Logo
আজঃ Wednesday ০৫ October ২০২২
শিরোনাম

এফডিসিতে আলম খান ও শর্মিলী আহমেদকে নিয়ে স্মরণসভা

প্রকাশিত:Thursday ২১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ০৫ October ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
Image

দুই কিংবদন্তি সংগীত পরিচালক আলম খান ও অভিনেত্রী শর্মিলী আহমেদকে নিয়ে স্মরণসভার আয়োজন করা হয়েছে বিএফডিসিতে। স্মরণসভার আয়োজন করেছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সমিতি ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি।

জানা গেছে, আগামী শনিবার (২৩ জুলাই) বিএফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাব অডিটোরিয়ামে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ, এমপি।

সাংস্কৃতিক অঙ্গনের দুই কিংবদন্তি সংগীত পরিচালক আলম খান ও অভিনয়শিল্পী শর্মিলী আহমেদ গত ৮ জুলাই ইন্তেকাল করেন। আলম খান এভং শর্মিলী আহমেদ দুজনই ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন।

বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনে আলম খানকে বলা হয় সুরের জাদুকর। তার সুরে গান গেয়ে তারকাখ্যাতি পেয়েছেন অনেক শিল্পী। আলম খান ১৯৪৪ সালের ২২ অক্টোবর সিরাজগঞ্জের বানিয়াগাথি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। সংগীতজ্ঞ আলম খানের পুরো নাম খুরশিদ আলম খান। পিতার নাম আফতাব উদ্দিন খান। মায়ের নাম জোবেদা খানম। গুলবানু খানের সাথে দাম্পত্য জীবনে দুই ছেলে আরমান খান ও আদনান খান এবং এক কন্যা আনিকা খানের জনক তিনি।

ওরে নীল দরিয়া, হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস দম ফুরাইলে ঠুস, আমি রজনীগন্ধা ফুলের মতো গন্ধ বিলিয়ে যাই, ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে, কি জাদু করিলা পিরিতি শিখাইলা, তুমি যেখানে আমি সেখানে, সবাই তো ভালবাসা চায় এমন অসংখ্য জনপ্রিয় গানের সুর করেছেন আলম খান।

অন্যদিকে মঞ্চ, টেলিভিশন নাটক ও চলচ্চিত্রের বরেণ্য অভিনয়শিল্পী শর্মিলী আহমেদ অভিনয় শুরু করেন মাত্র চার বছর বয়স থেকে। শর্মিলী আহমেদের প্রকৃত নাম মাজেদা মল্লিক। ১৯৪৭ সালের ৮ মে তার জন্ম। রাজশাহী বেতারের শিল্পী ছিলেন তিনি। শর্মিলী আহমদের তনিমা নামের এক মেয়ে আছেন। তার ছোট বোন অভিনেত্রী ওয়াহিদা মল্লিক জলি।

ষাটের দশকে চলচ্চিত্রাঙ্গনে নাম লেখান শর্মিলী। এর মধ্যে অবশ্য প্রথম চলচ্চিত্র ‘ঠিকানা’ (উর্দু ভাষায় নির্মিত) আলোর মুখ দেখেনি। তবে সুভাষ দত্তের ‘আলিঙ্গন’, ‘আয়না ও অবশিষ্ট’ এবং ‘আবির্ভাব’ চলচ্চিত্র দিয়ে সুপরিচিত হয়ে ওঠেন। শর্মিলী আহমেদের স্বামী রকিবউদ্দিন আহমেদও ছিলেন পরিচালক। তার নির্মিত ‘পলাতক’ ছবিতে অভিনয় করেছেন শর্মিলী আহমেদ।

স্বাধীনতা পূর্ববর্তী সময়ে আরও কিছু উর্দু ছবিতেও তিনি অভিনয় করেন। স্বাধীনতার পর ‘রূপালী সৈকতে’, ‘আগুন’, ‘দহন’-এর মতো জনপ্রিয় সব চলচ্চিত্রে ছিল তার সরব উপস্থিতি। এ পর্যন্ত প্রায় ৪০০ নাটক ও ১৫০টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি।


আরও খবর