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ২৫ January ২০২২ | ১০৯জন দেখেছেন
Image


সোহরাওয়ার্দীঃ

বাংলাদেশ স্কাউটস ঢাকা মেট্রোপলিটনের থানাভিত্তিক কাউন্সিলে যাত্রাবাড়ী থানা থেকে এস.এম.জিয়াউদ্দিন জিয়া সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন।


যাত্রাবাড়ী থানা আওতাধীন সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান ও ইউনিট লিডারগণের উপস্থিতিতে নির্বাচন পক্রিয়ার মাধ্যমে জিয়া উদ্দিন (জিয়া) সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।ইমপিসা ওপেন স্কাউট গ্রুপের গ্রুপ সম্পাদক হিসেবে দীর্ঘদিন যাবত দ্বায়িত্ব পালন করছেন এস.এম.জিয়াউদ্দিন জিয়া।


ইমপিসা ওপেন স্কাউট গ্রুপ গত লকডাউনে জনসচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ, নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে বাজার করা, চলাচল করা এবং মাস্ক সঠিকভাবে পরিধান করার বিষয়ে ধলপুর বাজার, মানিকনগর বাজার, গোপীবাগ বাজার ও বিভিন্ন স্থানে  নানা কর্মসুচী পালন করেছে।


এছারাও করোনা দুর্যোগে দুর্দশাগ্রস্ত মানুষকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করে।ভোট ও সমর্থন দিয়ে নির্বাচিত করায় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান ও ইউনিট লিডারগণের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়েছেন এস.এম.জিয়াউদ্দিন জিয়া।


আরও খবর



অসম প্রেমের কারণে সিরাজদিখানে যুবকের উপর বর্বরোচিত নির্যাতন

অসম প্রেমের কারণে সিরাজদিখানে যুবকের উপর বর্বরোচিত নির্যাতন

প্রকাশিত:Sunday ০৯ January ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ২৬ January ২০২২ | ৮৫৮জন দেখেছেন
Image


স্টাফ রিপোর্টারঃ

মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখানের বালুচর ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে জয়নাল মেম্বারের বাড়িতে অসম প্রেম করার অপরাধে সাইফুল ইসলাম রাজন নামে এক যুবককে অমানুষিক নির্যাতন করায় দুদিন ধরে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে ঐ যুবক।


মোবাইল ফোনে গত ৭ জানুয়ারী বালুচর ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে জয়নাল মেম্বারের বাড়িতে সাইফুলকে ডেকে নিয়ে চালানো হয় বর্বরোচিত নির্যাতন।বর্তমানে ছেলেটি ইছাপুরা হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভর্তি আছেন।


স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, বালুচর ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে জয়নাল মেম্বারের বাড়ির মেয়ের সাথে  প্রেমের সম্পর্ক হয় সাইফুলের। ৩ বছরের প্রেমের সম্পর্ক যখন গভীরতর হলে তারা দুজনে পালিয়ে যায়। তখন বাধা হয়ে দাঁড়ায় প্রেমিকার পরিবার।সাইফুলের লেখাপড়া ও পরিবারিক অবস্থা ভালো না থাকায় আপত্তি ওঠে প্রেমিকার পরিবার থেকে।


গত ৮জানুয়ারি মোবাইল ফোনে ডেকে নেয় প্রেমিকার আত্মীয় আলমগীর হোসেন পিতা জয়নাল,মনির পিতা নুর আলি,জাহাঙ্গীর পিতা জামাল মিয়া। সরল বিশ্বাসে সাইফুল যায় ঐ বাড়িতে। পূর্বপরিকল্পনা মতো উপরোল্লিখিত ব্যাক্তিরা গাছের সাথে বেঁধে আদিযুগের বর্বরোচিত কায়দায় অমানুষিক বিচার  করা হলো তার প্রতি।


আরও খবর