Logo
আজঃ Friday ১৯ August ২০২২
শিরোনাম
রূপগঞ্জে আবাসিকের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ডেমরায় প্যাকেজিং কারখানায় ভয়বহ অগ্নিকান্ড রূপগঞ্জে পুলিশের ভুয়া সাব-ইন্সপেক্টর গ্রেফতার রূপগঞ্জে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ॥ সভা সরাইলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৭৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত। নারায়ণগঞ্জে পারিবারিক কলহে স্ত্রীকে পুতা দিয়ে আঘাত করে হত্যা,,স্বামী গ্রেপ্তার রূপগঞ্জ ইউএনও’র বিদায় সংবর্ধনা নাসিরনগরে স্বামীর পরকিয়ার,বলি ননদ ভাবীর বুলেটপানে আত্মহত্যা নাসিরনগরে জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত ডেমরায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসুচি পালিত

দুই ‘ভারপ্রাপ্ত সভাপতি’ নিয়ে অস্থির যশোর শ্রমিক লীগ

প্রকাশিত:Tuesday ২৮ June ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
Image

দুই ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নিয়ে যশোর জেলা শ্রমিক লীগে অস্থিরতা বিরাজ করছে। সভাপতির দায়িত্ব পালন নিয়ে কেন্দ্রীয় সভাপতির দেওয়া এক চিঠি দেখিয়ে একটি পক্ষ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নির্বাচন করেছে। অপরপক্ষ এটিকে অগঠনতান্ত্রিক বলে অভিযোগ করে পাল্টা ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মনোনীত করেছে। যশোরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নিয়ে এ বিরোধ কেন্দ্রীয় কমিটিকেও স্পর্শ করেছে।

যশোর জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি আজিজুর রহমানের মৃত্যুর পর সভাপতির পদে দায়িত্ব পালন নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়। একটি পক্ষ সহসভাপতি জবেদ আলীকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে ঘোষণা করে। তখন আরেকটি পক্ষ আরেক সহসভাপতি সাইফুর রহমানকে পাল্টা ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দাবি করে।

এই অবস্থায় জবেদ আলীর পক্ষ নিজেদের অবস্থান পাকাপোক্ত করতে কেন্দ্রীয় সভাপতি (চলতি দায়িত্ব) নূর কুতুব আলম মান্নানের দ্বারস্থ হয়। তখন কেন্দ্রীয় সভাপতি সহসভাপতি জবেদ আলীকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও নাছির উদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে চিঠি দেন।

কিন্তু অপর পক্ষের দাবি, শ্রমিক লীগের গঠনতন্ত্রের কোথাও ‘ভারপ্রাপ্ত’ সভাপতির কোনো পদ নেই। অথচ কেন্দ্রীয় সভাপতি সেই কাজটিই করেছে। শ্রমিক লীগের গঠনতন্ত্রের ১৫ (গ) ধারায় উল্লেখ রয়েছে,‘সভাপতি ও কার্যকরী সভাপতির অনুপস্থিতিতে সহসভাপতিরা ক্রমানুসারে সভাপতির দায়িত্ব পালন করিবেন।’ একইভাবে গঠনতন্ত্রের ২০ ধারায় উল্লেখ রয়েছে,‘কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের কোনো পদ শূন্য হইলে কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের দুই তৃতীয়াংশের সমর্থনে কো-অপশনের মাধ্যমে উহা পূরণ করিতে পারবে।’

সাইফুর রহমান পক্ষের বক্তব্য, যেহেতু জেলা শ্রমিক লীগের জন্য আলাদা কোনো গঠনতন্ত্র নেই সেই কারণে মূল গঠনতন্ত্র অনুযায়ী জেলা পর্যায়ে শ্রমিক লীগ পরিচালিত হয়। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, কারো মৃত্যুতে শূন্যপদ পূরণে কার্যনির্বাহী কমিটির দুই তৃতীয়াংশের সমর্থনে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার কথা, কিন্তু সেটি মানা হয়নি। আবার সভাপতির অনুপস্থিতিতে সহসভাপতিরা ক্রমানুসারে সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন উল্লেখ থাকলেও সেটিও মানেননি কেন্দ্রীয় সভাপতি।

একইভাবে জেলা শ্রমিক লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় নানা অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিনকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়। একইসাথে তাকে চূড়ান্তভাবে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য ২০২১ সালের পহেলা সেপ্টেম্বর কেন্দ্রীয় সভাপতি-সম্পাদক বরাবর রেজুলেশন পাঠায় কার্যনির্বাহী কমিটি। কিন্তু এখনো পর্যন্ত সেই বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়নি কেন্দ্র থেকে। কেন্দ্র থেকে সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত নাছির উদ্দিন সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না বলে দাবি সাইফুর রহমান গ্রুপের। এসব কারণে কেন্দ্রীয় সভাপতির এক চিঠিতে মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড়িয়েছে জেলা শ্রমিক লীগের দুই পক্ষ।

শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি নুর কুতুব আলম মান্নান বলেন, শ্রমিক লীগ চলবে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী। সভাপতি মারা গেলে কমিটির সিনিয়র সহসভাপতিই গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হবে। ফলে গঠনতন্ত্র যা বলা আছে; সেইভাবে হয়েছে। গঠনতন্ত্রের বাইরে আমাদের কারো কিছু করার নেই। কেউ কেউ এটি নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করছে।

এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কেএম আযম খসরুর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যশোরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নিয়ে কেন্দ্রীয় সভাপতি তার মতো করে একটি চিঠি দিয়েছেন। এ নিয়ে আমি গণমাধ্যমে কোনো বক্তব্য দিতে চাই না। আমাদের সাংগঠনিক সমস্যা আমরাই নিরসন করবো।


আরও খবর



চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাবে ৫৮৭ পরিবার

প্রকাশিত:Wednesday ২০ July ২০22 | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রাম জেলায় তৃতীয় পর্যায়ে ভূমি ও গৃহহীন ৫৮৭ পরিবার সরকারি টাকায় নির্মিত আশ্রয়ণ প্রকল্পে ঘর পাবে। বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) সকালে প্রধানমন্ত্রী তৃতীয় পর্যায়ের দ্বিতীয় ধাপে সারাদেশে ২৬ হাজার ২২৯টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ জমিসহ ঘর বরাদ্দের কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন।

বুধবার (২০ জুলাই) দুপুর ১২টার দিকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমান এ তথ্য জানান।

চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া উপজেলায় ১০টি, বোয়ালখালীতে ১৫টি, চন্দনাইশে ১৫টি, সাতকানিয়ায় ২০টি, লোহাগাড়ায় ৫১টি, বাঁশখালীতে ১৫টি, হাটহাজারীতে ৬০টি, ফটিকছড়িতে ১০০টি, আনোয়ারায় ১০০টি, মীরসরাইয়ে ১০৯টি, রাউজানে ৫৪টি এবং সীতাকুণ্ডে ৩৮টি ভূমি ও গৃহহীনদের এসব ঘর দেওয়া হবে। এছাড়াও চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া, কর্ণফুলী, সাতকানিয়া ও লোহাগাড়াসহ চার উপজেলাকে হালনাগাদ যাচাই-বাছাই করা তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রী ২১ জুলাই ভূমি-গৃহহীনমুক্ত উপজেলা হিসেবে ঘোষণা করবেন।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ের সাফল্যের ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী তৃতীয় পর্যায়ে গত ২৬ এপ্রিল সারাদেশে ৩২ হাজার ৯০৪ টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ জমিসহ ঘর বরাদ্দ প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। চট্টগ্রামে তৃতীয় পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার হিসেবে এক হাজার ২১৬টি ভূমি-গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ জমিসহ সম্পূর্ণ সরকারি অর্থায়নে ঘর প্রদান করা হয়েছে।

এর আগে প্রথম পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী ২০২১ সালের ২৩ জানুয়ারি সরাদেশে ৬৩ হাজার ৯৯৯টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ জমিসহ ঘর বরাদ্দ প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। প্রথম পর্যায়ে চট্টগ্রামে এক হাজার ৪৪৪টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ জমিসহ ঘর প্রদান করা হয়েছে।

পরবর্তীতে দ্বিতীয় পর্যায়ে ২০২১ সালের ২০ জুন সারাদেশে ৫৩ হাজচার ৩৩০টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ জমিসহ সরকারি অর্থায়নে ঘর প্রদান করা হয়েছে। তখন চট্টগ্রামের ৬৪৯টি পরিবারকে এসব ঘর দেওয়া হয়। তাছাড়া এরইমধ্যে বেসরকারি উদ্যোগে চট্টগ্রাম জেলায় ১২০ টি ঘর নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমান বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি নোয়াখালী জেলার চরগোড়াগাছা গ্রাম পরিদর্শন করেন এবং গৃহহীন মানুষের জন্য প্রথম গৃহ নির্মাণের নির্দেশ প্রদান করেন। আগামীকাল দেশব্যাপী তৃতীয় পর্যায়ের দ্বিতীয় ধাপে জাতির পিতার এই স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্য প্রধানমন্ত্রী ২৬ হাজার ২২৯ টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ জমিসহ গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন।

তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রামের চার উপজেলাকে ২১ জুলাই ভূমি ও গৃহহীন হিসেবে ঘোষণা করবেন প্রধানমন্ত্রী। এইদিন সারাদেশে ২৬ হাজার ২২৯টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে দুই শতাংশ জমিসহ ঘর দেওয়া হবে। চট্টগ্রাম জেলায় ৫৮৭ পরিবার পাবে সরকারি টাকা নির্মিত আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর।


আরও খবর



প্রথম ম্যাচের নায়ক মিরাজ এবার একাদশে, দলে দুই পরিবর্তন

প্রকাশিত:Friday ২৯ July ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ১৯ August ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপে তৃতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় খেলতে নামবে মালদ্বীপের বিপক্ষে। বাংলাদেশ প্রথম দুই ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১-০ এবং ভারতকে ২-১ গোলে হারিয়ে ফাইনালের পথে বেশ এগিয়ে রয়েছে।

ভারতের ভুবনেশ্বরের কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচ জিতলে ফাইনাল প্রায় নিশ্চিত হয়ে যাবে পল স্মলির শিষ্যদের।

প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলােদেশ জিতেছিল বদলি মিরাজুল ইসলামের একমাত্র গোলে। মিরাজুলকে দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠেই নামাননি কোচ। ভারতের বিপক্ষে এগিয়ে থাকার কারণে তাকে নামানোর প্রয়োজন মনে করেননি পল স্মলি।

মিরাজ আজ (শুক্রবার) মালদ্বীপের বিপক্ষে শুরুর একাদশেই জায়গা করে নিয়েছেন। এই ম্যাচে কোচ একাদশে দুটি পরিবর্তন এনেছেন। নাহিয়ান ও আক্কাস আলীকে রিজার্ভ বেঞ্চে রেখে কোচ একাদশে রেখেছেন মিরাজুল ইসলাম ও মুর্শেদ আলীকে।

বাংলাদেশ একাদশ
মো.আসিফ, তানভীর হোসেন, শাহীন মিয়া, আজিজুল হক, ইমরান খান, রফিকুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, পিয়াস আহমেদ নোভা, মইনুল ইসলাম, মিরাজুল ইসলাম ও মুর্শেদ আলী।


আরও খবর



মহাকবি কায়কোবাদ ও বীরউত্তম আবু তাহেরের প্রয়াণ

প্রকাশিত:Thursday ২১ July ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ১৪ August ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
Image

মানুষ ইতিহাস আশ্রিত। অতীত হাতড়েই মানুষ এগোয় ভবিষ্যৎ পানে। ইতিহাস আমাদের আধেয়। জীবনের পথপরিক্রমার অর্জন-বিসর্জন, জয়-পরাজয়, আবিষ্কার-উদ্ভাবন, রাজনীতি-অর্থনীতি-সমাজনীতি একসময় রূপ নেয় ইতিহাসে। সেই ইতিহাসের উল্লেখযোগ্য ঘটনা স্মরণ করাতেই জাগো নিউজের বিশেষ আয়োজন আজকের এই দিনে।

২১ জুলাই ২০২২, বৃহস্পতিবার। ৬ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঘটনা
১৬৫৮- মুঘল সম্রাট আওরঙ্গজেব দিল্লীর সিংহাসনে আরোহন করেন।
১৮৬৬- লন্ডনে কলেরায় শতাধিক লোকের মৃত্যু হয়।
১৮৮৮- ব্রিটিশ নাগরিক জন বয়েড ডানলপ বায়ুচালিত টায়ার আবিষ্কার করেন।
১৯৬৯ - চাঁদে মানুষের প্রথম পৌঁছায়।
১৯৭৬- মুক্তিযোদ্ধা কর্নেল আবু তাহেরের ফাঁসি কার্যকর।

জন্ম
১৮১৬- জার্মান বংশোদ্ভূত ইংরেজ উদ্যোগপতি ও রয়টার সংবাদসংস্থার প্রতিষ্ঠাতা পল রয়টার।
১৯১১- ভারতীয় বিখ্যাত বিদ্বজ্জন, কবি এবং ঔপন্যাসিক উমাশঙ্কর যোশী।
১৯৪৭- সাবেক ভারতীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার চেতন চৌহান।
১৯৬০- ভারতীয় গায়ক এবং গীতিকার অমর সিং চমকিলা।

মৃত্যু
১৭৯৬- রবার্ট বার্নস, স্কটিশ কবি ও গীতিকার।
১৯০৬- ভারতীয় ব্যারিস্টার এবং ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রথম সভাপতি উমেশচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়।
১৯৩৫- বাঙালি সংগীতজ্ঞ দিনেন্দ্রনাথ ঠাকুর।
১৯৫১- মহাকবি কায়কোবাদ নামে সুপরিচিত কাজেম আলী কোরেশি। ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ থানার অধীনে আগলা-পূর্বপাড়া গ্রামে জন্ম তার। তিনি ছিলেন ঢাকা জেলা জজ কোর্টের একজন আইনজীবী শাহামাতুল্লাহ আল কোরেশীর পুত্র। তিনি বাঙালি মুসলিম কবিদের মধ্যে প্রথম সনেট রচয়িতা ও আধুনিক বাংলা সাহিত্যের প্রথম মুসলিম কবি। মীর মশাররফ, কায়কোবাদ, মোজাম্মেল হকের মধ্যে কায়কোবাদই হচ্ছেন সর্বতোভাবে একজন কবি। মুসলমান কবি রচিত জাতীয় আখ্যান কাব্যগুলোর মধ্যে সুপরিচিত মহাকবি কায়কোবাদ রচিত ‘মহাশ্মশান’ কাব্যটি। কায়কোবাদের মহাকবি নামের খ্যাতি এই মহাশ্মশান কাব্যের জন্যই। কাব্যটি তিন খণ্ডে বিভক্ত। প্রথম খণ্ডে ঊনত্রিশ সর্গ,দ্বিতীয় খণ্ডে চব্বিশ সর্গ, এবং তৃতীয় খণ্ডে সাত সর্গ।

১৯৭৬- বীর উত্তম খেতাবপ্রাপ্ত বাংলাদেশি মুক্তিযোদ্ধা, সেক্টর কমান্ডার আবু তাহের। ব্রিটিশ শাসিত ভারতেবর্ষের আসাম প্রদেশের বদরপুরে ১৯৩৮ সালের ১৪ নভেম্বর জন্ম তার। ১৯৬১ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে অফিসার হিসেবে যোগদান করেন এবং ১৯৬২ সালে কমিশনপ্রাপ্ত হন। ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে কর্নেল তাহেরের সব ভাই-বোন মুক্তিযুদ্ধে তার নেতৃত্বে ১১ নং সেক্টরে যৌথভাবে যুদ্ধ করেছেন। ভাই-বোনদের এই দলটিকে ‘ব্রাদার্স প্লাটুন’ বলে ডাকা হত। যুদ্ধের সময় তাহের সম্মুখ সমরে আহত হয়ে এক পা হারান। মুক্তিযুদ্ধের পরে তাহের প্রথমে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট কর্নেল পদে দায়িত্ব পালন করেন। মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য রাখার জন্য তিনি বীর উত্তম খেতাব লাভ করেন।


আরও খবর



আগামী ৩ দিনে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হতে পারে লঘুচাপ

প্রকাশিত:Friday ০৫ August ২০২২ | হালনাগাদ:Tuesday ১৬ August ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
Image

ঢাকাসহ দেশের বেশ কয়েকটি জেলায় বৃষ্টি হতে পারে। একই সঙ্গে আগামী তিনদিনে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় তৈরি হতে পারে লঘুচাপ। শুক্রবার (৫ আগস্ট) আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

অধিদপ্তর জানায়, মৌসুমি বায়ুর অক্ষ ভারতের রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, উড়িষ্যা, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর কম সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

বৃষ্টির বিষয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়, দেশের আট বিভাগেই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক জানান, শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গা এবং ঢাকা ও খুলনা বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

তিনি আরও জানান, এসময় সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকবে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ঢাকায় ৩৪ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


আরও খবর



কাজী মারুফ-রত্নাকে নিয়েই আসছে ‘ইতিহাস-২’

প্রকাশিত:Wednesday ২৭ July ২০২২ | হালনাগাদ:Wednesday ১৭ August ২০২২ | ৬৫জন দেখেছেন
Image

বরেণ্য নির্মাতা কাজী হায়াত পরিচালিত দেশের বহুল আলোচিত সিনেমা ‘ইতিহাস’। এই ছবি দিয়ে রুপালি পর্দায় অভিষেক হয়েছিল কাজী মারুফের। তারপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি তাকে। সমকালীন গল্প, চমৎকার সব সংলাপ, মিষ্টি গান দিয়ে ছবিটি সারাদেশ তোলপাড় করেছিল।

ছবিতে মারুফের নায়িকা ছিলেন রত্না। তিনিও ‘ইতিহাস’ দিয়ে সাফল্যের চূঁড়ায় উঠেছিলেন। আজ তারা দুজনেই অনিয়মিত। তবে খুশির খবর হলো, মারুফ-রত্না জুটিকে নিয়ে ‘ইতিহাস’র সিক্যুয়েল নির্মাণ করতে যাচ্ছেন কাজী হায়াত।

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘ভালো লাগছে এজন্য যে ‘ইতিহাস’র মতো সুপারহিট সিনেমার সিক্যুয়েল করতে পারছি ভেবে। চলতি বছরই মারুফের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ফিল্ম ফ্যাক্টরির ব্যানারে ‘ইতিহাস-২’-এর দৃশ্যধারণ শুরু করবো। সব প্রস্তুতি চলছে।’

‘সিনেমার গল্প লেখার কাজ শেষ করছি। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করবেন কাজী মারুফ ও রত্না। যেখানে ‘ইতিহাস’ শেষ হয়েছিল সেখান থেকেই শুরু হবে ‘ইতিহাস ২’। বিশ বছর পর জেল থেকে মারুফ বেরিয়ে আসবে। তারপর বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে চলবে গল্প। আর শুরুতে ১০ মিনিট ‘ইতিহাস’ সিনেমার বিভিন্ন দৃশ্য দেখানো হবে’- যোগ করেন ‘আম্মাজান’খ্যাত নির্মাতা।

তিনি বলেন, মারুফ ও রত্না ছাড়া আর কেউ এখনো চূড়ান্ত নয়। কাজী হায়াত আরও বলেন, ‘মারুফ যুক্তরাষ্ট্রে থাকে। সেখানে তার ব্যবসা আছে। অনেক ব্যস্ত থাকে। তাই কাজগুলো গুছিয়ে শেষ করতে সময় লাগছে। দুই মাস পর ও দেশে আসবে। তখনই সব কিছু ঠিক করে ‘ইতিহাস-২’ ছবির শুটিং শুরু করবো। সিনেমায় যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের গল্প থাকবে। তাই দুই দেশেই হবে শুটিং।’

‘ইতিহাস’ সিনেমায় কাজী মারুফ ও রত্না ছাড়াও অভিনয় করেছেন মৌসুমী, কাজী হায়াৎ, ডিপজলসহ আরও অনেকে।


আরও খবর